শুক্রবার, ২৩শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ইং, ১১ই ফাল্গুন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, রাত ৪:৩৪
শিরোনাম
  • ঘৃণাকে বিজয়ী হতে দেয়া যাবে না, ট্রাম্পকে ইঙ্গিত করে জর্জ ক্লুনি
  • আমার একটাই চিন্তা দেশের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করা: প্রধানমন্ত্রী
  • ‘কেন্দ্রীয় সরকারের আগ্রাসী নীতির কারণে কাশ্মীরকে হারাতে হবে’
  • সাড়ে চারমাস পর মুখোমুখি, খাদিজাকে উদ্দেশ্য করে যা বলল বদরুল
  • খালেদার ‘সাজা’ বিরোধী নেতাকর্মীদের মনোবল ভাঙ্গার কৌশল!
  • বিএনপির কর্মসূচি ‘যথাসময়ে’ জানানো হবে: রিজভী
  • দলের জন্য বোলিং করতেও রাজি মুশফিক
  • শিশু জিহাদের মৃত্যু: চার জনের ১০ বছর করে কারাদণ্ড
  • অবশেষে বাড়ি অবরুদ্ধ করে রাখা সেই দেয়াল ভেঙ্গে ফেলা হচ্ছে
  • সাক্ষ্য দিলেন খাদিজা, চাইলেন বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তি
  • বদরুলের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিতে আদালতে খাদিজা
  • আজ বগুড়ায় যেসব প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
  • রোহিঙ্গা স্থানান্তরের সরকারি পরিকল্পনার সঙ্গে দ্বিমত মানবাধিকার কমিশনের
  • মহেশখালীতে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে পুলিশের ‘বন্দুকযুদ্ধ’
  • হোয়াইট হাউসে কাজ করার দীর্ঘ অভিজ্ঞতার কথা জানালেন এই বাংলাদেশি সাংবাদিক
Saturday, November 26, 2016 8:31 am
A- A A+ Print

