মঙ্গলবার, ২০শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ইং, ৮ই ফাল্গুন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, রাত ১১:২৯
শিরোনাম
  • ঘৃণাকে বিজয়ী হতে দেয়া যাবে না, ট্রাম্পকে ইঙ্গিত করে জর্জ ক্লুনি
  • আমার একটাই চিন্তা দেশের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করা: প্রধানমন্ত্রী
  • ‘কেন্দ্রীয় সরকারের আগ্রাসী নীতির কারণে কাশ্মীরকে হারাতে হবে’
  • সাড়ে চারমাস পর মুখোমুখি, খাদিজাকে উদ্দেশ্য করে যা বলল বদরুল
  • খালেদার ‘সাজা’ বিরোধী নেতাকর্মীদের মনোবল ভাঙ্গার কৌশল!
  • বিএনপির কর্মসূচি ‘যথাসময়ে’ জানানো হবে: রিজভী
  • দলের জন্য বোলিং করতেও রাজি মুশফিক
  • শিশু জিহাদের মৃত্যু: চার জনের ১০ বছর করে কারাদণ্ড
  • অবশেষে বাড়ি অবরুদ্ধ করে রাখা সেই দেয়াল ভেঙ্গে ফেলা হচ্ছে
  • সাক্ষ্য দিলেন খাদিজা, চাইলেন বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তি
  • বদরুলের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিতে আদালতে খাদিজা
  • আজ বগুড়ায় যেসব প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
  • রোহিঙ্গা স্থানান্তরের সরকারি পরিকল্পনার সঙ্গে দ্বিমত মানবাধিকার কমিশনের
  • মহেশখালীতে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে পুলিশের ‘বন্দুকযুদ্ধ’
  • হোয়াইট হাউসে কাজ করার দীর্ঘ অভিজ্ঞতার কথা জানালেন এই বাংলাদেশি সাংবাদিক
Monday, November 7, 2016 11:16 am
A- A A+ Print

আহমদ শফীর নেতৃত্বেই কওমি সনদের স্বীকৃতি: শিক্ষামন্ত্রী

160330_1

   
ঢাকা: কওমি শিক্ষাসনদের স্বীকৃতি চলমান কওমি মাদরাসা শিক্ষা কমিশনের চেয়ারম্যান মাওলানা আহমদ শফীর নেতৃত্বেই স্বীকৃতি দেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ। তিনি বলেন, ‘আলেমদের পরামর্শের বাইরে কোনও কিছু হবে না। কওমি স্বীকৃতি তাদের অধিকার।’ রবিবার রাতে নিজ বাসভবনে আলেমদের সঙ্গে এক বৈঠকে তিনি এসব কথা বলেন। বাংলাদেশ জমিয়তুল উলামার চেয়ারম্যান ও শোলাকিয়া ঈদগাহের খতিব ফরীদ উদ্দীন মাসঊদের নেতৃত্বে আলেমদের একটি প্রতিনিধি দল মন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন। বাংলাদেশ জমিয়তুল উলামা এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানায়।
শিক্ষামন্ত্রী বলেন, ‘২০১৭ সালে কওমি সনদের মান দিয়ে পরীক্ষা নিতে পারবো। বর্তমান কমিশনের মাধ্যমেও পরীক্ষা নেওয়ার কাজ চালানো যেতে পারে।’ ফরীদউদ্দীন মাসঊদ শিক্ষামন্ত্রীর কাছে শাহ আহমদ শফীকে চেয়ারম্যান করার প্রস্তাব দিলে জবাবে শিক্ষামন্ত্রী বলেন, ‘বর্তমান কমিশনের চেয়ারম্যানের নেতৃত্বেই ২০১৭ সালের শিক্ষাসনদের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে।’ স্কুলের শিক্ষা পাঠ্যক্রমে ধর্ম অবমাননাকর কিছু কিছু উক্তি থেকে যাওয়ার বিষয়টি ফরীদ উদ্দীন মাসঊদ তুলে ধরলে শিক্ষামন্ত্রী বলেন, ‘এই বিষয়গুলো আমরা দেখেছি। কিছু সংশোধনী এনেছি। কিছু ছাপা হয়ে যাওয়ার পরও আবার সম্পাদনা করে ছাপতে দিয়েছি। এরপরও ভুল থাকতে পারে। ভুল থাকলে আবার দেখা হবে। পরবর্তীতে এই সংশোধনী কমিটিতে আলেমদেরকেও রাখার কথা চিন্তা করছি।’ শিক্ষামন্ত্রীর হাতে এক লাখ আলেম, মুফতি ও ইমামের স্বাক্ষর সম্বলিত মানবকল্যাণে শান্তির ফাতওয়া তুলে দেন ফরীদ উদ্দীন মাসঊদ। এসময় আলেমদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, মাওলানা আবদুর রহীম কাসেমী, মুফতি ইবরাহীম শিলাস্থানী, মাওলানা নাসির উদ্দীন কাসেমী, মাওলানা শরফউদ্দীন, মাওলানা আরীফ উদ্দীন মারুফ, মাওলানা ইমদাদুল্লাহ কাসেমী, মাওলানা হোসাইনুল বান্না, মুফতি আবদুল কাইয়ুম খান, মাওলানা সাঈদ নিজামী, মাওলানা আবদুল আলীম ফরিদী, মাওলানা সদরুদ্দীন মাকনুন, মাওলানা মুসলেহ উদ্দীন, মাওলনা ইলিয়াস আহমদ কাসেমী, মাওলানা মাসউদুল কাদির, মাওলানা শফিকুল ইসলাম, মাওলানা ফারুক হোসাইন, মাওলানা আবদুল্লাহ শাকির, মাওলানা জহির বিন রুহুল প্রমুখ।
 

Comments

Comments!

