রবিবার, ২৫শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ইং, ১৩ই ফাল্গুন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, বিকাল ৩:৩৫
শিরোনাম
  • ঘৃণাকে বিজয়ী হতে দেয়া যাবে না, ট্রাম্পকে ইঙ্গিত করে জর্জ ক্লুনি
  • আমার একটাই চিন্তা দেশের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করা: প্রধানমন্ত্রী
  • ‘কেন্দ্রীয় সরকারের আগ্রাসী নীতির কারণে কাশ্মীরকে হারাতে হবে’
  • সাড়ে চারমাস পর মুখোমুখি, খাদিজাকে উদ্দেশ্য করে যা বলল বদরুল
  • খালেদার ‘সাজা’ বিরোধী নেতাকর্মীদের মনোবল ভাঙ্গার কৌশল!
  • বিএনপির কর্মসূচি ‘যথাসময়ে’ জানানো হবে: রিজভী
  • দলের জন্য বোলিং করতেও রাজি মুশফিক
  • শিশু জিহাদের মৃত্যু: চার জনের ১০ বছর করে কারাদণ্ড
  • অবশেষে বাড়ি অবরুদ্ধ করে রাখা সেই দেয়াল ভেঙ্গে ফেলা হচ্ছে
  • সাক্ষ্য দিলেন খাদিজা, চাইলেন বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তি
  • বদরুলের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিতে আদালতে খাদিজা
  • আজ বগুড়ায় যেসব প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
  • রোহিঙ্গা স্থানান্তরের সরকারি পরিকল্পনার সঙ্গে দ্বিমত মানবাধিকার কমিশনের
  • মহেশখালীতে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে পুলিশের ‘বন্দুকযুদ্ধ’
  • হোয়াইট হাউসে কাজ করার দীর্ঘ অভিজ্ঞতার কথা জানালেন এই বাংলাদেশি সাংবাদিক
Tuesday, January 10, 2017 9:31 pm
A- A A+ Print

ওরা ভূত দেখেছিল কি না জানি না : শেখ হাসিনা

1484047776-pm_al-public-meeting-3

বিএনপি ক্ষমতায় থাকাকালে দেশের উন্নতি না করে পেছন দিকে গেছে বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। আজ মঙ্গলবার রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষে আয়োজিত সমাবেশে শেখ হাসিনা এ মন্তব্য করেন। বিএনপির উদ্দেশে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘ভূতের পা নাকি পেছন দিকে চলে। ওরা ভূত দেখেছিল কি না জানি না।’ তিনি বলেন, ‘সাত বছর পর ক্ষমতায় এসে দেখি ৩০ লক্ষ মেট্রিক টন খাদ্য ঘাটতি। তাদের দোসর কে? জামায়াতে ইসলামী। তারা কারা? যুদ্ধাপরাধী। তারা দেশকে পিছিয়ে দিয়েছে। তারা সন্ত্রাস, লুটপাট, জঙ্গিবাদ, বাংলা ভাই ছাড়া তারা কিছু দিতে পারেনি।’ সরকারপ্রধান বলেন, ‘আমরা দিয়েছি বিদ্যুৎ, বিএনপি দিয়েছে খাম্বা। রাস্তার পাশে শুয়েছিল খাম্বা। বিদ্যুতের খবর নাই।’ তিনি বলেন, ‘আজকে ১৫ হাজার মেগাওয়াট বিদ্যুৎ উৎপাদন হয়। কঠোর হস্তে সন্ত্রাস দমন করছি। তারা কী করেছে? মানুষ পুড়িয়ে মেরেছে। বিএনপির নেত্রী আন্দোলনের নামে মানুষ পুড়িয়ে মেরেছে, মানুষ হত্যা করেছে। তিনি নির্বাচন করতে দেবেন না, নিজেও করবেন না। তারপর হত্যা শুরু করেন।’ আওয়ামী লীগ সভাপতি বলেন, ‘গণ-আদালতে এদের বিচার হবে। আপনি (খালেদা জিয়া) এতিমের টাকা চুরি করে খেয়েছেন, কোর্টে হাজিরা দিতে যান। একদিন যান, ১০ দিন যান না, ব্যাপারটা কি? কথায় বলে চোরের মন পুলিশ পুলিশ।’ সংসদ নেতা বলেন, ‘আমাদের লক্ষ্য যে, এই দেশের ছেলেমেয়েরা লেখাপড়ার সুযোগ পাবে। আমরা প্রাইমারি থেকে, শুধু তাই না, প্রি-প্রাইমারি থেকে বিনামূল্যে বই দিয়েছি। পৃথিবীর কোনো দেশে এমন হয় না। ছাত্র থেকে ছাত্রীর সংখ্যা বেড়ে গেছে। আমরা বৃত্তি দিয়ে যাচ্ছি, অন্ধরা ব্রেইল পদ্ধতিতে পড়ালেখার সুযোগ পাচ্ছে।’ তিনি বলেন, ‘১০ জানুয়ারি জাতির পিতা যে কথা বলেছিলেন এই সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে। আমরা তাঁর কাজ করে যাচ্ছি। আমরা পঞ্চবার্ষিক পরিকল্পনা প্রণয়ন করি। আমরা পঞ্চম পঞ্চবার্ষিকী পরিকল্পনা বাস্তবায়ন করেছি। আমরা এখন সপ্তম পঞ্চবার্ষিকী পরিকল্পনা প্রণয়ন করেছি। সেটা বাস্তবায়ন করছি। আমরা দারিদ্র্যের হার ২২ ভাগে নামিয়ে এনেছি। আমাদের লক্ষ্য ৭-৮ ভাগে আনা।’ সর্বশেষে শেখ হাসিনা জাতির পিতা শেখ মুজিবুর রহমান, জাতীয় চার নেতা, ৩০ লাখ শহীদ, নির্যাতনের শিকার দুই লাখ মা-বোনকে শ্রদ্ধা জানান।  

Comments

Comments!

