শুক্রবার, ২৩শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ইং, ১১ই ফাল্গুন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, বিকাল ৩:৫৫
শিরোনাম
  • ঘৃণাকে বিজয়ী হতে দেয়া যাবে না, ট্রাম্পকে ইঙ্গিত করে জর্জ ক্লুনি
  • আমার একটাই চিন্তা দেশের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করা: প্রধানমন্ত্রী
  • ‘কেন্দ্রীয় সরকারের আগ্রাসী নীতির কারণে কাশ্মীরকে হারাতে হবে’
  • সাড়ে চারমাস পর মুখোমুখি, খাদিজাকে উদ্দেশ্য করে যা বলল বদরুল
  • খালেদার ‘সাজা’ বিরোধী নেতাকর্মীদের মনোবল ভাঙ্গার কৌশল!
  • বিএনপির কর্মসূচি ‘যথাসময়ে’ জানানো হবে: রিজভী
  • দলের জন্য বোলিং করতেও রাজি মুশফিক
  • শিশু জিহাদের মৃত্যু: চার জনের ১০ বছর করে কারাদণ্ড
  • অবশেষে বাড়ি অবরুদ্ধ করে রাখা সেই দেয়াল ভেঙ্গে ফেলা হচ্ছে
  • সাক্ষ্য দিলেন খাদিজা, চাইলেন বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তি
  • বদরুলের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিতে আদালতে খাদিজা
  • আজ বগুড়ায় যেসব প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
  • রোহিঙ্গা স্থানান্তরের সরকারি পরিকল্পনার সঙ্গে দ্বিমত মানবাধিকার কমিশনের
  • মহেশখালীতে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে পুলিশের ‘বন্দুকযুদ্ধ’
  • হোয়াইট হাউসে কাজ করার দীর্ঘ অভিজ্ঞতার কথা জানালেন এই বাংলাদেশি সাংবাদিক
Tuesday, June 27, 2017 6:39 am
A- A A+ Print

