সোমবার, ১৯শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ইং, ৭ই ফাল্গুন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, সকাল ১১:৪৭
শিরোনাম
  • ঘৃণাকে বিজয়ী হতে দেয়া যাবে না, ট্রাম্পকে ইঙ্গিত করে জর্জ ক্লুনি
  • আমার একটাই চিন্তা দেশের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করা: প্রধানমন্ত্রী
  • ‘কেন্দ্রীয় সরকারের আগ্রাসী নীতির কারণে কাশ্মীরকে হারাতে হবে’
  • সাড়ে চারমাস পর মুখোমুখি, খাদিজাকে উদ্দেশ্য করে যা বলল বদরুল
  • খালেদার ‘সাজা’ বিরোধী নেতাকর্মীদের মনোবল ভাঙ্গার কৌশল!
  • বিএনপির কর্মসূচি ‘যথাসময়ে’ জানানো হবে: রিজভী
  • দলের জন্য বোলিং করতেও রাজি মুশফিক
  • শিশু জিহাদের মৃত্যু: চার জনের ১০ বছর করে কারাদণ্ড
  • অবশেষে বাড়ি অবরুদ্ধ করে রাখা সেই দেয়াল ভেঙ্গে ফেলা হচ্ছে
  • সাক্ষ্য দিলেন খাদিজা, চাইলেন বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তি
  • বদরুলের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিতে আদালতে খাদিজা
  • আজ বগুড়ায় যেসব প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
  • রোহিঙ্গা স্থানান্তরের সরকারি পরিকল্পনার সঙ্গে দ্বিমত মানবাধিকার কমিশনের
  • মহেশখালীতে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে পুলিশের ‘বন্দুকযুদ্ধ’
  • হোয়াইট হাউসে কাজ করার দীর্ঘ অভিজ্ঞতার কথা জানালেন এই বাংলাদেশি সাংবাদিক
Saturday, June 3, 2017 9:53 am
A- A A+ Print

আমি নিয়মিত রোজা রাখি: অপু ইসলাম খান

8

শাকিব খানকে বিয়ের পর ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করেন অভিনেত্রী অপু বিশ্বাস। নাম পাল্টে রাখেন অপু ইসলাম খান। অপু বলেন, মুসলিম হবার পর থেকে আমার মধ্যে ইসলাম নিয়ে অনেক বেশি কৌতূহল কাজ করতো। বিয়ের পর থেকেই আমি ইসলাম ধর্মের সকল বিষয় নিজে থেকে শিখতে শুরু করি। খুঁটিনাটি বিষয় আস্তে আস্তে জানার চেষ্টা করি। কিভাবে অজু করতে হয়, নামাজ পড়তে হয়ে, রোজা রাখতে হয় সবকিছু আয়ত্ত করতে থাকি। বই পড়েও আমার এক আত্মীয়ের সাহায্য নিয়ে সবকিছু শিখেছি।’ অপু এখন নিয়মিত রোজা রাখেন। খুব বেশি সমস্যা না হলে রোজা ভাঙেন না। তিনি বলেন, বিয়ের প্রথম বছর রোজার বিষয়টা বুঝতে সময় লেগেছিল। তাই প্রথম বছর রোজা রাখতে পারিনি। তবে বিয়ের এক বছর পর থেকে আমি নিয়মিত রোজা রাখি। সবগুলো না রাখতে পারলেও প্রতি বছর ২০টার উপর রোজা রাখার চেষ্টা করি। রোজা রাখতে অপু বিশ্বাসের তেমন সমস্যা হয় না। কারণ, হিন্দু ধর্মের নিয়মানুসারে তিনি আগে নিয়মিত উপোস করতেন। তাই স্বাভাবিকভাবেই অপু রোজা রাখতে পারেন। সাধারণত শুটিংয়ের কাজে বাইরে না থাকলে শাকিব-অপু একসঙ্গেই সাহরি ও ইফতার করেন। অপু বলনে, আমি সবসময় সাহরি রেডি করে বসে থাকি। কিন্তু শাকিব ঘুম থেকে উঠতে দেরি করে। অনেক সময় টাইম না পাওয়ায় এক গ্লাস দুধ অথবা আম খেয়েই সে সাহরি করে। রোজা নিয়ে তারকা এই দম্পতির রয়েছে বেশকিছু মজার অভিজ্ঞতা। যেহেতু অপুর ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করা এবং বিয়ের ব্যাপারটা আগে গোপন ছিল, তাই শুটিংয়ের সময় অপুর রোজা রাখতে বেশ সমস্যাই হতো। অপুর ভাষ্যে, রোজার সময় শুটিং থাকলে আমাকে একটু সমস্যায় পড়তে হতো। কারণ, সেটে একটু পরপর প্রডাকশনের লোকেরা খাবার নিয়ে আসতো। আর আমি নানা টালবাহানা করে তাদের ফিরিয়ে দিতাম। কিন্তু বলতে পারতাম না আমি রোজা। একবার শুটিং সেটে দারুণ একটা মজার ঘটনা ঘটেছিল। সেখানে আমার একটা সিকোয়েন্স ছিল যেটাতে আমাকে খাবার খেতে হবে। কিন্তু তখন আমি রোজা। সিকোয়েন্সটাতে শাকিবও ছিল। সুমন ভাই যখন আমাকে শট বুঝিয়ে দিচ্ছিলেন তখন শাকিব বলে উঠলো, সুমন এখন খাবার খাচ্ছে এটা কি আর দেখানো লাগে? খাচ্ছে এমন সিকোয়েন্স না নিয়ে, খেতে গিয়ে হাত থেকে খাবার পড়ে গেল সেটা নাও। সেটা বেশি ভালো হবে। ওর কথা শুনে আমি খুব হেসেছিলাম। শাকিব আমার রোজার কথা গোপন রাখতে সিকোয়েন্স পাল্টে দিল। পড়ে শাকিবের কথা মতোই শুটিং হলো।
 

Comments

Comments!

