বৃহস্পতিবার, ২২শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ইং, ১০ই ফাল্গুন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, দুপুর ১:০৭
শিরোনাম
  • ঘৃণাকে বিজয়ী হতে দেয়া যাবে না, ট্রাম্পকে ইঙ্গিত করে জর্জ ক্লুনি
  • আমার একটাই চিন্তা দেশের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করা: প্রধানমন্ত্রী
  • ‘কেন্দ্রীয় সরকারের আগ্রাসী নীতির কারণে কাশ্মীরকে হারাতে হবে’
  • সাড়ে চারমাস পর মুখোমুখি, খাদিজাকে উদ্দেশ্য করে যা বলল বদরুল
  • খালেদার ‘সাজা’ বিরোধী নেতাকর্মীদের মনোবল ভাঙ্গার কৌশল!
  • বিএনপির কর্মসূচি ‘যথাসময়ে’ জানানো হবে: রিজভী
  • দলের জন্য বোলিং করতেও রাজি মুশফিক
  • শিশু জিহাদের মৃত্যু: চার জনের ১০ বছর করে কারাদণ্ড
  • অবশেষে বাড়ি অবরুদ্ধ করে রাখা সেই দেয়াল ভেঙ্গে ফেলা হচ্ছে
  • সাক্ষ্য দিলেন খাদিজা, চাইলেন বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তি
  • বদরুলের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিতে আদালতে খাদিজা
  • আজ বগুড়ায় যেসব প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
  • রোহিঙ্গা স্থানান্তরের সরকারি পরিকল্পনার সঙ্গে দ্বিমত মানবাধিকার কমিশনের
  • মহেশখালীতে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে পুলিশের ‘বন্দুকযুদ্ধ’
  • হোয়াইট হাউসে কাজ করার দীর্ঘ অভিজ্ঞতার কথা জানালেন এই বাংলাদেশি সাংবাদিক
Friday, November 4, 2016 6:32 pm
A- A A+ Print

আবাসিক স্কুলে ১২ নাবালিকাকে গণধর্ষণ, আটক ১১

158493_1

   
ঢাকা: ভারতের বুলধানা জেলার হিভারখেড়ার একটি আবাসিক স্কুলে শিক্ষকদের বিকৃত যৌন লালসার শিকার হয়েছে ১২ জন আদিবাসী নাবালিকা স্কুলছাত্রী। এদের মধ্যে তিন কিশোরী অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়েছে বলে জানা গেছে। ওই আবাসিক স্কুলের ১১ জন শিক্ষক ওই ছাত্রীদের নিয়মিত ধর্ষণ করত বলে অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় প্রধান শিক্ষকসহ ১১ জনকে আটক করেছে মহারাষ্ট্র পুলিশ। এছাড়া আরো তিন শিক্ষকের সন্ধানে নেমেছে পুলিশ। এদিকে শিক্ষকদের এমন বীভৎস আচরণের কথা শুনে শিউরে উঠছেন সকলে। সমাজের চোখে শ্রদ্ধেয় শিক্ষকরা কী করে এমন বিকারগ্রস্ত মানসিকতার পরিচয় দিতে পারেন তা নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে বিভিন্ন মহলে। অভিভাবকরাও রয়েছেন আতঙ্কে। ভুক্তভোগী ওই ১২ ছাত্রীকেই চিকিৎসার জন্য আকোলা জেলার একটি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এছাড়া তাদের সাথে কাউন্সেলিংও করা হবে।
ধর্ষিতা ছাত্রীদের সঙ্গে কথা বলে পুলিশ জানিয়েছে, নিগৃহীত ছাত্রীদের বয়স ১২ থেকে ১৪ বছরের মধ্যে। স্কুলের প্রধান শিক্ষক-সহ বাকি শিক্ষক, পিয়ন ও অন্য কর্মীরা প্রায়ই তাদের ধর্ষণ করত। কাউকে কিছু বলে দিলে হত্যার হুমকি দিত। গত সপ্তাহে দীপাবলির ছুটিতে বাড়ি গিয়েছিল ওই বেসরকারি আবাসিক স্কুলের ছাত্রীরা। এদের অনেকেই জলগাঁও জেলার মুক্তাইনগরের হালখেড়া গ্রামের বাসিন্দা। ঘটনার কথা মনে করতে গিয়ে শিউরে ওঠেন গ্রামের ডেপুটি সরপঞ্চ বুলেসতেরনি সতী ভোঁসলে। তিনি বলেন, দীপাবলির সময় গ্রামের সব মেয়েরা ছুটোছুটি করে খেলা করছিল। কিন্তু তিন জন চুপ করে এক কোণে বসে ছিল। আমরা ওদের জিজ্ঞাসা করি, কেন খেলছে না? তখন ওরা জানায়, ওদের পেটে খুব ব্যথা হচ্ছে। তলপেটে ভারী কিছু রয়েছে। আমরা ওদের ডাক্তারের কাছে নিয়ে যাই। ডাক্তার পরীক্ষা করে জানান, তিনটি মেয়েই অন্তঃসত্ত্বা। এরপর ওই বাচ্চা মেয়েগুলোকে জিজ্ঞাসা করে শিক্ষকদের এই অত্যাচারের কথা জানতে পারি। ভোঁসলের দাবি, আমরা অভিযুক্ত সব শিক্ষকের সর্বোচ্চ শাস্তি চাই। সরকার যেন কাউকে ছেড়ে না দেয়। বুলধানার এসপি এস ডি বাভিস্কার জানিয়েছেন, মুম্বাই থেকে ৪৫০ কিলোমিটার দূরে ওই স্কুলের হোস্টেলে বেশিরভাগই আদিবাসী ছাত্রী থাকে। আমরা নিগৃহীতা ছাত্রীদের সঙ্গে কথা বলার জন্য মহিলা পুলিশকে পাঠাই। জানা গেছে, হোস্টেলের ভিতরে ছাত্রীদের প্রায়ই ধর্ষণ করত শিক্ষকরা। ধর্ষিত ছাত্রীদের সংখ্যা আরো বাড়তে পারে। অনেকেই হয়তো লজ্জা, ভয়ে মুখ খুলছে না। এদিকে ধর্ষিত ছাত্রীদের অভিভাবকরা অভিযুক্ত শিক্ষকদের কড়া শাস্তির দাবি তুলে থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন।

Comments

Comments!

