বৃহস্পতিবার, ২২শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ইং, ১০ই ফাল্গুন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, দুপুর ১২:৪৯
শিরোনাম
  • ঘৃণাকে বিজয়ী হতে দেয়া যাবে না, ট্রাম্পকে ইঙ্গিত করে জর্জ ক্লুনি
  • আমার একটাই চিন্তা দেশের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করা: প্রধানমন্ত্রী
  • ‘কেন্দ্রীয় সরকারের আগ্রাসী নীতির কারণে কাশ্মীরকে হারাতে হবে’
  • সাড়ে চারমাস পর মুখোমুখি, খাদিজাকে উদ্দেশ্য করে যা বলল বদরুল
  • খালেদার ‘সাজা’ বিরোধী নেতাকর্মীদের মনোবল ভাঙ্গার কৌশল!
  • বিএনপির কর্মসূচি ‘যথাসময়ে’ জানানো হবে: রিজভী
  • দলের জন্য বোলিং করতেও রাজি মুশফিক
  • শিশু জিহাদের মৃত্যু: চার জনের ১০ বছর করে কারাদণ্ড
  • অবশেষে বাড়ি অবরুদ্ধ করে রাখা সেই দেয়াল ভেঙ্গে ফেলা হচ্ছে
  • সাক্ষ্য দিলেন খাদিজা, চাইলেন বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তি
  • বদরুলের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিতে আদালতে খাদিজা
  • আজ বগুড়ায় যেসব প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
  • রোহিঙ্গা স্থানান্তরের সরকারি পরিকল্পনার সঙ্গে দ্বিমত মানবাধিকার কমিশনের
  • মহেশখালীতে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে পুলিশের ‘বন্দুকযুদ্ধ’
  • হোয়াইট হাউসে কাজ করার দীর্ঘ অভিজ্ঞতার কথা জানালেন এই বাংলাদেশি সাংবাদিক
Friday, September 2, 2016 5:30 pm
A- A A+ Print

এসি বিস্ফোরণ: নাতির পর মারা গেলেন দাদিও

burn+unit+DMC

  পুরান ঢাকার ওয়ারীতে শীতাতপ নিয়ন্ত্রণযন্ত্রের (এসি) কমপ্রেসর বিস্ফোরণের ঘটনায় দগ্ধ নাতির পর দাদিও হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন। ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল পুলিশ ফাঁড়ির এস আই মো. বাচ্চু মিয়া জানান, পারুল আক্তার নামে ৬৫ বছর বয়সী ওই বৃদ্ধা বার্ন ইউনিটে চিকিৎসাধীন ছিলেন। শুক্রবার সকাল ১০টার দিকে তার মৃত‌্যু হয়। বার্ন ইউনিটের আবাসিক চিকিৎসক পার্থ শংকর পাল বলেন, পারুল আক্তারের শরীরের ৩৭ শতাংশ পুড়ে গিয়েছিল। এর আগে গত ২৮ অগাস্ট পারুল নাতি ফাহিম শিকদারের (১৪) মৃত‌্যু হয় ঢাকা মেডিকেলে। তার শরীরের ৯৫ শতাংশ পুড়ে গিয়েছিল বলে চিকিৎসক পার্থ শংকর জানান। ফাহিম পুরান ঢাকার অ্যালুমিনিয়াম ব্যবসায়ী ফয়সাল শিকদারের ছেলে। টিপু সুলতান রোডের চার তলা এক বাড়ির তৃতীয় তলায় তাদের বাসা। সেখানেই গত ২৭ অগাস্ট ভোরে শীতাতপ নিয়ন্ত্রণযন্ত্র বিস্ফোরিত হয়ে দগ্ধ হন দাদি-নাতি। ওই দুর্ঘটনায় ফাহিমের বাবা ও তার আরেক ভাই সামান‌্য আহত হন বলে ওয়ারী থানার ওসি মো. জিহাদ হোসেন সে সময় জানিয়েছিলেন।
 

Comments

Comments!

 এসি বিস্ফোরণ: নাতির পর মারা গেলেন দাদিওAmarbangladeshonlineAmarbangladeshonline | Amarbangladeshonline

এসি বিস্ফোরণ: নাতির পর মারা গেলেন দাদিও

Friday, September 2, 2016 5:30 pm
burn+unit+DMC
  পুরান ঢাকার ওয়ারীতে শীতাতপ নিয়ন্ত্রণযন্ত্রের (এসি) কমপ্রেসর বিস্ফোরণের ঘটনায় দগ্ধ নাতির পর দাদিও হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন। ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল পুলিশ ফাঁড়ির এস আই মো. বাচ্চু মিয়া জানান, পারুল আক্তার নামে ৬৫ বছর বয়সী ওই বৃদ্ধা বার্ন ইউনিটে চিকিৎসাধীন ছিলেন। শুক্রবার সকাল ১০টার দিকে তার মৃত‌্যু হয়। বার্ন ইউনিটের আবাসিক চিকিৎসক পার্থ শংকর পাল বলেন, পারুল আক্তারের শরীরের ৩৭ শতাংশ পুড়ে গিয়েছিল। এর আগে গত ২৮ অগাস্ট পারুল নাতি ফাহিম শিকদারের (১৪) মৃত‌্যু হয় ঢাকা মেডিকেলে। তার শরীরের ৯৫ শতাংশ পুড়ে গিয়েছিল বলে চিকিৎসক পার্থ শংকর জানান। ফাহিম পুরান ঢাকার অ্যালুমিনিয়াম ব্যবসায়ী ফয়সাল শিকদারের ছেলে। টিপু সুলতান রোডের চার তলা এক বাড়ির তৃতীয় তলায় তাদের বাসা। সেখানেই গত ২৭ অগাস্ট ভোরে শীতাতপ নিয়ন্ত্রণযন্ত্র বিস্ফোরিত হয়ে দগ্ধ হন দাদি-নাতি। ওই দুর্ঘটনায় ফাহিমের বাবা ও তার আরেক ভাই সামান‌্য আহত হন বলে ওয়ারী থানার ওসি মো. জিহাদ হোসেন সে সময় জানিয়েছিলেন।

 

Comments

comments

সম্পাদক : মোহাম্মদ আবদুল বাছির
প্রকাশক: মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম
ফোন : ‎০১৭১৩৪০৯০৯০
৩৪৫/১, দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০
X
 
নিয়মিত খবর পড়তে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন
X