মঙ্গলবার, ২০শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ইং, ৮ই ফাল্গুন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, সকাল ১১:৩২
শিরোনাম
  • ঘৃণাকে বিজয়ী হতে দেয়া যাবে না, ট্রাম্পকে ইঙ্গিত করে জর্জ ক্লুনি
  • আমার একটাই চিন্তা দেশের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করা: প্রধানমন্ত্রী
  • ‘কেন্দ্রীয় সরকারের আগ্রাসী নীতির কারণে কাশ্মীরকে হারাতে হবে’
  • সাড়ে চারমাস পর মুখোমুখি, খাদিজাকে উদ্দেশ্য করে যা বলল বদরুল
  • খালেদার ‘সাজা’ বিরোধী নেতাকর্মীদের মনোবল ভাঙ্গার কৌশল!
  • বিএনপির কর্মসূচি ‘যথাসময়ে’ জানানো হবে: রিজভী
  • দলের জন্য বোলিং করতেও রাজি মুশফিক
  • শিশু জিহাদের মৃত্যু: চার জনের ১০ বছর করে কারাদণ্ড
  • অবশেষে বাড়ি অবরুদ্ধ করে রাখা সেই দেয়াল ভেঙ্গে ফেলা হচ্ছে
  • সাক্ষ্য দিলেন খাদিজা, চাইলেন বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তি
  • বদরুলের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিতে আদালতে খাদিজা
  • আজ বগুড়ায় যেসব প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
  • রোহিঙ্গা স্থানান্তরের সরকারি পরিকল্পনার সঙ্গে দ্বিমত মানবাধিকার কমিশনের
  • মহেশখালীতে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে পুলিশের ‘বন্দুকযুদ্ধ’
  • হোয়াইট হাউসে কাজ করার দীর্ঘ অভিজ্ঞতার কথা জানালেন এই বাংলাদেশি সাংবাদিক
Tuesday, September 20, 2016 10:41 pm
A- A A+ Print

কাল আসছে নতুন টিভি চ্যানেল ডিবিসি

244807_1

আরো একটি বেসরকারি নতুন টেলিভিশন চ্যানেল চালু হচ্ছে বাংলাদেশে। ঢাকা বাংলা চ্যানেল (ডিবিসি) নামের এই টেলিভিশনটি নিয়ে দেশে বেসরকারি টিভি চ্যানেলের সংখ্যা এখন প্রায় ৩০ এর কাছাকাছি। ডিবিসি নিউজের চেয়ারম্যান এবং একই সাথে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রীর তথ্য উপদেষ্টা ইকবাল সোবহান চৌধুরী বলেন, প্রতিযোগিতায় যদি টিকতে হয় তাহলে যারা ইতিমধ্যেই বাজারে আছেন, তাদের যে স্টাইল আছে, তার তুলনায় আমাদের অবশ্যই নতুন কিছু থাকতেই হবে। তার কথায় অবশ্য ঠিক পরিষ্কার হয়নি নতুন কি স্টাইল তাদের থাকবে যা দর্শক আকর্ষণ করবে। তবে এই স্বকীয় স্টাইলের অভাবের কথা জানালেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের টেলিভিশন ও চলচ্চিত্র অধ্যয়ন বিভাগের প্রধান অধ্যাপক শফিউল আলম ভুঁইয়া। তিনি মনে করেন, বাংলাদেশের যে বিশাল জনগোষ্ঠী তাতে ৩০ টা চ্যানেল কিছুই না। এখনো বড় বাজারের সম্ভাবনা বাংলাদেশে আছে। তবে এখানে অনেক চ্যানেল চালু হওয়ার অন্যতম প্রধান কারণ হলো ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠানের মিডিয়া হাউজ খুলে বসার প্রবণতা। তিনি বলেন, বাংলাদেশের ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠানগুলো চায় যে তাদের একটা টেলিভিশন থাকুক। কারণ টেলিভিশন একটি শক্তিশালী মিডিয়াম। হাউজগুলো নিজেদের ব্যবসা রক্ষার জন্য বা এক ধরনের রাজনৈতিক প্রভাব বিস্তার করার জন্যে যদি টেলিভিশন চ্যানেল চান তাহলে আমি বলবো নতুন কোন চ্যানেলের আর দরকার নেই। যে জনগোষ্ঠীর কথা বলছেন অধ্যাপক শফিউল আলম ভুঁইয়া, সেই অগণিত দর্শকদের কোন অনুষ্ঠান রেখে কোনটা দেখবেন এমন কি কখনো হয়? বেসরকারি টিভি, চ্যানেল আইয়ের মালিকদের একজন শাইখ সিরাজ বলছেন, বাংলাদেশের চ্যানেলগুলোতে বিষয় বৈচিত্র্যের অভাব রয়েছে। আর তাই প্রতিষ্ঠিত চ্যানেলের দর্শক টানা সম্ভব হচ্ছে না অনেকের পক্ষেই। তার মতে, ইতিমধ্যেই যারা বাজারে প্রতিষ্ঠিত তাদেরও বিষয় বৈচিত্র্য থাকতে হবে তা না হলে তারাও তো টিকবে না। নতুন চ্যানেল এসে তার বাজার দখল করে নেবে। কিন্তু নতুন চ্যানেলগুলো আরো ভাল বিষয় বস্তু দিয়ে দর্শক টানার চেষ্টাও করছে বলে মনে হয় না। কারণ তা হলে তো দর্শকরাও চলে যেতো। সেটাও তো হচ্ছে না। তবে অধ্যাপক ভুঁইয়া বলেন, তারপরও বাংলাদেশে বছরে বিজ্ঞাপনের বাজার বছরে এগারো শ` কোটি টাকার মতো এবং আর তা ক্রমশই বাড়ছে। তবে এ অভিযোগও রয়েছে যে বিজ্ঞাপনের যন্ত্রণায় অনেক সময় অনুষ্ঠানই দেখা যায় না।

Comments

Comments!