 আবাসিক স্কুলে ১২ নাবালিকাকে গণধর্ষণ, আটক ১১AmarbangladeshonlineAmarbangladeshonline | Amarbangladeshonline

আবাসিক স্কুলে ১২ নাবালিকাকে গণধর্ষণ, আটক ১১

Friday, November 4, 2016 6:32 pm
158493_1

 

 

ঢাকা: ভারতের বুলধানা জেলার হিভারখেড়ার একটি আবাসিক স্কুলে শিক্ষকদের বিকৃত যৌন লালসার শিকার হয়েছে ১২ জন আদিবাসী নাবালিকা স্কুলছাত্রী। এদের মধ্যে তিন কিশোরী অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়েছে বলে জানা গেছে। ওই আবাসিক স্কুলের ১১ জন শিক্ষক ওই ছাত্রীদের নিয়মিত ধর্ষণ করত বলে অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় প্রধান শিক্ষকসহ ১১ জনকে আটক করেছে মহারাষ্ট্র পুলিশ।

এছাড়া আরো তিন শিক্ষকের সন্ধানে নেমেছে পুলিশ। এদিকে শিক্ষকদের এমন বীভৎস আচরণের কথা শুনে শিউরে উঠছেন সকলে। সমাজের চোখে শ্রদ্ধেয় শিক্ষকরা কী করে এমন বিকারগ্রস্ত মানসিকতার পরিচয় দিতে পারেন তা নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে বিভিন্ন মহলে। অভিভাবকরাও রয়েছেন আতঙ্কে।

ভুক্তভোগী ওই ১২ ছাত্রীকেই চিকিৎসার জন্য আকোলা জেলার একটি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এছাড়া তাদের সাথে কাউন্সেলিংও করা হবে।

ধর্ষিতা ছাত্রীদের সঙ্গে কথা বলে পুলিশ জানিয়েছে, নিগৃহীত ছাত্রীদের বয়স ১২ থেকে ১৪ বছরের মধ্যে। স্কুলের প্রধান শিক্ষক-সহ বাকি শিক্ষক, পিয়ন ও অন্য কর্মীরা প্রায়ই তাদের ধর্ষণ করত। কাউকে কিছু বলে দিলে হত্যার হুমকি দিত।

গত সপ্তাহে দীপাবলির ছুটিতে বাড়ি গিয়েছিল ওই বেসরকারি আবাসিক স্কুলের ছাত্রীরা। এদের অনেকেই জলগাঁও জেলার মুক্তাইনগরের হালখেড়া গ্রামের বাসিন্দা। ঘটনার কথা মনে করতে গিয়ে শিউরে ওঠেন গ্রামের ডেপুটি সরপঞ্চ বুলেসতেরনি সতী ভোঁসলে।

তিনি বলেন, দীপাবলির সময় গ্রামের সব মেয়েরা ছুটোছুটি করে খেলা করছিল। কিন্তু তিন জন চুপ করে এক কোণে বসে ছিল। আমরা ওদের জিজ্ঞাসা করি, কেন খেলছে না? তখন ওরা জানায়, ওদের পেটে খুব ব্যথা হচ্ছে। তলপেটে ভারী কিছু রয়েছে। আমরা ওদের ডাক্তারের কাছে নিয়ে যাই। ডাক্তার পরীক্ষা করে জানান, তিনটি মেয়েই অন্তঃসত্ত্বা। এরপর ওই বাচ্চা মেয়েগুলোকে জিজ্ঞাসা করে শিক্ষকদের এই অত্যাচারের কথা জানতে পারি।

ভোঁসলের দাবি, আমরা অভিযুক্ত সব শিক্ষকের সর্বোচ্চ শাস্তি চাই। সরকার যেন কাউকে ছেড়ে না দেয়।

বুলধানার এসপি এস ডি বাভিস্কার জানিয়েছেন, মুম্বাই থেকে ৪৫০ কিলোমিটার দূরে ওই স্কুলের হোস্টেলে বেশিরভাগই আদিবাসী ছাত্রী থাকে। আমরা নিগৃহীতা ছাত্রীদের সঙ্গে কথা বলার জন্য মহিলা পুলিশকে পাঠাই।

জানা গেছে, হোস্টেলের ভিতরে ছাত্রীদের প্রায়ই ধর্ষণ করত শিক্ষকরা। ধর্ষিত ছাত্রীদের সংখ্যা আরো বাড়তে পারে। অনেকেই হয়তো লজ্জা, ভয়ে মুখ খুলছে না।

এদিকে ধর্ষিত ছাত্রীদের অভিভাবকরা অভিযুক্ত শিক্ষকদের কড়া শাস্তির দাবি তুলে থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন।

Comments

comments

সম্পাদক : মোহাম্মদ আবদুল বাছির
প্রকাশক: মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম
ফোন : ‎০১৭১৩৪০৯০৯০
৩৪৫/১, দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০
X
 
নিয়মিত খবর পড়তে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন
X