রবিবার, ২৫শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ইং, ১৩ই ফাল্গুন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, সকাল ৬:১২
শিরোনাম
  • ঘৃণাকে বিজয়ী হতে দেয়া যাবে না, ট্রাম্পকে ইঙ্গিত করে জর্জ ক্লুনি
  • আমার একটাই চিন্তা দেশের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করা: প্রধানমন্ত্রী
  • ‘কেন্দ্রীয় সরকারের আগ্রাসী নীতির কারণে কাশ্মীরকে হারাতে হবে’
  • সাড়ে চারমাস পর মুখোমুখি, খাদিজাকে উদ্দেশ্য করে যা বলল বদরুল
  • খালেদার ‘সাজা’ বিরোধী নেতাকর্মীদের মনোবল ভাঙ্গার কৌশল!
  • বিএনপির কর্মসূচি ‘যথাসময়ে’ জানানো হবে: রিজভী
  • দলের জন্য বোলিং করতেও রাজি মুশফিক
  • শিশু জিহাদের মৃত্যু: চার জনের ১০ বছর করে কারাদণ্ড
  • অবশেষে বাড়ি অবরুদ্ধ করে রাখা সেই দেয়াল ভেঙ্গে ফেলা হচ্ছে
  • সাক্ষ্য দিলেন খাদিজা, চাইলেন বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তি
  • বদরুলের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিতে আদালতে খাদিজা
  • আজ বগুড়ায় যেসব প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
  • রোহিঙ্গা স্থানান্তরের সরকারি পরিকল্পনার সঙ্গে দ্বিমত মানবাধিকার কমিশনের
  • মহেশখালীতে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে পুলিশের ‘বন্দুকযুদ্ধ’
  • হোয়াইট হাউসে কাজ করার দীর্ঘ অভিজ্ঞতার কথা জানালেন এই বাংলাদেশি সাংবাদিক
Wednesday, September 14, 2016 7:32 am
A- A A+ Print

আফ্রিদি সুযোগটা কি নেবেন?

1a7639ef123990398f861bd897958e07-18

নিজের প্রথম ব্যাটিং ইনিংসেই বিশ্ব রেকর্ড গুঁড়িয়ে দিয়ে শুরু করেছিলেন যাত্রা। মাত্র ৩৭ বলে করেছিলেন ওয়ানডে সেঞ্চুরি। প্রায় ২০ বছর ধরে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট খেলা শহীদ আফ্রিদিকে মাঠ থেকেই বিদায় নেওয়ার সুযোগ করে দিতে চায় পিসিবি। ২৩, ২৪ ও ২৭ সেপ্টেম্বর আরব আমিরাতে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে তিনটি টি-টোয়েন্টি খেলবে পাকিস্তান। এই সিরিজে সুযোগ পেতে পারেন আফ্রিদি, যদি আনুষ্ঠানিকভাবে বিদায়ের ঘোষণা দেন। ৩৬ বছর বয়সী আফ্রিদিকে ছাড়াই ইংল্যান্ডের বিপক্ষে সিরিজ খেলেছে পাকিস্তান। বলা হচ্ছে জাতীয় দলের দরজা চিরতরে বন্ধ হয়ে​ গেছে তাঁর জন্য। যদিও আফ্রিদি কদিন আগে সাংবাদিকদের বলেছেন, এখনই অবসর নেওয়ার কোনো ইচ্ছাই তাঁর নেই। পিসিবি আফ্রিদিকে আরেকটি সুযোগ দিতে চায়। এভাবে যেন তাঁর শেষটা না হয়। এ কারণে এই সিরিজে দলে নেওয়া হতে পারে তাঁকে। এটাই আফ্রিদির জন্য শেষ সুযোগ। এরপর আগামী বছর এপ্রিলের আগে আর টি-টোয়েন্টি খেলবে না পাকিস্তান। পিসিবি আ​ফ্রিদিকে এর​ই মধ্যে পরিষ্কার বার্তা দিয়েছে, ভবিষ্যৎ​ মাথায় রেখে যে দল পাকিস্তান গড়ছে, তাতে আফ্রিদির জায়গা নেই। এ কারণে আর কোনো সুযোগ তিনি পাবেন না। তাই হয়তো মাঠে খেলে বিদায় নিতে হবে। না হলে এভাবে আড়ালেই শেষ হয়ে যাবে ক্যারিয়ার, পাকিস্তানের অনেক তারকার ক্ষেত্রেই যেটি ঘটেছে। আফ্রিদির জন্য অবশেষে পিসিবি বিশেষ বিদায় সংবর্ধনার ব্যবস্থাও করতে চায় এই সিরিজে। পিসিবি মনে করে, জাতীয় দল থেকে অবসর নিলেও ঘরোয়া টি-টোয়েন্টি লিগগুলোতে খেলতে বাধা থাকবে না এই অলরাউন্ডারের। সে ক্ষেত্রে আফ্রিদির আপত্তি থাকার কথা নয়। সেটিই বোঝানোর চেষ্টা করা হচ্ছে তাঁকে। সমস্যা হলো আফ্রিদি নিজে তাঁর অবসরের ব্যাপারটি হাস্যকর বিষয়ে ​পরিণত করেছেন। এখনো বিষয়টি নিয়ে তিনি নিজে কতটা গুরুতরভাবে ভাবছেন কে জানে। পিসিবি সুযোগ দিয়েছে, আফ্রিদি নেবেন কি না, সেটাই প্রশ্ন। ২০১০ সালে টেস্ট ও ২০১৫ বিশ্বকাপের পর ওয়ানডেকে বিদায় বলে দেন আফ্রিদি। গত টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের পর থেকে ২০ ওভারের ক্রিকেটেরও জায়গা মিলছে না। বলা হচ্ছে আফ্রিদি-যুগ শেষ হয়ে গেছে পাকিস্তানে। সূত্র: জং ও দ্য হিন্দু।

Comments

Comments!

