সোমবার, ১৯শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ইং, ৭ই ফাল্গুন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, সকাল ৮:০৮
শিরোনাম
  • ঘৃণাকে বিজয়ী হতে দেয়া যাবে না, ট্রাম্পকে ইঙ্গিত করে জর্জ ক্লুনি
  • আমার একটাই চিন্তা দেশের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করা: প্রধানমন্ত্রী
  • ‘কেন্দ্রীয় সরকারের আগ্রাসী নীতির কারণে কাশ্মীরকে হারাতে হবে’
  • সাড়ে চারমাস পর মুখোমুখি, খাদিজাকে উদ্দেশ্য করে যা বলল বদরুল
  • খালেদার ‘সাজা’ বিরোধী নেতাকর্মীদের মনোবল ভাঙ্গার কৌশল!
  • বিএনপির কর্মসূচি ‘যথাসময়ে’ জানানো হবে: রিজভী
  • দলের জন্য বোলিং করতেও রাজি মুশফিক
  • শিশু জিহাদের মৃত্যু: চার জনের ১০ বছর করে কারাদণ্ড
  • অবশেষে বাড়ি অবরুদ্ধ করে রাখা সেই দেয়াল ভেঙ্গে ফেলা হচ্ছে
  • সাক্ষ্য দিলেন খাদিজা, চাইলেন বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তি
  • বদরুলের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিতে আদালতে খাদিজা
  • আজ বগুড়ায় যেসব প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
  • রোহিঙ্গা স্থানান্তরের সরকারি পরিকল্পনার সঙ্গে দ্বিমত মানবাধিকার কমিশনের
  • মহেশখালীতে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে পুলিশের ‘বন্দুকযুদ্ধ’
  • হোয়াইট হাউসে কাজ করার দীর্ঘ অভিজ্ঞতার কথা জানালেন এই বাংলাদেশি সাংবাদিক
Monday, October 2, 2017 9:59 am
A- A A+ Print

অং সান সুচি’র দপ্তর বিষয়ক মন্ত্রী সোয়ে ঢাকায়

1

রোহিঙ্গা সংকট নিয়ে আলোচনার উদ্দেশ্যে মিয়ানমারের স্টেট কাউন্সিলর অং সান সুচি’র দপ্তর বিষয়ক মন্ত্রী কিয়াও তিন্ত সোয়ে ঢাকায় এসেছেন। সোমবার রাত ১টার দিকে থাই এয়ারওয়েজের একটি বিশেষ বিমানে সোয়ে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণ করেন। পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সূত্র জানিয়েছে, চলমান রোহিঙ্গা সংকট ছাড়াও কিয়াও তিন্ত সোয়ে ঢাকায় পররাষ্ট্রমন্ত্রী এএইচ মাহমুদ আলীর সঙ্গে দ্বিপাক্ষিক স্বার্থ সংশ্লিষ্ট বিষয় নিয়েও আলোচনা করবেন। সাম্প্রতিক রোহিঙ্গা সংকট সমাধানে প্রথম থেকেই মিয়ানমারকে আলোচনায় বসার আহ্বান জানিয়ে আসছিল বাংলাদেশ। এ ইস্যুতে দেশটির প্রতিনিধি দলকে ঢাকা সফরের আহ্বানও জানানো হয়। জাতিসংঘের হিসেবে গত ২৫ আগস্ট থেকে এ পর্যন্ত ৫ লাখ ৭ হাজার  রোহিঙ্গা বাংলাদেশে অনুপ্রবেশ করেছে। এর আগে থেকেই প্রায় ৫ লাখ রোহিঙ্গা শরণার্থী হিসেবে বাংলাদেশে বাস করছে। রোহিঙ্গা সমস্যার সমাধানে কূটনৈতিক প্রচেষ্টাকেই গুরুত্ব দিয়ে আসছে বাংলাদশে। মিয়ানমারের রাখাইনে বাস করা এসব রোহিঙ্গাকে ফিরিয়ে নেয়ার জন্য একটি স্থায়ী সমাধান চাচ্ছে বাংলাদেশ। পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সূত্র জানায়, পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠকের পর কিয়াও তিন্ত সোয়ে আজই ঢাকা ছাড়বেন। এদিকে দেশটির সংবাদমাধ্যম ইরাবতী এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, উইন মিত আয়ে রাখাইনের মংডু এলাকায় যত দ্রুত সম্ভব রোহিঙ্গাদের নিবন্ধন ও পুনর্বাসন শুরু করার ঘোষণা দিয়েছেন। ইরাবতীর ওই প্রতিবেদনে বলা হয়, রোহিঙ্গাদের নিবন্ধন ও পুনর্বাসনের জন্য দুই বিলিয়ন কিয়াট ব্যয়ে একটি প্রকল্প হাতে নেয়া হয়েছে। যাতে ১৯৯৩ সালে স্বাক্ষরিত মিয়ানমার ও বাংলাদেশের মধ্যকার প্রত্যার্পন চুক্তির আওতায় শরণার্থীদের নিবন্ধন করা হবে। মংডুর দার গি জার গ্রামে পুনর্বাসনের আগে তাংপিও লেতওয়ে ও না খুয়ে ইয়া গ্রামে তাদের নিবন্ধন হবে। এই বিষয়ে মিয়ানমারের শ্রম, অভিবাসন ও জনসংখ্যা মন্ত্রণালয়ের পার্মানেন্ট সেক্রেটারি উ মিন্ট কেইং ইরাবতীকে জানান, দেশে ফিরিয়ে নেয়ার জন্য যাদের মনোনীত করা হবে তাদের ন্যাশনাল ভেরিফিকেশন কার্ড বা এনভিসি দেয়া হবে। যদিও ‘রোহিঙ্গা’ স্বীকৃতি না থাকায় এই মুসলিম জনগোষ্ঠী এনভিসি নিতে আপত্তি জানিয়ে আসছিল।

Comments

Comments!