ঈদ উল্লাসে উত্তাল হাতিরঝিল

15

নগরীর ঈদ আনন্দ যেন উপচে পড়ছে হাতিরঝিলে। রাজধানীবাসীর ঘুরতে যাওয়ার পছন্দের স্থান এখন এই বিনোদন কেন্দ্র। তাই সকাল থেকেই নগরবাসীর পদচারণায় মুখর হয়ে ওঠে গোটা হাতিরঝিল। ঈদ উপলক্ষে সোমবার সকাল থেকেই হাতিরঝিলে আসতে শুরু করে বিনোদনপ্রেমী মানুষ। ছোট-বড়, বন্ধু-বান্ধবী, স্বামী-স্ত্রীসহ অনেকে গোটা পরিবার নিয়ে উপভোগ করছেন হাতিরঝিলের প্রাকৃতিক সৌন্দর্য্য। বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে হাতিরঝিলে বাড়তে থাকে মানুষের সংখ্যা। বাড়তে থাকে ঈদ আনন্দ ভাগাভাগির উৎসব। ঈদ উপলক্ষে হাতিরঝিলও সেজেছে নতুন সাজে। নতুন সাজে প্রস্তুত করা হয় চক্রাকার বাস, ওয়াটার বোট। তাই পরিচ্ছন্ন বিনোদন কেন্দ্র হিসেবে আকর্ষণ করে ঈদমুখর মানুষকে। পরিবার নিয়ে আনন্দঘন মুহূর্ত কাটাতে নগরীর বেশিরভাগ মানুষের গন্তব্য হয়ে উঠেছে এই বিনোদন কেন্দ্র। দুপুরের আগেই টইটুম্বর হয়ে যায় পুরো এলাকা। যেন পা ফেলা ভার। হাতিরঝিলের বিশেষ আকর্ষণ ওয়াটার বাসে চড়ে লেকে ভাসার আনন্দ উপভোগ করার পাশাপাশি হরেক রকম সৌন্দর্যে বিমোহিত দর্শনার্থীরা। আগত বিনোদনপ্রেমীরা কেউ রেলিং ধরে মুহূর্তটিকে স্মৃতিময় করে রাখতে সবাই মিলে ছবি তুলছেন, কেউবা প্রিয়জনকে নিয়ে এক ক্লিকে নিজেদের ফ্রেমবন্দি করছেন সেলফিতে। অনেকে আবার বন্ধু-বান্ধবকে নিয়ে পিকআপে চড়ে নেচে-গেয়ে হৈ-হুল্লোড়ে ঘুরে বেড়াচ্ছেন হাতিরঝিলের চারপাশ। কেউ আবার ঝিলের পাড়ে বসে গল্প-আড্ডায় মেতে উঠেছেন। সবার চোখে মুখেই ঈদ আনন্দের ছাপ। ব্যস্ত নগরীতে স্বস্তির জায়গা হিসেবে পরিচিত হাতিরঝিলে সন্ধ্যার পর যেন তিল ধারণের ঠাঁই নেই। জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় থেকে দল বেধে ঘুরতে এসেছে হৃদয় ও তার বন্ধুরা। আজকের দিনে হাতিরঝিলে ঘুরে বেজায় তৃপ্ত তারা। হৃদয় বলেন, ক্যাম্পাস থেকে কষ্ট করে হাতিরঝিলে ঘুরতে আসছি এটাই একটা ভালো লাগার বিষয়। রাজধানীর বিনোদন কেন্দ্র হিসেবে আসলে হাতিরঝিলের জুড়ি নেই। তবে মানুষ একটু বেশি আর আবহাওয়া গরম থাকায় বেগ পোহাতে হচ্ছে। তাদের দলের আরেক সদস্য হিসাম বলেন, আমার কাছে গরম-টরম কিছুই না। ঈদের দিনে ঘুরতে পারাটাই মজার। আর হাতিরঝিল হলেতো কথাই নাই। গরম লাগছিল, আইসক্রিম খেয়ে শরীর ঠাণ্ডা করে নিয়েছি। সন্ধ্যা হতেই হাতিরঝিল সাজে রঙিন রূপে। চোখ ধাঁধাঁনো রঙিন আলোয় ঝলমলে হয়ে ওঠে পুরো হাতিরঝিল। রঙবেরংয়ের দৃষ্টিনন্দন বাতি হাতিরঝিলকে এনে দিয়েছে নজরকাড়া সৌন্দর্য। তাই ঈদের দিনে যারা হাতিরঝিলে ঘুরতে পারেননি তারা মিস করলেন বটে। সকাল থেকেই ওয়াটার বোটে ওঠার জন্য শত শত মানুষকে লাইনে থাকতে দেখা যায়। ওয়াটার বোটের টিকিট কিনতে চলে তুমুল প্রতিযোগিতা। কেউ কারো চেয়ে কম নয়। টিকিট সবার চাই-চাই। চক্রাকার বাসের টিকিট দিয়েও সামলাতে হিমশিম খাচ্ছে কাউন্টারে কর্মরতরা। শত শত মানুষ দাঁড়িয়ে আছে লাইনে। কিন্তু মানুষের চাহিদার তুলনায় বাসের সংখ্যা একেবারেই কম। তাই টিকিট দিতেও ভয় কাউন্টার ম্যানেজারদের। তবে ওয়াটার বোট বা বাসের টিকিট না পেলে কি আসে যায়! দিব্বি পিকআপে চড়ে হাতিরঝিল ঘুরছে শত শত মানুষ। ধীরে ধীরে পিকআপ চলার সঙ্গে সঙ্গে উথলে পড়ছে তারুণ্যের উচ্ছ্বাস। পিকআপে নেচে গেয়ে মাতিয়ে তুলছে তারা। কিন্তু সবারতো আর পিকআপে ওঠার সুযোগ নাই। পরিবার নিয়ে যারা ঘুরছেন যারা লেকের পাড়ে বসে গল্পে বা হেঁটে হেঁটে সময় কাটাচ্ছেন। অনেকে আবার রেলিংয়ের পাশে দাড়িয়ে নির্মল বাতাসে ভাসিয়ে দিচ্ছেন নিজেকে। নিরাপত্তার ভয় না থাকায় এবার হাতিরঝিলে মানুষের সমাগম তুলনামূলক বেশি। ঈদের ছুটিতে দর্শনার্থীদের নিরাপত্তায় হাতিরঝিলের বিভিন্ন মোড়ে মোড়ে পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। যেকোনো ধরনের অপ্রীতিকর পরিস্থিতি এড়াতে বিভিন্ন পয়েন্টে মোটরসাইকেল ও সন্দেভাজন গাড়িতে তল্লাশি চালাচ্ছে পুলিশ

