রবিবার, ১৮ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ইং, ৬ই ফাল্গুন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, ভোর ৫:২১
শিরোনাম
  • ঘৃণাকে বিজয়ী হতে দেয়া যাবে না, ট্রাম্পকে ইঙ্গিত করে জর্জ ক্লুনি
  • আমার একটাই চিন্তা দেশের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করা: প্রধানমন্ত্রী
  • ‘কেন্দ্রীয় সরকারের আগ্রাসী নীতির কারণে কাশ্মীরকে হারাতে হবে’
  • সাড়ে চারমাস পর মুখোমুখি, খাদিজাকে উদ্দেশ্য করে যা বলল বদরুল
  • খালেদার ‘সাজা’ বিরোধী নেতাকর্মীদের মনোবল ভাঙ্গার কৌশল!
  • বিএনপির কর্মসূচি ‘যথাসময়ে’ জানানো হবে: রিজভী
  • দলের জন্য বোলিং করতেও রাজি মুশফিক
  • শিশু জিহাদের মৃত্যু: চার জনের ১০ বছর করে কারাদণ্ড
  • অবশেষে বাড়ি অবরুদ্ধ করে রাখা সেই দেয়াল ভেঙ্গে ফেলা হচ্ছে
  • সাক্ষ্য দিলেন খাদিজা, চাইলেন বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তি
  • বদরুলের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিতে আদালতে খাদিজা
  • আজ বগুড়ায় যেসব প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
  • রোহিঙ্গা স্থানান্তরের সরকারি পরিকল্পনার সঙ্গে দ্বিমত মানবাধিকার কমিশনের
  • মহেশখালীতে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে পুলিশের ‘বন্দুকযুদ্ধ’
  • হোয়াইট হাউসে কাজ করার দীর্ঘ অভিজ্ঞতার কথা জানালেন এই বাংলাদেশি সাংবাদিক
Sunday, January 15, 2017 4:39 pm
A- A A+ Print

কংগ্রেসে যোগ দিলেন সিধু

39

ভারতের সাবেক ক্রিকেটার নবজ্যোৎ সিং সিধু কংগ্রেসে যোগ দিলেন। পাঞ্জাব বিধানসভা নির্বাচনের আগেই কংগ্রেসের সহসভাপতি রাহুল গান্ধীর সঙ্গে সাক্ষাতের পরই তিনি কংগ্রেসে যোগ দেন। এনডিটিভি ও ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসের খবরে বলা হয়েছে, দিল্লিতে আজ রোববার রাহুল গান্ধীর সঙ্গে বৈঠক হয় ক্রিকেটার থেকে রাজনীতিবিদ বনে যাওয়া নবজ্যোৎ সিং সিধুর। বৈঠকের পরই নবজ্যোৎ সিং সিধুর কংগ্রেসে যোগ দেওয়ার খবর বের হয়। এর আগে পাঞ্জাব রাজ্যে কংগ্রেসের সভাপতি অমরিন্দর সিং বলেছিলেন, পাঞ্জাব বিধানসভা নির্বাচনে অমৃতসর (পূর্ব) কেন্দ্র থেকে কংগ্রেসের টিকিটে নির্বাচনে লড়তে পারেন সিধু। পাঞ্জাব রাজ্যে ৪ মার্চ নির্বাচন। ফল ঘোষণা ওই মাসের ১১ মার্চ। গত বছরের ১৮ জুলাই রাজ্যসভা থেকে পদত্যাগ করেন সিধু। ভারতীয় জনতা পার্টি (বিজেপি) থেকেও পদত্যাগ করেন ভারতীয় ক্রিকেট দলের সাবেক এই ওপেনার ব্যাটসম্যান। গত বছর সিধুর স্ত্রী নবজ্যোৎ কৌর সিধুও বিজেপি থেকে পদত্যাগ করে কংগ্রেসে যোগ দিয়েছেন। রাজ্যসভা থেকে পদত্যাগের পর আম আদমি পার্টিতে যোগ দেওয়া-নেওয়া নিয়ে অরবিন্দ কেজরিওয়ালের সঙ্গে কথাবার্তা চলছিল সিধুর। কিন্তু আলোচনা সফল না হওয়ায় তিনি ‘আওয়াজে পাঞ্জাব’ নামের একটি দল গঠনের ঘোষণা দিয়েছিলেন। ক্রিকেট ছেড়ে দেওয়ার পর সিধু রাজনীতিতে যোগ দেন। ২০০৯ সালে বিজেপির প্রার্থী হিসেবে পাঞ্জাবের অমৃতসর থেকে তিনি ভারতীয় সংসদের নিম্নকক্ষ লোকসভায় জেতেন। পাঁচ বছর ধরে সাংসদ থাকার পর ২০১৪ সালে লোকসভা নির্বাচনে প্রার্থী মনোনয়নে অরুণ জেটলির কাছে হেরে যান তিনি। কিন্তু তাঁকে দলে রাখতে বিজেপির সুপারিশে রাষ্ট্রপতি-মনোনীত প্রার্থী হিসেবে রাজ্যসভার সদস্য করা হয়। তবে তখন থেকে জেটলিকে মনোনয়ন দেওয়ায় হতাশ ছিলেন সিধু। তবে ওই নির্বাচনে অমরিন্দর সিংয়ের কাছে হেরে যান জেটলি। স্থানীয় বিজেপি নেতাদের অভিযোগ ছিল, সিধুর পথে বাধা সৃষ্টি করেছিলেন বলে জেটলি জিততে পারেননি। ধারণা করা হয়, এসব কারণে গত বছরের জুলাই মাসে রাজ্যসভা থেকে পদত্যাগ করেন সিধু।

Comments

Comments!

