শনিবার, ২৪শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ইং, ১২ই ফাল্গুন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, সকাল ৮:৩২
শিরোনাম
  • ঘৃণাকে বিজয়ী হতে দেয়া যাবে না, ট্রাম্পকে ইঙ্গিত করে জর্জ ক্লুনি
  • আমার একটাই চিন্তা দেশের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করা: প্রধানমন্ত্রী
  • ‘কেন্দ্রীয় সরকারের আগ্রাসী নীতির কারণে কাশ্মীরকে হারাতে হবে’
  • সাড়ে চারমাস পর মুখোমুখি, খাদিজাকে উদ্দেশ্য করে যা বলল বদরুল
  • খালেদার ‘সাজা’ বিরোধী নেতাকর্মীদের মনোবল ভাঙ্গার কৌশল!
  • বিএনপির কর্মসূচি ‘যথাসময়ে’ জানানো হবে: রিজভী
  • দলের জন্য বোলিং করতেও রাজি মুশফিক
  • শিশু জিহাদের মৃত্যু: চার জনের ১০ বছর করে কারাদণ্ড
  • অবশেষে বাড়ি অবরুদ্ধ করে রাখা সেই দেয়াল ভেঙ্গে ফেলা হচ্ছে
  • সাক্ষ্য দিলেন খাদিজা, চাইলেন বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তি
  • বদরুলের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিতে আদালতে খাদিজা
  • আজ বগুড়ায় যেসব প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
  • রোহিঙ্গা স্থানান্তরের সরকারি পরিকল্পনার সঙ্গে দ্বিমত মানবাধিকার কমিশনের
  • মহেশখালীতে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে পুলিশের ‘বন্দুকযুদ্ধ’
  • হোয়াইট হাউসে কাজ করার দীর্ঘ অভিজ্ঞতার কথা জানালেন এই বাংলাদেশি সাংবাদিক
Monday, September 5, 2016 6:16 pm
A- A A+ Print

