রবিবার, ২৫শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ইং, ১৩ই ফাল্গুন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, বিকাল ৫:২৭
শিরোনাম
  • ঘৃণাকে বিজয়ী হতে দেয়া যাবে না, ট্রাম্পকে ইঙ্গিত করে জর্জ ক্লুনি
  • আমার একটাই চিন্তা দেশের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করা: প্রধানমন্ত্রী
  • ‘কেন্দ্রীয় সরকারের আগ্রাসী নীতির কারণে কাশ্মীরকে হারাতে হবে’
  • সাড়ে চারমাস পর মুখোমুখি, খাদিজাকে উদ্দেশ্য করে যা বলল বদরুল
  • খালেদার ‘সাজা’ বিরোধী নেতাকর্মীদের মনোবল ভাঙ্গার কৌশল!
  • বিএনপির কর্মসূচি ‘যথাসময়ে’ জানানো হবে: রিজভী
  • দলের জন্য বোলিং করতেও রাজি মুশফিক
  • শিশু জিহাদের মৃত্যু: চার জনের ১০ বছর করে কারাদণ্ড
  • অবশেষে বাড়ি অবরুদ্ধ করে রাখা সেই দেয়াল ভেঙ্গে ফেলা হচ্ছে
  • সাক্ষ্য দিলেন খাদিজা, চাইলেন বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তি
  • বদরুলের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিতে আদালতে খাদিজা
  • আজ বগুড়ায় যেসব প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
  • রোহিঙ্গা স্থানান্তরের সরকারি পরিকল্পনার সঙ্গে দ্বিমত মানবাধিকার কমিশনের
  • মহেশখালীতে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে পুলিশের ‘বন্দুকযুদ্ধ’
  • হোয়াইট হাউসে কাজ করার দীর্ঘ অভিজ্ঞতার কথা জানালেন এই বাংলাদেশি সাংবাদিক
Friday, November 11, 2016 11:40 am
A- A A+ Print

আর্জেন্টিনা বিশ্বকাপে যেতে পারবে তো!

