বুধবার, ২২শে নভেম্বর, ২০১৭ ইং, ৮ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, রাত ৩:২৩
শিরোনাম
  • ঘৃণাকে বিজয়ী হতে দেয়া যাবে না, ট্রাম্পকে ইঙ্গিত করে জর্জ ক্লুনি
  • আমার একটাই চিন্তা দেশের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করা: প্রধানমন্ত্রী
  • ‘কেন্দ্রীয় সরকারের আগ্রাসী নীতির কারণে কাশ্মীরকে হারাতে হবে’
  • সাড়ে চারমাস পর মুখোমুখি, খাদিজাকে উদ্দেশ্য করে যা বলল বদরুল
  • খালেদার ‘সাজা’ বিরোধী নেতাকর্মীদের মনোবল ভাঙ্গার কৌশল!
  • বিএনপির কর্মসূচি ‘যথাসময়ে’ জানানো হবে: রিজভী
  • দলের জন্য বোলিং করতেও রাজি মুশফিক
  • শিশু জিহাদের মৃত্যু: চার জনের ১০ বছর করে কারাদণ্ড
  • অবশেষে বাড়ি অবরুদ্ধ করে রাখা সেই দেয়াল ভেঙ্গে ফেলা হচ্ছে
  • সাক্ষ্য দিলেন খাদিজা, চাইলেন বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তি
  • বদরুলের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিতে আদালতে খাদিজা
  • আজ বগুড়ায় যেসব প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
  • রোহিঙ্গা স্থানান্তরের সরকারি পরিকল্পনার সঙ্গে দ্বিমত মানবাধিকার কমিশনের
  • মহেশখালীতে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে পুলিশের ‘বন্দুকযুদ্ধ’
  • হোয়াইট হাউসে কাজ করার দীর্ঘ অভিজ্ঞতার কথা জানালেন এই বাংলাদেশি সাংবাদিক
Wednesday, October 18, 2017 11:59 pm
A- A A+ Print

আগামী নির্বাচনের সময় অস্থিতিশীলতার শঙ্কা যুক্তরাষ্ট্রের

1508341069

ঢাকা: অতীতের ধারাবাহিকতায় বাংলাদেশের আগামী নির্বাচনের সময় অস্থিতিশীলতার শঙ্কা রয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের। বুধবার বিজিএমএইএ নেতাদের সঙ্গে আলোচনায় ঢাকায় দেশটির রাষ্ট্রদূত মার্শা বার্নিকাট এই শঙ্কার কথা জানিয়ে বাংলাদেশের তৈরি পোশাক রপ্তানিতে তার সম্ভাব্য প্রভাবের বিষয়ে সতর্কবার্তা দেন। কারওয়ান বাজারে বিজিএমইএ ভবনে গিয়ে বাংলাদেশের তৈরি পোশাক শিল্প মালিকদের এই সংগঠনের সভাপতি সিদ্দিকুর রহমানের সঙ্গে দেখা করেন যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূত। তাদের বৈঠক নিয়ে বিজিএমইএর এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে রাষ্ট্রদূতকে উদ্ধৃত করে বলা হয়, “এদেশে বিভিন্ন সময়ে জাতীয় নির্বাচনকে কেন্দ্র করে অস্থিতিশীল পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে। সঙ্গতভাবেই ক্রেতারা আগামী জাতীয় নির্বাচনকে কেন্দ্র করে অস্থিতিশীল পরিস্থিতি সৃষ্টি হতে পারে বলে আশঙ্কা করতে পারেন এবং সে অনুযায়ী ওই সময়ের অর্ডারগুলো দিতে পারেন।” রাষ্ট্রদূতের মুখে সেই সহিংসতার পুনরাবৃত্তির শঙ্কার বিষয়টি শুনে বিজিএমইএ সভাপতি সিদ্দিকুর তাকে আশ্বস্ত করে বলেছেন, বাংলাদেশের মানুষ সন্ত্রাস পছন্দ করে না। তিনি আশা করছেন যে আগামী নির্বাচনকে কেন্দ্র করে দেশে কোনো ধরনের অপ্রীতিকর পরিস্থিতি সৃষ্টি হবে না। রাজনৈতিক অস্থিরতার কারণে তখন দেশের রপ্তানি আয়ের প্রধান খাত তৈরি পোশাক শিল্প ব্যাপকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছিল বলে বিজিএমইএ নেতারাও উদ্বেগ জানিয়ে আসছিলেন। সিদ্দিকুর যুক্তরাষ্ট্রের বাজারে বাংলোদেশের পোশাক রপ্তানি ধারাবাহিকভাবে কমে যাওয়ার বিষয়টি রাষ্ট্রদূত বার্নিকাটের কাছে তুলে ধরেন। এই অবস্থার উত্তরণে চট্টগ্রাম বন্দরের সক্ষমতা বাড়ানো ও আধুনিকায়নের উপর জোর দেন বার্নিকাট। সেই সঙ্গে তিনি বাংলাদেশের রপ্তানিকারকদের বলেন, “ক্রেতারা চুলচেরা বিশ্লেষণ করেন। তাদের সোর্সিং কৌশলগতভাবে ঠিক করেন। তাই লিড টাইম বাংলোদেশের সক্ষমতার জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ।”

