বৃহস্পতিবার, ২২শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ইং, ১০ই ফাল্গুন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, দুপুর ১২:৫১
শিরোনাম
  • ঘৃণাকে বিজয়ী হতে দেয়া যাবে না, ট্রাম্পকে ইঙ্গিত করে জর্জ ক্লুনি
  • আমার একটাই চিন্তা দেশের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করা: প্রধানমন্ত্রী
  • ‘কেন্দ্রীয় সরকারের আগ্রাসী নীতির কারণে কাশ্মীরকে হারাতে হবে’
  • সাড়ে চারমাস পর মুখোমুখি, খাদিজাকে উদ্দেশ্য করে যা বলল বদরুল
  • খালেদার ‘সাজা’ বিরোধী নেতাকর্মীদের মনোবল ভাঙ্গার কৌশল!
  • বিএনপির কর্মসূচি ‘যথাসময়ে’ জানানো হবে: রিজভী
  • দলের জন্য বোলিং করতেও রাজি মুশফিক
  • শিশু জিহাদের মৃত্যু: চার জনের ১০ বছর করে কারাদণ্ড
  • অবশেষে বাড়ি অবরুদ্ধ করে রাখা সেই দেয়াল ভেঙ্গে ফেলা হচ্ছে
  • সাক্ষ্য দিলেন খাদিজা, চাইলেন বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তি
  • বদরুলের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিতে আদালতে খাদিজা
  • আজ বগুড়ায় যেসব প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
  • রোহিঙ্গা স্থানান্তরের সরকারি পরিকল্পনার সঙ্গে দ্বিমত মানবাধিকার কমিশনের
  • মহেশখালীতে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে পুলিশের ‘বন্দুকযুদ্ধ’
  • হোয়াইট হাউসে কাজ করার দীর্ঘ অভিজ্ঞতার কথা জানালেন এই বাংলাদেশি সাংবাদিক
Sunday, July 24, 2016 1:38 am
A- A A+ Print

কাবুলে আত্মঘাতী হামলায় নিহত ৮০; আইএসের দায় স্বীকার

160723053017_kabul_demo_englighteningmovement_640x360_englighteningmovement_nocredit

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: আফগানিস্তানের কর্তৃপক্ষের বরাত দিয়ে বিবিসি  জানিয়েছে, রাজধানী কাবুলে এক আত্মঘাতী বোমা হামলায় ৮০ জন মানুষের প্রাণহানি ঘটেছে । আহত হয়েছে আরও দুই শতাধিক ব্যক্তি। কথিত ইসলামিক স্টেট গোষ্ঠী এই আক্রমণের দায় স্বীকার করেছে । জাতিগত সংখ্যালঘু, হাজারা সম্প্রদায়ের কয়েক হাজার সদস্যের এক সমাবেশকে লক্ষ্য করে এই বিস্ফোরণ ঘটানো হয়েছে । পূর্ব আফগানিস্তানে ইসলামিক স্টেট-এর উপস্থিতি থাকলেও রাজধানী কাবুলে কোনো হামলা চালানোর দায় তারা আগে স্বীকার করেনি। আইএস-এর সঙ্গে জড়িত বার্তা সংস্থা আমাক জানাচ্ছে, দুজন আইএস যোদ্ধা কাবুলে শিয়াদের এক বিক্ষোভ সমাবেশে তাদের বেল্টে বাঁধা বিস্ফোরক ফাটায়। আফগান গোয়েন্দা সূত্র বিবিসিকে জানিয়েছে আবু আলি নামে আইএসের একজন অধিনায়ক নানগারহার প্রদেশ থেকে তিনজন জিহাদিকে কাবুলে পাঠিয়েছে হামলা চালানোর জন্য। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, একজন হামলাকারী সফলভাবে তার বেল্ট থেকে বিস্ফোরণ ঘটাতে সক্ষম হয়। দ্বিতীয় হামলাকারী বিস্ফোরণ ঘটাতে ব্যর্থ হয়েছে এবং নিরাপত্তা বাহিনীর হাতে তৃতীয়জন মারা গেছে। কাবুলে ডেমাজাং চত্বরে শিয়া হাজারা সম্প্রদায়ের কয়েক হাজার মানুষ নতুন বিদ্যুত লাইনের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানাচ্ছিল। তাদের প্রতিবাদের কারণ ছিল নতুন বিদ্যুতের লাইন তাদের বেশিরভাগ মানুষ যেসব এলাকায় বাস করেন সেসব এলাকার বাইরে দিয়ে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। ফলে এর সুবিধা থেকে তারা বঞ্চিত হচ্ছেন। একজন বিক্ষোভকারী, আরিফ আলি বলেছেন কয়েক দশক ধরে হাজারা সম্প্রদায়ের মানুষ কোণ ঠাসা হয়ে রয়েছে । তাদের অর্থনৈতিক সমস্যা, দারিদ্র এবং বৈষম্য রয়েছে । ক্ষমতায় অধিষ্ঠিতদের অবশ্যই এই ব্যক্তিদের কথা শুনতে হবে এবং তাদের আলোচনায় আহ্বান জানাতে হবে। তালেবান এই হামলার নিন্দা জানিয়েছে। প্রেসিডেন্ট আশরাফ ঘানি বলেছেন তিনি এ ঘটনায় “গভীরভাবে মর্মাহত”। তিনি বলেছেন শান্তিপূর্ণ প্রতিবাদের অধিকার প্রত্যেক নাগরিকের রয়েছে। জাতির উদ্দেশ্যে দেওয়া এক ভাষণে তিনি রোববার জাতীয় শোক দিবস ঘোষণা করেছেন।  

Comments

Comments!

