শুক্রবার, ২৩শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ইং, ১১ই ফাল্গুন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, রাত ১২:১৫
শিরোনাম
  • ঘৃণাকে বিজয়ী হতে দেয়া যাবে না, ট্রাম্পকে ইঙ্গিত করে জর্জ ক্লুনি
  • আমার একটাই চিন্তা দেশের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করা: প্রধানমন্ত্রী
  • ‘কেন্দ্রীয় সরকারের আগ্রাসী নীতির কারণে কাশ্মীরকে হারাতে হবে’
  • সাড়ে চারমাস পর মুখোমুখি, খাদিজাকে উদ্দেশ্য করে যা বলল বদরুল
  • খালেদার ‘সাজা’ বিরোধী নেতাকর্মীদের মনোবল ভাঙ্গার কৌশল!
  • বিএনপির কর্মসূচি ‘যথাসময়ে’ জানানো হবে: রিজভী
  • দলের জন্য বোলিং করতেও রাজি মুশফিক
  • শিশু জিহাদের মৃত্যু: চার জনের ১০ বছর করে কারাদণ্ড
  • অবশেষে বাড়ি অবরুদ্ধ করে রাখা সেই দেয়াল ভেঙ্গে ফেলা হচ্ছে
  • সাক্ষ্য দিলেন খাদিজা, চাইলেন বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তি
  • বদরুলের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিতে আদালতে খাদিজা
  • আজ বগুড়ায় যেসব প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
  • রোহিঙ্গা স্থানান্তরের সরকারি পরিকল্পনার সঙ্গে দ্বিমত মানবাধিকার কমিশনের
  • মহেশখালীতে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে পুলিশের ‘বন্দুকযুদ্ধ’
  • হোয়াইট হাউসে কাজ করার দীর্ঘ অভিজ্ঞতার কথা জানালেন এই বাংলাদেশি সাংবাদিক
Monday, May 22, 2017 11:49 pm
A- A A+ Print

ইসরায়েলে নেমে ইরান নিয়ে ট্রাম্পের হুঁশিয়ারি

doland_trump20170522200339 (1)

রাষ্ট্রীয় সফরে ইসরায়েলে নেমেই ইরান নিয়ে হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। তিনি বলেছেন, ‘ইরানকে কখনোই পরমাণু অস্ত্রধর রাষ্ট্র হিসেবে মেনে নেওয়া হবে না।’ সোমবার ইসরায়েলি প্রেসিডেন্ট রুভেন রিভলিনের সঙ্গে সাংবাদিকদের উদ্দেশে এ কথা বলেন ট্রাম্প। দুই দিনের রাষ্ট্রীয় সফর শেষে সৌদি আরব থেকে সোমবার ইসরায়েলে আসেন ট্রাম্প। সৌদি আরবে মুসলিম বিশ্বের নেতাদের এক শীর্ষ সম্মেলন ইসলাম ও ইসলামি সন্ত্রাসবাদ নিয়ে বক্তব্য দেন তিনি। এ ছাড়া তেলসমৃদ্ধ উপসাগরীয় সহযোগিতা সংস্থার (জিসিসি) সদস্য দেশের নেতাদের সঙ্গেও পৃথক শীর্ষ সম্মেলন করেন। সোমবার ইরানবিরোধী সতর্কতার মধ্য দিয়ে ইসরায়েল সফর শুরু করলেও ইসরালি ও ফিলিস্তিনি নেতাদের সঙ্গে বৈঠক করবেন ট্রাম্প। দুই পক্ষের মধ্যে শান্তি চুক্তির আহ্বান জানিয়েছেন তিনি। তবে চুক্তির ধরন সম্পর্কে কোনো দিক নির্দেশনা দেননি। ইসরায়েল ও ফিলিস্তিন কর্তৃপক্ষকে সরাসরি আলাপ-আলোচনার মাধ্যমে চুক্তির বিষয়টি নিষ্পত্তির কথা বলেছেন এই মার্কিন প্রেসিডেন্ট। প্রেসিডেন্ট হিসেবে প্রথম বিদেশ সফরের ধারাবাহিকতায় দুই দিন ইসরায়েলে থাকবেন ট্রাম্প ও তার সফরসঙ্গীরা। এ দিন বিমানবন্দরে ট্রাম্প দম্পতিকে স্বাগত জানান ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু ও তার স্ত্রী। প্রেসিডেন্ট রিভলিনের বাসভবনে ট্রাম্প বলেন, ইরানকে অবশ্যই সন্ত্রাসী ও জঙ্গিদের অর্থায়ন, প্রশিক্ষণ ও রসদ জোগান দেওয়া থামাতে হবে। ইরানের দাবি, তারা পরমাণু অস্ত্র চায় না। কিন্তু ইসরায়েল ও যুক্তরাষ্ট্র দাবি করে, গোপনে পারমাণবিক কার্যক্রম চালাচ্ছে তারা। ইসরায়েল মনে করে, তাদের জন্য ধ্বংসাত্মক হুমকি ইরান। ইসরায়েল ও যুক্তরাষ্ট্রের দীর্ঘ সম্পর্ক আরো শক্তিশালী করার প্রত্যয় ব্যক্ত করে ট্রাম্প বলেন, ‘আমরা শুধু দীর্ঘ সময়ের বন্ধুই নই, আমরা পরস্পরের মহৎ মিত্র ও অংশীদার।’ শান্তি প্রক্রিয়া নিয়ে ট্রাম্প বলেন, ইসরায়েল ও ফিলিস্তিনের শিশুরা নিরাপদে বেড়ে ওঠার অধিকার রাখে। যে সহিংসতা অনেক জীবন শেষ করছে, তা ছাড়াই তাদের মুক্তভাবে বেড়ে ওঠার সুযোগ নিশ্চিত করতে। তথ্যসূত্র : বিবিসি অনলাইন

Comments

Comments!

