সোমবার, ২৬শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ইং, ১৪ই ফাল্গুন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, সকাল ৭:০১
শিরোনাম
  • ঘৃণাকে বিজয়ী হতে দেয়া যাবে না, ট্রাম্পকে ইঙ্গিত করে জর্জ ক্লুনি
  • আমার একটাই চিন্তা দেশের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করা: প্রধানমন্ত্রী
  • ‘কেন্দ্রীয় সরকারের আগ্রাসী নীতির কারণে কাশ্মীরকে হারাতে হবে’
  • সাড়ে চারমাস পর মুখোমুখি, খাদিজাকে উদ্দেশ্য করে যা বলল বদরুল
  • খালেদার ‘সাজা’ বিরোধী নেতাকর্মীদের মনোবল ভাঙ্গার কৌশল!
  • বিএনপির কর্মসূচি ‘যথাসময়ে’ জানানো হবে: রিজভী
  • দলের জন্য বোলিং করতেও রাজি মুশফিক
  • শিশু জিহাদের মৃত্যু: চার জনের ১০ বছর করে কারাদণ্ড
  • অবশেষে বাড়ি অবরুদ্ধ করে রাখা সেই দেয়াল ভেঙ্গে ফেলা হচ্ছে
  • সাক্ষ্য দিলেন খাদিজা, চাইলেন বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তি
  • বদরুলের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিতে আদালতে খাদিজা
  • আজ বগুড়ায় যেসব প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
  • রোহিঙ্গা স্থানান্তরের সরকারি পরিকল্পনার সঙ্গে দ্বিমত মানবাধিকার কমিশনের
  • মহেশখালীতে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে পুলিশের ‘বন্দুকযুদ্ধ’
  • হোয়াইট হাউসে কাজ করার দীর্ঘ অভিজ্ঞতার কথা জানালেন এই বাংলাদেশি সাংবাদিক
Sunday, November 27, 2016 5:59 pm
A- A A+ Print

ইমো, ভাইবারে বিধি-নিষেধ আরোপের পরিকল্পনা নেই: তারানা

40

ডাক ও টেলিযোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম বলেছেন, ভাইবার, ইমো, হোয়াটসঅ্যাপ ইত্যাদি অ্যাপসের মাধ্যমে ভয়েস কলে সরকারের বিধি-নিষেধ আরোপের কোনো পরিকল্পনা নেই। আজ রোববার সকালে মন্ত্রণালয়ে নিজ কার্যালয়ে বাসসের সঙ্গে আলাপকালে প্রতিমন্ত্রী বলেন, অবৈধ ভিওআইপি বন্ধে আমরা দৃঢ় প্রতিজ্ঞ। তবে যোগাযোগ অ্যাপসের মাধ্যমে ফ্রি কলিংয়ে বিধি-নিষেধ আরোপের কোনো পরিকল্পনা নেই। ভিওআইপির মাধ্যমে অবৈধ কল বন্ধে তাঁর মন্ত্রণালয়ের নিরলস প্রচেষ্টার কথা তুলে ধরে তিনি বলেন, অবৈধ কর্মকাণ্ডের বিরুদ্ধে আমাদের ‘জিরো টলারেন্স’ অব্যাহত থাকবে। কিছু গণমাধ্যমে বলা হয়েছে, ওটিটি অ্যাপস নিয়ন্ত্রণ করা হবে। এ ধরনের ধারণার বিষয় স্পষ্ট করতে তারানা হালিম এ কথা বলেন। এর আগে শুক্রবার বাংলাদেশ টেলিকমিউনিকেশন রেগুলেটরি কমিশনের (বিটিআরসি) চেয়ারম্যান বলেন, তারা ওটিটি (ওভার-দ্য-টপ) অথবা আন্তর্জাতিক বৈধ কল কমাতে অবদান রাখা ফ্রি কলিং অ্যাপস হিসেবে যোগাযোগ অ্যাপস ব্যবহারের গাইডলাইন তৈরি করবে। তবে কিছু গণমাধ্যম সুনির্দিষ্টভাবে প্রতিবেদন করেছে যে, কমিউনিকেশন অ্যাপস-ভাইবার, ইমো, হোয়াটসঅ্যাপ পুনরায় বন্ধ হতে যাচ্ছে। বিটিআরসি চেয়ারম্যান বলেন, কেবলমাত্র ভিওআইপির অবৈধ কলের কারণেই নয়, ওটিটি অ্যাপসের ব্যবহারের কারণে ও বৈধ চ্যানেলে আন্তর্জাতিক কল কমছে। বিটিআরসি জানায়, বর্তমানে দেশে দৈনিক ৭০-৮০ মিলিয়ন মিনিট আন্তর্জাতিক কল আসছে। কল সবচেয়ে বেশি বৃদ্ধি পায় ২০১৪ সালের শেষের দিকে। কল হার ৩ সেন্ট থেকে কমে দেড় সেন্ট হওয়ায় কলের পরিমাণ বেড়ে দাঁড়ায় ১২৩ মিলিয়ন মিনিট। তবে কলরেট বেড়ে ২ সেন্ট হওয়ায় কলের পরিমাণ বেড়ে যায়।

