সোমবার, ২৬শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ইং, ১৪ই ফাল্গুন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, সকাল ৭:০৩
শিরোনাম
  • ঘৃণাকে বিজয়ী হতে দেয়া যাবে না, ট্রাম্পকে ইঙ্গিত করে জর্জ ক্লুনি
  • আমার একটাই চিন্তা দেশের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করা: প্রধানমন্ত্রী
  • ‘কেন্দ্রীয় সরকারের আগ্রাসী নীতির কারণে কাশ্মীরকে হারাতে হবে’
  • সাড়ে চারমাস পর মুখোমুখি, খাদিজাকে উদ্দেশ্য করে যা বলল বদরুল
  • খালেদার ‘সাজা’ বিরোধী নেতাকর্মীদের মনোবল ভাঙ্গার কৌশল!
  • বিএনপির কর্মসূচি ‘যথাসময়ে’ জানানো হবে: রিজভী
  • দলের জন্য বোলিং করতেও রাজি মুশফিক
  • শিশু জিহাদের মৃত্যু: চার জনের ১০ বছর করে কারাদণ্ড
  • অবশেষে বাড়ি অবরুদ্ধ করে রাখা সেই দেয়াল ভেঙ্গে ফেলা হচ্ছে
  • সাক্ষ্য দিলেন খাদিজা, চাইলেন বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তি
  • বদরুলের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিতে আদালতে খাদিজা
  • আজ বগুড়ায় যেসব প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
  • রোহিঙ্গা স্থানান্তরের সরকারি পরিকল্পনার সঙ্গে দ্বিমত মানবাধিকার কমিশনের
  • মহেশখালীতে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে পুলিশের ‘বন্দুকযুদ্ধ’
  • হোয়াইট হাউসে কাজ করার দীর্ঘ অভিজ্ঞতার কথা জানালেন এই বাংলাদেশি সাংবাদিক
Thursday, January 12, 2017 11:12 pm
A- A A+ Print

আইনজীবীকে বিচারক: সামনে শুধু মৃত্যু দেখছি

166258_1

: জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট ও জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার আত্মপক্ষ সমর্থনের ওপর শুনানি পিছিয়েছে। বৃহস্পতিবার পুরান ঢাকার বকশীবাজারে স্থাপিত তৃতীয় বিশেষ জজ আদালতের বিচারক আবু আহমেদ জমাদার ২৬ জানুয়ারি পরবর্তী দিন ধার্য করেন। খালেদা জিয়ার পক্ষে সময় আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে এ দিন ধার্য করা হয়। বেগম খালেদা জিয়া উপস্থিত হওয়ার আগেই মামলার প্রথম তদন্ত কর্মকর্তা নুর মোহাম্মদের সাক্ষ্যগ্রহণ ও জেরা শুরু করেন। পরে খালেদা জিয়ার উপস্থিতিতে জেরা করেন আইনজীবী আবদুর রেজাক খান। তিনি প্রশ্নের এক পর্যায়ে তদন্ত কর্মকর্তা নুর মোহাম্মদকে বলেন, ‘তদন্ত কর্মকর্তা হওয়ার পর আপনাকে পদোন্নতি দেওয়া হয়। জবাবে তদন্ত কর্মকর্তা বলেন, ‘সে কারণে নয়’। আইনজীবী এক পর্যায়ে বলেন, ‘গত বছর ১৬ জন সাবেক জেলা জজ হাইকোর্টে আবেদন করেছেন আইনজীবী হিসেবে আদালতে প্র্যাকটিস করার জন্য। কিন্তু প্রধান বিচারপতি তাদের অনুমতি দেননি’। এ সময় বিচারক আবু আহমেদ জমাদার আইনজীবীকে লক্ষ্য করে বলেন, ‘আমার ক্ষেত্রে এটার কোনো সম্ভাবনা নেই। আমি এখন শুধু মৃত্যুর প্রহর গুনছি এবং সেই প্রস্তুতি নিচ্ছি’। এ সময় ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন বলেন, ‘আপনাকে তো হাইকোর্টে বিচারক হিসেবে নিয়োগ দেওয়া হবে’। জাবাবে বিচারক বলেন, ‘আমার ক্ষেত্রে এ ধরনের কোনো সম্ভাবনাই নেই। বরং আমি তো সামনে শুধু মৃত্যুকে দেখছি এবং সেটার প্রস্তুতি নিচ্ছি’। দুপুর সাড়ে ১২টায় আবার শুনানি শুরু হলে তখন জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট মামলার জেরা মুলতবি করেন। এরপর শুরু হয় দুই মামলার আত্মপক্ষ সমর্থনের বিষয়ে শুনানি। এ সময় ব্যারিস্টার জমিরউদ্দিন সরকার আদালতকে উদ্দেশ করে বলেন, ‘যেহেতু আত্মপক্ষ সমর্থনের বিষয়ে হাইকোর্টে একটি আবেদন বিচারাধীন রয়েছে এবং এটি একটি বেঞ্চে কার্যতালিকায় শীর্ষে আছে, সে জন্য বিষয়টি নিষ্পত্তি না হওয়া পর্যন্ত সময় দেওয়া হোক’। দুদকের আইনজীবী মোশাররফ হোসেন কাজল বলেন, ‘আসামিপক্ষ আত্মপক্ষ সমর্থনের কোনো কার্যক্রম চ্যালেঞ্জ করে উচ্চ আদালতে যাননি। তাই আত্মপক্ষ সমর্থনের কার্যক্রম চালানো হোক’। পরে উভয় পক্ষের শুনানি শেষে আদালত আদালত ২৬ জানুয়ারি মামলার শুনানির তারিখ ধার্য করেন।
 

Comments

Comments!