d

পেরুকে বিশাল একটা ধন্যবাদ দেওয়া উচিত আর্জেন্টিনার। ব্রাজিলের কাছে ৩-০ গোলে বিধ্বস্ত হওয়ার পরও আর্জেন্টিনা যে এখনো পয়েন্ট টেবিলের ছয়ে আছে, তা তো পেরুর সৌজন্যেই। ১০ মিনিটে এগিয়ে যাওয়া প্যারাগুয়েকে ওদেরই মাঠে পেরু শেষ পর্যন্ত ৪-১ গোলে হারাল। ৭০ মিনিট পর্যন্ত যে ম্যাচের স্কোরলাইন ছিল ১-১। আর এই অপ্রত্যাশিত জয়ে পেরু সবচেয়ে বেশি স্বস্তি দিল আর্জেন্টিনাকে। প্যারাগুয়ে জিতে গেলে দশ দলের মধ্যে আর্জেন্টিনার অবস্থান হতো সাতে। ১১ ম্যাচে মাত্র ৪ জয় আর চার ড্রয়ে ১৬ পয়েন্ট নিয়ে আপাতত ছয়ে আছে আর্জেন্টিনা। দক্ষিণ আমেরিকা অঞ্চল থেকে চারটি দল সরাসরি খেলবে বিশ্বকাপ। পঞ্চম দলটিকে প্লে অফ নামের আরেক বাধা পেরিয়েই টিকিট কাটতে হবে। যে কাজ সহজ নয় মোটেও। তিনে থাকা কলম্বিয়ার সঙ্গে আর্জেন্টিনার পয়েন্ট ব্যবধান মাত্র দুই। চার-পাঁচে থাকা ইকুয়েডর-চিলিও বেশি দূরে নেই। মাত্র এক পয়েন্টে এগিয়ে। এটা যদি আর্জেন্টিনার জন্য স্বস্তি হয়; অস্বস্তিও আছে। সাত আর আটে থাকা প্যারাগুয়ে-পেরুও কিন্তু আর্জেন্টিনার চেয়ে বেশি পিছিয়ে নেই। প্যারাগুয়ের পয়েন্ট ১৫, পেরুর ১৪। আর্জেন্টিনার চেয়ে এই দুই দল পিছিয়ে আছে যথাক্রমে ১ ও ২ পয়েন্টে। একটি জয়-পরাজয়ই দক্ষিণ আমেরিকা অঞ্চলের বাছাই পর্বের টেবিলের চিত্রটা পুরো উল্টে-পাল্টে দিতে পারে। আর্জেন্টিনাকে আজ স্বস্তি দিয়েছে চিলি-কলম্বিয়া ম্যাচটিও। আর্জেন্টিনা ওপরে থাকা এই দুই দলের ম্যাচটি ড্র হয়েছে। না হলে এই দুই দলের যেকোনো একটি আর্জেন্টিনার সঙ্গে ব্যবধান বাড়িয়ে নিতে পারত। ১১ ম্যাচে ২৪ পয়েন্ট নিয়ে ব্রাজিল শীর্ষে। ইকুয়েডরকে ২-১ গোলে হারানো উরুগুয়ে ২৩ পয়েন্ট নিয়ে আছে দুইয়ে। ব্রাজিলের সাত জয়ের পাঁচটিই এসেছে তিতের অধীনে গত পাঁচ ম্যাচে! কীভাবে ব্রাজিলকে বদলে দিলেন এই 'ল্যাপটপ' কোচ! দক্ষিণ আমেরিকা অঞ্চলে ১৮টি ম্যাচ হয় বাছাই পর্বে। ফলে এখনো পথ অনেক দীর্ঘ। সাত ম্যাচ বাকি। ২১ পয়েন্টের হিসাব বাকি। কিন্তু পয়েন্ট টেবিলের বর্তমান চেহারা আর টানা চার ম্যাচ জয়শূন্য আর্জেন্টিনার একটুও স্বস্তিতে থাকার উপায় নেই। মেসি অবসর ভেঙে ফিরে উরুগুয়ের বিপক্ষে জয় এনে না দিলে তো আরও বিপদে পড়ত দল। আর্জেন্টিনার চার জয়ের তিনটিই মেসি খেলেছেন এমন ম্যাচে। মেসি না থাকলে আর্জেন্টিনা চূড়ান্ত পর্বে যেতে পারবে না, এই ভবিষ্যদ্বাণী তো এখন খুব সত্যি মনে হচ্ছে! মেসি থাকলেও আর্জেন্টিনা এখন কতটা কী করে সেটাই দেখার। না হলে ঘুরে-ফিরে বারবার আসছে ১৯৭০ বিশ্বকাপ। যেবার চূড়ান্ত পর্বে যেতে ব্যর্থ হয়েছিল আর্জেন্টিনা। প্রথম দুই বিশ্বকাপ খেলার পর পরের তিন আসরে নিজেদের প্রত্যাহার করে নেওয়া, ১৯৫৮ বিশ্বকাপ দিয়ে আবারও ফিরে আসা আর্জেন্টিনা ওই একবারই বাছাই পর্বে ছিটকে পড়েছিল। আর্জেন্টিনার জন্য আপাতত একটাই সুখবর। চার দিন পর কলম্বিয়ার বিপক্ষে নিজেদের মাঠে অনুষ্ঠেয় ম্যাচটা জিতলে সেরা চারে ফিরে আসার সম্ভাবনা থাকছে। অবশ্য চিলি-ইকুয়েডরকে নিজ নিজ ম্যাচে পয়েন্ট হারাতে হবে। নিদেন ড্র। উরুগুয়ের বিপক্ষে চিলি আর ভেনেজুয়েলার বিপক্ষে ইকুয়েডর পয়েন্ট হারালে, আর্জেন্টিনার জয় মেসির দলকে তুলে আনবে সেরা তিনে। কিন্তু আর্জেন্টিনা যদি হারে? নিজেদের মাঠে আগের ম্যাচেই প্যারাগুয়ের কাছে হেরেছে যারা, তাদের হারের শঙ্কা বা সম্ভাবনাকেই বা নাকচ করে দেবেন কীভাবে? বাছাই পর্বের বাকিটা পথ এখনো দীর্ঘ। তবুও এই প্রশ্ন এখনই উঠছে, আর্জেন্টিনা বিশ্বকাপে যেতে পারবে তো!

