শনিবার, ২৪শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ইং, ১২ই ফাল্গুন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, সকাল ১১:৪৬
শিরোনাম
  • ঘৃণাকে বিজয়ী হতে দেয়া যাবে না, ট্রাম্পকে ইঙ্গিত করে জর্জ ক্লুনি
  • আমার একটাই চিন্তা দেশের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করা: প্রধানমন্ত্রী
  • ‘কেন্দ্রীয় সরকারের আগ্রাসী নীতির কারণে কাশ্মীরকে হারাতে হবে’
  • সাড়ে চারমাস পর মুখোমুখি, খাদিজাকে উদ্দেশ্য করে যা বলল বদরুল
  • খালেদার ‘সাজা’ বিরোধী নেতাকর্মীদের মনোবল ভাঙ্গার কৌশল!
  • বিএনপির কর্মসূচি ‘যথাসময়ে’ জানানো হবে: রিজভী
  • দলের জন্য বোলিং করতেও রাজি মুশফিক
  • শিশু জিহাদের মৃত্যু: চার জনের ১০ বছর করে কারাদণ্ড
  • অবশেষে বাড়ি অবরুদ্ধ করে রাখা সেই দেয়াল ভেঙ্গে ফেলা হচ্ছে
  • সাক্ষ্য দিলেন খাদিজা, চাইলেন বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তি
  • বদরুলের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিতে আদালতে খাদিজা
  • আজ বগুড়ায় যেসব প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
  • রোহিঙ্গা স্থানান্তরের সরকারি পরিকল্পনার সঙ্গে দ্বিমত মানবাধিকার কমিশনের
  • মহেশখালীতে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে পুলিশের ‘বন্দুকযুদ্ধ’
  • হোয়াইট হাউসে কাজ করার দীর্ঘ অভিজ্ঞতার কথা জানালেন এই বাংলাদেশি সাংবাদিক
Friday, October 28, 2016 9:00 am
A- A A+ Print

‘কফিনে’ রাতযাপন

3

কফিনের মতো বড় বড় বাক্স। একেকটির আয়তন ২৪ বর্গফুট বা ২ দশমিক ২ বর্গমিটার। বাক্স হলেও ভেতরে তকতকে বিছানা-বালিশ। নীলাভ আলো। হঠাৎ দেখলে যে কারও সেটিকে মহাকাশ যাত্রীদের উপযোগী ‘স্পেস ক্যাপসুল’ বলে মনে হতে পারে। কিন্তু এটি আসলে মর্ত্যের সাধারণ মানুষেরই ঘর। আর ‘বিলাসবহুল’ এই ঘরের মাসিক ভাড়া ৬৫৮ মার্কিন ডলার। বর্ণনা পড়ে মনে হতে পারে, এটি শখের বশে বানানো ‘খেলাঘর’। আদতে তা নয়। বিশ্বের সবচেয়ে ঘনবসতিপূর্ণ ভূখণ্ড হংকংয়ে এক দম্পতি নিতান্ত রাত কাটানোর জন্য এই আবাসনের ব্যবস্থা করেছেন। শীতাতপনিয়ন্ত্রিত এই ‘ঘরে’ টেলিভিশন ও ইন্টারনেট সুবিধাও আছে। শুধু মি. ওয়াং নামে পরিচয় দেওয়া এক ব্যক্তি ও তাঁর স্ত্রী নিজেদের ৯৬০ বর্গফুটের ফ্ল্যাটে এ রকম ১০টি ক্যাপসুল বানিয়ে সাবলেট দিচ্ছেন। ওয়াং বেশ গর্বভরে বলেন, এই ঘরে বিশেষ ধরনের আলোর ব্যবস্থা রাখা হয়েছে। এতে ভেতরে ঘুমাতে যাওয়া মানুষের মধ্যে মহাকাশ ভ্রমণের অনুভূতি তৈরি হবে। ওয়াংয়ের স্ত্রী জানান, প্রতিটি ক্যাপসুল রুমের ভাড়া প্রতি মাসে ৫ হাজার ১০০ হংকং ডলার হলেও কেউ তিন মাসের বেশি সময়ের জন্য ভাড়া নিতে চাইলে তাঁর জন্য কিছুটা ছাড় থাকবে। আর এক মাসের নিচে ভাড়া দেওয়া হবে না। পয়সা বানানোর জন্য নয়, নিজেদের বাড়ি ভাড়ার চাপ কিছুটা কমাতেই এ কাজ করেছেন বলে দাবি করেন ওয়াং দম্পতি। তবে তাঁরা এই অভিনব বাসস্থান নিয়ে যতই ভালো ভালো কথা বলুন, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এর তীব্র সমালোচনা চলছে। র‍্যালফ চিউং নামের এক ব্যক্তি ফেসবুকে লিখেছেন, ‘এটি স্পেস ক্যাপসুল নয়। মৃত্যুর আগেই এখানে আপনার শেষ ঘুমের ব্যবস্থা করা হয়েছে।’ জেরি লি নামের একজন লিখেছেন, ‘বাহারি নাম “স্পেস ক্যাপসুল”; কিন্তু এটি তো কুকুরের বড় ঘরের চেয়ে বেশি কিছু না।’