 কাবুলে আত্মঘাতী হামলায় নিহত ৮০; আইএসের দায় স্বীকারAmarbangladeshonlineAmarbangladeshonline | Amarbangladeshonline

কাবুলে আত্মঘাতী হামলায় নিহত ৮০; আইএসের দায় স্বীকার

Sunday, July 24, 2016 1:38 am
160723053017_kabul_demo_englighteningmovement_640x360_englighteningmovement_nocredit

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: আফগানিস্তানের কর্তৃপক্ষের বরাত দিয়ে বিবিসি  জানিয়েছে, রাজধানী কাবুলে এক আত্মঘাতী বোমা হামলায় ৮০ জন মানুষের প্রাণহানি ঘটেছে । আহত হয়েছে আরও দুই শতাধিক ব্যক্তি। কথিত ইসলামিক স্টেট গোষ্ঠী এই আক্রমণের দায় স্বীকার করেছে ।

জাতিগত সংখ্যালঘু, হাজারা সম্প্রদায়ের কয়েক হাজার সদস্যের এক সমাবেশকে লক্ষ্য করে এই বিস্ফোরণ ঘটানো হয়েছে । পূর্ব আফগানিস্তানে ইসলামিক স্টেট-এর উপস্থিতি থাকলেও রাজধানী কাবুলে কোনো হামলা চালানোর দায় তারা আগে স্বীকার করেনি।

আইএস-এর সঙ্গে জড়িত বার্তা সংস্থা আমাক জানাচ্ছে, দুজন আইএস যোদ্ধা কাবুলে শিয়াদের এক বিক্ষোভ সমাবেশে তাদের বেল্টে বাঁধা বিস্ফোরক ফাটায়।

আফগান গোয়েন্দা সূত্র বিবিসিকে জানিয়েছে আবু আলি নামে আইএসের একজন অধিনায়ক নানগারহার প্রদেশ থেকে তিনজন জিহাদিকে কাবুলে পাঠিয়েছে হামলা চালানোর জন্য।

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, একজন হামলাকারী সফলভাবে তার বেল্ট থেকে বিস্ফোরণ ঘটাতে সক্ষম হয়। দ্বিতীয় হামলাকারী বিস্ফোরণ ঘটাতে ব্যর্থ হয়েছে এবং নিরাপত্তা বাহিনীর হাতে তৃতীয়জন মারা গেছে।

কাবুলে ডেমাজাং চত্বরে শিয়া হাজারা সম্প্রদায়ের কয়েক হাজার মানুষ নতুন বিদ্যুত লাইনের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানাচ্ছিল।

তাদের প্রতিবাদের কারণ ছিল নতুন বিদ্যুতের লাইন তাদের বেশিরভাগ মানুষ যেসব এলাকায় বাস করেন সেসব এলাকার বাইরে দিয়ে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। ফলে এর সুবিধা থেকে তারা বঞ্চিত হচ্ছেন।

একজন বিক্ষোভকারী, আরিফ আলি বলেছেন কয়েক দশক ধরে হাজারা সম্প্রদায়ের মানুষ কোণ ঠাসা হয়ে রয়েছে । তাদের অর্থনৈতিক সমস্যা, দারিদ্র এবং বৈষম্য রয়েছে । ক্ষমতায় অধিষ্ঠিতদের অবশ্যই এই ব্যক্তিদের কথা শুনতে হবে এবং তাদের আলোচনায় আহ্বান জানাতে হবে।

তালেবান এই হামলার নিন্দা জানিয়েছে।

প্রেসিডেন্ট আশরাফ ঘানি বলেছেন তিনি এ ঘটনায় “গভীরভাবে মর্মাহত”। তিনি বলেছেন শান্তিপূর্ণ প্রতিবাদের অধিকার প্রত্যেক নাগরিকের রয়েছে। জাতির উদ্দেশ্যে দেওয়া এক ভাষণে তিনি রোববার জাতীয় শোক দিবস ঘোষণা করেছেন।

 

Comments

comments

সম্পাদক : মোহাম্মদ আবদুল বাছির
প্রকাশক: মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম
ফোন : ‎০১৭১৩৪০৯০৯০
৩৪৫/১, দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০
X
 
নিয়মিত খবর পড়তে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন
X