বুধবার, ২২শে নভেম্বর, ২০১৭ ইং, ৮ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, রাত ৩:১৭
শিরোনাম
  • ঘৃণাকে বিজয়ী হতে দেয়া যাবে না, ট্রাম্পকে ইঙ্গিত করে জর্জ ক্লুনি
  • আমার একটাই চিন্তা দেশের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করা: প্রধানমন্ত্রী
  • ‘কেন্দ্রীয় সরকারের আগ্রাসী নীতির কারণে কাশ্মীরকে হারাতে হবে’
  • সাড়ে চারমাস পর মুখোমুখি, খাদিজাকে উদ্দেশ্য করে যা বলল বদরুল
  • খালেদার ‘সাজা’ বিরোধী নেতাকর্মীদের মনোবল ভাঙ্গার কৌশল!
  • বিএনপির কর্মসূচি ‘যথাসময়ে’ জানানো হবে: রিজভী
  • দলের জন্য বোলিং করতেও রাজি মুশফিক
  • শিশু জিহাদের মৃত্যু: চার জনের ১০ বছর করে কারাদণ্ড
  • অবশেষে বাড়ি অবরুদ্ধ করে রাখা সেই দেয়াল ভেঙ্গে ফেলা হচ্ছে
  • সাক্ষ্য দিলেন খাদিজা, চাইলেন বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তি
  • বদরুলের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিতে আদালতে খাদিজা
  • আজ বগুড়ায় যেসব প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
  • রোহিঙ্গা স্থানান্তরের সরকারি পরিকল্পনার সঙ্গে দ্বিমত মানবাধিকার কমিশনের
  • মহেশখালীতে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে পুলিশের ‘বন্দুকযুদ্ধ’
  • হোয়াইট হাউসে কাজ করার দীর্ঘ অভিজ্ঞতার কথা জানালেন এই বাংলাদেশি সাংবাদিক
Saturday, November 11, 2017 10:21 am
A- A A+ Print

আসুন বন্দী গণতন্ত্র মুক্ত করে নূর হোসেনের স্বপ্ন সত্য করি: খালেদার টুইট

184335_1

ঢাকা: শহীদ নূর হোসেন দিবস উপলক্ষে বিএনপি চেয়ারপারসন ও সাবকে প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়া এক টুইট করেছেন। টুইট বার্তায় বলেন, ‘আসুন বন্দী গণতন্ত্র মুক্ত করে নূর হোসেনের স্বপ্ন সত্য করি। গণতন্ত্র মুক্তি পাক, স্বৈরাচার নিপাত যাক।’ শুক্রবার রাতে সাবেক এই প্রধানমন্ত্রী টুইট বার্তায় এসব কথা বলেন। ‘স্বৈরাচার নিপাত যাক/ গণতন্ত্র মুক্তি পাক’, বুকে-পিঠে এই স্লোগান লিখে ১৯৮৭ সালের ১০ নভেম্বর স্বৈরাচার এরশাদ সরকারের বিরুদ্ধে পথে নেমেছিলেন পুরান ঢাকার বনগ্রাম লেনের নূর হোসেন। ঢাকা অবরোধ কর্মসূচিতে অংশ নিয়ে গণমিছিলের একপর্যায়ে গুলিস্তানের জিরো পয়েন্ট স্কয়ার এলাকায় গুলিবিদ্ধ হলেন তিনি। নূর হোসেনের মৃত্যুতে আন্দোলন আরো জোরালো হলো। নব্বইয়ের ৬ ডিসেম্বর পতন হলো এরশাদ সরকারের। শহীদ নূর হোসেন দিবস উপলক্ষ রাজনৈতিক দলগুলো নানান কর্মসূচি পালন করে থাকে এর আগে খালেদা জিয়া এক বিবৃতিতে স্বৈরাচার বিরোধী আন্দোলনের বীর শহীদ নূর হোসেনের স্মৃতির প্রতি গভীর শ্রদ্ধা জানিয়ে তার রুহের মাগফিরাতও কামনা করেন । তিনি বলেন, আমাদের গণতান্ত্রিক আন্দোলনের ইতিহাসে নূর হোসেন একটি অবিস্মরণীয় নাম। ১৯৮৭ সালের ১০ নভেম্বর স্বৈরাচার বিরোধী আন্দোলনের এ লড়াকু সৈনিক হিসেবে তিনি রাজপথে নেমে এসেছিলেন বুকে পিঠে ‘গণতন্ত্র মুক্তি পাক, স্বৈরাচার নিপাত যাক’ শ্লোগান লিখে। গণতন্ত্রের দাবিতে সোচ্চার এই যুবকের কন্ঠকে স্তব্ধ করে দিয়েছিলো স্বৈরাচারের বন্দুক। স্বৈরাচারের বুলেট বুকে বরণ করে নিয়েছিলেন নূর হোসেন। বিএনপি চেয়ারপাসন বলেন, নূর হোসেনের সে অবদান বৃথা যায়নি। তার রক্তের ধারা বেয়েই ‘৯০ এর গণঅভ্যূত্থানে স্বৈরশাসকের পতন ঘটে, মুক্ত হয় আমাদের গণতন্ত্র। যে স্বপ্ন চোখে নিয়ে জীবন উৎসর্গ করে ছিলেন নুর হোসেন, তার সে স্বপ্ন আজো পুরোপুরি সফল হয়নি। স্বৈরাচারী শক্তির এ চক্রান্ত্র রুখতে হবে যে কোনো মূল্যে। আজও গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারের সংগ্রামী সৈনিক শহীদ নূর হোসেন আমাদের প্রেরণা। তার দৃষ্টান্ত অনুসরণ করে বাংলাদেশ নামক রাষ্ট্রের গণতান্ত্রিক বিকাশ নিশ্চিত করতে হবে। আর এজন্য আমাদেরকে সর্বোচ্চ ত্যাগ স্বীকারে প্রস্তুত থাকতে হবে। আজকের এই দিনে আমি দল-মত নির্বিশেষে সকলের প্রতি আহবান জানাই- আসুন গণতন্ত্র পুনঃপ্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে আমরা সবাই ঐক্যবন্ধভাবে কাজ করি।

Comments

Comments!

