সোমবার, ২৬শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ইং, ১৪ই ফাল্গুন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, রাত ১:১৬
শিরোনাম
  • ঘৃণাকে বিজয়ী হতে দেয়া যাবে না, ট্রাম্পকে ইঙ্গিত করে জর্জ ক্লুনি
  • আমার একটাই চিন্তা দেশের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করা: প্রধানমন্ত্রী
  • ‘কেন্দ্রীয় সরকারের আগ্রাসী নীতির কারণে কাশ্মীরকে হারাতে হবে’
  • সাড়ে চারমাস পর মুখোমুখি, খাদিজাকে উদ্দেশ্য করে যা বলল বদরুল
  • খালেদার ‘সাজা’ বিরোধী নেতাকর্মীদের মনোবল ভাঙ্গার কৌশল!
  • বিএনপির কর্মসূচি ‘যথাসময়ে’ জানানো হবে: রিজভী
  • দলের জন্য বোলিং করতেও রাজি মুশফিক
  • শিশু জিহাদের মৃত্যু: চার জনের ১০ বছর করে কারাদণ্ড
  • অবশেষে বাড়ি অবরুদ্ধ করে রাখা সেই দেয়াল ভেঙ্গে ফেলা হচ্ছে
  • সাক্ষ্য দিলেন খাদিজা, চাইলেন বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তি
  • বদরুলের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিতে আদালতে খাদিজা
  • আজ বগুড়ায় যেসব প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
  • রোহিঙ্গা স্থানান্তরের সরকারি পরিকল্পনার সঙ্গে দ্বিমত মানবাধিকার কমিশনের
  • মহেশখালীতে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে পুলিশের ‘বন্দুকযুদ্ধ’
  • হোয়াইট হাউসে কাজ করার দীর্ঘ অভিজ্ঞতার কথা জানালেন এই বাংলাদেশি সাংবাদিক
Tuesday, May 23, 2017 3:30 pm
A- A A+ Print

কাশ্মীরি যুবককে ‘মানব-ঢাল’ বানানো সেই ভারতীয় সেনাকে পুরস্কার

175191_1

কাশ্মীর: ভারত নিয়ন্ত্রিত জম্মু-কাশ্মীরের ফারুক আহমেদ ডার নামের এক যুবককে জীপ গাড়ির সামনে বেঁধে সারাদিন রাস্তায় ঘুরিয়েছিলেন সেনা কর্মকর্তা মেজর গগই। এবার তাকেই একটি প্রশংসাপত্র দিয়েছেন স্বয়ং সেনাপ্রধান জেনারেল বিপিন রাওয়াত। ওই সেনা অফিসারকে ‘কাউন্টার-ইন্সারজেন্সি’ অপারেশনগুলিতে তার ধারাবাহিক অবদানের জন্যই ওই পুরস্কার দেওয়া হয়েছে। মানব ঢাল হিসাবে ওই যুবককে ব্যবহার করার ছবি ভাইরাল হয়ে গেলে দেশ-বিদেশে ব্যাপকভাবে তা নিয়ে আলোচনা শুরু হয়। গত ৯ এপ্রিল কাশ্মিরের লোকসভা আসনের উপনির্বাচনের দিন ওই ঘটনা ঘটে। সেনাবাহিনীর তরফে বলা হয়েছিল, ভোটের দিন স্থানীয় যুবকরা যাতে সেনা জিপের দিকে পাথর ছুঁড়তে না পারে, সেজন্যই ডারকে জিপের সামনে বসিয়ে রাখা হয়েছিল। সেনাবাহিনীর ৫৩ নম্বর রাষ্ট্রীয় রাইফেলস ব্যাটালিয়নের ওই সিদ্ধান্তর বিরুদ্ধে জম্মু-কাশ্মির পুলিশ যেমন আলাদা মামলা রুজু করে, তেমনই সেনাবাহিনীও তাদের নিজস্ব তদন্ত চালাচ্ছে। তদন্ত চলাকালীনই কেন ওই সেনা অফিসারকে জেনারেল রাওয়াত পুরস্কৃত করলেন, তার কোনো ব্যাখ্যা পাওয়া যায় নি। ওই ঘটনার পরে এক সাক্ষাতকারে কাশ্মিরি যুবক, ফারুক আহমেদ ডার বলেছিলেন, তাকে সকাল ১১টা নাগাদ আটক করা হয়, আর সারাদিন জিপের সামনে বেঁধে রাখার পরে সন্ধ্যে সাতটা নাগাদ তাকে ছাড়া হয়। ‘রাষ্ট্রীয় রাইফেলস-এর লোকেরা বলেছিল যে আমি নাকি পাথর ছুঁড়েছি। অথচ জীবনে একটা পাথরও ছুঁড়িনি আমি। ভোট দিতে বেরিয়েছিলাম। ভোটার পরিচয়পত্র, আধার কার্ড সব দেখিয়েছিলাম, তবুও তারা মানতে চায় নি,’ বলেছিলেন ডার। মেজর গগইকে সেনাপ্রধানের প্রশংসাপত্র প্রদানের খবর প্রচারিত হতেই তা নিয়ে পক্ষে-বিপক্ষে নানা মত সামনে আসছে সামাজিক মাধ্যমগুলিতে। তার মধ্যে বিতর্ক আরো বাড়িয়েছেন বি জে পি-র সংসদ সদস্য ও অভিনেতা পরেশ রাওয়াল। তিনি মন্তব্য করেছেন যে পাথর ছুঁড়ছিল যারা সেরকম কাউকে জিপের সামনে বেঁধে না রেখে অরুন্ধতী রায়কে বেঁধে রাখা হোক। মিজ. রায় প্রখ্যাত লেখিকা ও ভারতে মানবাধিকার লঙ্ঘনের ঘটনাগুলি নিয়ে অত্যন্ত সরব। ভারতের সংবাদমাধ্যমগুলি এই প্রসঙ্গে উল্লেখ করেছে, যে মানব-ঢাল হিসাবে কোনো ব্যক্তিকে ব্যবহার করা ভিয়েন কনভেনশন অনুযায়ী যুদ্ধাপরাধ। সূত্র: বিবিসি

Comments

Comments!

