সোমবার, ২৪শে জুলাই, ২০১৭ ইং, ৯ই শ্রাবণ, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, সন্ধ্যা ৬:৩৯
শিরোনাম
  • ঘৃণাকে বিজয়ী হতে দেয়া যাবে না, ট্রাম্পকে ইঙ্গিত করে জর্জ ক্লুনি
  • আমার একটাই চিন্তা দেশের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করা: প্রধানমন্ত্রী
  • ‘কেন্দ্রীয় সরকারের আগ্রাসী নীতির কারণে কাশ্মীরকে হারাতে হবে’
  • সাড়ে চারমাস পর মুখোমুখি, খাদিজাকে উদ্দেশ্য করে যা বলল বদরুল
  • খালেদার ‘সাজা’ বিরোধী নেতাকর্মীদের মনোবল ভাঙ্গার কৌশল!
  • বিএনপির কর্মসূচি ‘যথাসময়ে’ জানানো হবে: রিজভী
  • দলের জন্য বোলিং করতেও রাজি মুশফিক
  • শিশু জিহাদের মৃত্যু: চার জনের ১০ বছর করে কারাদণ্ড
  • অবশেষে বাড়ি অবরুদ্ধ করে রাখা সেই দেয়াল ভেঙ্গে ফেলা হচ্ছে
  • সাক্ষ্য দিলেন খাদিজা, চাইলেন বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তি
  • বদরুলের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিতে আদালতে খাদিজা
  • আজ বগুড়ায় যেসব প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
  • রোহিঙ্গা স্থানান্তরের সরকারি পরিকল্পনার সঙ্গে দ্বিমত মানবাধিকার কমিশনের
  • মহেশখালীতে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে পুলিশের ‘বন্দুকযুদ্ধ’
  • হোয়াইট হাউসে কাজ করার দীর্ঘ অভিজ্ঞতার কথা জানালেন এই বাংলাদেশি সাংবাদিক
Monday, March 20, 2017 9:01 pm
A- A A+ Print

অনুমোদন ছাড়া ঘর বানালে ৫০ লাখ টাকা জরিমানা

photo-1490013043

জমিতে নিজের ঘরসহ যেকোনো স্থাপনা নির্মাণে অনুমোদন লাগবে। অনুমোদন ছাড়া জমির কোনো পরিবর্তন আনা যাবে না। অনুমোদন না নিয়ে স্থাপনা নির্মাণ বা কোনো ধরনের পরিবর্তন ঘটালে পাঁচ বছরের জেল ও পঞ্চাশ লাখ টাকা জরিমানার বিধান থাকছে। এ বিধান নিয়েই করা হয়েছে নগর ও অঞ্চল পরিকল্পনা আইন, ২০১৭-এর খসড়া। আজ সোমবার মন্ত্রিসভার বৈঠকে ওই আইনের খসড়ার নীতিগত অনুমোদন দেওয়া হয়। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ওই সভার সভাপতিত্ব করেন। ওই আইনের আওতায় ২৫ জনের একটি উপদেষ্টা কমিটি থাকবে। গৃহায়ণ ও গণপূর্তমন্ত্রী হবেন এর প্রধান। মহানগর, জেলা, পৌরসভাসহ দেশের যেকোনো এলাকার জমির অবস্থার পরিবর্তন করতে হলে অনুমোদন ও ছাড়পত্র নিতে হবে। মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোহাম্মদ শফিউল আলম সাংবাদিকদের বলেন, ‘ভূমির সুষ্ঠু ব্যবহার নিশ্চিত করা ও অপব্যবহার রোধ করতে এ আইন করা হচ্ছে। জমিতে বাড়িঘর নির্মাণ, শিল্প-কারখানা স্থাপনসহ অন্য যেকোনো কাজে ব্যবহার করতে হলে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের মাধ্যমে ওই উপদেষ্টা পরিষদের অনুমোদন নিতে হবে।’ শফিউল আলম জানান, রাজধানী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ ও চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ যেভাবে অনুমোদন দিচ্ছে, সেভাবে দেবে। পরিষদ গঠনের পর ওই দুই সংস্থাকে নির্দেশনা দেওয়া হবে। একইভাবে অন্য এলাকার ক্ষেত্রে কী করণীয় তা পরে ঠিক করা হবে। আইনটির কারণে সাধারণ মানুষ হয়রানির শিকার হবে কি না জানতে চাইলে শফিউল আলম বলেন, ‘ভূমির অপব্যবহার রোধ করতে ওই আইন করা হয়েছে। এটি জনবান্ধব। এতে কোনো হয়রানি হবে না।’ এ ছাড়া মন্ত্রিসভার বৈঠকে বালাইনাশক আইন ২০১৭ ও বস্ত্র আইনের নীতিগত অনুমোদন দেওয়া হয়। শফিউল আলম বলেন, দুটি আইনই পুরোনো। তা হালনাগাদ করা হয়েছে।