 অং সান সুচি’র দপ্তর বিষয়ক মন্ত্রী সোয়ে ঢাকায়AmarbangladeshonlineAmarbangladeshonline | Amarbangladeshonline

অং সান সুচি’র দপ্তর বিষয়ক মন্ত্রী সোয়ে ঢাকায়

Monday, October 2, 2017 9:59 am
1

রোহিঙ্গা সংকট নিয়ে আলোচনার উদ্দেশ্যে মিয়ানমারের স্টেট কাউন্সিলর অং সান সুচি’র দপ্তর বিষয়ক মন্ত্রী কিয়াও তিন্ত সোয়ে ঢাকায় এসেছেন।

সোমবার রাত ১টার দিকে থাই এয়ারওয়েজের একটি বিশেষ বিমানে সোয়ে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণ করেন।

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সূত্র জানিয়েছে, চলমান রোহিঙ্গা সংকট ছাড়াও কিয়াও তিন্ত সোয়ে ঢাকায় পররাষ্ট্রমন্ত্রী এএইচ মাহমুদ আলীর সঙ্গে দ্বিপাক্ষিক স্বার্থ সংশ্লিষ্ট বিষয় নিয়েও আলোচনা করবেন।

সাম্প্রতিক রোহিঙ্গা সংকট সমাধানে প্রথম থেকেই মিয়ানমারকে আলোচনায় বসার আহ্বান জানিয়ে আসছিল বাংলাদেশ। এ ইস্যুতে দেশটির প্রতিনিধি দলকে ঢাকা সফরের আহ্বানও জানানো হয়।

জাতিসংঘের হিসেবে গত ২৫ আগস্ট থেকে এ পর্যন্ত ৫ লাখ ৭ হাজার  রোহিঙ্গা বাংলাদেশে অনুপ্রবেশ করেছে। এর আগে থেকেই প্রায় ৫ লাখ রোহিঙ্গা শরণার্থী হিসেবে বাংলাদেশে বাস করছে।

রোহিঙ্গা সমস্যার সমাধানে কূটনৈতিক প্রচেষ্টাকেই গুরুত্ব দিয়ে আসছে বাংলাদশে। মিয়ানমারের রাখাইনে বাস করা এসব রোহিঙ্গাকে ফিরিয়ে নেয়ার জন্য একটি স্থায়ী সমাধান চাচ্ছে বাংলাদেশ।

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সূত্র জানায়, পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠকের পর কিয়াও তিন্ত সোয়ে আজই ঢাকা ছাড়বেন।

এদিকে দেশটির সংবাদমাধ্যম ইরাবতী এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, উইন মিত আয়ে রাখাইনের মংডু এলাকায় যত দ্রুত সম্ভব রোহিঙ্গাদের নিবন্ধন ও পুনর্বাসন শুরু করার ঘোষণা দিয়েছেন।
ইরাবতীর ওই প্রতিবেদনে বলা হয়, রোহিঙ্গাদের নিবন্ধন ও পুনর্বাসনের জন্য দুই বিলিয়ন কিয়াট ব্যয়ে একটি প্রকল্প হাতে নেয়া হয়েছে। যাতে ১৯৯৩ সালে স্বাক্ষরিত মিয়ানমার ও বাংলাদেশের মধ্যকার প্রত্যার্পন চুক্তির আওতায় শরণার্থীদের নিবন্ধন করা হবে। মংডুর দার গি জার গ্রামে পুনর্বাসনের আগে তাংপিও লেতওয়ে ও না খুয়ে ইয়া গ্রামে তাদের নিবন্ধন হবে।

এই বিষয়ে মিয়ানমারের শ্রম, অভিবাসন ও জনসংখ্যা মন্ত্রণালয়ের পার্মানেন্ট সেক্রেটারি উ মিন্ট কেইং ইরাবতীকে জানান, দেশে ফিরিয়ে নেয়ার জন্য যাদের মনোনীত করা হবে তাদের ন্যাশনাল ভেরিফিকেশন কার্ড বা এনভিসি দেয়া হবে। যদিও ‘রোহিঙ্গা’ স্বীকৃতি না থাকায় এই মুসলিম জনগোষ্ঠী এনভিসি নিতে আপত্তি জানিয়ে আসছিল।

Comments

comments

সম্পাদক : মোহাম্মদ আবদুল বাছির
প্রকাশক: মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম
ফোন : ‎০১৭১৩৪০৯০৯০
৩৪৫/১, দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০
X
 
নিয়মিত খবর পড়তে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন
X