রবিবার, ২৫শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ইং, ১৩ই ফাল্গুন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, সকাল ১১:৪৯
শিরোনাম
  • ঘৃণাকে বিজয়ী হতে দেয়া যাবে না, ট্রাম্পকে ইঙ্গিত করে জর্জ ক্লুনি
  • আমার একটাই চিন্তা দেশের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করা: প্রধানমন্ত্রী
  • ‘কেন্দ্রীয় সরকারের আগ্রাসী নীতির কারণে কাশ্মীরকে হারাতে হবে’
  • সাড়ে চারমাস পর মুখোমুখি, খাদিজাকে উদ্দেশ্য করে যা বলল বদরুল
  • খালেদার ‘সাজা’ বিরোধী নেতাকর্মীদের মনোবল ভাঙ্গার কৌশল!
  • বিএনপির কর্মসূচি ‘যথাসময়ে’ জানানো হবে: রিজভী
  • দলের জন্য বোলিং করতেও রাজি মুশফিক
  • শিশু জিহাদের মৃত্যু: চার জনের ১০ বছর করে কারাদণ্ড
  • অবশেষে বাড়ি অবরুদ্ধ করে রাখা সেই দেয়াল ভেঙ্গে ফেলা হচ্ছে
  • সাক্ষ্য দিলেন খাদিজা, চাইলেন বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তি
  • বদরুলের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিতে আদালতে খাদিজা
  • আজ বগুড়ায় যেসব প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
  • রোহিঙ্গা স্থানান্তরের সরকারি পরিকল্পনার সঙ্গে দ্বিমত মানবাধিকার কমিশনের
  • মহেশখালীতে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে পুলিশের ‘বন্দুকযুদ্ধ’
  • হোয়াইট হাউসে কাজ করার দীর্ঘ অভিজ্ঞতার কথা জানালেন এই বাংলাদেশি সাংবাদিক
Tuesday, November 1, 2016 10:26 pm
A- A A+ Print

‘ইইউ থেকে যুক্তরাজ্য বেরোলেও বাণিজ্যে প্রভাব পড়বে না’

