রবিবার, ২৫শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ইং, ১৩ই ফাল্গুন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, সকাল ১১:৫৯
শিরোনাম
  • ঘৃণাকে বিজয়ী হতে দেয়া যাবে না, ট্রাম্পকে ইঙ্গিত করে জর্জ ক্লুনি
  • আমার একটাই চিন্তা দেশের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করা: প্রধানমন্ত্রী
  • ‘কেন্দ্রীয় সরকারের আগ্রাসী নীতির কারণে কাশ্মীরকে হারাতে হবে’
  • সাড়ে চারমাস পর মুখোমুখি, খাদিজাকে উদ্দেশ্য করে যা বলল বদরুল
  • খালেদার ‘সাজা’ বিরোধী নেতাকর্মীদের মনোবল ভাঙ্গার কৌশল!
  • বিএনপির কর্মসূচি ‘যথাসময়ে’ জানানো হবে: রিজভী
  • দলের জন্য বোলিং করতেও রাজি মুশফিক
  • শিশু জিহাদের মৃত্যু: চার জনের ১০ বছর করে কারাদণ্ড
  • অবশেষে বাড়ি অবরুদ্ধ করে রাখা সেই দেয়াল ভেঙ্গে ফেলা হচ্ছে
  • সাক্ষ্য দিলেন খাদিজা, চাইলেন বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তি
  • বদরুলের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিতে আদালতে খাদিজা
  • আজ বগুড়ায় যেসব প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
  • রোহিঙ্গা স্থানান্তরের সরকারি পরিকল্পনার সঙ্গে দ্বিমত মানবাধিকার কমিশনের
  • মহেশখালীতে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে পুলিশের ‘বন্দুকযুদ্ধ’
  • হোয়াইট হাউসে কাজ করার দীর্ঘ অভিজ্ঞতার কথা জানালেন এই বাংলাদেশি সাংবাদিক
Thursday, September 29, 2016 12:51 pm
A- A A+ Print

কাশ্মির নিয়ে চীনের কূটনীতি

246924_1

সার্ক সম্মেলন বয়কট করে নয়াদিল্লি পাকিস্তানকে কোণঠাসা করার উদ্যোগ গ্রহণের পরই আসরে নামল চীন। কাশ্মির বিতর্ক মিটিয়ে ফেলতে বুধবার ইসলামাবাদ ও নয়াদিল্লিকে প্রস্তাব দিয়েছে বেইজিং। তবে একই সঙ্গে জানিয়ে দিয়েছে, কাশ্মির সম্পর্কে পাকিস্তানের অবস্থানকে বিশেষ গুরুত্ব দিচ্ছে তারা। চীনের সহকারী পররাষ্ট্রমন্ত্রী লিউ ঝেনমিন কাশ্মির নিয়ে ইসলামাবাদের এক প্রতিনিধি দলকে বলেছেন, বেইজিং আশা করছে, ভারত ও পাকিস্তান আলোচনার পথে এগোবে এবং আঞ্চলিক শান্তি প্রতিষ্ঠা করবে। চীনের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের ওয়েবসাইটে এ কথা জানানো হয়েছে। এত দিন ধরে ভারতের আপত্তিকে গুরুত্ব না দিয়েই পাকিস্তান নিয়ন্ত্রিত কাশ্মিরে বাণিজ্য করিডর তৈরি করতে এগিয়েছে চীন। বেইজিং স্পষ্ট করে বলে দিয়েছে, কাশ্মির নিয়ে পাকিস্তানের মতামতকে গুরুত্ব দিচ্ছে তারা। কূটনীতিকেরা মনে করছেন, সিন্ধু ও ব্রহ্মপুত্রের পানি নিয়ে বেইজিংয়ের অবস্থান ভারতের কাছে খুবই গুরুত্বের। কেননা, সিন্ধুর উৎপত্তি চীনে। আর ব্রহ্মপুত্রে বাঁধ দেয়া নিয়ে ইতিমধ্যেই চীনের বিরুদ্ধে ক্ষোভ জানিয়েছে ভারত। ফলে সিন্ধু চুক্তি নিয়ে ইসলামাবাদকে কোণঠাসা করতে চাইলেও চীন পাকিস্তানকে সমর্থন করে কিনা, তা-ও দেখতে হচ্ছে ভারতকে। উরির ঘটনার পরে পাকিস্তানের প্রতি ক্ষোভ জানিয়ে নরেন্দ্র মোদির মন্তব্য, রক্ত ও পানি একসঙ্গে বইতে পারে না। চুক্তি নিয়ে ইসলামাবাদকে চাপে ফেলতে দিল্লিতে বৈঠকে বসে রণনীতি ঠিক করেছেন মোদি। এর পরেই সিন্ধু বিতর্ক নিয়ে ভারতের বিরুদ্ধে বিশ্বব্যাংকের কাছে অভিযোগ এনেছে ইসলামাবাদ। চন্দ্রভাগা নদীতে ভারত যাতে বাঁধ না দিতে পারে, তা দেখার জন্য আর্জি জানানো হয়েছে। পাশাপাশি ভারতও সিন্ধু চুক্তি নিয়ে বিশ্বব্যাঙ্কের কাছে নিজেদের বক্তব্য জানিয়েছে।
উৎসঃ   নয়াদিগন্ত

