রবিবার, ২৫শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ইং, ১৩ই ফাল্গুন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, বিকাল ৫:৪২
শিরোনাম
  • ঘৃণাকে বিজয়ী হতে দেয়া যাবে না, ট্রাম্পকে ইঙ্গিত করে জর্জ ক্লুনি
  • আমার একটাই চিন্তা দেশের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করা: প্রধানমন্ত্রী
  • ‘কেন্দ্রীয় সরকারের আগ্রাসী নীতির কারণে কাশ্মীরকে হারাতে হবে’
  • সাড়ে চারমাস পর মুখোমুখি, খাদিজাকে উদ্দেশ্য করে যা বলল বদরুল
  • খালেদার ‘সাজা’ বিরোধী নেতাকর্মীদের মনোবল ভাঙ্গার কৌশল!
  • বিএনপির কর্মসূচি ‘যথাসময়ে’ জানানো হবে: রিজভী
  • দলের জন্য বোলিং করতেও রাজি মুশফিক
  • শিশু জিহাদের মৃত্যু: চার জনের ১০ বছর করে কারাদণ্ড
  • অবশেষে বাড়ি অবরুদ্ধ করে রাখা সেই দেয়াল ভেঙ্গে ফেলা হচ্ছে
  • সাক্ষ্য দিলেন খাদিজা, চাইলেন বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তি
  • বদরুলের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিতে আদালতে খাদিজা
  • আজ বগুড়ায় যেসব প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
  • রোহিঙ্গা স্থানান্তরের সরকারি পরিকল্পনার সঙ্গে দ্বিমত মানবাধিকার কমিশনের
  • মহেশখালীতে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে পুলিশের ‘বন্দুকযুদ্ধ’
  • হোয়াইট হাউসে কাজ করার দীর্ঘ অভিজ্ঞতার কথা জানালেন এই বাংলাদেশি সাংবাদিক
Friday, September 22, 2017 5:40 pm
A- A A+ Print

আন্তর্জাতিক গণ আদালতে দোষী সাব্যস্ত মিয়ানমার

12

রাখাইনে রোহিঙ্গাদের ওপর গণহত্যার অপরাধে আন্তর্জাতিক গণ আদালতে দোষী সাব্যস্ত হয়েছে মিয়ানমার সরকার। শুক্রবার ট্রাইব্যুনালের সাত সদস্যের বিচারক প্যানেলে এ রায় দেন। মালয়েশিয়ার রাজধানী কুয়ালালামপুরের মালয় বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন অনুষদে অনুষ্ঠিত এ শুনানিতে আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন বিশেষজ্ঞদের একটি প্যানেল অংশ নেয়। মিয়ানমারের সেনাবাহিনীর হাতে নির্যাতিত রোহিঙ্গা, কাচিন ও অন্যান্য সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের ২০০ ব্যক্তি আদালতে সাক্ষ্য দেন। এসব সাক্ষ্য ও প্রামাণ্যতথ্যের ওপর ভিত্তি করে পাঁচদিনের শুনানি শেষে শুক্রবার সকালে এ রায় দেওয়া হয়। রায় পড়ে শোনান আদালতের প্রধান বিচারক ও আর্জেন্টিনায় সেন্টার ফর জেনোসাইড স্টাডিজের প্রতিষ্ঠাতা ড্যানিয়েল ফিয়ারস্টেইন। রায়ে তিনি বলেছেন, মিয়ানমার সরকার গণহত্যা, যুদ্ধাপরাধ ও মানবতার বিরুদ্ধে অপরাধে দোষী সাব্যস্ত হয়েছে। তিনি বলেন, ‘আদালত ঘোষণা দিচ্ছে কাচিন ও অন্যান্য মুসলিম গ্রুপগুলোর বিরুদ্ধে গণহত্যা চালানোর অপরাধে মিয়ানমার দোষী।’ ট্রাইব্যুনাল একইসঙ্গে ১৭টি সুপারিশ করা হয়েছে। বিচারপতি জিল এইচ বোহরিংগার এসব সুপারিশ পড়ে শোনান। এগুলোর মধ্যে রয়েছে, মিয়ানমার সরকারকে সেদেশের সংখ্যালঘু মুসলমানদের ওপর সহিংসতা বন্ধ করতে হবে, রোহিঙ্গা ও কাচিন সম্প্রদায়ের লোকদের ওপর যে নির্যাতন চালানো হয়েছে তা খতিয়ে দেখতে জাতিসংঘের তদন্ত কমিশনকে সেখানে যাওয়ার ভিসা ও স্বাধীনভাবে চলাচলের সুযোগ দিতে হবে, সংখ্যালঘুদের নাগরিকত্ব প্রদানের ব্যাপারে মিয়ানমার সরকার যে পক্ষপাতমূলক আইন করেছে সংবিধান সংশোধন করে তার পরিবর্তন করতে হবে। রায়ে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের প্রতি রোহিঙ্গাদের আশ্রয় দিচ্ছে বাংলাদেশ ও মালয়েশিয়ার মতো দেশগুলোকে অর্থ সহায়তার আহ্বান জানানো হয়। মিয়ানমারের সরকারের ওপর চাপ সৃষ্টির জন্য গণআদালতের এ রায় জেনেভায় জাতিসংঘ মানবাধিকার কাউন্সিলসহ বিভিন্ন আন্তর্জাতিক সংগঠন ও গোষ্ঠীর কাছে পাঠানো হবে বলেও জানিয়েছেন বিচারক ড্যানিয়েল ফিয়ারস্টেইন।

Comments

Comments!