 ওরা ভূত দেখেছিল কি না জানি না : শেখ হাসিনাAmarbangladeshonlineAmarbangladeshonline | Amarbangladeshonline

ওরা ভূত দেখেছিল কি না জানি না : শেখ হাসিনা

Tuesday, January 10, 2017 9:31 pm
1484047776-pm_al-public-meeting-3

বিএনপি ক্ষমতায় থাকাকালে দেশের উন্নতি না করে পেছন দিকে গেছে বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

আজ মঙ্গলবার রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষে আয়োজিত সমাবেশে শেখ হাসিনা এ মন্তব্য করেন।

বিএনপির উদ্দেশে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘ভূতের পা নাকি পেছন দিকে চলে। ওরা ভূত দেখেছিল কি না জানি না।’ তিনি বলেন, ‘সাত বছর পর ক্ষমতায় এসে দেখি ৩০ লক্ষ মেট্রিক টন খাদ্য ঘাটতি। তাদের দোসর কে? জামায়াতে ইসলামী। তারা কারা? যুদ্ধাপরাধী। তারা দেশকে পিছিয়ে দিয়েছে। তারা সন্ত্রাস, লুটপাট, জঙ্গিবাদ, বাংলা ভাই ছাড়া তারা কিছু দিতে পারেনি।’

সরকারপ্রধান বলেন, ‘আমরা দিয়েছি বিদ্যুৎ, বিএনপি দিয়েছে খাম্বা। রাস্তার পাশে শুয়েছিল খাম্বা। বিদ্যুতের খবর নাই।’ তিনি বলেন, ‘আজকে ১৫ হাজার মেগাওয়াট বিদ্যুৎ উৎপাদন হয়। কঠোর হস্তে সন্ত্রাস দমন করছি। তারা কী করেছে? মানুষ পুড়িয়ে মেরেছে। বিএনপির নেত্রী আন্দোলনের নামে মানুষ পুড়িয়ে মেরেছে, মানুষ হত্যা করেছে। তিনি নির্বাচন করতে দেবেন না, নিজেও করবেন না। তারপর হত্যা শুরু করেন।’

আওয়ামী লীগ সভাপতি বলেন, ‘গণ-আদালতে এদের বিচার হবে। আপনি (খালেদা জিয়া) এতিমের টাকা চুরি করে খেয়েছেন, কোর্টে হাজিরা দিতে যান। একদিন যান, ১০ দিন যান না, ব্যাপারটা কি? কথায় বলে চোরের মন পুলিশ পুলিশ।’

সংসদ নেতা বলেন, ‘আমাদের লক্ষ্য যে, এই দেশের ছেলেমেয়েরা লেখাপড়ার সুযোগ পাবে। আমরা প্রাইমারি থেকে, শুধু তাই না, প্রি-প্রাইমারি থেকে বিনামূল্যে বই দিয়েছি। পৃথিবীর কোনো দেশে এমন হয় না। ছাত্র থেকে ছাত্রীর সংখ্যা বেড়ে গেছে। আমরা বৃত্তি দিয়ে যাচ্ছি, অন্ধরা ব্রেইল পদ্ধতিতে পড়ালেখার সুযোগ পাচ্ছে।’ তিনি বলেন, ‘১০ জানুয়ারি জাতির পিতা যে কথা বলেছিলেন এই সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে। আমরা তাঁর কাজ করে যাচ্ছি। আমরা পঞ্চবার্ষিক পরিকল্পনা প্রণয়ন করি। আমরা পঞ্চম পঞ্চবার্ষিকী পরিকল্পনা বাস্তবায়ন করেছি। আমরা এখন সপ্তম পঞ্চবার্ষিকী পরিকল্পনা প্রণয়ন করেছি। সেটা বাস্তবায়ন করছি। আমরা দারিদ্র্যের হার ২২ ভাগে নামিয়ে এনেছি। আমাদের লক্ষ্য ৭-৮ ভাগে আনা।’

সর্বশেষে শেখ হাসিনা জাতির পিতা শেখ মুজিবুর রহমান, জাতীয় চার নেতা, ৩০ লাখ শহীদ, নির্যাতনের শিকার দুই লাখ মা-বোনকে শ্রদ্ধা জানান।

 

Comments

comments

সম্পাদক : মোহাম্মদ আবদুল বাছির
প্রকাশক: মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম
ফোন : ‎০১৭১৩৪০৯০৯০
৩৪৫/১, দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০
X
 
নিয়মিত খবর পড়তে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন
X