 আমি নিয়মিত রোজা রাখি: অপু ইসলাম খানAmarbangladeshonlineAmarbangladeshonline | Amarbangladeshonline

আমি নিয়মিত রোজা রাখি: অপু ইসলাম খান

Saturday, June 3, 2017 9:53 am
8

শাকিব খানকে বিয়ের পর ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করেন অভিনেত্রী অপু বিশ্বাস। নাম পাল্টে রাখেন অপু ইসলাম খান। অপু বলেন, মুসলিম হবার পর থেকে আমার মধ্যে ইসলাম নিয়ে অনেক বেশি কৌতূহল কাজ করতো। বিয়ের পর থেকেই আমি ইসলাম ধর্মের সকল বিষয় নিজে থেকে শিখতে শুরু করি। খুঁটিনাটি বিষয় আস্তে আস্তে জানার চেষ্টা করি। কিভাবে অজু করতে হয়, নামাজ পড়তে হয়ে, রোজা রাখতে হয় সবকিছু আয়ত্ত করতে থাকি। বই পড়েও আমার এক আত্মীয়ের সাহায্য নিয়ে সবকিছু শিখেছি।’

অপু এখন নিয়মিত রোজা রাখেন। খুব বেশি সমস্যা না হলে রোজা ভাঙেন না। তিনি বলেন, বিয়ের প্রথম বছর রোজার বিষয়টা বুঝতে সময় লেগেছিল। তাই প্রথম বছর রোজা রাখতে পারিনি। তবে বিয়ের এক বছর পর থেকে আমি নিয়মিত রোজা রাখি। সবগুলো না রাখতে পারলেও প্রতি বছর ২০টার উপর রোজা রাখার চেষ্টা করি।

রোজা রাখতে অপু বিশ্বাসের তেমন সমস্যা হয় না। কারণ, হিন্দু ধর্মের নিয়মানুসারে তিনি আগে নিয়মিত উপোস করতেন। তাই স্বাভাবিকভাবেই অপু রোজা রাখতে পারেন। সাধারণত শুটিংয়ের কাজে বাইরে না থাকলে শাকিব-অপু একসঙ্গেই সাহরি ও ইফতার করেন। অপু বলনে, আমি সবসময় সাহরি রেডি করে বসে থাকি। কিন্তু শাকিব ঘুম থেকে উঠতে দেরি করে। অনেক সময় টাইম না পাওয়ায় এক গ্লাস দুধ অথবা আম খেয়েই সে সাহরি করে।

রোজা নিয়ে তারকা এই দম্পতির রয়েছে বেশকিছু মজার অভিজ্ঞতা। যেহেতু অপুর ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করা এবং বিয়ের ব্যাপারটা আগে গোপন ছিল, তাই শুটিংয়ের সময় অপুর রোজা রাখতে বেশ সমস্যাই হতো। অপুর ভাষ্যে, রোজার সময় শুটিং থাকলে আমাকে একটু সমস্যায় পড়তে হতো। কারণ, সেটে একটু পরপর প্রডাকশনের লোকেরা খাবার নিয়ে আসতো। আর আমি নানা টালবাহানা করে তাদের ফিরিয়ে দিতাম। কিন্তু বলতে পারতাম না আমি রোজা।

একবার শুটিং সেটে দারুণ একটা মজার ঘটনা ঘটেছিল। সেখানে আমার একটা সিকোয়েন্স ছিল যেটাতে আমাকে খাবার খেতে হবে। কিন্তু তখন আমি রোজা। সিকোয়েন্সটাতে শাকিবও ছিল। সুমন ভাই যখন আমাকে শট বুঝিয়ে দিচ্ছিলেন তখন শাকিব বলে উঠলো, সুমন এখন খাবার খাচ্ছে এটা কি আর দেখানো লাগে? খাচ্ছে এমন সিকোয়েন্স না নিয়ে, খেতে গিয়ে হাত থেকে খাবার পড়ে গেল সেটা নাও। সেটা বেশি ভালো হবে। ওর কথা শুনে আমি খুব হেসেছিলাম। শাকিব আমার রোজার কথা গোপন রাখতে সিকোয়েন্স পাল্টে দিল। পড়ে শাকিবের কথা মতোই শুটিং হলো।

 

Comments

comments

সম্পাদক : মোহাম্মদ আবদুল বাছির
প্রকাশক: মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম
ফোন : ‎০১৭১৩৪০৯০৯০
৩৪৫/১, দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০
X
 
নিয়মিত খবর পড়তে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন
X