বৃহস্পতিবার, ২২শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ইং, ১০ই ফাল্গুন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, রাত ১১:০৩
শিরোনাম
  • ঘৃণাকে বিজয়ী হতে দেয়া যাবে না, ট্রাম্পকে ইঙ্গিত করে জর্জ ক্লুনি
  • আমার একটাই চিন্তা দেশের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করা: প্রধানমন্ত্রী
  • ‘কেন্দ্রীয় সরকারের আগ্রাসী নীতির কারণে কাশ্মীরকে হারাতে হবে’
  • সাড়ে চারমাস পর মুখোমুখি, খাদিজাকে উদ্দেশ্য করে যা বলল বদরুল
  • খালেদার ‘সাজা’ বিরোধী নেতাকর্মীদের মনোবল ভাঙ্গার কৌশল!
  • বিএনপির কর্মসূচি ‘যথাসময়ে’ জানানো হবে: রিজভী
  • দলের জন্য বোলিং করতেও রাজি মুশফিক
  • শিশু জিহাদের মৃত্যু: চার জনের ১০ বছর করে কারাদণ্ড
  • অবশেষে বাড়ি অবরুদ্ধ করে রাখা সেই দেয়াল ভেঙ্গে ফেলা হচ্ছে
  • সাক্ষ্য দিলেন খাদিজা, চাইলেন বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তি
  • বদরুলের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিতে আদালতে খাদিজা
  • আজ বগুড়ায় যেসব প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
  • রোহিঙ্গা স্থানান্তরের সরকারি পরিকল্পনার সঙ্গে দ্বিমত মানবাধিকার কমিশনের
  • মহেশখালীতে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে পুলিশের ‘বন্দুকযুদ্ধ’
  • হোয়াইট হাউসে কাজ করার দীর্ঘ অভিজ্ঞতার কথা জানালেন এই বাংলাদেশি সাংবাদিক
Friday, July 22, 2016 11:14 pm | আপডেটঃ July 22, 2016 11:17 PM
A- A A+ Print

খালেদা জিয়ার সাথে আলাপ করলেই কি জঙ্গিবাদ নির্মূল হবে?

13775594_1213816601962303_2323537422055398322_n

'প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রীর প্রশ্ন'

