বৃহস্পতিবার, ২২শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ইং, ১০ই ফাল্গুন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, সকাল ১০:৫১
শিরোনাম
  • ঘৃণাকে বিজয়ী হতে দেয়া যাবে না, ট্রাম্পকে ইঙ্গিত করে জর্জ ক্লুনি
  • আমার একটাই চিন্তা দেশের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করা: প্রধানমন্ত্রী
  • ‘কেন্দ্রীয় সরকারের আগ্রাসী নীতির কারণে কাশ্মীরকে হারাতে হবে’
  • সাড়ে চারমাস পর মুখোমুখি, খাদিজাকে উদ্দেশ্য করে যা বলল বদরুল
  • খালেদার ‘সাজা’ বিরোধী নেতাকর্মীদের মনোবল ভাঙ্গার কৌশল!
  • বিএনপির কর্মসূচি ‘যথাসময়ে’ জানানো হবে: রিজভী
  • দলের জন্য বোলিং করতেও রাজি মুশফিক
  • শিশু জিহাদের মৃত্যু: চার জনের ১০ বছর করে কারাদণ্ড
  • অবশেষে বাড়ি অবরুদ্ধ করে রাখা সেই দেয়াল ভেঙ্গে ফেলা হচ্ছে
  • সাক্ষ্য দিলেন খাদিজা, চাইলেন বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তি
  • বদরুলের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিতে আদালতে খাদিজা
  • আজ বগুড়ায় যেসব প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
  • রোহিঙ্গা স্থানান্তরের সরকারি পরিকল্পনার সঙ্গে দ্বিমত মানবাধিকার কমিশনের
  • মহেশখালীতে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে পুলিশের ‘বন্দুকযুদ্ধ’
  • হোয়াইট হাউসে কাজ করার দীর্ঘ অভিজ্ঞতার কথা জানালেন এই বাংলাদেশি সাংবাদিক
Tuesday, September 20, 2016 9:02 pm
A- A A+ Print

উদ্বিগ্ন জাপান, দশজনের চারজনই ‘ভার্জিন’!

153584_1

টৌকিও: ‘সা-রে-গা-মা-পা-ধা-নি, বোম ফেলেছে জাপানি।’ ইতিহাসের সেই দিনটি আর ফিরে আসেনি জাপানে। তবে বোমা একটা পড়েছে, আর তা হচ্ছে সমীক্ষার বোমা। সমীক্ষার এই বোমাটিও জাপানের মাটিতেই পড়েছে। সম্প্রতি স্থানীয় জনসংখ্যা ও সামাজিক নিরাপত্তা বিষয়ক গবেষণা ইনস্টিটিউট পরিচালিত এক সমীক্ষার ফলাফল জাপানের কর্তাব্যক্তিদের কপালে হাত তোলার মতো অবস্থায় ফেলে দিয়েছে। সমীক্ষার ফল বলছে, এমনিতেই জনসংখ্যা সমস্যায় যেন হিমশিম খাচ্ছে জাপান। এখানে একদিকে বয়স্ক মানুষর সংখ্যা বাড়ছে, অন্যদিকে কমে যাচ্ছে জন্মহার। তাছাড়া দেশটিতে একন একক নর-নারীর সংখ্যা এখন ৬০ শতাংশেরও বেশি। আবার এই ৬০শতাংশের মধ্যে ৪০ শতাংশই নাকি ‘ভার্জিন’। সমীক্ষা বলছে, ১৮ থেকে ৩৪ বছর বয়সি ৭০ শতাংশ অবিবাহিত পুরুষ এবং ৬০ শতাংশ অবিবাহিত নারীর জীবনে কোনো প্রেমের সম্পর্ক নেই। শুধু তাই নয়, এদের মধ্যে ৪২ শতাংশ পুরুষ এবং ৪৪ দশমিক ২ শতাংশ নারী স্বীকারোক্তি দিয়েছেন যে, তারা এখনো কুমার অথবা কুমারী। অর্থাৎ তাদের যৌনমিলন বা সেক্সের কোনো অভিজ্ঞতাই নেই৷ গবেষণা ইনস্টিটিউটটি প্রতি পাঁচবছর অন্তর এ ধরনের একটা সমীক্ষা চালায়, ‘জাপান টাইমস’। ১৯৮৭ সালে একই বয়সের নারী-পুরুষের সম্পর্কে তথ্য সংগ্রহ করতে গিয়ে দেখেছেন ৪৮ দশমিক ৬ শতাংশ পুরুষ এবং ৩৯ দশমিক ৫ শতাংশ নারীই অবিবাহিত। আর ২০১০ সালের ফলাফলে দেখা যায়, ৩৬ দশমিক ২ শতাংশ পুরুষ ও ৩৮ দশমিক ৭ শতাংশ নারী ‘ভার্জিন’ অর্থাৎ তাদের কোনো শারীরিক সম্পর্ক নেই। সমীক্ষার ফলাফল অনুযায়ী, সরকারের প্রচেষ্টা সত্ত্বেও জাপানিরা প্রণয় বা পরিণয়ে আগ্রহী নন। প্রধানমন্ত্রী শিনজো আবে অবশ্য দাবি করেছেন, ২০২৫ সালের মধ্যে দেশের প্রজননের হার ১ দশমিক ৮ শতাংশে নিয়ে যাবে জাপান। এ কাজের উদ্যোগ হিসেবে বিবাহিতদের জন্য ‘চাইল্ড কেয়ার সার্ভিস’ ও ‘ট্যাক্স ইনসেন্টিভ’-এর ঘোষণাও করেছেন তিনি। সূত্র: ডয়চে ভেলে

Comments

Comments!