Comments

Comments!

 ঈদ উল্লাসে উত্তাল হাতিরঝিলAmarbangladeshonlineAmarbangladeshonline | Amarbangladeshonline

ঈদ উল্লাসে উত্তাল হাতিরঝিল

Tuesday, June 27, 2017 6:39 am
15

নগরীর ঈদ আনন্দ যেন উপচে পড়ছে হাতিরঝিলে। রাজধানীবাসীর ঘুরতে যাওয়ার পছন্দের স্থান এখন এই বিনোদন কেন্দ্র। তাই সকাল থেকেই নগরবাসীর পদচারণায় মুখর হয়ে ওঠে গোটা হাতিরঝিল।

ঈদ উপলক্ষে সোমবার সকাল থেকেই হাতিরঝিলে আসতে শুরু করে বিনোদনপ্রেমী মানুষ। ছোট-বড়, বন্ধু-বান্ধবী, স্বামী-স্ত্রীসহ অনেকে গোটা পরিবার নিয়ে উপভোগ করছেন হাতিরঝিলের প্রাকৃতিক সৌন্দর্য্য।

বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে হাতিরঝিলে বাড়তে থাকে মানুষের সংখ্যা। বাড়তে থাকে ঈদ আনন্দ ভাগাভাগির উৎসব।

ঈদ উপলক্ষে হাতিরঝিলও সেজেছে নতুন সাজে। নতুন সাজে প্রস্তুত করা হয় চক্রাকার বাস, ওয়াটার বোট। তাই পরিচ্ছন্ন বিনোদন কেন্দ্র হিসেবে আকর্ষণ করে ঈদমুখর মানুষকে।

পরিবার নিয়ে আনন্দঘন মুহূর্ত কাটাতে নগরীর বেশিরভাগ মানুষের গন্তব্য হয়ে উঠেছে এই বিনোদন কেন্দ্র। দুপুরের আগেই টইটুম্বর হয়ে যায় পুরো এলাকা। যেন পা ফেলা ভার।

হাতিরঝিলের বিশেষ আকর্ষণ ওয়াটার বাসে চড়ে লেকে ভাসার আনন্দ উপভোগ করার পাশাপাশি হরেক রকম সৌন্দর্যে বিমোহিত দর্শনার্থীরা।

আগত বিনোদনপ্রেমীরা কেউ রেলিং ধরে মুহূর্তটিকে স্মৃতিময় করে রাখতে সবাই মিলে ছবি তুলছেন, কেউবা প্রিয়জনকে নিয়ে এক ক্লিকে নিজেদের ফ্রেমবন্দি করছেন সেলফিতে।

অনেকে আবার বন্ধু-বান্ধবকে নিয়ে পিকআপে চড়ে নেচে-গেয়ে হৈ-হুল্লোড়ে ঘুরে বেড়াচ্ছেন হাতিরঝিলের চারপাশ।

কেউ আবার ঝিলের পাড়ে বসে গল্প-আড্ডায় মেতে উঠেছেন। সবার চোখে মুখেই ঈদ আনন্দের ছাপ। ব্যস্ত নগরীতে স্বস্তির জায়গা হিসেবে পরিচিত হাতিরঝিলে সন্ধ্যার পর যেন তিল ধারণের ঠাঁই নেই।

