সোমবার, ২৪শে এপ্রিল, ২০১৭ ইং, ১১ই বৈশাখ, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, সকাল ৯:৩১
শিরোনাম
  • ঘৃণাকে বিজয়ী হতে দেয়া যাবে না, ট্রাম্পকে ইঙ্গিত করে জর্জ ক্লুনি
  • আমার একটাই চিন্তা দেশের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করা: প্রধানমন্ত্রী
  • ‘কেন্দ্রীয় সরকারের আগ্রাসী নীতির কারণে কাশ্মীরকে হারাতে হবে’
  • সাড়ে চারমাস পর মুখোমুখি, খাদিজাকে উদ্দেশ্য করে যা বলল বদরুল
  • খালেদার ‘সাজা’ বিরোধী নেতাকর্মীদের মনোবল ভাঙ্গার কৌশল!
  • বিএনপির কর্মসূচি ‘যথাসময়ে’ জানানো হবে: রিজভী
  • দলের জন্য বোলিং করতেও রাজি মুশফিক
  • শিশু জিহাদের মৃত্যু: চার জনের ১০ বছর করে কারাদণ্ড
  • অবশেষে বাড়ি অবরুদ্ধ করে রাখা সেই দেয়াল ভেঙ্গে ফেলা হচ্ছে
  • সাক্ষ্য দিলেন খাদিজা, চাইলেন বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তি
  • বদরুলের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিতে আদালতে খাদিজা
  • আজ বগুড়ায় যেসব প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
  • রোহিঙ্গা স্থানান্তরের সরকারি পরিকল্পনার সঙ্গে দ্বিমত মানবাধিকার কমিশনের
  • মহেশখালীতে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে পুলিশের ‘বন্দুকযুদ্ধ’
  • হোয়াইট হাউসে কাজ করার দীর্ঘ অভিজ্ঞতার কথা জানালেন এই বাংলাদেশি সাংবাদিক
Wednesday, April 19, 2017 5:03 pm
A- A A+ Print

একই রশিতে তরুণ-তরুণীর লাশ

yyy

নওগাঁর মান্দা উপজেলায় একই রশিতে ঝুলন্ত তরুণ-তরুণীর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। জানা গেছে, তাদের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক ছিল। উভয় পরিবার মেনে না নেওয়ায় তারা আত্মহত্যার পথ বেছে নেন। আজ বুধবার সকাল সাড়ে ৮টার দিকে উপজেলার চকরাজাপুর গ্রামের গোদাবিলা বিলের একটি আম গাছে মরদেহ দুটি ঝুলছিল। দুজন হলেন- মান্দা উপজেলার প্রসাদপুর ইউনিয়নের চকরাজাপুর গ্রামের গোলাম রাব্বানী (২২) ও জাংগলপাড়া গ্রামের তসলিমা আক্তার (১৮)। পরিবার ও স্থানীয় লোকজনের বরাত দিয়ে মান্দা থানা পুলিশ জানায়, গোলাম রাব্বানী উপজেলার সাতবাড়িয়া টেকনিক্যাল বিএম কলেজ থেকে চলতি এইচএসসি পরীক্ষা দিচ্ছিলেন এবং চলতি বছর তসলিমা আক্তার এনায়েতপুর আইডিয়াল উচ্চ বিদ্যালয় থেকে এসএসসি পরীক্ষা দেন। তাঁদের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক চলছিল। বিষয়টি মেয়ের পক্ষ থেকে ছেলের পরিবারকে জানানো হয়। কিন্তু মেয়ের বাবার আর্থিক অবস্থা তেমন ভালো না হওয়ায় রাব্বানীর পরিবার বিয়েতে অসম্মতি জানায়। এ নিয়ে প্রেমিক-প্রেমিকার মধ্যে হতাশা দেখা দেয়। তাঁদের বিয়ে হবে না বলে নিশ্চিত হয়ে তাঁরা উভয়েই আত্মহত্যার সিদ্ধান্ত নেন। পুলিশ আরো জানায়, গতকাল মঙ্গলবার তসলিমা আকতার তাঁর মায়ের সঙ্গে রাতের খাবার খেয়ে ঘুমিয়ে পড়েন। পরিকল্পনা মতে, রাতে কোনো এক সময় তাসলিমা বাড়ি থেকে বেরিয়ে এসে রাব্বানীর সঙ্গে দেখা করেন। এরপর বাড়ির পাশে গোদাবিলা বিলের মাঝখানে একটি আমগাছের ডালে একই রশির দুই মাথায় রাব্বানী ও তসলিমা গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেন। রাতে মা খোদেজা বেগম মেয়েকে বিভিন্ন জায়গায় খোঁজাখুঁজি করে পাননি। এলাকাবাসীর মাধ্যমে জানতে পারেন, চকরাজাপুর গ্রামের গোদাবিলা বিলের মাঝে আমগাছে দুজনের লাশ ঝুলে আছে। সংবাদ দিলে মান্দা থানা পুলিশ দুজনের লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়। এ বিষয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আনিছুর রহমান বলেন, দুজনের মধ্যে দীর্ঘদিন থেকে প্রেমের সম্পর্ক ছিল। মেয়ের পরিবার থেকে মেয়েকে অনত্র বিয়ে দেওয়ার কথা হচ্ছিল। পুলিশ যুগলের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য নওগাঁ সদর হাসপাতালে পাঠায়। এ ব্যাপারে মান্দা থানায় অপমৃত্যুর মামলা হয়েছে।

