বুধবার, ২১শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ইং, ৯ই ফাল্গুন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, রাত ৩:০৮
শিরোনাম
  • ঘৃণাকে বিজয়ী হতে দেয়া যাবে না, ট্রাম্পকে ইঙ্গিত করে জর্জ ক্লুনি
  • আমার একটাই চিন্তা দেশের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করা: প্রধানমন্ত্রী
  • ‘কেন্দ্রীয় সরকারের আগ্রাসী নীতির কারণে কাশ্মীরকে হারাতে হবে’
  • সাড়ে চারমাস পর মুখোমুখি, খাদিজাকে উদ্দেশ্য করে যা বলল বদরুল
  • খালেদার ‘সাজা’ বিরোধী নেতাকর্মীদের মনোবল ভাঙ্গার কৌশল!
  • বিএনপির কর্মসূচি ‘যথাসময়ে’ জানানো হবে: রিজভী
  • দলের জন্য বোলিং করতেও রাজি মুশফিক
  • শিশু জিহাদের মৃত্যু: চার জনের ১০ বছর করে কারাদণ্ড
  • অবশেষে বাড়ি অবরুদ্ধ করে রাখা সেই দেয়াল ভেঙ্গে ফেলা হচ্ছে
  • সাক্ষ্য দিলেন খাদিজা, চাইলেন বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তি
  • বদরুলের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিতে আদালতে খাদিজা
  • আজ বগুড়ায় যেসব প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
  • রোহিঙ্গা স্থানান্তরের সরকারি পরিকল্পনার সঙ্গে দ্বিমত মানবাধিকার কমিশনের
  • মহেশখালীতে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে পুলিশের ‘বন্দুকযুদ্ধ’
  • হোয়াইট হাউসে কাজ করার দীর্ঘ অভিজ্ঞতার কথা জানালেন এই বাংলাদেশি সাংবাদিক
Saturday, July 30, 2016 2:41 pm
A- A A+ Print

কল্যাণপুরে নিহত জঙ্গিদের মধ্যে সাব্বির নেই, থানায় বাবার জিডি

sabbir pic_136751

ঢাকার কল্যাণপুরে নিহত ৯ জঙ্গির মধ্যে চট্টগ্রামের সাব্বিরুল হক চৌধুরী কনিক (২২) নেই বলে দাবি করেছে তার পরিবার। সাব্বির এখনও নিখোঁজ দাবি করে শুক্রবার রাতে নগরীর বাকলিয়া থানায় সাধারণ ডায়েরি (নং- ১৪০২) করেছেন তার বাবা আজিজুল হক চৌধুরী। আজিজুল হক আনোয়ারা উপজেলার বরুমচড়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি। এছাড়া তিনি চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের অবসরপ্রাপ্ত কর পরিদর্শক। বর্তমানে পরিবার নিয়ে বাকলিয়া থানাধীন মিয়াখান রোডের পূর্ব বাকলিয়া এলাকার চৌধুরী নিবাসের চতুর্থ তলায় ভাড়া থাকছেন। জিডিতে আজিজুল হক উল্লেখ করেছেন, চলতি বছরের ২১ ফেব্রুয়ারি বিকেল ৫টায় রাউজান উপজেলার এক বন্ধুর বিয়েতে যাওয়ার কথা বলে বাকলিয়ার বাসা থেকে বের হয় সাব্বিরুল হক। এরপর বিগত চার মাস ধরে তার কোনো খোঁজ মেলেনি। নিখোঁজের ঘটনায় পরিবারের পক্ষ থেকেও এর আগে থানায় সাধারণ ডায়েরি করা হয়নি বলেও তিনি উল্লেখ করেছেন। উল্লেখ্য, গত ২৫ জুলাই রাতে কল্যাণপুরের ৫ নম্বর সড়কে তাজ মঞ্জিল নামের ছয় তলা একটি ভবনের চতুর্থ তলায় অভিযানে গিয়ে হামলার মুখে পড়ে পুলিশ। পরের দিন ভোরে সেখানে সোয়াতের বিশেষ অভিযানে নিহত হয় সন্দেহভাজন ৯ জঙ্গি। উদ্ধার করা হয় অস্ত্র ও বিস্ফোরক। এদের মধ্যে নিহত ৮ জঙ্গির পরিচয় প্রকাশ করে ঢাকা মহানগর পুলিশ (ডিএমপি)। তারা হলেন- সাজাদ রউফ অর্ক, জোবায়ের হোসেন, আবদুল্লাহ, আবু হাকিম নাইম, তাজ-উল হক রাশিক, আরিফুজ্জামান খান, মতিয়ার রহমান ও রায়হান কবির। ডিএমপির অতিরিক্ত কমিশনার মনিরুল ইসলাম জানান, নির্বাচন কমিশনের ডেটাবেজ থেকে জঙ্গিদের পরিচয় নিশ্চিত হওয়া গেছে। তবে বিভিন্ন সূত্র থেকে অপর যে জঙ্গির পরিচয় বিভিন্ন গণমাধ্যমে প্রকাশ হয়, তিনি চট্টগ্রামের আওয়ামী লীগ নেতা আজিজুল হক চৌধুরীর ছেলে সাব্বিরুল হক কনিক। সাব্বির ইন্টারন্যাশনাল ইসলামিক ইউনিভার্সিটি-চট্টগ্রামের (আইআইইউসি) ইকনোমিক অ্যান্ড ব্যাংকিং বিভাগের ছাত্র। গোল্ডেন জিপিএ পেয়ে সরকারি মুসলিম হাইস্কুল থেকে ২০১০ সালে এসএসসি এবং ২০১২ সালে চট্টগ্রাম সরকারি কমার্স কলেজ থেকে এইচএসসি পাস করেন তিনি।

Comments

Comments!

