সোমবার, ১৯শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ইং, ৭ই ফাল্গুন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, দুপুর ২:০২
শিরোনাম
  • ঘৃণাকে বিজয়ী হতে দেয়া যাবে না, ট্রাম্পকে ইঙ্গিত করে জর্জ ক্লুনি
  • আমার একটাই চিন্তা দেশের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করা: প্রধানমন্ত্রী
  • ‘কেন্দ্রীয় সরকারের আগ্রাসী নীতির কারণে কাশ্মীরকে হারাতে হবে’
  • সাড়ে চারমাস পর মুখোমুখি, খাদিজাকে উদ্দেশ্য করে যা বলল বদরুল
  • খালেদার ‘সাজা’ বিরোধী নেতাকর্মীদের মনোবল ভাঙ্গার কৌশল!
  • বিএনপির কর্মসূচি ‘যথাসময়ে’ জানানো হবে: রিজভী
  • দলের জন্য বোলিং করতেও রাজি মুশফিক
  • শিশু জিহাদের মৃত্যু: চার জনের ১০ বছর করে কারাদণ্ড
  • অবশেষে বাড়ি অবরুদ্ধ করে রাখা সেই দেয়াল ভেঙ্গে ফেলা হচ্ছে
  • সাক্ষ্য দিলেন খাদিজা, চাইলেন বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তি
  • বদরুলের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিতে আদালতে খাদিজা
  • আজ বগুড়ায় যেসব প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
  • রোহিঙ্গা স্থানান্তরের সরকারি পরিকল্পনার সঙ্গে দ্বিমত মানবাধিকার কমিশনের
  • মহেশখালীতে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে পুলিশের ‘বন্দুকযুদ্ধ’
  • হোয়াইট হাউসে কাজ করার দীর্ঘ অভিজ্ঞতার কথা জানালেন এই বাংলাদেশি সাংবাদিক
Tuesday, November 1, 2016 8:10 pm
A- A A+ Print

আ.লীগের দুই পক্ষের পাল্টাপাল্টি ধাওয়া, ফাঁকা গুলি

43c618222084acd7f5f93fc9a2072a92-28

চট্টগ্রাম নগরের আগ্রাবাদের সিজিএস কলোনিতে আধিপত্য বিস্তার নিয়ে আজ মঙ্গলবার বিকেলে আওয়ামী লীগের দুই পক্ষের মধ্যে পাল্টাপাল্টি হামলার ঘটনা ঘটেছে। এ সময় ফাঁকা গুলি ছোড়া হয় এবং কলোনির বাসিন্দাদের ঘরবাড়ি ভাঙচুর করা হয়। এ ঘটনায় মো. জামশেদ (২৪) নামের একজনকে কুপিয়ে জখম করা হয়। ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী ও এলাকাবাসী জানান, স্থানীয় ওয়ার্ড কাউন্সিলর এইচ এম সোহেল ও ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির বহিষ্কৃত নেতা সাইফুল আলম ওরফে লিমনের অনুসারীদের মধ্যে এই পাল্টাপাল্টি হামলার ঘটে। হামলাকারীরা কলোনির দুটি টিনের ঘর ধারালো অস্ত্র দিয়ে কেটে ফেলে এবং কলোনির আরেকটি বাসায় ঢুকে ঘরের জিনিসপত্র ও কাচের জানালা ভাঙচুর করে। আওয়ামী লীগের দুই পক্ষের পাল্টাপাল্টি হামলার ঘটনায় আগ্রাবাদের বাদামতলী মোড় ও সিজিএস কলোনিতে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। এ দুই পক্ষ চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীনের অনুসারী বলে জানা গেছেন। আজ বিকেল পাঁচটার দিকে সরেজমিনে দেখা যায়, সিজিএস কলোনি মাঠের এক পাশে পুলিশ অবস্থান নিয়ে আছে। মাঠের আরেক পাশে কাউন্সিলরের সমর্থকেরা অবস্থান নেন। মাঠের মাঝখানে আহাজারি করছিলেন আহত জামশেদের মা রহিমা খাতুন। এ সময় তাঁকে সান্ত্বনা দিতে থাকেন প্রতিবেশীরা। চট্টগ্রামের আগ্রাবাদের সিজিএস কলোনিতে আওয়ামী লীগের দুই পক্ষের পাল্টাপাল্টি ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। এ সময় বেশ কয়েকটি ঘর, ঘরের জানালার কাচ ও জিনিসপত্র ভাঙচুর করে এক পক্ষ। ছবিটি আজ মঙ্গলবার বিকেলে তোলা। ছবি: সৌরভ দাশআহত জামশেদের মা রহিমা খাতুন প্রথম আলোকে বলেন, তাঁর ছেলে আগ্রাবাদের লাকী প্লাজায় একটি পোশাকের দোকানে কাজ করেন। মঙ্গলবার বিকেলে কলোনিতে এলে হামলাকারীরা তাঁকে কুপিয়ে আহত করে। কাউন্সিলর এইচ এম সোহেলের অনুসারী ফোরকান মোহাম্মদ জালাল ও মোহাম্মদ পারভেজ প্রথম আলোর কাছে দাবি করেন, সাইফুল আলমের অনুসারী ২০-৩০ জন যুবক বিকেল সাড়ে চারটার দিকে মাথায় হেলমেট ও মুখোশ পরে কলোনিতে প্রবেশ করে। তারা সাত-আটটি ফাঁকা গুলি ছোড়ে। কলোনির বাসিন্দা মো. জামশেদকে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে আহত করে হামলাকারীরা। হামলার একপর্যায়ে এলাকাবাসীদের সঙ্গে নিয়ে ধাওয়া দিলে হামলাকারীরা পালিয়ে যায়। তাঁদের অভিযোগ, পুলিশের উপস্থিতিতেই সাইফুল আলমের অনুসারীরা এলাকায় তাণ্ডব চালান। তবে প্রথম আলোর কাছে হামলার অভিযোগ অস্বীকার করেছেন সাইফুল আলম। ডবলমুরিং থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বশির আহমেদ খান প্রথম আলোকে বলেন, বর্তমানে এলাকার পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আছে।

Comments

Comments!

