বুধবার, ২২শে নভেম্বর, ২০১৭ ইং, ৮ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, রাত ৩:০৮
শিরোনাম
  • ঘৃণাকে বিজয়ী হতে দেয়া যাবে না, ট্রাম্পকে ইঙ্গিত করে জর্জ ক্লুনি
  • আমার একটাই চিন্তা দেশের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করা: প্রধানমন্ত্রী
  • ‘কেন্দ্রীয় সরকারের আগ্রাসী নীতির কারণে কাশ্মীরকে হারাতে হবে’
  • সাড়ে চারমাস পর মুখোমুখি, খাদিজাকে উদ্দেশ্য করে যা বলল বদরুল
  • খালেদার ‘সাজা’ বিরোধী নেতাকর্মীদের মনোবল ভাঙ্গার কৌশল!
  • বিএনপির কর্মসূচি ‘যথাসময়ে’ জানানো হবে: রিজভী
  • দলের জন্য বোলিং করতেও রাজি মুশফিক
  • শিশু জিহাদের মৃত্যু: চার জনের ১০ বছর করে কারাদণ্ড
  • অবশেষে বাড়ি অবরুদ্ধ করে রাখা সেই দেয়াল ভেঙ্গে ফেলা হচ্ছে
  • সাক্ষ্য দিলেন খাদিজা, চাইলেন বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তি
  • বদরুলের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিতে আদালতে খাদিজা
  • আজ বগুড়ায় যেসব প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
  • রোহিঙ্গা স্থানান্তরের সরকারি পরিকল্পনার সঙ্গে দ্বিমত মানবাধিকার কমিশনের
  • মহেশখালীতে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে পুলিশের ‘বন্দুকযুদ্ধ’
  • হোয়াইট হাউসে কাজ করার দীর্ঘ অভিজ্ঞতার কথা জানালেন এই বাংলাদেশি সাংবাদিক
Tuesday, November 14, 2017 8:19 pm
A- A A+ Print

অবাধ ও নিরপেক্ষ নির্বাচনই বাংলাদেশের সব সমস্যা সমাধানের একমাত্র বিকল্প: ব্রিটিশ হুইপ

184532_1

লন্ডন: ব্রিটেনের সরকারদলীয় হুইপ এন্ড্রো স্টিফেনসন বলেছেন, অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচনই বাংলাদেশের সব সমস্যা সমাধানের একমাত্র বিকল্প। সোমবার রাতে লন্ডনের হাউস অব কমন্সে ব্রিটিশ বাংলাদেশি কমিউনিটি অ্যালায়েন্স আয়োজিত এক আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন। তিনি বলেন ‘আলোচনার মাধ্যমে বাংলাদেশের রাজনৈতিক সংকটের সমাধান চায় ব্রিটেন। বাংলাদেশের আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচন হতে হবে অবাধ, নিরপেক্ষ ও সুষ্ঠু। এক্ষেত্রে সব রাজনৈতিক দলের অংশগ্রহণ থাকাটাও জরুরি। সংসদে অবশ্যই জনগণের নির্বাচিত প্রতিনিধি থাকতে হবে।’ বাংলাদেশের চলমান রাজনৈতিক অস্থিরতা ও মানবাধিকার পরিস্থিতি নিয়ে আয়োজিত ওই সভায় ব্রিটিশ পার্লামেন্টের একাধিক এমপি অংশ নেন। শ্যাডো মিনিস্টার কেট কলার্ন এমপি বলেছেন, ‘উন্নয়ন সহযোগী দেশ হিসেবে বাংলাদেশে রাজনৈতিক স্থিতিশীলতা দেখতে চায় ব্রিটেন।’ বাংলাদেশের গণতন্ত্র ও রাজনৈতিক স্থিতিশীলতা রক্ষায় তত্ত্বাবধায়ক সরকারের অধীনে একটি অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন আয়োজনে সংলাপে বসার আহ্বান জানান বক্তারা। সেমিনারে তাদের দাবি— ২০১৪ সালের জাতীয় নির্বাচন ছিল ত্রুটিপূর্ণ। সংকট নিরসনে নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে একটি জাতীয় নির্বাচনই সব সমস্যার সমাধান করতে পারে বলে মনে করেন তারা। ব্রিটিশ বাংলাদেশি কমিউনিটি অ্যালায়েন্স এই সেমিনারটি আয়োজন করে। শুরুতেই বাংলাদেশের মানবাধিকারের ওপর নির্মিত একটি প্রামাণ্যচিত্র দেখানো হয়। এন্ড্রো স্টিফেনসনের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় আরও ছিলেন আয়োজক সংগঠনের প্রধান উপদেষ্টা কাউন্সিলার মুজাক্কির আলী, শ্যাডো মিনিস্টার জেক বেড়ি, শ্যাডো মিনিস্টার কেট কলার্ন এমপি, জুলি কুপার এমপি, ব্রিটিশ লর্ড সভার সদস্য লর্ড কোরবান হোসেন, গ্রাহাম জোন্স এমপি, মাহিদুর রহমান, ড. আবুল হাসনাত, ব্যারিস্টার এমএ সালাম, ব্যারিস্টার নজির আহমেদ, যুক্তরাজ্য বিএনপির সভাপতি এমএ মালিক, বিবিসিএর সভাপতি ব্যারিস্টার আফজা জেড এস আলী, সাধারণ সম্পাদক ফয়জুন নূর ও আবিদুল ইসলাম আরজু। আলোচনা সভার বিষয়বস্তু ব্রিটিশ পররাষ্ট্রমন্ত্রীর কাছে উত্থাপন করা হবে বলেও জানান ব্রিটেনের সরকারদলীয় হুইপ এন্ড্রো স্টিফেনসন।
 

Comments

Comments!

