সোমবার, ১৯শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ইং, ৭ই ফাল্গুন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, রাত ৪:১০
শিরোনাম
  • ঘৃণাকে বিজয়ী হতে দেয়া যাবে না, ট্রাম্পকে ইঙ্গিত করে জর্জ ক্লুনি
  • আমার একটাই চিন্তা দেশের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করা: প্রধানমন্ত্রী
  • ‘কেন্দ্রীয় সরকারের আগ্রাসী নীতির কারণে কাশ্মীরকে হারাতে হবে’
  • সাড়ে চারমাস পর মুখোমুখি, খাদিজাকে উদ্দেশ্য করে যা বলল বদরুল
  • খালেদার ‘সাজা’ বিরোধী নেতাকর্মীদের মনোবল ভাঙ্গার কৌশল!
  • বিএনপির কর্মসূচি ‘যথাসময়ে’ জানানো হবে: রিজভী
  • দলের জন্য বোলিং করতেও রাজি মুশফিক
  • শিশু জিহাদের মৃত্যু: চার জনের ১০ বছর করে কারাদণ্ড
  • অবশেষে বাড়ি অবরুদ্ধ করে রাখা সেই দেয়াল ভেঙ্গে ফেলা হচ্ছে
  • সাক্ষ্য দিলেন খাদিজা, চাইলেন বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তি
  • বদরুলের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিতে আদালতে খাদিজা
  • আজ বগুড়ায় যেসব প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
  • রোহিঙ্গা স্থানান্তরের সরকারি পরিকল্পনার সঙ্গে দ্বিমত মানবাধিকার কমিশনের
  • মহেশখালীতে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে পুলিশের ‘বন্দুকযুদ্ধ’
  • হোয়াইট হাউসে কাজ করার দীর্ঘ অভিজ্ঞতার কথা জানালেন এই বাংলাদেশি সাংবাদিক
Sunday, May 7, 2017 9:28 am
A- A A+ Print

কিম জং উনকে যেভাবে হত্যার পরিকল্পনা করেছিল সিআইএ

১০

পিয়ংইয়ং: কিম জং উনকে হত্যায় যুক্তরাষ্ট্রের কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা সিআইএ ষড়যন্ত্র করছে বলে অভিযোগ করেছে উত্তর কোরিয়া। যদিও যুক্তরাষ্ট্র এমন অভিযোগ অস্বীকার করেছে। তবু নানা দেশে বিরোধীমতাবলম্বী নেতাদের গুপ্তহত্যা-উচ্ছেদের মার্কিন ইতিহাস কিন্তু ভিন্ন বার্তাই দেয়। ভিন্নমতাবলম্বী-রাশিয়া ঘনিষ্ঠ এমন অভিযোগে বেশ কয়েকজন নেতাকে উচ্ছেদের ইতিহাস বা হত্যার ষড়যন্ত্রের অভিযোগ রয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের বিরুদ্ধে। এর মধ্যে সবচেয়ে উল্লেখযোগ্য কিউবার সাবেক নেতা প্রয়াত ফিদেল কাস্ত্রো। যুক্তরাষ্ট্রের গুপ্তহত্যা ষড়যন্ত্র বারবার নস্যাৎ করে দেওয়া এই মহান নেতা একবার বিদ্রুপ করে বলেছিলেন, গুপ্তহত্যা থেকে বাঁচার কোন প্রতিযোগিতা অলিম্পিকে থাকলে, আমি স্বর্ণ পদক জিততাম। এ বিষয়ে নর্থ কোরিয়ার রাষ্ট্রীয় নিরাপত্তা দপ্তর এক বিবৃতিতে গত শুক্রবার জানায়, সিআইএ তার পুরোনো এই (গুপ্তহত্যার ষড়যন্ত্র) পন্থা ত্যাগ করেনি। নর্থ কোরিয়ার প্রেসিডেন্ট কিম জং উনকে হত্যার ষড়যন্ত্রে হাত রয়েছে যুক্তরাষ্ট্র ও সাউথ কোরিয়ার গোয়েন্দা সংস্থার। বিদেশী গোয়েন্দা সংস্থার সাথে যুক্ত একজন নর্থ কোরিয়ান এই হত্যার প্রচেষ্টায় সরাসরি জড়িত বলেও জানায় দেশটি। প্রেসিডেন্টকে হত্যায় ব্যবহার করা হতো একধরণের জৈবরাসায়নিক পদার্থ, যাতে তেজষ্ক্রিয় ও বিষাক্ত উপাদান রয়েছে। এই বিষ মানুষের শরীরে প্রবেশের পর ছয় থেকে বারো মাস পরে কাজ করে। নর্থ কোরিয়ার এই দাবি অস্বীকার করে সিআইএ’র একজন মুখপাত্র বলেন, অভিযোগটি উড়িয়ে দেওয়ার মতো নয়, কারণ বেশ কয়েকজন বিশ্ব নেতাকে হত্যা এবং উচ্ছেদে যুক্তরাষ্ট্রের কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থার (সিআইএ) তৎপরতা অনেকটা সর্বজনবিদিতই বলা যায়।