 কল্যাণপুরে নিহত জঙ্গিদের মধ্যে সাব্বির নেই, থানায় বাবার জিডিAmarbangladeshonlineAmarbangladeshonline | Amarbangladeshonline

কল্যাণপুরে নিহত জঙ্গিদের মধ্যে সাব্বির নেই, থানায় বাবার জিডি

Saturday, July 30, 2016 2:41 pm
sabbir pic_136751
ঢাকার কল্যাণপুরে নিহত ৯ জঙ্গির মধ্যে চট্টগ্রামের সাব্বিরুল হক চৌধুরী কনিক (২২) নেই বলে দাবি করেছে তার পরিবার।

সাব্বির এখনও নিখোঁজ দাবি করে শুক্রবার রাতে নগরীর বাকলিয়া থানায় সাধারণ ডায়েরি (নং- ১৪০২) করেছেন তার বাবা আজিজুল হক চৌধুরী।

আজিজুল হক আনোয়ারা উপজেলার বরুমচড়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি।

এছাড়া তিনি চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের অবসরপ্রাপ্ত কর পরিদর্শক। বর্তমানে পরিবার নিয়ে বাকলিয়া থানাধীন মিয়াখান রোডের পূর্ব বাকলিয়া এলাকার চৌধুরী নিবাসের চতুর্থ তলায় ভাড়া থাকছেন।

জিডিতে আজিজুল হক উল্লেখ করেছেন, চলতি বছরের ২১ ফেব্রুয়ারি বিকেল ৫টায় রাউজান উপজেলার এক বন্ধুর বিয়েতে যাওয়ার কথা বলে বাকলিয়ার বাসা থেকে বের হয় সাব্বিরুল হক। এরপর বিগত চার মাস ধরে তার কোনো খোঁজ মেলেনি।

নিখোঁজের ঘটনায় পরিবারের পক্ষ থেকেও এর আগে থানায় সাধারণ ডায়েরি করা হয়নি বলেও তিনি উল্লেখ করেছেন।

উল্লেখ্য, গত ২৫ জুলাই রাতে কল্যাণপুরের ৫ নম্বর সড়কে তাজ মঞ্জিল নামের ছয় তলা একটি ভবনের চতুর্থ তলায় অভিযানে গিয়ে হামলার মুখে পড়ে পুলিশ।

পরের দিন ভোরে সেখানে সোয়াতের বিশেষ অভিযানে নিহত হয় সন্দেহভাজন ৯ জঙ্গি। উদ্ধার করা হয় অস্ত্র ও বিস্ফোরক।

এদের মধ্যে নিহত ৮ জঙ্গির পরিচয় প্রকাশ করে ঢাকা মহানগর পুলিশ (ডিএমপি)। তারা হলেন- সাজাদ রউফ অর্ক, জোবায়ের হোসেন, আবদুল্লাহ, আবু হাকিম নাইম, তাজ-উল হক রাশিক, আরিফুজ্জামান খান, মতিয়ার রহমান ও রায়হান কবির।

ডিএমপির অতিরিক্ত কমিশনার মনিরুল ইসলাম জানান, নির্বাচন কমিশনের ডেটাবেজ থেকে জঙ্গিদের পরিচয় নিশ্চিত হওয়া গেছে।

তবে বিভিন্ন সূত্র থেকে অপর যে জঙ্গির পরিচয় বিভিন্ন গণমাধ্যমে প্রকাশ হয়, তিনি চট্টগ্রামের আওয়ামী লীগ নেতা আজিজুল হক চৌধুরীর ছেলে সাব্বিরুল হক কনিক।

সাব্বির ইন্টারন্যাশনাল ইসলামিক ইউনিভার্সিটি-চট্টগ্রামের (আইআইইউসি) ইকনোমিক অ্যান্ড ব্যাংকিং বিভাগের ছাত্র। গোল্ডেন জিপিএ পেয়ে সরকারি মুসলিম হাইস্কুল থেকে ২০১০ সালে এসএসসি এবং ২০১২ সালে চট্টগ্রাম সরকারি কমার্স কলেজ থেকে এইচএসসি পাস করেন তিনি।

Comments

comments

সম্পাদক : মোহাম্মদ আবদুল বাছির
প্রকাশক: মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম
ফোন : ‎০১৭১৩৪০৯০৯০
৩৪৫/১, দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০
X
 
নিয়মিত খবর পড়তে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন
X