 উদ্বিগ্ন জাপান, দশজনের চারজনই ‘ভার্জিন’!AmarbangladeshonlineAmarbangladeshonline | Amarbangladeshonline

উদ্বিগ্ন জাপান, দশজনের চারজনই ‘ভার্জিন’!

Tuesday, September 20, 2016 9:02 pm
153584_1

টৌকিও: ‘সা-রে-গা-মা-পা-ধা-নি, বোম ফেলেছে জাপানি।’ ইতিহাসের সেই দিনটি আর ফিরে আসেনি জাপানে। তবে বোমা একটা পড়েছে, আর তা হচ্ছে সমীক্ষার বোমা।

সমীক্ষার এই বোমাটিও জাপানের মাটিতেই পড়েছে। সম্প্রতি স্থানীয় জনসংখ্যা ও সামাজিক নিরাপত্তা বিষয়ক গবেষণা ইনস্টিটিউট পরিচালিত এক সমীক্ষার ফলাফল জাপানের কর্তাব্যক্তিদের কপালে হাত তোলার মতো অবস্থায় ফেলে দিয়েছে।

সমীক্ষার ফল বলছে, এমনিতেই জনসংখ্যা সমস্যায় যেন হিমশিম খাচ্ছে জাপান। এখানে একদিকে বয়স্ক মানুষর সংখ্যা বাড়ছে, অন্যদিকে কমে যাচ্ছে জন্মহার। তাছাড়া দেশটিতে একন একক নর-নারীর সংখ্যা এখন ৬০ শতাংশেরও বেশি। আবার এই ৬০শতাংশের মধ্যে ৪০ শতাংশই নাকি ‘ভার্জিন’।

সমীক্ষা বলছে, ১৮ থেকে ৩৪ বছর বয়সি ৭০ শতাংশ অবিবাহিত পুরুষ এবং ৬০ শতাংশ অবিবাহিত নারীর জীবনে কোনো প্রেমের সম্পর্ক নেই। শুধু তাই নয়, এদের মধ্যে ৪২ শতাংশ পুরুষ এবং ৪৪ দশমিক ২ শতাংশ নারী স্বীকারোক্তি দিয়েছেন যে, তারা এখনো কুমার অথবা কুমারী। অর্থাৎ তাদের যৌনমিলন বা সেক্সের কোনো অভিজ্ঞতাই নেই৷

গবেষণা ইনস্টিটিউটটি প্রতি পাঁচবছর অন্তর এ ধরনের একটা সমীক্ষা চালায়, ‘জাপান টাইমস’। ১৯৮৭ সালে একই বয়সের নারী-পুরুষের সম্পর্কে তথ্য সংগ্রহ করতে গিয়ে দেখেছেন ৪৮ দশমিক ৬ শতাংশ পুরুষ এবং ৩৯ দশমিক ৫ শতাংশ নারীই অবিবাহিত।

আর ২০১০ সালের ফলাফলে দেখা যায়, ৩৬ দশমিক ২ শতাংশ পুরুষ ও ৩৮ দশমিক ৭ শতাংশ নারী ‘ভার্জিন’ অর্থাৎ তাদের কোনো শারীরিক সম্পর্ক নেই।

সমীক্ষার ফলাফল অনুযায়ী, সরকারের প্রচেষ্টা সত্ত্বেও জাপানিরা প্রণয় বা পরিণয়ে আগ্রহী নন।

প্রধানমন্ত্রী শিনজো আবে অবশ্য দাবি করেছেন, ২০২৫ সালের মধ্যে দেশের প্রজননের হার ১ দশমিক ৮ শতাংশে নিয়ে যাবে জাপান। এ কাজের উদ্যোগ হিসেবে বিবাহিতদের জন্য ‘চাইল্ড কেয়ার সার্ভিস’ ও ‘ট্যাক্স ইনসেন্টিভ’-এর ঘোষণাও করেছেন তিনি।

সূত্র: ডয়চে ভেলে

Comments

comments

সম্পাদক : মোহাম্মদ আবদুল বাছির
প্রকাশক: মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম
ফোন : ‎০১৭১৩৪০৯০৯০
৩৪৫/১, দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০
X
 
নিয়মিত খবর পড়তে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন
X