 আন্তর্জাতিক গণ আদালতে দোষী সাব্যস্ত মিয়ানমারAmarbangladeshonlineAmarbangladeshonline | Amarbangladeshonline

আন্তর্জাতিক গণ আদালতে দোষী সাব্যস্ত মিয়ানমার

Friday, September 22, 2017 5:40 pm
12

রাখাইনে রোহিঙ্গাদের ওপর গণহত্যার অপরাধে আন্তর্জাতিক গণ আদালতে দোষী সাব্যস্ত হয়েছে মিয়ানমার সরকার। শুক্রবার ট্রাইব্যুনালের সাত সদস্যের বিচারক প্যানেলে এ রায় দেন।

মালয়েশিয়ার রাজধানী কুয়ালালামপুরের মালয় বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন অনুষদে অনুষ্ঠিত এ শুনানিতে আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন বিশেষজ্ঞদের একটি প্যানেল অংশ নেয়। মিয়ানমারের সেনাবাহিনীর হাতে নির্যাতিত রোহিঙ্গা, কাচিন ও অন্যান্য সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের ২০০ ব্যক্তি আদালতে সাক্ষ্য দেন। এসব সাক্ষ্য ও প্রামাণ্যতথ্যের ওপর ভিত্তি করে পাঁচদিনের শুনানি শেষে শুক্রবার সকালে এ রায় দেওয়া হয়। রায় পড়ে শোনান আদালতের প্রধান বিচারক ও আর্জেন্টিনায় সেন্টার ফর জেনোসাইড স্টাডিজের প্রতিষ্ঠাতা ড্যানিয়েল ফিয়ারস্টেইন।

রায়ে তিনি বলেছেন, মিয়ানমার সরকার গণহত্যা, যুদ্ধাপরাধ ও মানবতার বিরুদ্ধে অপরাধে দোষী সাব্যস্ত হয়েছে।

তিনি বলেন, ‘আদালত ঘোষণা দিচ্ছে কাচিন ও অন্যান্য মুসলিম গ্রুপগুলোর বিরুদ্ধে গণহত্যা চালানোর অপরাধে মিয়ানমার দোষী।’

ট্রাইব্যুনাল একইসঙ্গে ১৭টি সুপারিশ করা হয়েছে। বিচারপতি জিল এইচ বোহরিংগার এসব সুপারিশ পড়ে শোনান। এগুলোর মধ্যে রয়েছে, মিয়ানমার সরকারকে সেদেশের সংখ্যালঘু মুসলমানদের ওপর সহিংসতা বন্ধ করতে হবে, রোহিঙ্গা ও কাচিন সম্প্রদায়ের লোকদের ওপর যে নির্যাতন চালানো হয়েছে তা খতিয়ে দেখতে জাতিসংঘের তদন্ত কমিশনকে সেখানে যাওয়ার ভিসা ও স্বাধীনভাবে চলাচলের সুযোগ দিতে হবে, সংখ্যালঘুদের নাগরিকত্ব প্রদানের ব্যাপারে মিয়ানমার সরকার যে পক্ষপাতমূলক আইন করেছে সংবিধান সংশোধন করে তার পরিবর্তন করতে হবে।

রায়ে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের প্রতি রোহিঙ্গাদের আশ্রয় দিচ্ছে বাংলাদেশ ও মালয়েশিয়ার মতো দেশগুলোকে অর্থ সহায়তার আহ্বান জানানো হয়।

মিয়ানমারের সরকারের ওপর চাপ সৃষ্টির জন্য গণআদালতের এ রায় জেনেভায় জাতিসংঘ মানবাধিকার কাউন্সিলসহ বিভিন্ন আন্তর্জাতিক সংগঠন ও গোষ্ঠীর কাছে পাঠানো হবে বলেও জানিয়েছেন বিচারক ড্যানিয়েল ফিয়ারস্টেইন।

Comments

comments

সম্পাদক : মোহাম্মদ আবদুল বাছির
প্রকাশক: মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম
ফোন : ‎০১৭১৩৪০৯০৯০
৩৪৫/১, দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০
X
 
নিয়মিত খবর পড়তে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন
X