Comments

Comments!

 ‘কফিনে’ রাতযাপনAmarbangladeshonlineAmarbangladeshonline | Amarbangladeshonline

‘কফিনে’ রাতযাপন

Friday, October 28, 2016 9:00 am
3

কফিনের মতো বড় বড় বাক্স। একেকটির আয়তন ২৪ বর্গফুট বা ২ দশমিক ২ বর্গমিটার। বাক্স হলেও ভেতরে তকতকে বিছানা-বালিশ। নীলাভ আলো। হঠাৎ দেখলে যে কারও সেটিকে মহাকাশ যাত্রীদের উপযোগী ‘স্পেস ক্যাপসুল’ বলে মনে হতে পারে। কিন্তু এটি আসলে মর্ত্যের সাধারণ মানুষেরই ঘর। আর ‘বিলাসবহুল’ এই ঘরের মাসিক ভাড়া ৬৫৮ মার্কিন ডলার।
বর্ণনা পড়ে মনে হতে পারে, এটি শখের বশে বানানো ‘খেলাঘর’। আদতে তা নয়। বিশ্বের সবচেয়ে ঘনবসতিপূর্ণ ভূখণ্ড হংকংয়ে এক দম্পতি নিতান্ত রাত কাটানোর জন্য এই আবাসনের ব্যবস্থা করেছেন। শীতাতপনিয়ন্ত্রিত এই ‘ঘরে’ টেলিভিশন ও ইন্টারনেট সুবিধাও আছে।
শুধু মি. ওয়াং নামে পরিচয় দেওয়া এক ব্যক্তি ও তাঁর স্ত্রী নিজেদের ৯৬০ বর্গফুটের ফ্ল্যাটে এ রকম ১০টি ক্যাপসুল বানিয়ে সাবলেট দিচ্ছেন। ওয়াং বেশ গর্বভরে বলেন, এই ঘরে বিশেষ ধরনের আলোর ব্যবস্থা রাখা হয়েছে। এতে ভেতরে ঘুমাতে যাওয়া মানুষের মধ্যে মহাকাশ ভ্রমণের অনুভূতি তৈরি হবে।
ওয়াংয়ের স্ত্রী জানান, প্রতিটি ক্যাপসুল রুমের ভাড়া প্রতি মাসে ৫ হাজার ১০০ হংকং ডলার হলেও কেউ তিন মাসের বেশি সময়ের জন্য ভাড়া নিতে চাইলে তাঁর জন্য কিছুটা ছাড় থাকবে। আর এক মাসের নিচে ভাড়া দেওয়া হবে না। পয়সা বানানোর জন্য নয়, নিজেদের বাড়ি ভাড়ার চাপ কিছুটা কমাতেই এ কাজ করেছেন বলে দাবি করেন ওয়াং দম্পতি। তবে তাঁরা এই অভিনব বাসস্থান নিয়ে যতই ভালো ভালো কথা বলুন, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এর তীব্র সমালোচনা চলছে।
র‍্যালফ চিউং নামের এক ব্যক্তি ফেসবুকে লিখেছেন, ‘এটি স্পেস ক্যাপসুল নয়। মৃত্যুর আগেই এখানে আপনার শেষ ঘুমের ব্যবস্থা করা হয়েছে।’ জেরি লি নামের একজন লিখেছেন, ‘বাহারি নাম “স্পেস ক্যাপসুল”; কিন্তু এটি তো কুকুরের বড় ঘরের চেয়ে বেশি কিছু না।’

Comments

comments

সম্পাদক : মোহাম্মদ আবদুল বাছির
প্রকাশক: মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম
ফোন : ‎০১৭১৩৪০৯০৯০
৩৪৫/১, দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০
X
 
নিয়মিত খবর পড়তে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন
X