রবিবার, ১৮ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ইং, ৬ই ফাল্গুন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, দুপুর ১২:৫০
শিরোনাম
  • ঘৃণাকে বিজয়ী হতে দেয়া যাবে না, ট্রাম্পকে ইঙ্গিত করে জর্জ ক্লুনি
  • আমার একটাই চিন্তা দেশের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করা: প্রধানমন্ত্রী
  • ‘কেন্দ্রীয় সরকারের আগ্রাসী নীতির কারণে কাশ্মীরকে হারাতে হবে’
  • সাড়ে চারমাস পর মুখোমুখি, খাদিজাকে উদ্দেশ্য করে যা বলল বদরুল
  • খালেদার ‘সাজা’ বিরোধী নেতাকর্মীদের মনোবল ভাঙ্গার কৌশল!
  • বিএনপির কর্মসূচি ‘যথাসময়ে’ জানানো হবে: রিজভী
  • দলের জন্য বোলিং করতেও রাজি মুশফিক
  • শিশু জিহাদের মৃত্যু: চার জনের ১০ বছর করে কারাদণ্ড
  • অবশেষে বাড়ি অবরুদ্ধ করে রাখা সেই দেয়াল ভেঙ্গে ফেলা হচ্ছে
  • সাক্ষ্য দিলেন খাদিজা, চাইলেন বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তি
  • বদরুলের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিতে আদালতে খাদিজা
  • আজ বগুড়ায় যেসব প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
  • রোহিঙ্গা স্থানান্তরের সরকারি পরিকল্পনার সঙ্গে দ্বিমত মানবাধিকার কমিশনের
  • মহেশখালীতে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে পুলিশের ‘বন্দুকযুদ্ধ’
  • হোয়াইট হাউসে কাজ করার দীর্ঘ অভিজ্ঞতার কথা জানালেন এই বাংলাদেশি সাংবাদিক
Tuesday, October 3, 2017 6:30 pm
A- A A+ Print

অবশেষে ধর্ষক গুরুর পালিত কন্যা হানিপ্রীত গ্রেপ্তার

182394_1

দিল্লি: এক মাসেরও বেশি সময় ধরে লুকোচুরি খেলার পর অবশেষে হরিয়ানা পুলিশের জালে ধরা পড়লেন গুরমিত রাম রহিম সিংয়ের ‘পালিত কন্যা’ হানিপ্রীত ইনসান। সূত্রের খবর ছিল, মঙ্গলবার আদালতে আত্মসমর্পণ করতে পারেন হানিপ্রীত ওরফে প্রিয়াঙ্কা তানেজা। তার সঙ্গে গ্রেপ্তার হয়েছেন আরো এক মহিলা৷ মঙ্গলবার পঞ্চকুলার পুলিশ কমিশনার মানবীর সিং ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে সাংবাদিক সম্নেলনে জানা, বুধবার তাকে আদালতে তোলা হবে৷ খবর টাইমস অফ ইন্ডিয়ার। গত ২৫ অগস্ট গুরমিত রাম রহিমের সাজা ঘোষণার পরই হরিয়ানা, পঞ্জাব এবং দিল্লির বিভিন্ন অংশে রাম রহিমের সমর্থকরা তাণ্ডব চালায়। তাতে বহু মানুষ নিহত হন। সরকারি সম্পত্তির ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়। ডেরার মোট ৪৩ জনের বিরুদ্ধে হিংসা ছড়ানোর অভিযোগে মামলা দায়ের করে পুলিশ। তার পর থেকেই পালিয়ে বেড়াচ্ছিলেন হানিপ্রীত। মাঝে পুলিশের বিরুদ্ধেও অভিযোগ ওঠে, তারা হানিপ্রীতকে পালাতে সাহায্য করছে। জারি হয় লুক-আউট নোটিশও। তবে একটি বেসরকারি চ্যানেলে সাক্ষাৎকাহর দিতে গিয়ে হানি বলেন, ‘আমি ভারত ছেড়ে কোথাও যাইনি। নেপালে যাওয়ার খবর সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন।’ দাবি করেন, তিনি সম্পূর্ণ নির্দোষ। তার কথায়, ‘একদিন সত্যি প্রকাশিত হবেই। আমি মর্মাহত, আমাদের সঙ্গে যা ঘটছে তা কাম্য নয়। কী ভাবে আমাদের সঙ্গে এমন ব্যবহার হচ্ছে জানি না। আমরা সত্যিকারের দেশভক্ত। ভারতকে খুব ভালোবাসি।’ এদিন সকাল থেকেই হানিপ্রীতের আত্মসমর্পণের খবর চাউর হতে শুরু করে৷ গ্রেপ্তার হওয়ার আগে হানিপ্রীতের একান্ত সাক্ষাৎকারের ভিডিও ছড়িয়ে পড়ে মিডিয়ায়৷ প্রশ্ন ওঠে, পুলিশ হানিপ্রীতের খোঁজ পেল না অথচ সংবাদমাধ্যম তার কাছে পৌছে যায় কী করে? হানিপ্রীতের অভিযোগ, ডেরায় হাজার হাজার মহিলা রয়েছেন। সেখান থেকে মাত্র দু’জনের অভিযোগকেই গুরুত্ব দেয়া হলো কেন? এবং তা-ও চিঠির বয়ানের ভিত্তিতে! কেন ওই মহিলারা সামনে এলেন না? সেই ভিডিওয় বাবা রহিমের সঙ্গে তার সম্পর্ক নিয়েও মুখ খুলেছেন তিনি৷ সাফ জানিয়েছেন, বাবার সঙ্গে তার পবিত্র সম্পর্ক ছিল৷ পাপা কি পরি দাবি করেন তিনি ও বাবা নির্দোষ৷ সত্যিতা সকলের সামনে প্রকাশ আসবেই৷ এদিকে ভিডিওটি প্রকাশ্যে আসার কয়েক ঘন্টার মধ্যে গ্রেপ্তার হন রাম রহিমের সঙ্গিনী৷

Comments

Comments!