 আফ্রিদি সুযোগটা কি নেবেন?AmarbangladeshonlineAmarbangladeshonline | Amarbangladeshonline

আফ্রিদি সুযোগটা কি নেবেন?

Wednesday, September 14, 2016 7:32 am
1a7639ef123990398f861bd897958e07-18

নিজের প্রথম ব্যাটিং ইনিংসেই বিশ্ব রেকর্ড গুঁড়িয়ে দিয়ে শুরু করেছিলেন যাত্রা। মাত্র ৩৭ বলে করেছিলেন ওয়ানডে সেঞ্চুরি। প্রায় ২০ বছর ধরে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট খেলা শহীদ আফ্রিদিকে মাঠ থেকেই বিদায় নেওয়ার সুযোগ করে দিতে চায় পিসিবি। ২৩, ২৪ ও ২৭ সেপ্টেম্বর আরব আমিরাতে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে তিনটি টি-টোয়েন্টি খেলবে পাকিস্তান। এই সিরিজে সুযোগ পেতে পারেন আফ্রিদি, যদি আনুষ্ঠানিকভাবে বিদায়ের ঘোষণা দেন।
৩৬ বছর বয়সী আফ্রিদিকে ছাড়াই ইংল্যান্ডের বিপক্ষে সিরিজ খেলেছে পাকিস্তান। বলা হচ্ছে জাতীয় দলের দরজা চিরতরে বন্ধ হয়ে​ গেছে তাঁর জন্য। যদিও আফ্রিদি কদিন আগে সাংবাদিকদের বলেছেন, এখনই অবসর নেওয়ার কোনো ইচ্ছাই তাঁর নেই। পিসিবি আফ্রিদিকে আরেকটি সুযোগ দিতে চায়। এভাবে যেন তাঁর শেষটা না হয়। এ কারণে এই সিরিজে দলে নেওয়া হতে পারে তাঁকে। এটাই আফ্রিদির জন্য শেষ সুযোগ। এরপর আগামী বছর এপ্রিলের আগে আর টি-টোয়েন্টি খেলবে না পাকিস্তান।
পিসিবি আ​ফ্রিদিকে এর​ই মধ্যে পরিষ্কার বার্তা দিয়েছে, ভবিষ্যৎ​ মাথায় রেখে যে দল পাকিস্তান গড়ছে, তাতে আফ্রিদির জায়গা নেই। এ কারণে আর কোনো সুযোগ তিনি পাবেন না। তাই হয়তো মাঠে খেলে বিদায় নিতে হবে। না হলে এভাবে আড়ালেই শেষ হয়ে যাবে ক্যারিয়ার, পাকিস্তানের অনেক তারকার ক্ষেত্রেই যেটি ঘটেছে। আফ্রিদির জন্য অবশেষে পিসিবি বিশেষ বিদায় সংবর্ধনার ব্যবস্থাও করতে চায় এই সিরিজে।
পিসিবি মনে করে, জাতীয় দল থেকে অবসর নিলেও ঘরোয়া টি-টোয়েন্টি লিগগুলোতে খেলতে বাধা থাকবে না এই অলরাউন্ডারের। সে ক্ষেত্রে আফ্রিদির আপত্তি থাকার কথা নয়। সেটিই বোঝানোর চেষ্টা করা হচ্ছে তাঁকে। সমস্যা হলো আফ্রিদি নিজে তাঁর অবসরের ব্যাপারটি হাস্যকর বিষয়ে ​পরিণত করেছেন। এখনো বিষয়টি নিয়ে তিনি নিজে কতটা গুরুতরভাবে ভাবছেন কে জানে। পিসিবি সুযোগ দিয়েছে, আফ্রিদি নেবেন কি না, সেটাই প্রশ্ন।
২০১০ সালে টেস্ট ও ২০১৫ বিশ্বকাপের পর ওয়ানডেকে বিদায় বলে দেন আফ্রিদি। গত টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের পর থেকে ২০ ওভারের ক্রিকেটেরও জায়গা মিলছে না। বলা হচ্ছে আফ্রিদি-যুগ শেষ হয়ে গেছে পাকিস্তানে। সূত্র: জং ও দ্য হিন্দু।

Comments

comments

সম্পাদক : মোহাম্মদ আবদুল বাছির
প্রকাশক: মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম
ফোন : ‎০১৭১৩৪০৯০৯০
৩৪৫/১, দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০
X
 
নিয়মিত খবর পড়তে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন
X