 আইনজীবীকে বিচারক: সামনে শুধু মৃত্যু দেখছিAmarbangladeshonlineAmarbangladeshonline | Amarbangladeshonline

আইনজীবীকে বিচারক: সামনে শুধু মৃত্যু দেখছি

Thursday, January 12, 2017 11:12 pm
166258_1

: জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট ও জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার আত্মপক্ষ সমর্থনের ওপর শুনানি পিছিয়েছে।

বৃহস্পতিবার পুরান ঢাকার বকশীবাজারে স্থাপিত তৃতীয় বিশেষ জজ আদালতের বিচারক আবু আহমেদ জমাদার ২৬ জানুয়ারি পরবর্তী দিন ধার্য করেন।

খালেদা জিয়ার পক্ষে সময় আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে এ দিন ধার্য করা হয়।

বেগম খালেদা জিয়া উপস্থিত হওয়ার আগেই মামলার প্রথম তদন্ত কর্মকর্তা নুর মোহাম্মদের সাক্ষ্যগ্রহণ ও জেরা শুরু করেন।

পরে খালেদা জিয়ার উপস্থিতিতে জেরা করেন আইনজীবী আবদুর রেজাক খান।

তিনি প্রশ্নের এক পর্যায়ে তদন্ত কর্মকর্তা নুর মোহাম্মদকে বলেন, ‘তদন্ত কর্মকর্তা হওয়ার পর আপনাকে পদোন্নতি দেওয়া হয়। জবাবে তদন্ত কর্মকর্তা বলেন, ‘সে কারণে নয়’।

আইনজীবী এক পর্যায়ে বলেন, ‘গত বছর ১৬ জন সাবেক জেলা জজ হাইকোর্টে আবেদন করেছেন আইনজীবী হিসেবে আদালতে প্র্যাকটিস করার জন্য। কিন্তু প্রধান বিচারপতি তাদের অনুমতি দেননি’।

এ সময় বিচারক আবু আহমেদ জমাদার আইনজীবীকে লক্ষ্য করে বলেন, ‘আমার ক্ষেত্রে এটার কোনো সম্ভাবনা নেই। আমি এখন শুধু মৃত্যুর প্রহর গুনছি এবং সেই প্রস্তুতি নিচ্ছি’।

এ সময় ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন বলেন, ‘আপনাকে তো হাইকোর্টে বিচারক হিসেবে নিয়োগ দেওয়া হবে’।

জাবাবে বিচারক বলেন, ‘আমার ক্ষেত্রে এ ধরনের কোনো সম্ভাবনাই নেই। বরং আমি তো সামনে শুধু মৃত্যুকে দেখছি এবং সেটার প্রস্তুতি নিচ্ছি’।

দুপুর সাড়ে ১২টায় আবার শুনানি শুরু হলে তখন জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট মামলার জেরা মুলতবি করেন।

এরপর শুরু হয় দুই মামলার আত্মপক্ষ সমর্থনের বিষয়ে শুনানি। এ সময় ব্যারিস্টার জমিরউদ্দিন সরকার আদালতকে উদ্দেশ করে বলেন, ‘যেহেতু আত্মপক্ষ সমর্থনের বিষয়ে হাইকোর্টে একটি আবেদন বিচারাধীন রয়েছে এবং এটি একটি বেঞ্চে কার্যতালিকায় শীর্ষে আছে, সে জন্য বিষয়টি নিষ্পত্তি না হওয়া পর্যন্ত সময় দেওয়া হোক’।

দুদকের আইনজীবী মোশাররফ হোসেন কাজল বলেন, ‘আসামিপক্ষ আত্মপক্ষ সমর্থনের কোনো কার্যক্রম চ্যালেঞ্জ করে উচ্চ আদালতে যাননি। তাই আত্মপক্ষ সমর্থনের কার্যক্রম চালানো হোক’।

পরে উভয় পক্ষের শুনানি শেষে আদালত আদালত ২৬ জানুয়ারি মামলার শুনানির তারিখ ধার্য করেন।

 

Comments

comments

সম্পাদক : মোহাম্মদ আবদুল বাছির
প্রকাশক: মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম
ফোন : ‎০১৭১৩৪০৯০৯০
৩৪৫/১, দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০
X
 
নিয়মিত খবর পড়তে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন
X