বিশেষ প্রতিনিধি:  প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রী অ্যাডভোকেট মোস্তাফিজুর রহমান বলেছেন, দেশের জঙ্গি ও সন্ত্রাসবাদ  নির্মূলে অনেকেই তাদের(বিএনপি ও খালেদা) সঙ্গে আলাপ করার জন্য বলছেন।  তো উনার সঙ্গে আলাপ করলেই জঙ্গিবাদ নিমূর্ল হবে? তাহলে কি তিনিই এসব করছেন? সংলাপ করেই যদি সমস্যার সমাধান হয়, তবে তো হরকাতুল জিহাদ, জেএমবি'র সঙ্গেও আলাপ করতে হবে-বলেন মন্ত্রী। ২২জুলাই শুক্রবার জাতীয় প্রেসক্লাবে বাংলাদেশ পিটিআই কর্মকর্তা সমিতির আয়োজিত সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে মন্ত্রী অভিযোগ করেন, তাহলে জঙ্গিবাদের মূল জায়গায় সেখানে!  খালেদা জিয়া আগুন সন্ত্রাস করে কিছু করতে না পেরে এখন জঙ্গিবাদের কথা বলে দেশকে উলট-পালট করে দিতে চান। দেশের দ্রুত অগ্রগতি রোধ করে ক্ষমতায় যেতে চান। এই ষড়যন্ত্র রুখে দিতে হবে বলে মন্তব্য করেন মন্ত্রী। কতিপয় তরুণদের জঙ্গিবাদে জড়িত থাকার আশঙ্কার করে  নবনিযুক্ত পিটিআই ইন্সক্ট্রাক্টদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন,  আপনারা শিক্ষকদের শিক্ষক। এটিই শিক্ষার মূল স্তর। কাজেই এখান থেকে মানসম্মত শিক্ষা পেলে কেউ বিপথগামী হবে না। দেশকে সামনে রেখে কাজ করলে দেশের কান্না বন্ধ হবে। আপনারাই পারবেন এদেশকে জঙ্গিবাদমুক্ত করতে। মন্ত্রী বলেন, জঙ্গি ও সন্ত্রাসবাদ শুধু বাংলাদেশেই নয়, সারা বিশ্বে ধ্বংসযজ্ঞ চালাচ্ছে। এর বিরুদ্ধে প্রত্যেক নাগরিকের ভূমিকা রাখতে হবে। প্রত্যেকের নিজ নিজ জায়গা থেকে জঙ্গিবাদ প্রতিরোধ করতে হবে’। সারাদেশ থেকে আগত পিটিআই ইন্সক্ট্রাক্টদের উদ্দেশ্যে মন্ত্রী প্রশ্ন রেখে বলেন, ফ্রান্স, আমেরিকাতে কি গণতন্ত্র নেই?  সেখানেও তো জঙ্গি হামলা হচ্ছে। কাজেই এখানে এসব বিষয় করানো হচ্ছে। আপনারা যা দেখছেন তা উস্কিয়ে দেওয়া হচ্ছে। এর প্রধান লক্ষ্য শেখ হাসিনাকে শেষ করে দিয়ে দেশকে ধ্বংস করা। মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. হুমায়ুন খালিদ তাঁর গেস্ট অব অনারের বক্তৃতায় বলেন, পিটিআইয়ের দায়িত্ব হচ্ছে পেশাদরিত্ব সৃষ্টি করা। সরকারের চেষ্টা প্রাথমিক শিক্ষা সবার কাছে পৌঁছে দেওয়া। তবে সংখ্যাটা বাড়লেও শিক্ষার মান হয়তো তেমন বাড়েনি। তবে মানসম্মত  শিক্ষার দিকে সরকার এবার হাতে দিয়েছে। তিনি বলেন, শিক্ষকরা শিক্ষিত তবে দক্ষ নয়। যা এক সময় তৃতীয় শ্রেণি পাশ করা শিক্ষকদের মাঝে ছিল। আগে মাস্টারের নামে স্কুল চিনত সকলে। কিন্তু এখন নেই। তাই মানসম্মত শিক্ষা নিশ্চিত করতে হবে। এজন্য পিটিআই ইন্সট্রাক্টরদের সঠিকভাবে দায়িত্ব পালন করতে হবে। সচিব বলেন, শিক্ষাটা মানসম্মত না হলে শিক্ষার্থী মানবিক গুণাবলী, নৈতিকতা, মূল্যবোধও বিকশিত হয়না। যেজন্য তারা জঙ্গিবাদসহ নানাভাবে বিপথমাগী হয়। প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক মো. আলমগীর হোসেন বলেন, পুরো ব্যবস্থাকে ঢেলে সাজানোর উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। শিগগিরই আরো কর্মকর্তাও নিয়োগ দেওয়া হবে। অনুষ্ঠানে নবনিযুক্ত ইন্সক্ট্রাক্টরদের পক্ষ থেকে বক্তৃতায় পিটিআই ইন্সক্ট্রাক্টর ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আইইআর’র প্রাক্তন শিক্ষার্থী মাসুদুর রহমান সংবর্ধনার আয়োজকদের ধন্যবাদ জানিয়ে বলেন, বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দক্ষ নেতৃত্বে বাংলাদেশ আজ দ্রুত এগিয়ে যাচ্ছে। কিন্তু একটি গোষ্ঠী এই অগ্রগতিরোধ করতে চায়। কঠিন এই সময়ে আমাদের প্রত্যেককে জঙ্গি ও সন্ত্রাসবাদ প্রতিরোধে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে এবং নিজ নিজ দায়িত্ব সঠিকভাবে পালন করতে হবে। তিনি এক্ষেত্রে পিটিআই ব্যবস্থাপনার কিছু পদ্ধতিগত পরিবর্তনের গুরুত্ব কথা তোলে ধরেন। আয়োজক সংগঠনের সভাপতি মুহাম্মদ রকিবুল ইসলাম তালুকদারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদফতরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক ড. মো. আবু হেনা মোস্তফা কামাল, জাতীয় প্রাথমিক শিক্ষা একাডেমির মহাপরিচালক মো. ফজলুর রহমান, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষা ও গবেষণা ইন্সটিটিউটের পরিচালক অধ্যাপক হোসনে আরা বেগম প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।  