 কংগ্রেসে যোগ দিলেন সিধুAmarbangladeshonlineAmarbangladeshonline | Amarbangladeshonline

কংগ্রেসে যোগ দিলেন সিধু

Sunday, January 15, 2017 4:39 pm
39

ভারতের সাবেক ক্রিকেটার নবজ্যোৎ সিং সিধু কংগ্রেসে যোগ দিলেন। পাঞ্জাব বিধানসভা নির্বাচনের আগেই কংগ্রেসের সহসভাপতি রাহুল গান্ধীর সঙ্গে সাক্ষাতের পরই তিনি কংগ্রেসে যোগ দেন।

এনডিটিভি ও ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসের খবরে বলা হয়েছে, দিল্লিতে আজ রোববার রাহুল গান্ধীর সঙ্গে বৈঠক হয় ক্রিকেটার থেকে রাজনীতিবিদ বনে যাওয়া নবজ্যোৎ সিং সিধুর। বৈঠকের পরই নবজ্যোৎ সিং সিধুর কংগ্রেসে যোগ দেওয়ার খবর বের হয়।

এর আগে পাঞ্জাব রাজ্যে কংগ্রেসের সভাপতি অমরিন্দর সিং বলেছিলেন, পাঞ্জাব বিধানসভা নির্বাচনে অমৃতসর (পূর্ব) কেন্দ্র থেকে কংগ্রেসের টিকিটে নির্বাচনে লড়তে পারেন সিধু।

পাঞ্জাব রাজ্যে ৪ মার্চ নির্বাচন। ফল ঘোষণা ওই মাসের ১১ মার্চ।

গত বছরের ১৮ জুলাই রাজ্যসভা থেকে পদত্যাগ করেন সিধু। ভারতীয় জনতা পার্টি (বিজেপি) থেকেও পদত্যাগ করেন ভারতীয় ক্রিকেট দলের সাবেক এই ওপেনার ব্যাটসম্যান। গত বছর সিধুর স্ত্রী নবজ্যোৎ কৌর সিধুও বিজেপি থেকে পদত্যাগ করে কংগ্রেসে যোগ দিয়েছেন।

রাজ্যসভা থেকে পদত্যাগের পর আম আদমি পার্টিতে যোগ দেওয়া-নেওয়া নিয়ে অরবিন্দ কেজরিওয়ালের সঙ্গে কথাবার্তা চলছিল সিধুর। কিন্তু আলোচনা সফল না হওয়ায় তিনি ‘আওয়াজে পাঞ্জাব’ নামের একটি দল গঠনের ঘোষণা দিয়েছিলেন।

ক্রিকেট ছেড়ে দেওয়ার পর সিধু রাজনীতিতে যোগ দেন। ২০০৯ সালে বিজেপির প্রার্থী হিসেবে পাঞ্জাবের অমৃতসর থেকে তিনি ভারতীয় সংসদের নিম্নকক্ষ লোকসভায় জেতেন। পাঁচ বছর ধরে সাংসদ থাকার পর ২০১৪ সালে লোকসভা নির্বাচনে প্রার্থী মনোনয়নে অরুণ জেটলির কাছে হেরে যান তিনি। কিন্তু তাঁকে দলে রাখতে বিজেপির সুপারিশে রাষ্ট্রপতি-মনোনীত প্রার্থী হিসেবে রাজ্যসভার সদস্য করা হয়। তবে তখন থেকে জেটলিকে মনোনয়ন দেওয়ায় হতাশ ছিলেন সিধু। তবে ওই নির্বাচনে অমরিন্দর সিংয়ের কাছে হেরে যান জেটলি। স্থানীয় বিজেপি নেতাদের অভিযোগ ছিল, সিধুর পথে বাধা সৃষ্টি করেছিলেন বলে জেটলি জিততে পারেননি। ধারণা করা হয়, এসব কারণে গত বছরের জুলাই মাসে রাজ্যসভা থেকে পদত্যাগ করেন সিধু।

Comments

comments

সম্পাদক : মোহাম্মদ আবদুল বাছির
প্রকাশক: মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম
ফোন : ‎০১৭১৩৪০৯০৯০
৩৪৫/১, দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০
X
 
নিয়মিত খবর পড়তে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন
X