 আসুন বন্দী গণতন্ত্র মুক্ত করে নূর হোসেনের স্বপ্ন সত্য করি: খালেদার টুইটAmarbangladeshonlineAmarbangladeshonline | Amarbangladeshonline

আসুন বন্দী গণতন্ত্র মুক্ত করে নূর হোসেনের স্বপ্ন সত্য করি: খালেদার টুইট

Saturday, November 11, 2017 10:21 am
184335_1

ঢাকা: শহীদ নূর হোসেন দিবস উপলক্ষে বিএনপি চেয়ারপারসন ও সাবকে প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়া এক টুইট করেছেন। টুইট বার্তায় বলেন, ‘আসুন বন্দী গণতন্ত্র মুক্ত করে নূর হোসেনের স্বপ্ন সত্য করি। গণতন্ত্র মুক্তি পাক, স্বৈরাচার নিপাত যাক।’

শুক্রবার রাতে সাবেক এই প্রধানমন্ত্রী টুইট বার্তায় এসব কথা বলেন।

‘স্বৈরাচার নিপাত যাক/ গণতন্ত্র মুক্তি পাক’, বুকে-পিঠে এই স্লোগান লিখে ১৯৮৭ সালের ১০ নভেম্বর স্বৈরাচার এরশাদ সরকারের বিরুদ্ধে পথে নেমেছিলেন পুরান ঢাকার বনগ্রাম লেনের নূর হোসেন।

ঢাকা অবরোধ কর্মসূচিতে অংশ নিয়ে গণমিছিলের একপর্যায়ে গুলিস্তানের জিরো পয়েন্ট স্কয়ার এলাকায় গুলিবিদ্ধ হলেন তিনি। নূর হোসেনের মৃত্যুতে আন্দোলন আরো জোরালো হলো।

নব্বইয়ের ৬ ডিসেম্বর পতন হলো এরশাদ সরকারের। শহীদ নূর হোসেন দিবস উপলক্ষ রাজনৈতিক দলগুলো নানান কর্মসূচি পালন করে থাকে

এর আগে খালেদা জিয়া এক বিবৃতিতে স্বৈরাচার বিরোধী আন্দোলনের বীর শহীদ নূর হোসেনের স্মৃতির প্রতি গভীর শ্রদ্ধা জানিয়ে তার রুহের মাগফিরাতও কামনা করেন ।

তিনি বলেন, আমাদের গণতান্ত্রিক আন্দোলনের ইতিহাসে নূর হোসেন একটি অবিস্মরণীয় নাম। ১৯৮৭ সালের ১০ নভেম্বর স্বৈরাচার বিরোধী আন্দোলনের এ লড়াকু সৈনিক হিসেবে তিনি রাজপথে নেমে এসেছিলেন বুকে পিঠে ‘গণতন্ত্র মুক্তি পাক, স্বৈরাচার নিপাত যাক’ শ্লোগান লিখে। গণতন্ত্রের দাবিতে সোচ্চার এই যুবকের কন্ঠকে স্তব্ধ করে দিয়েছিলো স্বৈরাচারের বন্দুক। স্বৈরাচারের বুলেট বুকে বরণ করে নিয়েছিলেন নূর হোসেন।

বিএনপি চেয়ারপাসন বলেন, নূর হোসেনের সে অবদান বৃথা যায়নি। তার রক্তের ধারা বেয়েই ‘৯০ এর গণঅভ্যূত্থানে স্বৈরশাসকের পতন ঘটে, মুক্ত হয় আমাদের গণতন্ত্র। যে স্বপ্ন চোখে নিয়ে জীবন উৎসর্গ করে ছিলেন নুর হোসেন, তার সে স্বপ্ন আজো পুরোপুরি সফল হয়নি। স্বৈরাচারী শক্তির এ চক্রান্ত্র রুখতে হবে যে কোনো মূল্যে।

আজও গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারের সংগ্রামী সৈনিক শহীদ নূর হোসেন আমাদের প্রেরণা। তার দৃষ্টান্ত অনুসরণ করে বাংলাদেশ নামক রাষ্ট্রের গণতান্ত্রিক বিকাশ নিশ্চিত করতে হবে। আর এজন্য আমাদেরকে সর্বোচ্চ ত্যাগ স্বীকারে প্রস্তুত থাকতে হবে। আজকের এই দিনে আমি দল-মত নির্বিশেষে সকলের প্রতি আহবান জানাই- আসুন গণতন্ত্র পুনঃপ্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে আমরা সবাই ঐক্যবন্ধভাবে কাজ করি।

Comments

comments

সম্পাদক : মোহাম্মদ আবদুল বাছির
প্রকাশক: মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম
ফোন : ‎০১৭১৩৪০৯০৯০
৩৪৫/১, দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০
X
 
নিয়মিত খবর পড়তে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন
X