Comments

Comments!

 কাশ্মির নিয়ে চীনের কূটনীতিAmarbangladeshonlineAmarbangladeshonline | Amarbangladeshonline

কাশ্মির নিয়ে চীনের কূটনীতি

Thursday, September 29, 2016 12:51 pm
246924_1

সার্ক সম্মেলন বয়কট করে নয়াদিল্লি পাকিস্তানকে কোণঠাসা করার উদ্যোগ গ্রহণের পরই আসরে নামল চীন। কাশ্মির বিতর্ক মিটিয়ে ফেলতে বুধবার ইসলামাবাদ ও নয়াদিল্লিকে প্রস্তাব দিয়েছে বেইজিং। তবে একই সঙ্গে জানিয়ে দিয়েছে, কাশ্মির সম্পর্কে পাকিস্তানের অবস্থানকে বিশেষ গুরুত্ব দিচ্ছে তারা।

চীনের সহকারী পররাষ্ট্রমন্ত্রী লিউ ঝেনমিন কাশ্মির নিয়ে ইসলামাবাদের এক প্রতিনিধি দলকে বলেছেন, বেইজিং আশা করছে, ভারত ও পাকিস্তান আলোচনার পথে এগোবে এবং আঞ্চলিক শান্তি প্রতিষ্ঠা করবে। চীনের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের ওয়েবসাইটে এ কথা জানানো হয়েছে। এত দিন ধরে ভারতের আপত্তিকে গুরুত্ব না দিয়েই পাকিস্তান নিয়ন্ত্রিত কাশ্মিরে বাণিজ্য করিডর তৈরি করতে এগিয়েছে চীন।

বেইজিং স্পষ্ট করে বলে দিয়েছে, কাশ্মির নিয়ে পাকিস্তানের মতামতকে গুরুত্ব দিচ্ছে তারা। কূটনীতিকেরা মনে করছেন, সিন্ধু ও ব্রহ্মপুত্রের পানি নিয়ে বেইজিংয়ের অবস্থান ভারতের কাছে খুবই গুরুত্বের। কেননা, সিন্ধুর উৎপত্তি চীনে। আর ব্রহ্মপুত্রে বাঁধ দেয়া নিয়ে ইতিমধ্যেই চীনের বিরুদ্ধে ক্ষোভ জানিয়েছে ভারত। ফলে সিন্ধু চুক্তি নিয়ে ইসলামাবাদকে কোণঠাসা করতে চাইলেও চীন পাকিস্তানকে সমর্থন করে কিনা, তা-ও দেখতে হচ্ছে ভারতকে।

উরির ঘটনার পরে পাকিস্তানের প্রতি ক্ষোভ জানিয়ে নরেন্দ্র মোদির মন্তব্য, রক্ত ও পানি একসঙ্গে বইতে পারে না। চুক্তি নিয়ে ইসলামাবাদকে চাপে ফেলতে দিল্লিতে বৈঠকে বসে রণনীতি ঠিক করেছেন মোদি। এর পরেই সিন্ধু বিতর্ক নিয়ে ভারতের বিরুদ্ধে বিশ্বব্যাংকের কাছে অভিযোগ এনেছে ইসলামাবাদ। চন্দ্রভাগা নদীতে ভারত যাতে বাঁধ না দিতে পারে, তা দেখার জন্য আর্জি জানানো হয়েছে। পাশাপাশি ভারতও সিন্ধু চুক্তি নিয়ে বিশ্বব্যাঙ্কের কাছে নিজেদের বক্তব্য জানিয়েছে।

উৎসঃ   নয়াদিগন্ত

Comments

comments

সম্পাদক : মোহাম্মদ আবদুল বাছির
প্রকাশক: মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম
ফোন : ‎০১৭১৩৪০৯০৯০
৩৪৫/১, দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০
X
 
নিয়মিত খবর পড়তে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন
X