রবিবার, ১৮ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ইং, ৬ই ফাল্গুন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, বিকাল ৪:৫৬
শিরোনাম
  • ঘৃণাকে বিজয়ী হতে দেয়া যাবে না, ট্রাম্পকে ইঙ্গিত করে জর্জ ক্লুনি
  • আমার একটাই চিন্তা দেশের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করা: প্রধানমন্ত্রী
  • ‘কেন্দ্রীয় সরকারের আগ্রাসী নীতির কারণে কাশ্মীরকে হারাতে হবে’
  • সাড়ে চারমাস পর মুখোমুখি, খাদিজাকে উদ্দেশ্য করে যা বলল বদরুল
  • খালেদার ‘সাজা’ বিরোধী নেতাকর্মীদের মনোবল ভাঙ্গার কৌশল!
  • বিএনপির কর্মসূচি ‘যথাসময়ে’ জানানো হবে: রিজভী
  • দলের জন্য বোলিং করতেও রাজি মুশফিক
  • শিশু জিহাদের মৃত্যু: চার জনের ১০ বছর করে কারাদণ্ড
  • অবশেষে বাড়ি অবরুদ্ধ করে রাখা সেই দেয়াল ভেঙ্গে ফেলা হচ্ছে
  • সাক্ষ্য দিলেন খাদিজা, চাইলেন বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তি
  • বদরুলের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিতে আদালতে খাদিজা
  • আজ বগুড়ায় যেসব প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
  • রোহিঙ্গা স্থানান্তরের সরকারি পরিকল্পনার সঙ্গে দ্বিমত মানবাধিকার কমিশনের
  • মহেশখালীতে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে পুলিশের ‘বন্দুকযুদ্ধ’
  • হোয়াইট হাউসে কাজ করার দীর্ঘ অভিজ্ঞতার কথা জানালেন এই বাংলাদেশি সাংবাদিক
Thursday, December 29, 2016 1:30 pm
A- A A+ Print

আফসোস সেই অদ্ভুতুরে রানআউট নিয়ে!

photo-1482995076

নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে দ্বিতীয় ওয়ানডেতে ভালোই ব্যাটিং করছিলেন ইমরুল কায়েস ও সাব্বির রহমান। দ্বিতীয় উইকেটে তাঁরা গড়েছিলেন ৭৫ রানের জুটি। দুজনের ব্যাটিং দেখে প্রথমবারের মতো নিউজিল্যান্ডের মাটিতে নিউজিল্যান্ডকে হারানোর স্বপ্ন দেখতে শুরু করেছিলেন বাংলাদেশের ক্রিকেটপ্রেমীরা। কিন্তু এই দুজনের হাস্যকর এক ভুলেই ধূলিসাৎ হয়ে গেছে মাশরাফিদের জয়ের আশা। ৬৭ রানে হারের পর তাই বারবার আক্ষেপ হয়ে ফিরে আসছে সাব্বিরের সেই অদ্ভুতুরে রানআউটের স্মৃতি। ২৩তম ওভারের শেষ বলে শর্ট কাভারে বল ঠেলে দিয়ে রান নিতে চেয়েছিলেন ইমরুল। শুরুতে সেই ডাকে সাড়া দিয়ে কিছুটা এগিয়েও গিয়েছিলেন বোলিং এন্ডে দাঁড়ানো সাব্বির। কিন্তু পরমুহূর্তেই আবার সিদ্ধান্ত বদলে ঘুরে যান ডানহাতি এই ব্যাটসম্যান। ইমরুল ততক্ষণে চলে এসেছিলেন পিচের মাঝপর্যন্ত। রানআউট থেকে বাঁচতে দুজনেই তখন যেন শুরু করেছিলেন দৌড় প্রতিযোগিতা। দুজনেই ছুটছিলেন উইকেটের একই প্রান্তের নিরাপদ স্থানে পৌঁছানোর জন্য। বোলিং এন্ডে দাঁড়ানো সাব্বিরই সেখানে আগে পৌঁছেছেন, এমনটাই মনে হয়েছিল শুরুতে। ইমরুল তো হাঁটাই দিয়েছিলেন সাজঘরের দিকে। কিন্তু টেলিভিশন রিপ্লেতে দেখা যায়, সাব্বির নয়, ইমরুলই আগে পৌঁছেছেন নিরাপদ অবস্থানে। ফলে আবার তাঁকে উইকেটে ফিরিয়ে আনেন আম্পায়াররা। অবিশ্বাসভরা দৃষ্টি নিয়ে প্যাভিলিয়নের দিকে হাঁটতে শুরু করেন সাব্বির। দুর্ভাগ্যজনক ও হাস্যকর এ আউটের সময় সাব্বির ব্যাটিং করছিলেন ৩৮ রান নিয়ে। এই রানআউটটিই শেষ পর্যন্ত পাল্টে দিয়েছে ম্যাচের দৃশ্যপট। ২৩তম ওভারে এই আউটের সময় বাংলাদেশের স্কোরবোর্ডে জমা হয়েছিল ১০৫ রান। পরবর্তী ৮ ওভারে মাত্র ২৯ রান সংগ্রহ করতেই বাংলাদেশ হারায় আরো তিনটি উইকেট। ৩২তম ওভারে ইমরুলও ফিরে যান ৫৯ রান করে। বাংলাদেশের হারটাও নিশ্চিত হয়ে যায় তখনই। ক্রিকেটের জনপ্রিয় ওয়েবসাইট ক্রিকইনফো সাব্বিরের এই রানআউটটিকে বিবেচনা করেছে আত্মহত্যা হিসেবে। সত্যিই তো! আত্মহত্যা ছাড়া আর কী-ই বা বলা যায় এটাকে।

Comments

Comments!