Comments

Comments!

 খালেদা জিয়ার সাথে আলাপ করলেই কি জঙ্গিবাদ নির্মূল হবে?AmarbangladeshonlineAmarbangladeshonline | Amarbangladeshonline

খালেদা জিয়ার সাথে আলাপ করলেই কি জঙ্গিবাদ নির্মূল হবে?

Friday, July 22, 2016 11:14 pm | আপডেটঃ July 22, 2016 11:17 PM
13775594_1213816601962303_2323537422055398322_n

‘প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রীর প্রশ্ন’

বিশেষ প্রতিনিধি:  প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রী অ্যাডভোকেট মোস্তাফিজুর রহমান বলেছেন, দেশের জঙ্গি ও সন্ত্রাসবাদ  নির্মূলে অনেকেই তাদের(বিএনপি ও খালেদা) সঙ্গে আলাপ করার জন্য বলছেন।  তো উনার সঙ্গে আলাপ করলেই জঙ্গিবাদ নিমূর্ল হবে? তাহলে কি তিনিই এসব করছেন? সংলাপ করেই যদি সমস্যার সমাধান হয়, তবে তো হরকাতুল জিহাদ, জেএমবি’র সঙ্গেও আলাপ করতে হবে-বলেন মন্ত্রী।

২২জুলাই শুক্রবার জাতীয় প্রেসক্লাবে বাংলাদেশ পিটিআই কর্মকর্তা সমিতির আয়োজিত সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে মন্ত্রী অভিযোগ করেন, তাহলে জঙ্গিবাদের মূল জায়গায় সেখানে!  খালেদা জিয়া আগুন সন্ত্রাস করে কিছু করতে না পেরে এখন জঙ্গিবাদের কথা বলে দেশকে উলট-পালট করে দিতে চান। দেশের দ্রুত অগ্রগতি রোধ করে ক্ষমতায় যেতে চান। এই ষড়যন্ত্র রুখে দিতে হবে বলে মন্তব্য করেন মন্ত্রী।

কতিপয় তরুণদের জঙ্গিবাদে জড়িত থাকার আশঙ্কার করে  নবনিযুক্ত পিটিআই ইন্সক্ট্রাক্টদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন,  আপনারা শিক্ষকদের শিক্ষক। এটিই শিক্ষার মূল স্তর। কাজেই এখান থেকে মানসম্মত শিক্ষা পেলে কেউ বিপথগামী হবে না। দেশকে সামনে রেখে কাজ করলে দেশের কান্না বন্ধ হবে। আপনারাই পারবেন এদেশকে জঙ্গিবাদমুক্ত করতে।

মন্ত্রী বলেন, জঙ্গি ও সন্ত্রাসবাদ শুধু বাংলাদেশেই নয়, সারা বিশ্বে ধ্বংসযজ্ঞ চালাচ্ছে। এর বিরুদ্ধে প্রত্যেক নাগরিকের ভূমিকা রাখতে হবে। প্রত্যেকের নিজ নিজ জায়গা থেকে জঙ্গিবাদ প্রতিরোধ করতে হবে’।