আইভী ও সাখাওয়াত ব্যস্ত বিরোধ নিরসনে

9

নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন নির্বাচনের আনুষ্ঠানিক প্রচারণা শুরু না হলেও আপাতত আওয়ামী লীগ ও বিএনপির দুই প্রার্থীই বিরোধ নিষ্পত্তিতে ব্যস্ত। গত কয়েক দিনে তাদের মার্কা নিয়ে যে দলীয় বিরোধ সৃষ্টি হয়েছে, তা মিটিয়ে ফেলতে সময় দিচ্ছেন উভয় প্রার্থী। আনুষ্ঠানিক প্রচার শুরুর আগেই তারা তাদের নিজেদের মধ্যে এত দিনকার যে টানাপড়েন তা দূর করতে দেন-দরবার করে যাচ্ছেন। এই টানাপড়নে বিএনপি নিজেদের মধ্যে সম্পর্ক গড়তে পারলেও আওয়ামী লীগ পারবে কি না সে বিষয়ে অনেকের সন্দেহ রয়েছে। বিশেষ করে মনোনয়নপত্র জমা দেয়ার দিন ত্বকী মঞ্চের আহ্বায়ক ও নারায়ণগঞ্জ সাংস্কৃতিক জোটের উপদেষ্টা রাফিউর রাব্বীকে সাথে নিয়ে ডা: সেলিনা হায়াৎ আইভী মাঠে নামাতে বেঁকে বসেছেন ওসমান ঘরানার নেতাকর্মীরা। কারণ হিসেবে তারা বলছেন, এই রাফিউর রাব্বী আলোচিত সংসদ সদস্য শামীম ওসমানের বিরুদ্ধে দীর্ঘ দিন ধরে আন্দোলন করে আসছেন। তবে উভয় প্রার্থী বলছেন, আনুষ্ঠানিক প্রচারণা শুরুর পরেই সবাই এক হয়ে মাঠে নামবে। আপাতত তারা আনুষঙ্গিক কাজ সারছেন। শুক্রবার দুপুরে শহরের অন্যতম বৃহৎ মসজিদ ডিআইটি কেন্দ্রীয় রেলওয়ে জামে মসজিদে জুমার নামাজ আদায় করেন সাখাওয়াত হোসেন খান। নামাজ আদায় শেষে তিনি শহরের ডিআইটি বাণিজ্যিক এলাকায় জেলা বিএনপির কার্যালয়ে আসেন। সেখানে সাখাওয়াত জানান, দলীয় কার্যালয় থেকেই তিনি নিয়মিত নির্বাচনী কার্যক্রম পরিচালনা করবেন। সে কারণেই দলীয় কার্যালয়ে সংস্কারকাজ করা হচ্ছে। সাখাওয়াত দাবি করেন, নারায়ণগঞ্জ বিএনপি এখন আগের চেয়ে অনেক বেশি শক্তিশালী। সব নেতা এক প্লাটফরমে এসেছেন। আশা করছি কারো মধ্যে কোনো বিভেদ নেই। সবাই বিএনপি ও দলের প্রতীক ধানের শীষ নিয়ে একতাবদ্ধ। প্রচারণা শুরু হলে সবাই গণতন্ত্রের প্রতীক ধানের শীষের পক্ষেই আটঘাট বেঁধে নামবে প্রত্যাশা এ আইনজীবী নেতার। এ দিকে, শুক্রবার সেলিনা হায়াৎ আইভী মূলত পারিবারিক কাজেই ব্যস্ত ছিলেন। শনিবার থেকে তিনি আবারো সোচ্চার হবেন বলে জানা গেছে। তিনি বলেন, মাত্র মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছি। নির্বাচনের প্রস্তুতি চলছে। একজন মেয়রের সাথে ২৭টি সাধারণ ও ৯টি সংরক্ষিত ওয়ার্ডে কাউন্সিলর পদে ভোট হবে ২২ ডিসেম্বর। মোট ভোটার চার লাখ ৭৯ হাজার ৩৯২ জন। এর মধ্যে পুরুষ দুই লাখ ৪১ হাজার ৫১৪ এবং নারী দুই লাখ ৩৭ হাজার ৮৭৮। ভোটার বেড়েছে প্রায় পৌনে এক লাখ। সম্ভাব্য ভোটকেন্দ্র ১৭৪টি ও ভোটক ১৩০৪টি। তবে ভোটকেন্দ্রের সংখ্যা বাড়তে পারে বলে জানা গেছে। ১৬৩ প্রিজাইডিং কর্মকর্তা, ১২১৭ সহকারী প্রিজাইডিং কর্মকর্তা ও ২৪৩৪ জন পোলিং কর্মকর্তা ভোট নেবেন। চলতি বছরের ২৬ ডিসেম্বর নারায়ণগঞ্জ সিটির মেয়াদ শেষ হবে। সিটি করপোরেশন নির্বাচনের আইন অনুযায়ী, মেয়াদ শেষ হওয়ার আগের ১৮০ দিনের মধ্যে নির্বাচন করতে হবে। নারায়ণগঞ্জে সিটি করপোরেশন হিসেবে যাত্রা শুরুর পর এটি দ্বিতীয় ভোট। তবে দলীয় প্রতীকে ভোট হবে এবারই প্রথম। নারায়ণগঞ্জে গত সিটি করপোরেশন নির্বাচনে আওয়ামী লীগের দুই নেতা সেলিনা হায়াৎ আইভী এবং এ কে এম শামীম ওসমান প্রার্থী হয়েছিলেন। ২০১১ সালে নির্দলীয় ওই নির্বাচনে শামীম ওসমানকে এক লাখের বেশি ভোটে হারিয়ে নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের প্রথম মেয়র হন সাবেক চেয়ারম্যান আইভী। সেই নির্বাচনে আওয়ামী লীগ সমর্থিত প্রার্থী শামীম ওসমান পেয়েছিলেন ৭৮ হাজার ৭০৫ ভোট। আর আইভী পেয়েছিলেন এক লাখ ৮০ হাজার ৪৮ ভোট। ২০১১ সালের ৫ মে নারায়ণগঞ্জ পৌরসভা, সিদ্ধিরগঞ্জ পৌরসভা ও বন্দরের কদমরসুল পৌরসভা বিলুপ্ত করে নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন গঠন করা হয়। পরে ওই বছরের ৩০ অক্টোবর সিটি করপোরেশনের প্রথম নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়।

Comments

Comments!

 আইভী ও সাখাওয়াত ব্যস্ত বিরোধ নিরসনেAmarbangladeshonlineAmarbangladeshonline | Amarbangladeshonline