Comments

Comments!

 ইমো, ভাইবারে বিধি-নিষেধ আরোপের পরিকল্পনা নেই: তারানাAmarbangladeshonlineAmarbangladeshonline | Amarbangladeshonline

ইমো, ভাইবারে বিধি-নিষেধ আরোপের পরিকল্পনা নেই: তারানা

Sunday, November 27, 2016 5:59 pm
40

ডাক ও টেলিযোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম বলেছেন, ভাইবার, ইমো, হোয়াটসঅ্যাপ ইত্যাদি অ্যাপসের মাধ্যমে ভয়েস কলে সরকারের বিধি-নিষেধ আরোপের কোনো পরিকল্পনা নেই।

আজ রোববার সকালে মন্ত্রণালয়ে নিজ কার্যালয়ে বাসসের সঙ্গে আলাপকালে প্রতিমন্ত্রী বলেন, অবৈধ ভিওআইপি বন্ধে আমরা দৃঢ় প্রতিজ্ঞ। তবে যোগাযোগ অ্যাপসের মাধ্যমে ফ্রি কলিংয়ে বিধি-নিষেধ আরোপের কোনো পরিকল্পনা নেই। ভিওআইপির মাধ্যমে অবৈধ কল বন্ধে তাঁর মন্ত্রণালয়ের নিরলস প্রচেষ্টার কথা তুলে ধরে তিনি বলেন, অবৈধ কর্মকাণ্ডের বিরুদ্ধে আমাদের ‘জিরো টলারেন্স’ অব্যাহত থাকবে।

কিছু গণমাধ্যমে বলা হয়েছে, ওটিটি অ্যাপস নিয়ন্ত্রণ করা হবে। এ ধরনের ধারণার বিষয় স্পষ্ট করতে তারানা হালিম এ কথা বলেন।

এর আগে শুক্রবার বাংলাদেশ টেলিকমিউনিকেশন রেগুলেটরি কমিশনের (বিটিআরসি) চেয়ারম্যান বলেন, তারা ওটিটি (ওভার-দ্য-টপ) অথবা আন্তর্জাতিক বৈধ কল কমাতে অবদান রাখা ফ্রি কলিং অ্যাপস হিসেবে যোগাযোগ অ্যাপস ব্যবহারের গাইডলাইন তৈরি করবে।

তবে কিছু গণমাধ্যম সুনির্দিষ্টভাবে প্রতিবেদন করেছে যে, কমিউনিকেশন অ্যাপস-ভাইবার, ইমো, হোয়াটসঅ্যাপ পুনরায় বন্ধ হতে যাচ্ছে।

বিটিআরসি চেয়ারম্যান বলেন, কেবলমাত্র ভিওআইপির অবৈধ কলের কারণেই নয়, ওটিটি অ্যাপসের ব্যবহারের কারণে ও বৈধ চ্যানেলে আন্তর্জাতিক কল কমছে।

বিটিআরসি জানায়, বর্তমানে দেশে দৈনিক ৭০-৮০ মিলিয়ন মিনিট আন্তর্জাতিক কল আসছে। কল সবচেয়ে বেশি বৃদ্ধি পায় ২০১৪ সালের শেষের দিকে। কল হার ৩ সেন্ট থেকে কমে দেড় সেন্ট হওয়ায় কলের পরিমাণ বেড়ে দাঁড়ায় ১২৩ মিলিয়ন মিনিট। তবে কলরেট বেড়ে ২ সেন্ট হওয়ায় কলের পরিমাণ বেড়ে যায়।

Comments

comments

সম্পাদক : মোহাম্মদ আবদুল বাছির
প্রকাশক: মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম
ফোন : ‎০১৭১৩৪০৯০৯০
৩৪৫/১, দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০
X
 
নিয়মিত খবর পড়তে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন
X