Comments

Comments!

 একই রশিতে তরুণ-তরুণীর লাশAmarbangladeshonlineAmarbangladeshonline | Amarbangladeshonline

একই রশিতে তরুণ-তরুণীর লাশ

Wednesday, April 19, 2017 5:03 pm
yyy

নওগাঁর মান্দা উপজেলায় একই রশিতে ঝুলন্ত তরুণ-তরুণীর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। জানা গেছে, তাদের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক ছিল। উভয় পরিবার মেনে না নেওয়ায় তারা আত্মহত্যার পথ বেছে নেন।

আজ বুধবার সকাল সাড়ে ৮টার দিকে উপজেলার চকরাজাপুর গ্রামের গোদাবিলা বিলের একটি আম গাছে মরদেহ দুটি ঝুলছিল।

দুজন হলেন- মান্দা উপজেলার প্রসাদপুর ইউনিয়নের চকরাজাপুর গ্রামের গোলাম রাব্বানী (২২) ও জাংগলপাড়া গ্রামের তসলিমা আক্তার (১৮)।

পরিবার ও স্থানীয় লোকজনের বরাত দিয়ে মান্দা থানা পুলিশ জানায়, গোলাম রাব্বানী উপজেলার সাতবাড়িয়া টেকনিক্যাল বিএম কলেজ থেকে চলতি এইচএসসি পরীক্ষা দিচ্ছিলেন এবং চলতি বছর তসলিমা আক্তার এনায়েতপুর আইডিয়াল উচ্চ বিদ্যালয় থেকে এসএসসি পরীক্ষা দেন। তাঁদের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক চলছিল। বিষয়টি মেয়ের পক্ষ থেকে ছেলের পরিবারকে জানানো হয়। কিন্তু মেয়ের বাবার আর্থিক অবস্থা তেমন ভালো না হওয়ায় রাব্বানীর পরিবার বিয়েতে অসম্মতি জানায়। এ নিয়ে প্রেমিক-প্রেমিকার মধ্যে হতাশা দেখা দেয়। তাঁদের বিয়ে হবে না বলে নিশ্চিত হয়ে তাঁরা উভয়েই আত্মহত্যার সিদ্ধান্ত নেন।

পুলিশ আরো জানায়, গতকাল মঙ্গলবার তসলিমা আকতার তাঁর মায়ের সঙ্গে রাতের খাবার খেয়ে ঘুমিয়ে পড়েন। পরিকল্পনা মতে, রাতে কোনো এক সময় তাসলিমা বাড়ি থেকে বেরিয়ে এসে রাব্বানীর সঙ্গে দেখা করেন। এরপর বাড়ির পাশে গোদাবিলা বিলের মাঝখানে একটি আমগাছের ডালে একই রশির দুই মাথায় রাব্বানী ও তসলিমা গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেন।

রাতে মা খোদেজা বেগম মেয়েকে বিভিন্ন জায়গায় খোঁজাখুঁজি করে পাননি। এলাকাবাসীর মাধ্যমে জানতে পারেন, চকরাজাপুর গ্রামের গোদাবিলা বিলের মাঝে আমগাছে দুজনের লাশ ঝুলে আছে।

সংবাদ দিলে মান্দা থানা পুলিশ দুজনের লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়। এ বিষয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আনিছুর রহমান বলেন, দুজনের মধ্যে দীর্ঘদিন থেকে প্রেমের সম্পর্ক ছিল। মেয়ের পরিবার থেকে মেয়েকে অনত্র বিয়ে দেওয়ার কথা হচ্ছিল। পুলিশ যুগলের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য নওগাঁ সদর হাসপাতালে পাঠায়। এ ব্যাপারে মান্দা থানায় অপমৃত্যুর মামলা হয়েছে।

Comments

comments

সম্পাদক : মোহাম্মদ আবদুল বাছির
প্রকাশক: মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম
ফোন : ‎০১৭১৩৪০৯০৯০
৩৪৫/১, দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০
X
 
নিয়মিত খবর পড়তে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন
X