Comments

Comments!

 আর্জেন্টিনা বিশ্বকাপে যেতে পারবে তো!AmarbangladeshonlineAmarbangladeshonline | Amarbangladeshonline

আর্জেন্টিনা বিশ্বকাপে যেতে পারবে তো!

Friday, November 11, 2016 11:40 am
d

পেরুকে বিশাল একটা ধন্যবাদ দেওয়া উচিত আর্জেন্টিনার। ব্রাজিলের কাছে ৩-০ গোলে বিধ্বস্ত হওয়ার পরও আর্জেন্টিনা যে এখনো পয়েন্ট টেবিলের ছয়ে আছে, তা তো পেরুর সৌজন্যেই।

১০ মিনিটে এগিয়ে যাওয়া প্যারাগুয়েকে ওদেরই মাঠে পেরু শেষ পর্যন্ত ৪-১ গোলে হারাল। ৭০ মিনিট পর্যন্ত যে ম্যাচের স্কোরলাইন ছিল ১-১। আর এই অপ্রত্যাশিত জয়ে পেরু সবচেয়ে বেশি স্বস্তি দিল আর্জেন্টিনাকে।

প্যারাগুয়ে জিতে গেলে দশ দলের মধ্যে আর্জেন্টিনার অবস্থান হতো সাতে। ১১ ম্যাচে মাত্র ৪ জয় আর চার ড্রয়ে ১৬ পয়েন্ট নিয়ে আপাতত ছয়ে আছে আর্জেন্টিনা। দক্ষিণ আমেরিকা অঞ্চল থেকে চারটি দল সরাসরি খেলবে বিশ্বকাপ। পঞ্চম দলটিকে প্লে অফ নামের আরেক বাধা পেরিয়েই টিকিট কাটতে হবে। যে কাজ সহজ নয় মোটেও।

তিনে থাকা কলম্বিয়ার সঙ্গে আর্জেন্টিনার পয়েন্ট ব্যবধান মাত্র দুই। চার-পাঁচে থাকা ইকুয়েডর-চিলিও বেশি দূরে নেই। মাত্র এক পয়েন্টে এগিয়ে। এটা যদি আর্জেন্টিনার জন্য স্বস্তি হয়; অস্বস্তিও আছে। সাত আর আটে থাকা প্যারাগুয়ে-পেরুও কিন্তু আর্জেন্টিনার চেয়ে বেশি পিছিয়ে নেই। প্যারাগুয়ের পয়েন্ট ১৫, পেরুর ১৪। আর্জেন্টিনার চেয়ে এই দুই দল পিছিয়ে আছে যথাক্রমে ১ ও ২ পয়েন্টে।

একটি জয়-পরাজয়ই দক্ষিণ আমেরিকা অঞ্চলের বাছাই পর্বের টেবিলের চিত্রটা পুরো উল্টে-পাল্টে দিতে পারে।

আর্জেন্টিনাকে আজ স্বস্তি দিয়েছে চিলি-কলম্বিয়া ম্যাচটিও। আর্জেন্টিনা ওপরে থাকা এই দুই দলের ম্যাচটি ড্র হয়েছে। না হলে এই দুই দলের যেকোনো একটি আর্জেন্টিনার সঙ্গে ব্যবধান বাড়িয়ে নিতে পারত।