 আ.লীগের দুই পক্ষের পাল্টাপাল্টি ধাওয়া, ফাঁকা গুলিAmarbangladeshonlineAmarbangladeshonline | Amarbangladeshonline

আ.লীগের দুই পক্ষের পাল্টাপাল্টি ধাওয়া, ফাঁকা গুলি

Tuesday, November 1, 2016 8:10 pm
43c618222084acd7f5f93fc9a2072a92-28

চট্টগ্রাম নগরের আগ্রাবাদের সিজিএস কলোনিতে আধিপত্য বিস্তার নিয়ে আজ মঙ্গলবার বিকেলে আওয়ামী লীগের দুই পক্ষের মধ্যে পাল্টাপাল্টি হামলার ঘটনা ঘটেছে। এ সময় ফাঁকা গুলি ছোড়া হয় এবং কলোনির বাসিন্দাদের ঘরবাড়ি ভাঙচুর করা হয়। এ ঘটনায় মো. জামশেদ (২৪) নামের একজনকে কুপিয়ে জখম করা হয়।
ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী ও এলাকাবাসী জানান, স্থানীয় ওয়ার্ড কাউন্সিলর এইচ এম সোহেল ও ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির বহিষ্কৃত নেতা সাইফুল আলম ওরফে লিমনের অনুসারীদের মধ্যে এই পাল্টাপাল্টি হামলার ঘটে। হামলাকারীরা কলোনির দুটি টিনের ঘর ধারালো অস্ত্র দিয়ে কেটে ফেলে এবং কলোনির আরেকটি বাসায় ঢুকে ঘরের জিনিসপত্র ও কাচের জানালা ভাঙচুর করে। আওয়ামী লীগের দুই পক্ষের পাল্টাপাল্টি হামলার ঘটনায় আগ্রাবাদের বাদামতলী মোড় ও সিজিএস কলোনিতে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে।
এ দুই পক্ষ চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীনের অনুসারী বলে জানা গেছেন।
আজ বিকেল পাঁচটার দিকে সরেজমিনে দেখা যায়, সিজিএস কলোনি মাঠের এক পাশে পুলিশ অবস্থান নিয়ে আছে। মাঠের আরেক পাশে কাউন্সিলরের সমর্থকেরা অবস্থান নেন। মাঠের মাঝখানে আহাজারি করছিলেন আহত জামশেদের মা রহিমা খাতুন। এ সময় তাঁকে সান্ত্বনা দিতে থাকেন প্রতিবেশীরা।

চট্টগ্রামের আগ্রাবাদের সিজিএস কলোনিতে আওয়ামী লীগের দুই পক্ষের পাল্টাপাল্টি ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। এ সময় বেশ কয়েকটি ঘর, ঘরের জানালার কাচ ও জিনিসপত্র ভাঙচুর করে এক পক্ষ। ছবিটি আজ মঙ্গলবার বিকেলে তোলা। ছবি: সৌরভ দাশআহত জামশেদের মা রহিমা খাতুন প্রথম আলোকে বলেন, তাঁর ছেলে আগ্রাবাদের লাকী প্লাজায় একটি পোশাকের দোকানে কাজ করেন। মঙ্গলবার বিকেলে কলোনিতে এলে হামলাকারীরা তাঁকে কুপিয়ে আহত করে।
কাউন্সিলর এইচ এম সোহেলের অনুসারী ফোরকান মোহাম্মদ জালাল ও মোহাম্মদ পারভেজ প্রথম আলোর কাছে দাবি করেন, সাইফুল আলমের অনুসারী ২০-৩০ জন যুবক বিকেল সাড়ে চারটার দিকে মাথায় হেলমেট ও মুখোশ পরে কলোনিতে প্রবেশ করে। তারা সাত-আটটি ফাঁকা গুলি ছোড়ে। কলোনির বাসিন্দা মো. জামশেদকে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে আহত করে হামলাকারীরা। হামলার একপর্যায়ে এলাকাবাসীদের সঙ্গে নিয়ে ধাওয়া দিলে হামলাকারীরা পালিয়ে যায়। তাঁদের অভিযোগ, পুলিশের উপস্থিতিতেই সাইফুল আলমের অনুসারীরা এলাকায় তাণ্ডব চালান।
তবে প্রথম আলোর কাছে হামলার অভিযোগ অস্বীকার করেছেন সাইফুল আলম।
ডবলমুরিং থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বশির আহমেদ খান প্রথম আলোকে বলেন, বর্তমানে এলাকার পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আছে।

Comments

comments

সম্পাদক : মোহাম্মদ আবদুল বাছির
প্রকাশক: মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম
ফোন : ‎০১৭১৩৪০৯০৯০
৩৪৫/১, দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০
X
 
নিয়মিত খবর পড়তে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন
X