158229_1

   
ঢাকা: যুক্তরাজ্য বাংলাদেশের বিশেষ অর্থনৈতিক জোনে সরাসরি বিনিয়োগের আগ্রহ প্রকাশ করেছে উল্লেখ করে বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ বলেছেন, ইইউ থেকে যুক্তরাজ্য বেরিয়ে গেলেও বাংলাদেশের সাথে চলমান বাণিজ্যে কোনো প্রভাব পড়বে না। তিনি বলেন, যুক্তরাজ্য বাংলাদেশের সঙ্গে বাণিজ্য ও বিনিয়োগ বৃদ্ধি করবে। বর্তমানে যুক্তরাজ্যের ২০০-এর বেশি প্রতিষ্ঠান বাংলাদেশে বিনিয়োগ করেছে এবং সফলভাবে বাণিজ্য পরিচালনা করছে। বিশেষ করে বাংলাদেশের তৈরি পোশাক শিল্প, কৃষি ভিত্তিক শিল্পতে যুক্তরাজ্য সরাসরি বিনিয়োগ করতে চায়। মঙ্গলবার ঢাকায় সচিবালয়ে তার অফিস কক্ষে বাংলাদেশে সফররত যুক্তরাজ্যের ডেভেলপমেন্ট ফর ইন্টারন্যাশনাল ডেভেলপমেন্ট (ডিএফআইডি) এর মহাপরিচালক ডেভিড কেনেডি এর নেতৃত্বে ঢাকায় নিযুক্ত যুক্তরাজ্যের রাষ্ট্রদূত আলিসন ব্লাকসহ উচ্চ পর্যায়ের ৫ সদস্য বিশিষ্ট প্রতিনিধি দল এর সঙ্গে বৈঠক করে সাংবাদিকদের তিনি এ সব কথা বলেন।
বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব হেদায়েতুল্লাহ আল মামুন, অতিরিক্ত সচিব মনোজ কুমার রায় এ সময় উপস্থিত ছিলেন। মন্ত্রী বলেন, সরকার ঘোষিত ১০০টি স্পেশাল ইকোনমিক জোনে যুক্তরাজ্য বিনিয়োগ করবে। যুক্তরাজ্যকে বিশেষ অর্থনৈতিক জোনে বিনিয়োগের বিষয়ে সব ধরনের সহযোগিতা প্রদান করা হবে জানিয়ে তিনি বলেন, বিনিয়োগের ক্ষেত্রে বাংলাদেশ উদারনীতি গ্রহণ করেছে। যে কোনো বিদেশি প্রতিষ্ঠান ১০০ ভাগ মূলধন বিনিয়োগ করতে পারবে এবং প্রয়োজনে মূলধন ও লাভ নিয়ে জেতে পারবেন। তিনি বলেন, সরকারের এ ধরনের উদান নীতির কারণে বিনিয়োগকারীরা বাংলাদেশে আসছেন। ইউরোপীয় ইউনিয়ন থেকে যুক্তরাজ্য বেরিয়ে গেলেও বাংলাদেশের সাথে চলমান বাণিজ্যে কোনো ধরনের প্রভাব পড়বে না। তোফায়েল আহমেদ বলেন, যুক্তরাজ্য বাংলাদেশের ভালো বন্ধু, ব্যবসায়ীক ও অর্থনৈতিক উন্নয়নের গুরুত্বপূর্ণ অংশিদার। যুক্তরাজ্যের সাথে বাংলাদেশের বাণিজ্য দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে। যুক্তরাজ্য বাংলাদেশকে অস্ত্র ছাড়া সকল পণ্যের শুল্ক ও কোটা মুক্ত প্রবেশাধিকার দিচ্ছে। বাণিজ্য ক্ষেত্রে বাংলাদেশ বরাবরই ইতিবাচক অবস্থায় রয়েছে। গত বছর বাংলাদেশ যুক্তরাজ্যে রপ্তানি করেছে ৩,৮০৯ দশমিক ৬৯ মিলিয়ন মার্কিন ডলার মূল্যের পণ্য, একই সময়ে আমদানি করেছে ২৭৬ দশমিক ৬০ মিলিয়ন মার্কিন ডলার মূল্যের পণ্য। বাংলাদেশের পক্ষে উদ্বৃত্ত বাণিজ্য হলো ৩,৫৩৩ দশমিক ০৯ মিলিয়ন মার্কিন ডলার, যা গত বছর থেকে ৬৫৭ দশমি ৮৪ মিলিয়ন মার্কিন ডলার বেশি। বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশের বর্তমান রপ্তানি ৩৪ দশমিক ২৪১ বিলিয়ন মার্কিন ডলার । ২০২১ সালে দেশের ৫০ বছর পূর্তিতে এ রপ্তানির পরিমাণ দাঁড়াবে ৬০ বিলিয়ন মার্কিন ডলার, এর মধ্যে শুধু তৈরি পোশাক থেকে আসবে ৫০ বিলিয়ন মার্কিন ডলার। ৭ম পঞ্চবার্ষিকী পরিকল্পনা মোতাবেক সরকার নতুন নতুন পণ্য বিদেশে রপ্তানিতে বিশেষ উদ্যোগ গ্রহণ করে নগদ আর্থিক সহায়তা প্রদান করে যাচ্ছে। রপ্তানি বাজার সম্প্রসারণেরও উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে। এ ক্ষেত্রে বাণিজ্যমন্ত্রী যুক্তরাজ্যের আন্তরিক সহযোগিতা কামনা করেন। সফররত যুক্তরাজ্যের ডিএফআইডি এর মহাপরিচালক বলেন, বাংলাদেশ অর্থনৈতিক ও সামাজিক ক্ষেত্রে অভূতপূর্ব উন্নতি করেছে। আগামী দিনগুলোতে বাংলাদেশ আরো ভালো করবে। যুক্তরাজ্য বাংলাদেশের সঙ্গে বাণিজ্য ও বিনিয়োগ আরো বৃদ্ধি করবে। তিনি বলেন, বাংলাদেশ সরকার ঘোষিত ১০০টি বিশেষ অর্থনৈতিক জোনে যুক্তরাজ্য বিনিয়োগের সিদ্ধান্ত নিয়েছে। বাংলাদেশ বিনিয়োগের জন্য ভালো স্থান।
 