১১ ম্যাচে ২৪ পয়েন্ট নিয়ে ব্রাজিল শীর্ষে। ইকুয়েডরকে ২-১ গোলে হারানো উরুগুয়ে ২৩ পয়েন্ট নিয়ে আছে দুইয়ে। ব্রাজিলের সাত জয়ের পাঁচটিই এসেছে তিতের অধীনে গত পাঁচ ম্যাচে! কীভাবে ব্রাজিলকে বদলে দিলেন এই ‘ল্যাপটপ’ কোচ!

দক্ষিণ আমেরিকা অঞ্চলে ১৮টি ম্যাচ হয় বাছাই পর্বে। ফলে এখনো পথ অনেক দীর্ঘ। সাত ম্যাচ বাকি। ২১ পয়েন্টের হিসাব বাকি। কিন্তু পয়েন্ট টেবিলের বর্তমান চেহারা আর টানা চার ম্যাচ জয়শূন্য আর্জেন্টিনার একটুও স্বস্তিতে থাকার উপায় নেই। মেসি অবসর ভেঙে ফিরে উরুগুয়ের বিপক্ষে জয় এনে না দিলে তো আরও বিপদে পড়ত দল। আর্জেন্টিনার চার জয়ের তিনটিই মেসি খেলেছেন এমন ম্যাচে। মেসি না থাকলে আর্জেন্টিনা চূড়ান্ত পর্বে যেতে পারবে না, এই ভবিষ্যদ্বাণী তো এখন খুব সত্যি মনে হচ্ছে!

মেসি থাকলেও আর্জেন্টিনা এখন কতটা কী করে সেটাই দেখার। না হলে ঘুরে-ফিরে বারবার আসছে ১৯৭০ বিশ্বকাপ। যেবার চূড়ান্ত পর্বে যেতে ব্যর্থ হয়েছিল আর্জেন্টিনা। প্রথম দুই বিশ্বকাপ খেলার পর পরের তিন আসরে নিজেদের প্রত্যাহার করে নেওয়া, ১৯৫৮ বিশ্বকাপ দিয়ে আবারও ফিরে আসা আর্জেন্টিনা ওই একবারই বাছাই পর্বে ছিটকে পড়েছিল।

আর্জেন্টিনার জন্য আপাতত একটাই সুখবর। চার দিন পর কলম্বিয়ার বিপক্ষে নিজেদের মাঠে অনুষ্ঠেয় ম্যাচটা জিতলে সেরা চারে ফিরে আসার সম্ভাবনা থাকছে। অবশ্য চিলি-ইকুয়েডরকে নিজ নিজ ম্যাচে পয়েন্ট হারাতে হবে। নিদেন ড্র। উরুগুয়ের বিপক্ষে চিলি আর ভেনেজুয়েলার বিপক্ষে ইকুয়েডর পয়েন্ট হারালে, আর্জেন্টিনার জয় মেসির দলকে তুলে আনবে সেরা তিনে।

কিন্তু আর্জেন্টিনা যদি হারে? নিজেদের মাঠে আগের ম্যাচেই প্যারাগুয়ের কাছে হেরেছে যারা, তাদের হারের শঙ্কা বা সম্ভাবনাকেই বা নাকচ করে দেবেন কীভাবে?

বাছাই পর্বের বাকিটা পথ এখনো দীর্ঘ। তবুও এই প্রশ্ন এখনই উঠছে, আর্জেন্টিনা বিশ্বকাপে যেতে পারবে তো!

Comments

comments

সম্পাদক : মোহাম্মদ আবদুল বাছির
প্রকাশক: মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম
ফোন : ‎০১৭১৩৪০৯০৯০
৩৪৫/১, দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০
X
 
নিয়মিত খবর পড়তে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন
X