Comments

Comments!

 অনুমোদন ছাড়া ঘর বানালে ৫০ লাখ টাকা জরিমানাAmarbangladeshonlineAmarbangladeshonline | Amarbangladeshonline

অনুমোদন ছাড়া ঘর বানালে ৫০ লাখ টাকা জরিমানা

Monday, March 20, 2017 9:01 pm
photo-1490013043

জমিতে নিজের ঘরসহ যেকোনো স্থাপনা নির্মাণে অনুমোদন লাগবে। অনুমোদন ছাড়া জমির কোনো পরিবর্তন আনা যাবে না। অনুমোদন না নিয়ে স্থাপনা নির্মাণ বা কোনো ধরনের পরিবর্তন ঘটালে পাঁচ বছরের জেল ও পঞ্চাশ লাখ টাকা জরিমানার বিধান থাকছে।

এ বিধান নিয়েই করা হয়েছে নগর ও অঞ্চল পরিকল্পনা আইন, ২০১৭-এর খসড়া। আজ সোমবার মন্ত্রিসভার বৈঠকে ওই আইনের খসড়ার নীতিগত অনুমোদন দেওয়া হয়। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ওই সভার সভাপতিত্ব করেন।

ওই আইনের আওতায় ২৫ জনের একটি উপদেষ্টা কমিটি থাকবে। গৃহায়ণ ও গণপূর্তমন্ত্রী হবেন এর প্রধান। মহানগর, জেলা, পৌরসভাসহ দেশের যেকোনো এলাকার জমির অবস্থার পরিবর্তন করতে হলে অনুমোদন ও ছাড়পত্র নিতে হবে।

মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোহাম্মদ শফিউল আলম সাংবাদিকদের বলেন, ‘ভূমির সুষ্ঠু ব্যবহার নিশ্চিত করা ও অপব্যবহার রোধ করতে এ আইন করা হচ্ছে। জমিতে বাড়িঘর নির্মাণ, শিল্প-কারখানা স্থাপনসহ অন্য যেকোনো কাজে ব্যবহার করতে হলে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের মাধ্যমে ওই উপদেষ্টা পরিষদের অনুমোদন নিতে হবে।’

শফিউল আলম জানান, রাজধানী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ ও চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ যেভাবে অনুমোদন দিচ্ছে, সেভাবে দেবে। পরিষদ গঠনের পর ওই দুই সংস্থাকে নির্দেশনা দেওয়া হবে। একইভাবে অন্য এলাকার ক্ষেত্রে কী করণীয় তা পরে ঠিক করা হবে।

আইনটির কারণে সাধারণ মানুষ হয়রানির শিকার হবে কি না জানতে চাইলে শফিউল আলম বলেন, ‘ভূমির অপব্যবহার রোধ করতে ওই আইন করা হয়েছে। এটি জনবান্ধব। এতে কোনো হয়রানি হবে না।’

এ ছাড়া মন্ত্রিসভার বৈঠকে বালাইনাশক আইন ২০১৭ ও বস্ত্র আইনের নীতিগত অনুমোদন দেওয়া হয়। শফিউল আলম বলেন, দুটি আইনই পুরোনো। তা হালনাগাদ করা হয়েছে।

Comments

comments

সম্পাদক : মোহাম্মদ আবদুল বাছির
প্রকাশক: মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম
ফোন : ‎০১৭১৩৪০৯০৯০
৩৪৫/১, দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০
X
 
নিয়মিত খবর পড়তে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন
X