এবার অস্ট্রেলিয়ায় সঙ্গীসহ বাংলাদেশি নারী খুন

15

এবার অস্ট্রেলিয়ায় সঙ্গীসহ এক বাংলাদেশি নারী খুন হয়েছেন। অস্ট্রেলিয়ার সিডনিবাসী বাংলাদেশি নারী তাসনিম বাহার ও তার সঙ্গী ডেভ পিল্লাই ছয় বছর একসঙ্গে থাকার পর সম্প্রতি তাদের বিচ্ছেদ ঘটে। এরপরই এ ঘটনা ঘটলো। বিচ্ছেদের আগে স্মিথফিল্ডের এক বাড়িতে থাকতেন তাসনিম ও সঙ্গী ডেভ পিল্লাই। বিচ্ছেদের পর মেয়েকে নিয়ে আলাদাই থাকতেন তাসনিম। বাবা দিবস পালন করতে গিয়ে ওই বাড়িতেই লাশ হলেন তামনিম ও সঙ্গী ডেভ। অস্ট্রেলিয়ার সিডনি মর্নিং হেরাল্ডের প্রতিবেদনে বলা হয়, ছয় বছর একসঙ্গেই ছিলেন তারা। সম্পর্কে জটিলতার কারণে কিছুদিন আগে তাসমিনের (৩৫) সঙ্গে ডেভের (৪০) বিচ্ছেদ ঘটে। তাসনিম তিন বছর বয়সী মেয়েকে তার বাবার কাছে আনেন বাবা দিবস কাটানোর জন্য। এর পরই রহস্যময় ঘটনা। রবিবার দুপুরে পিল্লাইয়ের এক আত্মীয় ওই বাড়িতে গিয়ে বাথরুমে দুজনের লাশ দেখে পুলিশে খবর দেন। পরে পুলিশ গিয়ে লাশ দুটো উদ্ধার করে। এ ঘটনাকে হত্যা এবং আত্মহত্যা বলে ধারণা করছে স্থানীয় পুলিশ। বাহারের বোন শারজিন বাহার থাকেন নিউইয়র্কে। বোনের মৃত্যু সংবাদ পেয়ে বাংলাদেশে আসবেন শারজিন। তারপর এখান থেকে অস্ট্রেলিয়া পৌঁছবেন। বাবা-মা হারা ভাগ্নিকে নিজের কাছেই রাখবেন বলে সংবাদমাধ্যমকে জানান শারজিন। বাচ্চাটির জন্য ভালো যা হয় তাই করবেন। শারজিন আরো জানান, দুই দিন আগেই তাসনিমের সঙ্গে কথা হয়েছে। তাকে স্বাভাবিক বলেই মনে হয়েছে। ছয় বছরের সম্পর্ক তাদের। তবে পিল্লাই অতীতে মারধরের হুমকি দেওয়া শুরু করায় মেয়েকে নিয়ে চলে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নেন তাসমিন। বিষয়টি পুলিশকেও জানিয়ে রেখেছিলেন। কয়েক সপ্তাহ আগে তাসনিম মেয়েকে নিয়ে আলাদা একটি অ্যাপর্টমেন্টে ওঠেন। ‘আমি ওকে বলেছিলাম ওই বাড়িতে আর না যেতে। কিন্তু বাবা দিবসে সে মেয়েকে নিয়ে ওখানে যায়,’ জানান শারজিন। তাসমিনের খালাতো বোন সিফাত শারমিন রুপন্তি জানান, তাকেও পিল্লাইয়ের হুমকি-ধমকি সম্পর্কে জানিয়েছিলেন তাসনিম। রুপন্তি বলেন, তার কাজিন ২০০৯ সালে অস্ট্রেলিয়ায় গিয়ে উচ্চশিক্ষা লাভ করেন। বিজ্ঞান বিষয়ে লেখাপড়া করেছেন। পিল্লাইয়ের প্রতিবেশী জন আর্কোর স্ত্রী দেখতে পান, গোলাপি পোশাক পরা ছোট মেয়েটি পেছনের উঠানো ‘মামি, মামি’ বলে চিৎকার করছে। এ কথা আর্কোকে জানান স্ত্রী। পরে তিনি সেখানে গিয়েই লাশ দেখতে পান। সিডনির পুলিশ বলছে, এ ঘটনায় তারা অন্য আর কাউকে সন্দেহ করছে না। কীভাবে ঘটনাটি ঘটেছে, তা তদন্ত করে দেখা হচ্ছে। সিডনি মর্নিং হেরাল্ড অবলম্বনে
 

Comments

Comments!

 এবার অস্ট্রেলিয়ায় সঙ্গীসহ বাংলাদেশি নারী খুনAmarbangladeshonlineAmarbangladeshonline | Amarbangladeshonline

এবার অস্ট্রেলিয়ায় সঙ্গীসহ বাংলাদেশি নারী খুন

Monday, September 5, 2016 6:16 pm
15

এবার অস্ট্রেলিয়ায় সঙ্গীসহ এক বাংলাদেশি নারী খুন হয়েছেন। অস্ট্রেলিয়ার সিডনিবাসী বাংলাদেশি নারী তাসনিম বাহার ও তার সঙ্গী ডেভ পিল্লাই ছয় বছর একসঙ্গে থাকার পর সম্প্রতি তাদের বিচ্ছেদ ঘটে। এরপরই এ ঘটনা ঘটলো।

বিচ্ছেদের আগে স্মিথফিল্ডের এক বাড়িতে থাকতেন তাসনিম ও সঙ্গী ডেভ পিল্লাই। বিচ্ছেদের পর মেয়েকে নিয়ে আলাদাই থাকতেন তাসনিম। বাবা দিবস পালন করতে গিয়ে ওই বাড়িতেই লাশ হলেন তামনিম ও সঙ্গী ডেভ।