Comments

Comments!

 আগামী নির্বাচনের সময় অস্থিতিশীলতার শঙ্কা যুক্তরাষ্ট্রেরAmarbangladeshonlineAmarbangladeshonline | Amarbangladeshonline

আগামী নির্বাচনের সময় অস্থিতিশীলতার শঙ্কা যুক্তরাষ্ট্রের

Wednesday, October 18, 2017 11:59 pm
1508341069

ঢাকা: অতীতের ধারাবাহিকতায় বাংলাদেশের আগামী নির্বাচনের সময় অস্থিতিশীলতার শঙ্কা রয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের।

বুধবার বিজিএমএইএ নেতাদের সঙ্গে আলোচনায় ঢাকায় দেশটির রাষ্ট্রদূত মার্শা বার্নিকাট এই শঙ্কার কথা জানিয়ে বাংলাদেশের তৈরি পোশাক রপ্তানিতে তার সম্ভাব্য প্রভাবের বিষয়ে সতর্কবার্তা দেন।

কারওয়ান বাজারে বিজিএমইএ ভবনে গিয়ে বাংলাদেশের তৈরি পোশাক শিল্প মালিকদের এই সংগঠনের সভাপতি সিদ্দিকুর রহমানের সঙ্গে দেখা করেন যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূত।

তাদের বৈঠক নিয়ে বিজিএমইএর এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে রাষ্ট্রদূতকে উদ্ধৃত করে বলা হয়, “এদেশে বিভিন্ন সময়ে জাতীয় নির্বাচনকে কেন্দ্র করে অস্থিতিশীল পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে। সঙ্গতভাবেই ক্রেতারা আগামী জাতীয় নির্বাচনকে কেন্দ্র করে অস্থিতিশীল পরিস্থিতি সৃষ্টি হতে পারে বলে আশঙ্কা করতে পারেন এবং সে অনুযায়ী ওই সময়ের অর্ডারগুলো দিতে পারেন।”
রাষ্ট্রদূতের মুখে সেই সহিংসতার পুনরাবৃত্তির শঙ্কার বিষয়টি শুনে বিজিএমইএ সভাপতি সিদ্দিকুর তাকে আশ্বস্ত করে বলেছেন, বাংলাদেশের মানুষ সন্ত্রাস পছন্দ করে না। তিনি আশা করছেন যে আগামী নির্বাচনকে কেন্দ্র করে দেশে কোনো ধরনের অপ্রীতিকর পরিস্থিতি সৃষ্টি হবে না।

রাজনৈতিক অস্থিরতার কারণে তখন দেশের রপ্তানি আয়ের প্রধান খাত তৈরি পোশাক শিল্প ব্যাপকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছিল বলে বিজিএমইএ নেতারাও উদ্বেগ জানিয়ে আসছিলেন।

সিদ্দিকুর যুক্তরাষ্ট্রের বাজারে বাংলোদেশের পোশাক রপ্তানি ধারাবাহিকভাবে কমে যাওয়ার বিষয়টি রাষ্ট্রদূত বার্নিকাটের কাছে তুলে ধরেন।

এই অবস্থার উত্তরণে চট্টগ্রাম বন্দরের সক্ষমতা বাড়ানো ও আধুনিকায়নের উপর জোর দেন বার্নিকাট।

সেই সঙ্গে তিনি বাংলাদেশের রপ্তানিকারকদের বলেন, “ক্রেতারা চুলচেরা বিশ্লেষণ করেন। তাদের সোর্সিং কৌশলগতভাবে ঠিক করেন। তাই লিড টাইম বাংলোদেশের সক্ষমতার জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ।”

Comments

comments

সম্পাদক : মোহাম্মদ আবদুল বাছির
প্রকাশক: মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম
ফোন : ‎০১৭১৩৪০৯০৯০
৩৪৫/১, দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০
X
 
নিয়মিত খবর পড়তে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন
X