 ইসরায়েলে নেমে ইরান নিয়ে ট্রাম্পের হুঁশিয়ারিAmarbangladeshonlineAmarbangladeshonline | Amarbangladeshonline

ইসরায়েলে নেমে ইরান নিয়ে ট্রাম্পের হুঁশিয়ারি

Monday, May 22, 2017 11:49 pm
doland_trump20170522200339 (1)

রাষ্ট্রীয় সফরে ইসরায়েলে নেমেই ইরান নিয়ে হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প।

তিনি বলেছেন, ‘ইরানকে কখনোই পরমাণু অস্ত্রধর রাষ্ট্র হিসেবে মেনে নেওয়া হবে না।’ সোমবার ইসরায়েলি প্রেসিডেন্ট রুভেন রিভলিনের সঙ্গে সাংবাদিকদের উদ্দেশে এ কথা বলেন ট্রাম্প।

দুই দিনের রাষ্ট্রীয় সফর শেষে সৌদি আরব থেকে সোমবার ইসরায়েলে আসেন ট্রাম্প। সৌদি আরবে মুসলিম বিশ্বের নেতাদের এক শীর্ষ সম্মেলন ইসলাম ও ইসলামি সন্ত্রাসবাদ নিয়ে বক্তব্য দেন তিনি। এ ছাড়া তেলসমৃদ্ধ উপসাগরীয় সহযোগিতা সংস্থার (জিসিসি) সদস্য দেশের নেতাদের সঙ্গেও পৃথক শীর্ষ সম্মেলন করেন।

সোমবার ইরানবিরোধী সতর্কতার মধ্য দিয়ে ইসরায়েল সফর শুরু করলেও ইসরালি ও ফিলিস্তিনি নেতাদের সঙ্গে বৈঠক করবেন ট্রাম্প। দুই পক্ষের মধ্যে শান্তি চুক্তির আহ্বান জানিয়েছেন তিনি। তবে চুক্তির ধরন সম্পর্কে কোনো দিক নির্দেশনা দেননি। ইসরায়েল ও ফিলিস্তিন কর্তৃপক্ষকে সরাসরি আলাপ-আলোচনার মাধ্যমে চুক্তির বিষয়টি নিষ্পত্তির কথা বলেছেন এই মার্কিন প্রেসিডেন্ট।

প্রেসিডেন্ট হিসেবে প্রথম বিদেশ সফরের ধারাবাহিকতায় দুই দিন ইসরায়েলে থাকবেন ট্রাম্প ও তার সফরসঙ্গীরা। এ দিন বিমানবন্দরে ট্রাম্প দম্পতিকে স্বাগত জানান ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু ও তার স্ত্রী।

প্রেসিডেন্ট রিভলিনের বাসভবনে ট্রাম্প বলেন, ইরানকে অবশ্যই সন্ত্রাসী ও জঙ্গিদের অর্থায়ন, প্রশিক্ষণ ও রসদ জোগান দেওয়া থামাতে হবে।

ইরানের দাবি, তারা পরমাণু অস্ত্র চায় না। কিন্তু ইসরায়েল ও যুক্তরাষ্ট্র দাবি করে, গোপনে পারমাণবিক কার্যক্রম চালাচ্ছে তারা। ইসরায়েল মনে করে, তাদের জন্য ধ্বংসাত্মক হুমকি ইরান।

ইসরায়েল ও যুক্তরাষ্ট্রের দীর্ঘ সম্পর্ক আরো শক্তিশালী করার প্রত্যয় ব্যক্ত করে ট্রাম্প বলেন, ‘আমরা শুধু দীর্ঘ সময়ের বন্ধুই নই, আমরা পরস্পরের মহৎ মিত্র ও অংশীদার।’

শান্তি প্রক্রিয়া নিয়ে ট্রাম্প বলেন, ইসরায়েল ও ফিলিস্তিনের শিশুরা নিরাপদে বেড়ে ওঠার অধিকার রাখে। যে সহিংসতা অনেক জীবন শেষ করছে, তা ছাড়াই তাদের মুক্তভাবে বেড়ে ওঠার সুযোগ নিশ্চিত করতে।

তথ্যসূত্র : বিবিসি অনলাইন

Comments

comments

সম্পাদক : মোহাম্মদ আবদুল বাছির
প্রকাশক: মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম
ফোন : ‎০১৭১৩৪০৯০৯০
৩৪৫/১, দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০
X
 
নিয়মিত খবর পড়তে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন
X