 আহমদ শফীর নেতৃত্বেই কওমি সনদের স্বীকৃতি: শিক্ষামন্ত্রীAmarbangladeshonlineAmarbangladeshonline | Amarbangladeshonline

আহমদ শফীর নেতৃত্বেই কওমি সনদের স্বীকৃতি: শিক্ষামন্ত্রী

Monday, November 7, 2016 11:16 am
160330_1

 

 

ঢাকা: কওমি শিক্ষাসনদের স্বীকৃতি চলমান কওমি মাদরাসা শিক্ষা কমিশনের চেয়ারম্যান মাওলানা আহমদ শফীর নেতৃত্বেই স্বীকৃতি দেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ। তিনি বলেন, ‘আলেমদের পরামর্শের বাইরে কোনও কিছু হবে না। কওমি স্বীকৃতি তাদের অধিকার।’

রবিবার রাতে নিজ বাসভবনে আলেমদের সঙ্গে এক বৈঠকে তিনি এসব কথা বলেন।

বাংলাদেশ জমিয়তুল উলামার চেয়ারম্যান ও শোলাকিয়া ঈদগাহের খতিব ফরীদ উদ্দীন মাসঊদের নেতৃত্বে আলেমদের একটি প্রতিনিধি দল মন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন। বাংলাদেশ জমিয়তুল উলামা এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানায়।

শিক্ষামন্ত্রী বলেন, ‘২০১৭ সালে কওমি সনদের মান দিয়ে পরীক্ষা নিতে পারবো। বর্তমান কমিশনের মাধ্যমেও পরীক্ষা নেওয়ার কাজ চালানো যেতে পারে।’

ফরীদউদ্দীন মাসঊদ শিক্ষামন্ত্রীর কাছে শাহ আহমদ শফীকে চেয়ারম্যান করার প্রস্তাব দিলে জবাবে শিক্ষামন্ত্রী বলেন, ‘বর্তমান কমিশনের চেয়ারম্যানের নেতৃত্বেই ২০১৭ সালের শিক্ষাসনদের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে।’

স্কুলের শিক্ষা পাঠ্যক্রমে ধর্ম অবমাননাকর কিছু কিছু উক্তি থেকে যাওয়ার বিষয়টি ফরীদ উদ্দীন মাসঊদ তুলে ধরলে শিক্ষামন্ত্রী বলেন, ‘এই বিষয়গুলো আমরা দেখেছি। কিছু সংশোধনী এনেছি। কিছু ছাপা হয়ে যাওয়ার পরও আবার সম্পাদনা করে ছাপতে দিয়েছি। এরপরও ভুল থাকতে পারে। ভুল থাকলে আবার দেখা হবে। পরবর্তীতে এই সংশোধনী কমিটিতে আলেমদেরকেও রাখার কথা চিন্তা করছি।’

শিক্ষামন্ত্রীর হাতে এক লাখ আলেম, মুফতি ও ইমামের স্বাক্ষর সম্বলিত মানবকল্যাণে শান্তির ফাতওয়া তুলে দেন ফরীদ উদ্দীন মাসঊদ।

এসময় আলেমদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, মাওলানা আবদুর রহীম কাসেমী, মুফতি ইবরাহীম শিলাস্থানী, মাওলানা নাসির উদ্দীন কাসেমী, মাওলানা শরফউদ্দীন, মাওলানা আরীফ উদ্দীন মারুফ, মাওলানা ইমদাদুল্লাহ কাসেমী, মাওলানা হোসাইনুল বান্না, মুফতি আবদুল কাইয়ুম খান, মাওলানা সাঈদ নিজামী, মাওলানা আবদুল আলীম ফরিদী, মাওলানা সদরুদ্দীন মাকনুন, মাওলানা মুসলেহ উদ্দীন, মাওলনা ইলিয়াস আহমদ কাসেমী, মাওলানা মাসউদুল কাদির, মাওলানা শফিকুল ইসলাম, মাওলানা ফারুক হোসাইন, মাওলানা আবদুল্লাহ শাকির, মাওলানা জহির বিন রুহুল প্রমুখ।

 

Comments

comments

সম্পাদক : মোহাম্মদ আবদুল বাছির
প্রকাশক: মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম
ফোন : ‎০১৭১৩৪০৯০৯০
৩৪৫/১, দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০
X
 
নিয়মিত খবর পড়তে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন
X