আইভী ও সাখাওয়াত ব্যস্ত বিরোধ নিরসনে

Saturday, November 26, 2016 8:31 am
9

নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন নির্বাচনের আনুষ্ঠানিক প্রচারণা শুরু না হলেও আপাতত আওয়ামী লীগ ও বিএনপির দুই প্রার্থীই বিরোধ নিষ্পত্তিতে ব্যস্ত। গত কয়েক দিনে তাদের মার্কা নিয়ে যে দলীয় বিরোধ সৃষ্টি হয়েছে, তা মিটিয়ে ফেলতে সময় দিচ্ছেন উভয় প্রার্থী। আনুষ্ঠানিক প্রচার শুরুর আগেই তারা তাদের নিজেদের মধ্যে এত দিনকার যে টানাপড়েন তা দূর করতে দেন-দরবার করে যাচ্ছেন। এই টানাপড়নে বিএনপি নিজেদের মধ্যে সম্পর্ক গড়তে পারলেও আওয়ামী লীগ পারবে কি না সে বিষয়ে অনেকের সন্দেহ রয়েছে। বিশেষ করে মনোনয়নপত্র জমা দেয়ার দিন ত্বকী মঞ্চের আহ্বায়ক ও নারায়ণগঞ্জ সাংস্কৃতিক জোটের উপদেষ্টা রাফিউর রাব্বীকে সাথে নিয়ে ডা: সেলিনা হায়াৎ আইভী মাঠে নামাতে বেঁকে বসেছেন ওসমান ঘরানার নেতাকর্মীরা। কারণ হিসেবে তারা বলছেন, এই রাফিউর রাব্বী আলোচিত সংসদ সদস্য শামীম ওসমানের বিরুদ্ধে দীর্ঘ দিন ধরে আন্দোলন করে আসছেন।
তবে উভয় প্রার্থী বলছেন, আনুষ্ঠানিক প্রচারণা শুরুর পরেই সবাই এক হয়ে মাঠে নামবে। আপাতত তারা আনুষঙ্গিক কাজ সারছেন।
শুক্রবার দুপুরে শহরের অন্যতম বৃহৎ মসজিদ ডিআইটি কেন্দ্রীয় রেলওয়ে জামে মসজিদে জুমার নামাজ আদায় করেন সাখাওয়াত হোসেন খান। নামাজ আদায় শেষে তিনি শহরের ডিআইটি বাণিজ্যিক এলাকায় জেলা বিএনপির কার্যালয়ে আসেন। সেখানে সাখাওয়াত জানান, দলীয় কার্যালয় থেকেই তিনি নিয়মিত নির্বাচনী কার্যক্রম পরিচালনা করবেন। সে কারণেই দলীয় কার্যালয়ে সংস্কারকাজ করা হচ্ছে।
সাখাওয়াত দাবি করেন, নারায়ণগঞ্জ বিএনপি এখন আগের চেয়ে অনেক বেশি শক্তিশালী। সব নেতা এক প্লাটফরমে এসেছেন। আশা করছি কারো মধ্যে কোনো বিভেদ নেই। সবাই বিএনপি ও দলের প্রতীক ধানের শীষ নিয়ে একতাবদ্ধ।
প্রচারণা শুরু হলে সবাই গণতন্ত্রের প্রতীক ধানের শীষের পক্ষেই আটঘাট বেঁধে নামবে প্রত্যাশা এ আইনজীবী নেতার।
এ দিকে, শুক্রবার সেলিনা হায়াৎ আইভী মূলত পারিবারিক কাজেই ব্যস্ত ছিলেন। শনিবার থেকে তিনি আবারো সোচ্চার হবেন বলে জানা গেছে। তিনি বলেন, মাত্র মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছি। নির্বাচনের প্রস্তুতি চলছে।
একজন মেয়রের সাথে ২৭টি সাধারণ ও ৯টি সংরক্ষিত ওয়ার্ডে কাউন্সিলর পদে ভোট হবে ২২ ডিসেম্বর। মোট ভোটার চার লাখ ৭৯ হাজার ৩৯২ জন। এর মধ্যে পুরুষ দুই লাখ ৪১ হাজার ৫১৪ এবং নারী দুই লাখ ৩৭ হাজার ৮৭৮। ভোটার বেড়েছে প্রায় পৌনে এক লাখ। সম্ভাব্য ভোটকেন্দ্র ১৭৪টি ও ভোটক ১৩০৪টি। তবে ভোটকেন্দ্রের সংখ্যা বাড়তে পারে বলে জানা গেছে। ১৬৩ প্রিজাইডিং কর্মকর্তা, ১২১৭ সহকারী প্রিজাইডিং কর্মকর্তা ও ২৪৩৪ জন পোলিং কর্মকর্তা ভোট নেবেন।
চলতি বছরের ২৬ ডিসেম্বর নারায়ণগঞ্জ সিটির মেয়াদ শেষ হবে। সিটি করপোরেশন নির্বাচনের আইন অনুযায়ী, মেয়াদ শেষ হওয়ার আগের ১৮০ দিনের মধ্যে নির্বাচন করতে হবে।
নারায়ণগঞ্জে সিটি করপোরেশন হিসেবে যাত্রা শুরুর পর এটি দ্বিতীয় ভোট। তবে দলীয় প্রতীকে ভোট হবে এবারই প্রথম। নারায়ণগঞ্জে গত সিটি করপোরেশন নির্বাচনে আওয়ামী লীগের দুই নেতা সেলিনা হায়াৎ আইভী এবং এ কে এম শামীম ওসমান প্রার্থী হয়েছিলেন। ২০১১ সালে নির্দলীয় ওই নির্বাচনে শামীম ওসমানকে এক লাখের বেশি ভোটে হারিয়ে নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের প্রথম মেয়র হন সাবেক চেয়ারম্যান আইভী। সেই নির্বাচনে আওয়ামী লীগ সমর্থিত প্রার্থী শামীম ওসমান পেয়েছিলেন ৭৮ হাজার ৭০৫ ভোট। আর আইভী পেয়েছিলেন এক লাখ ৮০ হাজার ৪৮ ভোট। ২০১১ সালের ৫ মে নারায়ণগঞ্জ পৌরসভা, সিদ্ধিরগঞ্জ পৌরসভা ও বন্দরের কদমরসুল পৌরসভা বিলুপ্ত করে নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন গঠন করা হয়। পরে ওই বছরের ৩০ অক্টোবর সিটি করপোরেশনের প্রথম নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়।

Comments

comments

সম্পাদক : মোহাম্মদ আবদুল বাছির
প্রকাশক: মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম
ফোন : ‎০১৭১৩৪০৯০৯০
৩৪৫/১, দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০
X
 
নিয়মিত খবর পড়তে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন
X