রবিবার, ১৮ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ইং, ৬ই ফাল্গুন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, সকাল ৭:৩৫
শিরোনাম
  • ঘৃণাকে বিজয়ী হতে দেয়া যাবে না, ট্রাম্পকে ইঙ্গিত করে জর্জ ক্লুনি
  • আমার একটাই চিন্তা দেশের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করা: প্রধানমন্ত্রী
  • ‘কেন্দ্রীয় সরকারের আগ্রাসী নীতির কারণে কাশ্মীরকে হারাতে হবে’
  • সাড়ে চারমাস পর মুখোমুখি, খাদিজাকে উদ্দেশ্য করে যা বলল বদরুল
  • খালেদার ‘সাজা’ বিরোধী নেতাকর্মীদের মনোবল ভাঙ্গার কৌশল!
  • বিএনপির কর্মসূচি ‘যথাসময়ে’ জানানো হবে: রিজভী
  • দলের জন্য বোলিং করতেও রাজি মুশফিক
  • শিশু জিহাদের মৃত্যু: চার জনের ১০ বছর করে কারাদণ্ড
  • অবশেষে বাড়ি অবরুদ্ধ করে রাখা সেই দেয়াল ভেঙ্গে ফেলা হচ্ছে
  • সাক্ষ্য দিলেন খাদিজা, চাইলেন বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তি
  • বদরুলের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিতে আদালতে খাদিজা
  • আজ বগুড়ায় যেসব প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
  • রোহিঙ্গা স্থানান্তরের সরকারি পরিকল্পনার সঙ্গে দ্বিমত মানবাধিকার কমিশনের
  • মহেশখালীতে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে পুলিশের ‘বন্দুকযুদ্ধ’
  • হোয়াইট হাউসে কাজ করার দীর্ঘ অভিজ্ঞতার কথা জানালেন এই বাংলাদেশি সাংবাদিক
Friday, December 2, 2016 11:25 am
A- A A+ Print

আইএসের কাছে গুলশান হামলার খসড়া পাঠিয়েছিলেন তামিম

162950_1

গুলশানের হলি আর্টিজান বেকারি রেস্তোরাঁয় জঙ্গি হামলার ঘটনায় হামলার পরে অভিযানে নিহত তামিম চৌধুরীকে আইএস হামলার অনুমতি দিয়েছিল বলে সম্প্রতি রয়টার্স জানিয়েছে। এর আগে তামিম চৌধুরী সে অভিযানের অনুমতি চায় সংগঠনটির কাছে। এ সময় আইএসের কাছে হামলার খসড়াও পাঠান তিনি। বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত কানাডার নাগরিক তামিম চৌধুরী (৩০) ও আইএসের আবু তারেক মোহাম্মদ তাজউদ্দিন কাউসারের (৩৫) মধ্যে যেসব বার্তা বিনিময় হয়েছে, তা দেখেছেন এমন একজন জ্যেষ্ঠ পুলিশ কর্মকর্তা বলেছেন, তামিমকে বিদেশিদের নিশানা করতে বলেছিলেন তাজউদ্দিন।
প্রায়ই বিদেশিরা যাতায়াত করেন—ঢাকার এমন একটি রেস্তোরাঁয় হামলা চালানোর প্রস্তাব করেন তামিম। এই দুজনের মধ্যে যেসব বার্তা চালাচালি হয়েছে, তাতে আইএসের সাময়িকীতে পরবর্তী সময়ে প্রকাশিত কিছু নিবন্ধের খসড়াও ছিল। তথ্যপ্রমাণে দেখা যায়, জঙ্গি কর্মকাণ্ডে অংশগ্রহণের জন্য সদস্য নিয়োগ এবং অর্থায়নের চেষ্টায় আইএসের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিরা বাংলাদেশের স্থানীয় জঙ্গিদের সঙ্গে গভীর যোগাযোগ গড়ে তোলে, যা আগে অজানা ছিল। বিশেষজ্ঞদের বরাত দিয়ে রয়টার্স আরো বলেছে, আইএস তার উৎপত্তিস্থল ইরাক ও সিরিয়ায় চাপের মুখে পড়ায় বাংলাদেশের মতো বাইরের দেশগুলোতে তৎপরতা জোরালো করতে পারে। এই তৎপরতায় গুরুত্বপূর্ণ নিশানা বানাতে পারে বাংলাদেশের পোশাক খাতকে। এ খাতে লাখো কর্মী নিয়োজিত আছেন। বিদেশে পণ্য রপ্তানি করে অর্জিত আয়ের একটি বড় অংশ আসে এ খাত থেকে। প্রসঙ্গত, গত ১ জুলাই হলি আর্টিজানে জঙ্গিদের হামলায় নিহত হন ২২ জন। তাদের অধিকাংশই বিদেশি নাগরিক। ওই হামলার আগে বাংলাদেশে বেশ কয়েকজন ব্লগার ও বিদেশি নাগরিকের ওপর হামলা হয়। সেসব ঘটনায় বাংলাদেশে বিদেশি বিনিয়োগকারীদের মধ্যে দেখা দেয় উদ্বেগ। গুলশান হামলার পর আইএসের অনলাইন সাময়িকী রুমাইয়াহতে ২০১৫ সালের সেপ্টেম্বর থেকে তখন পর্যন্ত দুই ডজন হামলা চালানোর দায় স্বীকার করা হয়। যদিও এসব দাবি নিরপেক্ষ সূত্র থেকে যাচাই করা যায়নি। গত ২৭ আগস্ট নারায়ণগঞ্জে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর অভিযানে নিহত হন তামিম। এরপর তার সঙ্গে আইএসের তাজউদ্দিনের যোগাযোগের বিষয়ে জানতে পারে পুলিশ। দুজনের মধ্যে বার্তা বিনিময়ের কথা উল্লেখ করে পুলিশের ওই কর্মকর্তা জানান, গুলশান হামলার বিষয়ে একটি নিবন্ধের খসড়া তাজউদ্দিনের কাছে পাঠিয়েছিলেন তামিম। তার মৃত্যুর পর সেই নিবন্ধ ছাপা হয় আইএসের সাময়িকী রুমাইয়াহতে। সূত্র: রয়টার্স।

Comments

Comments!