Comments

Comments!

 ‘ইইউ থেকে যুক্তরাজ্য বেরোলেও বাণিজ্যে প্রভাব পড়বে না’AmarbangladeshonlineAmarbangladeshonline | Amarbangladeshonline

‘ইইউ থেকে যুক্তরাজ্য বেরোলেও বাণিজ্যে প্রভাব পড়বে না’

Tuesday, November 1, 2016 10:26 pm
158229_1

 

 

ঢাকা: যুক্তরাজ্য বাংলাদেশের বিশেষ অর্থনৈতিক জোনে সরাসরি বিনিয়োগের আগ্রহ প্রকাশ করেছে উল্লেখ করে বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ বলেছেন, ইইউ থেকে যুক্তরাজ্য বেরিয়ে গেলেও বাংলাদেশের সাথে চলমান বাণিজ্যে কোনো প্রভাব পড়বে না।

তিনি বলেন, যুক্তরাজ্য বাংলাদেশের সঙ্গে বাণিজ্য ও বিনিয়োগ বৃদ্ধি করবে। বর্তমানে যুক্তরাজ্যের ২০০-এর বেশি প্রতিষ্ঠান বাংলাদেশে বিনিয়োগ করেছে এবং সফলভাবে বাণিজ্য পরিচালনা করছে। বিশেষ করে বাংলাদেশের তৈরি পোশাক শিল্প, কৃষি ভিত্তিক শিল্পতে যুক্তরাজ্য সরাসরি বিনিয়োগ করতে চায়।

মঙ্গলবার ঢাকায় সচিবালয়ে তার অফিস কক্ষে বাংলাদেশে সফররত যুক্তরাজ্যের ডেভেলপমেন্ট ফর ইন্টারন্যাশনাল ডেভেলপমেন্ট (ডিএফআইডি) এর মহাপরিচালক ডেভিড কেনেডি এর নেতৃত্বে ঢাকায় নিযুক্ত যুক্তরাজ্যের রাষ্ট্রদূত আলিসন ব্লাকসহ উচ্চ পর্যায়ের ৫ সদস্য বিশিষ্ট প্রতিনিধি দল এর সঙ্গে বৈঠক করে সাংবাদিকদের তিনি এ সব কথা বলেন।

বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব হেদায়েতুল্লাহ আল মামুন, অতিরিক্ত সচিব মনোজ কুমার রায় এ সময় উপস্থিত ছিলেন।

মন্ত্রী বলেন, সরকার ঘোষিত ১০০টি স্পেশাল ইকোনমিক জোনে যুক্তরাজ্য বিনিয়োগ করবে।

যুক্তরাজ্যকে বিশেষ অর্থনৈতিক জোনে বিনিয়োগের বিষয়ে সব ধরনের সহযোগিতা প্রদান করা হবে জানিয়ে তিনি বলেন, বিনিয়োগের ক্ষেত্রে বাংলাদেশ উদারনীতি গ্রহণ করেছে। যে কোনো বিদেশি প্রতিষ্ঠান ১০০ ভাগ মূলধন বিনিয়োগ করতে পারবে এবং প্রয়োজনে মূলধন ও লাভ নিয়ে জেতে পারবেন।