Comments

Comments!

 কিম জং উনকে যেভাবে হত্যার পরিকল্পনা করেছিল সিআইএAmarbangladeshonlineAmarbangladeshonline | Amarbangladeshonline

কিম জং উনকে যেভাবে হত্যার পরিকল্পনা করেছিল সিআইএ

Sunday, May 7, 2017 9:28 am
১০

পিয়ংইয়ং: কিম জং উনকে হত্যায় যুক্তরাষ্ট্রের কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা সিআইএ ষড়যন্ত্র করছে বলে অভিযোগ করেছে উত্তর কোরিয়া। যদিও যুক্তরাষ্ট্র এমন অভিযোগ অস্বীকার করেছে।

তবু নানা দেশে বিরোধীমতাবলম্বী নেতাদের গুপ্তহত্যা-উচ্ছেদের মার্কিন ইতিহাস কিন্তু ভিন্ন বার্তাই দেয়।

ভিন্নমতাবলম্বী-রাশিয়া ঘনিষ্ঠ এমন অভিযোগে বেশ কয়েকজন নেতাকে উচ্ছেদের ইতিহাস বা হত্যার ষড়যন্ত্রের অভিযোগ রয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের বিরুদ্ধে। এর মধ্যে সবচেয়ে উল্লেখযোগ্য কিউবার সাবেক নেতা প্রয়াত ফিদেল কাস্ত্রো।

যুক্তরাষ্ট্রের গুপ্তহত্যা ষড়যন্ত্র বারবার নস্যাৎ করে দেওয়া এই মহান নেতা একবার বিদ্রুপ করে বলেছিলেন, গুপ্তহত্যা থেকে বাঁচার কোন প্রতিযোগিতা অলিম্পিকে থাকলে, আমি স্বর্ণ পদক জিততাম।

এ বিষয়ে নর্থ কোরিয়ার রাষ্ট্রীয় নিরাপত্তা দপ্তর এক বিবৃতিতে গত শুক্রবার জানায়, সিআইএ তার পুরোনো এই (গুপ্তহত্যার ষড়যন্ত্র) পন্থা ত্যাগ করেনি। নর্থ কোরিয়ার প্রেসিডেন্ট কিম জং উনকে হত্যার ষড়যন্ত্রে হাত রয়েছে যুক্তরাষ্ট্র ও সাউথ কোরিয়ার গোয়েন্দা সংস্থার।

বিদেশী গোয়েন্দা সংস্থার সাথে যুক্ত একজন নর্থ কোরিয়ান এই হত্যার প্রচেষ্টায় সরাসরি জড়িত বলেও জানায় দেশটি। প্রেসিডেন্টকে হত্যায় ব্যবহার করা হতো একধরণের জৈবরাসায়নিক পদার্থ, যাতে তেজষ্ক্রিয় ও বিষাক্ত উপাদান রয়েছে। এই বিষ মানুষের শরীরে প্রবেশের পর ছয় থেকে বারো মাস পরে কাজ করে।

নর্থ কোরিয়ার এই দাবি অস্বীকার করে সিআইএ’র একজন মুখপাত্র বলেন, অভিযোগটি উড়িয়ে দেওয়ার মতো নয়, কারণ বেশ কয়েকজন বিশ্ব নেতাকে হত্যা এবং উচ্ছেদে যুক্তরাষ্ট্রের কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থার (সিআইএ) তৎপরতা অনেকটা সর্বজনবিদিতই বলা যায়।

Comments

comments

সম্পাদক : মোহাম্মদ আবদুল বাছির
প্রকাশক: মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম
ফোন : ‎০১৭১৩৪০৯০৯০
৩৪৫/১, দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০
X
 
নিয়মিত খবর পড়তে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন
X