 অবাধ ও নিরপেক্ষ নির্বাচনই বাংলাদেশের সব সমস্যা সমাধানের একমাত্র বিকল্প: ব্রিটিশ হুইপAmarbangladeshonlineAmarbangladeshonline | Amarbangladeshonline

অবাধ ও নিরপেক্ষ নির্বাচনই বাংলাদেশের সব সমস্যা সমাধানের একমাত্র বিকল্প: ব্রিটিশ হুইপ

Tuesday, November 14, 2017 8:19 pm
184532_1

লন্ডন: ব্রিটেনের সরকারদলীয় হুইপ এন্ড্রো স্টিফেনসন বলেছেন, অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচনই বাংলাদেশের সব সমস্যা সমাধানের একমাত্র বিকল্প।

সোমবার রাতে লন্ডনের হাউস অব কমন্সে ব্রিটিশ বাংলাদেশি কমিউনিটি অ্যালায়েন্স আয়োজিত এক আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন ‘আলোচনার মাধ্যমে বাংলাদেশের রাজনৈতিক সংকটের সমাধান চায় ব্রিটেন। বাংলাদেশের আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচন হতে হবে অবাধ, নিরপেক্ষ ও সুষ্ঠু। এক্ষেত্রে সব রাজনৈতিক দলের অংশগ্রহণ থাকাটাও জরুরি। সংসদে অবশ্যই জনগণের নির্বাচিত প্রতিনিধি থাকতে হবে।’

বাংলাদেশের চলমান রাজনৈতিক অস্থিরতা ও মানবাধিকার পরিস্থিতি নিয়ে আয়োজিত ওই সভায় ব্রিটিশ পার্লামেন্টের একাধিক এমপি অংশ নেন। শ্যাডো মিনিস্টার কেট কলার্ন এমপি বলেছেন, ‘উন্নয়ন সহযোগী দেশ হিসেবে বাংলাদেশে রাজনৈতিক স্থিতিশীলতা দেখতে চায় ব্রিটেন।’

বাংলাদেশের গণতন্ত্র ও রাজনৈতিক স্থিতিশীলতা রক্ষায় তত্ত্বাবধায়ক সরকারের অধীনে একটি অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন আয়োজনে সংলাপে বসার আহ্বান জানান বক্তারা।

সেমিনারে তাদের দাবি— ২০১৪ সালের জাতীয় নির্বাচন ছিল ত্রুটিপূর্ণ। সংকট নিরসনে নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে একটি জাতীয় নির্বাচনই সব সমস্যার সমাধান করতে পারে বলে মনে করেন তারা।

ব্রিটিশ বাংলাদেশি কমিউনিটি অ্যালায়েন্স এই সেমিনারটি আয়োজন করে। শুরুতেই বাংলাদেশের মানবাধিকারের ওপর নির্মিত একটি প্রামাণ্যচিত্র দেখানো হয়।

এন্ড্রো স্টিফেনসনের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় আরও ছিলেন আয়োজক সংগঠনের প্রধান উপদেষ্টা কাউন্সিলার মুজাক্কির আলী, শ্যাডো মিনিস্টার জেক বেড়ি, শ্যাডো মিনিস্টার কেট কলার্ন এমপি, জুলি কুপার এমপি, ব্রিটিশ লর্ড সভার সদস্য লর্ড কোরবান হোসেন, গ্রাহাম জোন্স এমপি, মাহিদুর রহমান, ড. আবুল হাসনাত, ব্যারিস্টার এমএ সালাম, ব্যারিস্টার নজির আহমেদ, যুক্তরাজ্য বিএনপির সভাপতি এমএ মালিক, বিবিসিএর সভাপতি ব্যারিস্টার আফজা জেড এস আলী, সাধারণ সম্পাদক ফয়জুন নূর ও আবিদুল ইসলাম আরজু।

আলোচনা সভার বিষয়বস্তু ব্রিটিশ পররাষ্ট্রমন্ত্রীর কাছে উত্থাপন করা হবে বলেও জানান ব্রিটেনের সরকারদলীয় হুইপ এন্ড্রো স্টিফেনসন।

 

Comments

comments

সম্পাদক : মোহাম্মদ আবদুল বাছির
প্রকাশক: মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম
ফোন : ‎০১৭১৩৪০৯০৯০
৩৪৫/১, দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০
X
 
নিয়মিত খবর পড়তে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন
X