অস্ট্রেলিয়ার সিডনি মর্নিং হেরাল্ডের প্রতিবেদনে বলা হয়, ছয় বছর একসঙ্গেই ছিলেন তারা। সম্পর্কে জটিলতার কারণে কিছুদিন আগে তাসমিনের (৩৫) সঙ্গে ডেভের (৪০) বিচ্ছেদ ঘটে। তাসনিম তিন বছর বয়সী মেয়েকে তার বাবার কাছে আনেন বাবা দিবস কাটানোর জন্য। এর পরই রহস্যময় ঘটনা।

রবিবার দুপুরে পিল্লাইয়ের এক আত্মীয় ওই বাড়িতে গিয়ে বাথরুমে দুজনের লাশ দেখে পুলিশে খবর দেন। পরে পুলিশ গিয়ে লাশ দুটো উদ্ধার করে। এ ঘটনাকে হত্যা এবং আত্মহত্যা বলে ধারণা করছে স্থানীয় পুলিশ।

বাহারের বোন শারজিন বাহার থাকেন নিউইয়র্কে। বোনের মৃত্যু সংবাদ পেয়ে বাংলাদেশে আসবেন শারজিন। তারপর এখান থেকে অস্ট্রেলিয়া পৌঁছবেন। বাবা-মা হারা ভাগ্নিকে নিজের কাছেই রাখবেন বলে সংবাদমাধ্যমকে জানান শারজিন। বাচ্চাটির জন্য ভালো যা হয় তাই করবেন।

শারজিন আরো জানান, দুই দিন আগেই তাসনিমের সঙ্গে কথা হয়েছে। তাকে স্বাভাবিক বলেই মনে হয়েছে। ছয় বছরের সম্পর্ক তাদের। তবে পিল্লাই অতীতে মারধরের হুমকি দেওয়া শুরু করায় মেয়েকে নিয়ে চলে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নেন তাসমিন। বিষয়টি পুলিশকেও জানিয়ে রেখেছিলেন। কয়েক সপ্তাহ আগে তাসনিম মেয়েকে নিয়ে আলাদা একটি অ্যাপর্টমেন্টে ওঠেন।

‘আমি ওকে বলেছিলাম ওই বাড়িতে আর না যেতে। কিন্তু বাবা দিবসে সে মেয়েকে নিয়ে ওখানে যায়,’ জানান শারজিন।

তাসমিনের খালাতো বোন সিফাত শারমিন রুপন্তি জানান, তাকেও পিল্লাইয়ের হুমকি-ধমকি সম্পর্কে জানিয়েছিলেন তাসনিম।

রুপন্তি বলেন, তার কাজিন ২০০৯ সালে অস্ট্রেলিয়ায় গিয়ে উচ্চশিক্ষা লাভ করেন। বিজ্ঞান বিষয়ে লেখাপড়া করেছেন।

পিল্লাইয়ের প্রতিবেশী জন আর্কোর স্ত্রী দেখতে পান, গোলাপি পোশাক পরা ছোট মেয়েটি পেছনের উঠানো ‘মামি, মামি’ বলে চিৎকার করছে। এ কথা আর্কোকে জানান স্ত্রী। পরে তিনি সেখানে গিয়েই লাশ দেখতে পান।

সিডনির পুলিশ বলছে, এ ঘটনায় তারা অন্য আর কাউকে সন্দেহ করছে না। কীভাবে ঘটনাটি ঘটেছে, তা তদন্ত করে দেখা হচ্ছে।

সিডনি মর্নিং হেরাল্ড অবলম্বনে

 

Comments

comments

সম্পাদক : মোহাম্মদ আবদুল বাছির
প্রকাশক: মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম
ফোন : ‎০১৭১৩৪০৯০৯০
৩৪৫/১, দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০
X
 
নিয়মিত খবর পড়তে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন
X