সারাদেশ থেকে আগত পিটিআই ইন্সক্ট্রাক্টদের উদ্দেশ্যে মন্ত্রী প্রশ্ন রেখে বলেন, ফ্রান্স, আমেরিকাতে কি গণতন্ত্র নেই?  সেখানেও তো জঙ্গি হামলা হচ্ছে। কাজেই এখানে এসব বিষয় করানো হচ্ছে। আপনারা যা দেখছেন তা উস্কিয়ে দেওয়া হচ্ছে। এর প্রধান লক্ষ্য শেখ হাসিনাকে শেষ করে দিয়ে দেশকে ধ্বংস করা।

মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. হুমায়ুন খালিদ তাঁর গেস্ট অব অনারের বক্তৃতায় বলেন, পিটিআইয়ের দায়িত্ব হচ্ছে পেশাদরিত্ব সৃষ্টি করা। সরকারের চেষ্টা প্রাথমিক শিক্ষা সবার কাছে পৌঁছে দেওয়া। তবে সংখ্যাটা বাড়লেও শিক্ষার মান হয়তো তেমন বাড়েনি। তবে মানসম্মত  শিক্ষার দিকে সরকার এবার হাতে দিয়েছে।
তিনি বলেন, শিক্ষকরা শিক্ষিত তবে দক্ষ নয়। যা এক সময় তৃতীয় শ্রেণি পাশ করা শিক্ষকদের মাঝে ছিল। আগে মাস্টারের নামে স্কুল চিনত সকলে। কিন্তু এখন নেই। তাই মানসম্মত শিক্ষা নিশ্চিত করতে হবে। এজন্য পিটিআই ইন্সট্রাক্টরদের সঠিকভাবে দায়িত্ব পালন করতে হবে।

সচিব বলেন, শিক্ষাটা মানসম্মত না হলে শিক্ষার্থী মানবিক গুণাবলী, নৈতিকতা, মূল্যবোধও বিকশিত হয়না। যেজন্য তারা জঙ্গিবাদসহ নানাভাবে বিপথমাগী হয়।

প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক মো. আলমগীর হোসেন বলেন, পুরো ব্যবস্থাকে ঢেলে সাজানোর উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। শিগগিরই আরো কর্মকর্তাও নিয়োগ দেওয়া হবে।

অনুষ্ঠানে নবনিযুক্ত ইন্সক্ট্রাক্টরদের পক্ষ থেকে বক্তৃতায় পিটিআই ইন্সক্ট্রাক্টর ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আইইআর’র প্রাক্তন শিক্ষার্থী মাসুদুর রহমান সংবর্ধনার আয়োজকদের ধন্যবাদ জানিয়ে বলেন, বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দক্ষ নেতৃত্বে বাংলাদেশ আজ দ্রুত এগিয়ে যাচ্ছে। কিন্তু একটি গোষ্ঠী এই অগ্রগতিরোধ করতে চায়। কঠিন এই সময়ে আমাদের প্রত্যেককে জঙ্গি ও সন্ত্রাসবাদ প্রতিরোধে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে এবং নিজ নিজ দায়িত্ব সঠিকভাবে পালন করতে হবে। তিনি এক্ষেত্রে পিটিআই ব্যবস্থাপনার কিছু পদ্ধতিগত পরিবর্তনের গুরুত্ব কথা তোলে ধরেন।

আয়োজক সংগঠনের সভাপতি মুহাম্মদ রকিবুল ইসলাম তালুকদারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদফতরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক ড. মো. আবু হেনা মোস্তফা কামাল, জাতীয় প্রাথমিক শিক্ষা একাডেমির মহাপরিচালক মো. ফজলুর রহমান, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষা ও গবেষণা ইন্সটিটিউটের পরিচালক অধ্যাপক হোসনে আরা বেগম প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

 

Comments

comments

সম্পাদক : মোহাম্মদ আবদুল বাছির
প্রকাশক: মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম
ফোন : ‎০১৭১৩৪০৯০৯০
৩৪৫/১, দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০
X
 
নিয়মিত খবর পড়তে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন
X