 আইএসের কাছে গুলশান হামলার খসড়া পাঠিয়েছিলেন তামিমAmarbangladeshonlineAmarbangladeshonline | Amarbangladeshonline

আইএসের কাছে গুলশান হামলার খসড়া পাঠিয়েছিলেন তামিম

Friday, December 2, 2016 11:25 am
162950_1

গুলশানের হলি আর্টিজান বেকারি রেস্তোরাঁয় জঙ্গি হামলার ঘটনায় হামলার পরে অভিযানে নিহত তামিম চৌধুরীকে আইএস হামলার অনুমতি দিয়েছিল বলে সম্প্রতি রয়টার্স জানিয়েছে।

এর আগে তামিম চৌধুরী সে অভিযানের অনুমতি চায় সংগঠনটির কাছে। এ সময় আইএসের কাছে হামলার খসড়াও পাঠান তিনি।

বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত কানাডার নাগরিক তামিম চৌধুরী (৩০) ও আইএসের আবু তারেক মোহাম্মদ তাজউদ্দিন কাউসারের (৩৫) মধ্যে যেসব বার্তা বিনিময় হয়েছে, তা দেখেছেন এমন একজন জ্যেষ্ঠ পুলিশ কর্মকর্তা বলেছেন, তামিমকে বিদেশিদের নিশানা করতে বলেছিলেন তাজউদ্দিন।

প্রায়ই বিদেশিরা যাতায়াত করেন—ঢাকার এমন একটি রেস্তোরাঁয় হামলা চালানোর প্রস্তাব করেন তামিম।

এই দুজনের মধ্যে যেসব বার্তা চালাচালি হয়েছে, তাতে আইএসের সাময়িকীতে পরবর্তী সময়ে প্রকাশিত কিছু নিবন্ধের খসড়াও ছিল।

তথ্যপ্রমাণে দেখা যায়, জঙ্গি কর্মকাণ্ডে অংশগ্রহণের জন্য সদস্য নিয়োগ এবং অর্থায়নের চেষ্টায় আইএসের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিরা বাংলাদেশের স্থানীয় জঙ্গিদের সঙ্গে গভীর যোগাযোগ গড়ে তোলে, যা আগে অজানা ছিল।

বিশেষজ্ঞদের বরাত দিয়ে রয়টার্স আরো বলেছে, আইএস তার উৎপত্তিস্থল ইরাক ও সিরিয়ায় চাপের মুখে পড়ায় বাংলাদেশের মতো বাইরের দেশগুলোতে তৎপরতা জোরালো করতে পারে।

এই তৎপরতায় গুরুত্বপূর্ণ নিশানা বানাতে পারে বাংলাদেশের পোশাক খাতকে। এ খাতে লাখো কর্মী নিয়োজিত আছেন। বিদেশে পণ্য রপ্তানি করে অর্জিত আয়ের একটি বড় অংশ আসে এ খাত থেকে।

প্রসঙ্গত, গত ১ জুলাই হলি আর্টিজানে জঙ্গিদের হামলায় নিহত হন ২২ জন। তাদের অধিকাংশই বিদেশি নাগরিক। ওই হামলার আগে বাংলাদেশে বেশ কয়েকজন ব্লগার ও বিদেশি নাগরিকের ওপর হামলা হয়।

সেসব ঘটনায় বাংলাদেশে বিদেশি বিনিয়োগকারীদের মধ্যে দেখা দেয় উদ্বেগ। গুলশান হামলার পর আইএসের অনলাইন সাময়িকী রুমাইয়াহতে ২০১৫ সালের সেপ্টেম্বর থেকে তখন পর্যন্ত দুই ডজন হামলা চালানোর দায় স্বীকার করা হয়। যদিও এসব দাবি নিরপেক্ষ সূত্র থেকে যাচাই করা যায়নি।

গত ২৭ আগস্ট নারায়ণগঞ্জে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর অভিযানে নিহত হন তামিম।

এরপর তার সঙ্গে আইএসের তাজউদ্দিনের যোগাযোগের বিষয়ে জানতে পারে পুলিশ। দুজনের মধ্যে বার্তা বিনিময়ের কথা উল্লেখ করে পুলিশের ওই কর্মকর্তা জানান, গুলশান হামলার বিষয়ে একটি নিবন্ধের খসড়া তাজউদ্দিনের কাছে পাঠিয়েছিলেন তামিম। তার মৃত্যুর পর সেই নিবন্ধ ছাপা হয় আইএসের সাময়িকী রুমাইয়াহতে।

সূত্র: রয়টার্স।

Comments

comments

সম্পাদক : মোহাম্মদ আবদুল বাছির
প্রকাশক: মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম
ফোন : ‎০১৭১৩৪০৯০৯০
৩৪৫/১, দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০
X
 
নিয়মিত খবর পড়তে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন
X