 কাশ্মীরি যুবককে ‘মানব-ঢাল’ বানানো সেই ভারতীয় সেনাকে পুরস্কারAmarbangladeshonlineAmarbangladeshonline | Amarbangladeshonline

কাশ্মীরি যুবককে ‘মানব-ঢাল’ বানানো সেই ভারতীয় সেনাকে পুরস্কার

Tuesday, May 23, 2017 3:30 pm
175191_1

কাশ্মীর: ভারত নিয়ন্ত্রিত জম্মু-কাশ্মীরের ফারুক আহমেদ ডার নামের এক যুবককে জীপ গাড়ির সামনে বেঁধে সারাদিন রাস্তায় ঘুরিয়েছিলেন সেনা কর্মকর্তা মেজর গগই। এবার তাকেই একটি প্রশংসাপত্র দিয়েছেন স্বয়ং সেনাপ্রধান জেনারেল বিপিন রাওয়াত।

ওই সেনা অফিসারকে ‘কাউন্টার-ইন্সারজেন্সি’ অপারেশনগুলিতে তার ধারাবাহিক অবদানের জন্যই ওই পুরস্কার দেওয়া হয়েছে।

মানব ঢাল হিসাবে ওই যুবককে ব্যবহার করার ছবি ভাইরাল হয়ে গেলে দেশ-বিদেশে ব্যাপকভাবে তা নিয়ে আলোচনা শুরু হয়।

গত ৯ এপ্রিল কাশ্মিরের লোকসভা আসনের উপনির্বাচনের দিন ওই ঘটনা ঘটে।

সেনাবাহিনীর তরফে বলা হয়েছিল, ভোটের দিন স্থানীয় যুবকরা যাতে সেনা জিপের দিকে পাথর ছুঁড়তে না পারে, সেজন্যই ডারকে জিপের সামনে বসিয়ে রাখা হয়েছিল।

সেনাবাহিনীর ৫৩ নম্বর রাষ্ট্রীয় রাইফেলস ব্যাটালিয়নের ওই সিদ্ধান্তর বিরুদ্ধে জম্মু-কাশ্মির পুলিশ যেমন আলাদা মামলা রুজু করে, তেমনই সেনাবাহিনীও তাদের নিজস্ব তদন্ত চালাচ্ছে।

তদন্ত চলাকালীনই কেন ওই সেনা অফিসারকে জেনারেল রাওয়াত পুরস্কৃত করলেন, তার কোনো ব্যাখ্যা পাওয়া যায় নি।

ওই ঘটনার পরে এক সাক্ষাতকারে কাশ্মিরি যুবক, ফারুক আহমেদ ডার বলেছিলেন, তাকে সকাল ১১টা নাগাদ আটক করা হয়, আর সারাদিন জিপের সামনে বেঁধে রাখার পরে সন্ধ্যে সাতটা নাগাদ তাকে ছাড়া হয়।

‘রাষ্ট্রীয় রাইফেলস-এর লোকেরা বলেছিল যে আমি নাকি পাথর ছুঁড়েছি। অথচ জীবনে একটা পাথরও ছুঁড়িনি আমি। ভোট দিতে বেরিয়েছিলাম। ভোটার পরিচয়পত্র, আধার কার্ড সব দেখিয়েছিলাম, তবুও তারা মানতে চায় নি,’ বলেছিলেন ডার।

মেজর গগইকে সেনাপ্রধানের প্রশংসাপত্র প্রদানের খবর প্রচারিত হতেই তা নিয়ে পক্ষে-বিপক্ষে নানা মত সামনে আসছে সামাজিক মাধ্যমগুলিতে।

তার মধ্যে বিতর্ক আরো বাড়িয়েছেন বি জে পি-র সংসদ সদস্য ও অভিনেতা পরেশ রাওয়াল।

তিনি মন্তব্য করেছেন যে পাথর ছুঁড়ছিল যারা সেরকম কাউকে জিপের সামনে বেঁধে না রেখে অরুন্ধতী রায়কে বেঁধে রাখা হোক। মিজ. রায় প্রখ্যাত লেখিকা ও ভারতে মানবাধিকার লঙ্ঘনের ঘটনাগুলি নিয়ে অত্যন্ত সরব।

ভারতের সংবাদমাধ্যমগুলি এই প্রসঙ্গে উল্লেখ করেছে, যে মানব-ঢাল হিসাবে কোনো ব্যক্তিকে ব্যবহার করা ভিয়েন কনভেনশন অনুযায়ী যুদ্ধাপরাধ।

সূত্র: বিবিসি

Comments

comments

সম্পাদক : মোহাম্মদ আবদুল বাছির
প্রকাশক: মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম
ফোন : ‎০১৭১৩৪০৯০৯০
৩৪৫/১, দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০
X
 
নিয়মিত খবর পড়তে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন
X