 কাল আসছে নতুন টিভি চ্যানেল ডিবিসিAmarbangladeshonlineAmarbangladeshonline | Amarbangladeshonline

কাল আসছে নতুন টিভি চ্যানেল ডিবিসি

Tuesday, September 20, 2016 10:41 pm
244807_1

আরো একটি বেসরকারি নতুন টেলিভিশন চ্যানেল চালু হচ্ছে বাংলাদেশে। ঢাকা বাংলা চ্যানেল (ডিবিসি) নামের এই টেলিভিশনটি নিয়ে দেশে বেসরকারি টিভি চ্যানেলের সংখ্যা এখন প্রায় ৩০ এর কাছাকাছি।

ডিবিসি নিউজের চেয়ারম্যান এবং একই সাথে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রীর তথ্য উপদেষ্টা ইকবাল সোবহান চৌধুরী বলেন, প্রতিযোগিতায় যদি টিকতে হয় তাহলে যারা ইতিমধ্যেই বাজারে আছেন, তাদের যে স্টাইল আছে, তার তুলনায় আমাদের অবশ্যই নতুন কিছু থাকতেই হবে।

তার কথায় অবশ্য ঠিক পরিষ্কার হয়নি নতুন কি স্টাইল তাদের থাকবে যা দর্শক আকর্ষণ করবে। তবে এই স্বকীয় স্টাইলের অভাবের কথা জানালেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের টেলিভিশন ও চলচ্চিত্র অধ্যয়ন বিভাগের প্রধান অধ্যাপক শফিউল আলম ভুঁইয়া। তিনি মনে করেন, বাংলাদেশের যে বিশাল জনগোষ্ঠী তাতে ৩০ টা চ্যানেল কিছুই না। এখনো বড় বাজারের সম্ভাবনা বাংলাদেশে আছে। তবে এখানে অনেক চ্যানেল চালু হওয়ার অন্যতম প্রধান কারণ হলো ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠানের মিডিয়া হাউজ খুলে বসার প্রবণতা।

তিনি বলেন, বাংলাদেশের ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠানগুলো চায় যে তাদের একটা টেলিভিশন থাকুক। কারণ টেলিভিশন একটি শক্তিশালী মিডিয়াম। হাউজগুলো নিজেদের ব্যবসা রক্ষার জন্য বা এক ধরনের রাজনৈতিক প্রভাব বিস্তার করার জন্যে যদি টেলিভিশন চ্যানেল চান তাহলে আমি বলবো নতুন কোন চ্যানেলের আর দরকার নেই।

যে জনগোষ্ঠীর কথা বলছেন অধ্যাপক শফিউল আলম ভুঁইয়া, সেই অগণিত দর্শকদের কোন অনুষ্ঠান রেখে কোনটা দেখবেন এমন কি কখনো হয়? বেসরকারি টিভি, চ্যানেল আইয়ের মালিকদের একজন শাইখ সিরাজ বলছেন, বাংলাদেশের চ্যানেলগুলোতে বিষয় বৈচিত্র্যের অভাব রয়েছে। আর তাই প্রতিষ্ঠিত চ্যানেলের দর্শক টানা সম্ভব হচ্ছে না অনেকের পক্ষেই।

তার মতে, ইতিমধ্যেই যারা বাজারে প্রতিষ্ঠিত তাদেরও বিষয় বৈচিত্র্য থাকতে হবে তা না হলে তারাও তো টিকবে না। নতুন চ্যানেল এসে তার বাজার দখল করে নেবে। কিন্তু নতুন চ্যানেলগুলো আরো ভাল বিষয় বস্তু দিয়ে দর্শক টানার চেষ্টাও করছে বলে মনে হয় না। কারণ তা হলে তো দর্শকরাও চলে যেতো। সেটাও তো হচ্ছে না।

তবে অধ্যাপক ভুঁইয়া বলেন, তারপরও বাংলাদেশে বছরে বিজ্ঞাপনের বাজার বছরে এগারো শ` কোটি টাকার মতো এবং আর তা ক্রমশই বাড়ছে। তবে এ অভিযোগও রয়েছে যে বিজ্ঞাপনের যন্ত্রণায় অনেক সময় অনুষ্ঠানই দেখা যায় না।

Comments

comments

সম্পাদক : মোহাম্মদ আবদুল বাছির
প্রকাশক: মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম
ফোন : ‎০১৭১৩৪০৯০৯০
৩৪৫/১, দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০
X
 
নিয়মিত খবর পড়তে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন
X