 অবশেষে ধর্ষক গুরুর পালিত কন্যা হানিপ্রীত গ্রেপ্তারAmarbangladeshonlineAmarbangladeshonline | Amarbangladeshonline

অবশেষে ধর্ষক গুরুর পালিত কন্যা হানিপ্রীত গ্রেপ্তার

Tuesday, October 3, 2017 6:30 pm
182394_1

দিল্লি: এক মাসেরও বেশি সময় ধরে লুকোচুরি খেলার পর অবশেষে হরিয়ানা পুলিশের জালে ধরা পড়লেন গুরমিত রাম রহিম সিংয়ের ‘পালিত কন্যা’ হানিপ্রীত ইনসান। সূত্রের খবর ছিল, মঙ্গলবার আদালতে আত্মসমর্পণ করতে পারেন হানিপ্রীত ওরফে প্রিয়াঙ্কা তানেজা। তার সঙ্গে গ্রেপ্তার হয়েছেন আরো এক মহিলা৷

মঙ্গলবার পঞ্চকুলার পুলিশ কমিশনার মানবীর সিং ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে সাংবাদিক সম্নেলনে জানা, বুধবার তাকে আদালতে তোলা হবে৷ খবর টাইমস অফ ইন্ডিয়ার।

গত ২৫ অগস্ট গুরমিত রাম রহিমের সাজা ঘোষণার পরই হরিয়ানা, পঞ্জাব এবং দিল্লির বিভিন্ন অংশে রাম রহিমের সমর্থকরা তাণ্ডব চালায়। তাতে বহু মানুষ নিহত হন। সরকারি সম্পত্তির ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়। ডেরার মোট ৪৩ জনের বিরুদ্ধে হিংসা ছড়ানোর অভিযোগে মামলা দায়ের করে পুলিশ। তার পর থেকেই পালিয়ে বেড়াচ্ছিলেন হানিপ্রীত। মাঝে পুলিশের বিরুদ্ধেও অভিযোগ ওঠে, তারা হানিপ্রীতকে পালাতে সাহায্য করছে। জারি হয় লুক-আউট নোটিশও।

তবে একটি বেসরকারি চ্যানেলে সাক্ষাৎকাহর দিতে গিয়ে হানি বলেন, ‘আমি ভারত ছেড়ে কোথাও যাইনি। নেপালে যাওয়ার খবর সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন।’ দাবি করেন, তিনি সম্পূর্ণ নির্দোষ।

তার কথায়, ‘একদিন সত্যি প্রকাশিত হবেই। আমি মর্মাহত, আমাদের সঙ্গে যা ঘটছে তা কাম্য নয়। কী ভাবে আমাদের সঙ্গে এমন ব্যবহার হচ্ছে জানি না। আমরা সত্যিকারের দেশভক্ত। ভারতকে খুব ভালোবাসি।’

এদিন সকাল থেকেই হানিপ্রীতের আত্মসমর্পণের খবর চাউর হতে শুরু করে৷ গ্রেপ্তার হওয়ার আগে হানিপ্রীতের একান্ত সাক্ষাৎকারের ভিডিও ছড়িয়ে পড়ে মিডিয়ায়৷ প্রশ্ন ওঠে, পুলিশ হানিপ্রীতের খোঁজ পেল না অথচ সংবাদমাধ্যম তার কাছে পৌছে যায় কী করে?

হানিপ্রীতের অভিযোগ, ডেরায় হাজার হাজার মহিলা রয়েছেন। সেখান থেকে মাত্র দু’জনের অভিযোগকেই গুরুত্ব দেয়া হলো কেন? এবং তা-ও চিঠির বয়ানের ভিত্তিতে! কেন ওই মহিলারা সামনে এলেন না?

সেই ভিডিওয় বাবা রহিমের সঙ্গে তার সম্পর্ক নিয়েও মুখ খুলেছেন তিনি৷ সাফ জানিয়েছেন, বাবার সঙ্গে তার পবিত্র সম্পর্ক ছিল৷ পাপা কি পরি দাবি করেন তিনি ও বাবা নির্দোষ৷ সত্যিতা সকলের সামনে প্রকাশ আসবেই৷ এদিকে ভিডিওটি প্রকাশ্যে আসার কয়েক ঘন্টার মধ্যে গ্রেপ্তার হন রাম রহিমের সঙ্গিনী৷

Comments

comments

সম্পাদক : মোহাম্মদ আবদুল বাছির
প্রকাশক: মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম
ফোন : ‎০১৭১৩৪০৯০৯০
৩৪৫/১, দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০
X
 
নিয়মিত খবর পড়তে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন
X