তিনি বলেন, সরকারের এ ধরনের উদান নীতির কারণে বিনিয়োগকারীরা বাংলাদেশে আসছেন। ইউরোপীয় ইউনিয়ন থেকে যুক্তরাজ্য বেরিয়ে গেলেও বাংলাদেশের সাথে চলমান বাণিজ্যে কোনো ধরনের প্রভাব পড়বে না।

তোফায়েল আহমেদ বলেন, যুক্তরাজ্য বাংলাদেশের ভালো বন্ধু, ব্যবসায়ীক ও অর্থনৈতিক উন্নয়নের গুরুত্বপূর্ণ অংশিদার। যুক্তরাজ্যের সাথে বাংলাদেশের বাণিজ্য দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে। যুক্তরাজ্য বাংলাদেশকে অস্ত্র ছাড়া সকল পণ্যের শুল্ক ও কোটা মুক্ত প্রবেশাধিকার দিচ্ছে। বাণিজ্য ক্ষেত্রে বাংলাদেশ বরাবরই ইতিবাচক অবস্থায় রয়েছে।

গত বছর বাংলাদেশ যুক্তরাজ্যে রপ্তানি করেছে ৩,৮০৯ দশমিক ৬৯ মিলিয়ন মার্কিন ডলার মূল্যের পণ্য, একই সময়ে আমদানি করেছে ২৭৬ দশমিক ৬০ মিলিয়ন মার্কিন ডলার মূল্যের পণ্য। বাংলাদেশের পক্ষে উদ্বৃত্ত বাণিজ্য হলো ৩,৫৩৩ দশমিক ০৯ মিলিয়ন মার্কিন ডলার, যা গত বছর থেকে ৬৫৭ দশমি ৮৪ মিলিয়ন মার্কিন ডলার বেশি।

বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশের বর্তমান রপ্তানি ৩৪ দশমিক ২৪১ বিলিয়ন মার্কিন ডলার । ২০২১ সালে দেশের ৫০ বছর পূর্তিতে এ রপ্তানির পরিমাণ দাঁড়াবে ৬০ বিলিয়ন মার্কিন ডলার, এর মধ্যে শুধু তৈরি পোশাক থেকে আসবে ৫০ বিলিয়ন মার্কিন ডলার। ৭ম পঞ্চবার্ষিকী পরিকল্পনা মোতাবেক সরকার নতুন নতুন পণ্য বিদেশে রপ্তানিতে বিশেষ উদ্যোগ গ্রহণ করে নগদ আর্থিক সহায়তা প্রদান করে যাচ্ছে। রপ্তানি বাজার সম্প্রসারণেরও উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে। এ ক্ষেত্রে বাণিজ্যমন্ত্রী যুক্তরাজ্যের আন্তরিক সহযোগিতা কামনা করেন।

সফররত যুক্তরাজ্যের ডিএফআইডি এর মহাপরিচালক বলেন, বাংলাদেশ অর্থনৈতিক ও সামাজিক ক্ষেত্রে অভূতপূর্ব উন্নতি করেছে। আগামী দিনগুলোতে বাংলাদেশ আরো ভালো করবে। যুক্তরাজ্য বাংলাদেশের সঙ্গে বাণিজ্য ও বিনিয়োগ আরো বৃদ্ধি করবে।

তিনি বলেন, বাংলাদেশ সরকার ঘোষিত ১০০টি বিশেষ অর্থনৈতিক জোনে যুক্তরাজ্য বিনিয়োগের সিদ্ধান্ত নিয়েছে। বাংলাদেশ বিনিয়োগের জন্য ভালো স্থান।

 

Comments

comments

সম্পাদক : মোহাম্মদ আবদুল বাছির
প্রকাশক: মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম
ফোন : ‎০১৭১৩৪০৯০৯০
৩৪৫/১, দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০
X
 
নিয়মিত খবর পড়তে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন
X