 আফসোস সেই অদ্ভুতুরে রানআউট নিয়ে!AmarbangladeshonlineAmarbangladeshonline | Amarbangladeshonline

আফসোস সেই অদ্ভুতুরে রানআউট নিয়ে!

Thursday, December 29, 2016 1:30 pm
photo-1482995076

নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে দ্বিতীয় ওয়ানডেতে ভালোই ব্যাটিং করছিলেন ইমরুল কায়েস ও সাব্বির রহমান। দ্বিতীয় উইকেটে তাঁরা গড়েছিলেন ৭৫ রানের জুটি। দুজনের ব্যাটিং দেখে প্রথমবারের মতো নিউজিল্যান্ডের মাটিতে নিউজিল্যান্ডকে হারানোর স্বপ্ন দেখতে শুরু করেছিলেন বাংলাদেশের ক্রিকেটপ্রেমীরা। কিন্তু এই দুজনের হাস্যকর এক ভুলেই ধূলিসাৎ হয়ে গেছে মাশরাফিদের জয়ের আশা। ৬৭ রানে হারের পর তাই বারবার আক্ষেপ হয়ে ফিরে আসছে সাব্বিরের সেই অদ্ভুতুরে রানআউটের স্মৃতি।

২৩তম ওভারের শেষ বলে শর্ট কাভারে বল ঠেলে দিয়ে রান নিতে চেয়েছিলেন ইমরুল। শুরুতে সেই ডাকে সাড়া দিয়ে কিছুটা এগিয়েও গিয়েছিলেন বোলিং এন্ডে দাঁড়ানো সাব্বির। কিন্তু পরমুহূর্তেই আবার সিদ্ধান্ত বদলে ঘুরে যান ডানহাতি এই ব্যাটসম্যান। ইমরুল ততক্ষণে চলে এসেছিলেন পিচের মাঝপর্যন্ত। রানআউট থেকে বাঁচতে দুজনেই তখন যেন শুরু করেছিলেন দৌড় প্রতিযোগিতা। দুজনেই ছুটছিলেন উইকেটের একই প্রান্তের নিরাপদ স্থানে পৌঁছানোর জন্য।

বোলিং এন্ডে দাঁড়ানো সাব্বিরই সেখানে আগে পৌঁছেছেন, এমনটাই মনে হয়েছিল শুরুতে। ইমরুল তো হাঁটাই দিয়েছিলেন সাজঘরের দিকে। কিন্তু টেলিভিশন রিপ্লেতে দেখা যায়, সাব্বির নয়, ইমরুলই আগে পৌঁছেছেন নিরাপদ অবস্থানে। ফলে আবার তাঁকে উইকেটে ফিরিয়ে আনেন আম্পায়াররা। অবিশ্বাসভরা দৃষ্টি নিয়ে প্যাভিলিয়নের দিকে হাঁটতে শুরু করেন সাব্বির।

দুর্ভাগ্যজনক ও হাস্যকর এ আউটের সময় সাব্বির ব্যাটিং করছিলেন ৩৮ রান নিয়ে। এই রানআউটটিই শেষ পর্যন্ত পাল্টে দিয়েছে ম্যাচের দৃশ্যপট। ২৩তম ওভারে এই আউটের সময় বাংলাদেশের স্কোরবোর্ডে জমা হয়েছিল ১০৫ রান। পরবর্তী ৮ ওভারে মাত্র ২৯ রান সংগ্রহ করতেই বাংলাদেশ হারায় আরো তিনটি উইকেট। ৩২তম ওভারে ইমরুলও ফিরে যান ৫৯ রান করে। বাংলাদেশের হারটাও নিশ্চিত হয়ে যায় তখনই।

ক্রিকেটের জনপ্রিয় ওয়েবসাইট ক্রিকইনফো সাব্বিরের এই রানআউটটিকে বিবেচনা করেছে আত্মহত্যা হিসেবে। সত্যিই তো! আত্মহত্যা ছাড়া আর কী-ই বা বলা যায় এটাকে।

Comments

comments

সম্পাদক : মোহাম্মদ আবদুল বাছির
প্রকাশক: মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম
ফোন : ‎০১৭১৩৪০৯০৯০
৩৪৫/১, দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০
X
 
নিয়মিত খবর পড়তে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন
X