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় থেকে দল বেধে ঘুরতে এসেছে হৃদয় ও তার বন্ধুরা। আজকের দিনে হাতিরঝিলে ঘুরে বেজায় তৃপ্ত তারা।

হৃদয় বলেন, ক্যাম্পাস থেকে কষ্ট করে হাতিরঝিলে ঘুরতে আসছি এটাই একটা ভালো লাগার বিষয়। রাজধানীর বিনোদন কেন্দ্র হিসেবে আসলে হাতিরঝিলের জুড়ি নেই। তবে মানুষ একটু বেশি আর আবহাওয়া গরম থাকায় বেগ পোহাতে হচ্ছে।

তাদের দলের আরেক সদস্য হিসাম বলেন, আমার কাছে গরম-টরম কিছুই না। ঈদের দিনে ঘুরতে পারাটাই মজার। আর হাতিরঝিল হলেতো কথাই নাই। গরম লাগছিল, আইসক্রিম খেয়ে শরীর ঠাণ্ডা করে নিয়েছি।

সন্ধ্যা হতেই হাতিরঝিল সাজে রঙিন রূপে। চোখ ধাঁধাঁনো রঙিন আলোয় ঝলমলে হয়ে ওঠে পুরো হাতিরঝিল। রঙবেরংয়ের দৃষ্টিনন্দন বাতি হাতিরঝিলকে এনে দিয়েছে নজরকাড়া সৌন্দর্য। তাই ঈদের দিনে যারা হাতিরঝিলে ঘুরতে পারেননি তারা মিস করলেন বটে।

সকাল থেকেই ওয়াটার বোটে ওঠার জন্য শত শত মানুষকে লাইনে থাকতে দেখা যায়। ওয়াটার বোটের টিকিট কিনতে চলে তুমুল প্রতিযোগিতা। কেউ কারো চেয়ে কম নয়। টিকিট সবার চাই-চাই।

চক্রাকার বাসের টিকিট দিয়েও সামলাতে হিমশিম খাচ্ছে কাউন্টারে কর্মরতরা। শত শত মানুষ দাঁড়িয়ে আছে লাইনে। কিন্তু মানুষের চাহিদার তুলনায় বাসের সংখ্যা একেবারেই কম। তাই টিকিট দিতেও ভয় কাউন্টার ম্যানেজারদের।

তবে ওয়াটার বোট বা বাসের টিকিট না পেলে কি আসে যায়! দিব্বি পিকআপে চড়ে হাতিরঝিল ঘুরছে শত শত মানুষ। ধীরে ধীরে পিকআপ চলার সঙ্গে সঙ্গে উথলে পড়ছে তারুণ্যের উচ্ছ্বাস। পিকআপে নেচে গেয়ে মাতিয়ে তুলছে তারা।

কিন্তু সবারতো আর পিকআপে ওঠার সুযোগ নাই। পরিবার নিয়ে যারা ঘুরছেন যারা লেকের পাড়ে বসে গল্পে বা হেঁটে হেঁটে সময় কাটাচ্ছেন। অনেকে আবার রেলিংয়ের পাশে দাড়িয়ে নির্মল বাতাসে ভাসিয়ে দিচ্ছেন নিজেকে।

নিরাপত্তার ভয় না থাকায় এবার হাতিরঝিলে মানুষের সমাগম তুলনামূলক বেশি। ঈদের ছুটিতে দর্শনার্থীদের নিরাপত্তায় হাতিরঝিলের বিভিন্ন মোড়ে মোড়ে পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। যেকোনো ধরনের অপ্রীতিকর পরিস্থিতি এড়াতে বিভিন্ন পয়েন্টে মোটরসাইকেল ও সন্দেভাজন গাড়িতে তল্লাশি চালাচ্ছে পুলিশ

Comments

comments

সম্পাদক : মোহাম্মদ আবদুল বাছির
প্রকাশক: মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম
ফোন : ‎০১৭১৩৪০৯০৯০
৩৪৫/১, দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০
X
 
নিয়মিত খবর পড়তে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন
X