রবিবার, ২৫শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ইং, ১৩ই ফাল্গুন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, রাত ৯:২০
শিরোনাম
  • ঘৃণাকে বিজয়ী হতে দেয়া যাবে না, ট্রাম্পকে ইঙ্গিত করে জর্জ ক্লুনি
  • আমার একটাই চিন্তা দেশের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করা: প্রধানমন্ত্রী
  • ‘কেন্দ্রীয় সরকারের আগ্রাসী নীতির কারণে কাশ্মীরকে হারাতে হবে’
  • সাড়ে চারমাস পর মুখোমুখি, খাদিজাকে উদ্দেশ্য করে যা বলল বদরুল
  • খালেদার ‘সাজা’ বিরোধী নেতাকর্মীদের মনোবল ভাঙ্গার কৌশল!
  • বিএনপির কর্মসূচি ‘যথাসময়ে’ জানানো হবে: রিজভী
  • দলের জন্য বোলিং করতেও রাজি মুশফিক
  • শিশু জিহাদের মৃত্যু: চার জনের ১০ বছর করে কারাদণ্ড
  • অবশেষে বাড়ি অবরুদ্ধ করে রাখা সেই দেয়াল ভেঙ্গে ফেলা হচ্ছে
  • সাক্ষ্য দিলেন খাদিজা, চাইলেন বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তি
  • বদরুলের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিতে আদালতে খাদিজা
  • আজ বগুড়ায় যেসব প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
  • রোহিঙ্গা স্থানান্তরের সরকারি পরিকল্পনার সঙ্গে দ্বিমত মানবাধিকার কমিশনের
  • মহেশখালীতে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে পুলিশের ‘বন্দুকযুদ্ধ’
  • হোয়াইট হাউসে কাজ করার দীর্ঘ অভিজ্ঞতার কথা জানালেন এই বাংলাদেশি সাংবাদিক
Friday, January 6, 2017 7:33 pm
A- A A+ Print

গত এপ্রিলে শ্বশুরবাড়ি থেকে ‘নিখোঁজ’ হন সাদ্দাম

26

রাজধানীর মোহাম্মদপুরের বেড়িবাঁধ এলাকায় ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত সাদ্দাম হোসেন ওরফে রাহুল ওরফে চঞ্চল ওরফে সবুজ ওরফে রবি (২১) গত বছরের ১৪ এপ্রিল শ্বশুরবাড়ি থেকে নিখোঁজ হন বলে দাবি করেছেন তাঁর বাবা। সাদ্দামের বিরুদ্ধে রংপুরে জাপানি নাগরিক কুনিও হোশিকে হত্যার পরিকল্পনা করার অভিযোগ রয়েছে। আজ শুক্রবার সকালে কাউন্টার টেররিজম ইউনিটের প্রধান মনিরুল ইসলাম প্রথম আলোকে বলেন, গতকাল বৃহস্পতিবার দিবাগত রাতে বেড়িবাঁধ এলাকায় ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নব্য জেএমবির নেতা ও ঢাকার গুলশান হামলার ‘অপারেশন কমান্ডার’ নুরুল ইসলাম ওরফে মারজান নিহত হন। এ সময় তাঁর সহযোগী সাদ্দামও নিহত হন। কুড়িগ্রামের রাজারহাট উপজেলার চর বিদ্যানন্দ (দোতলা মসজিদের পাশে) এলাকার আলম মিয়া ও সুফিয়া বেগমের ছেলে সাদ্দাম হোসেন। ছয় ভাইবোনের মধ্যে পঞ্চম সাদ্দাম। তিন বিবাহিত, তাঁর একটি শিশুসন্তানও রয়েছে। সাদ্দামের বাবা আলম মিয়া সাংবাদিকদের কাছে দাবি করেন, গত বছর ১৪ এপ্রিল সাদ্দাম গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জ উপজেলায় তাঁর শ্বশুরবাড়ি থেকে নিখোঁজ হন। এরপর থেকে সাদ্দামের স্ত্রীসহ শ্বশুরবাড়ির লোকজন কোথায় আছেন, তা সাদ্দামের বাবা জানেন না। আলম মিয়া বলেন, সাদ্দাম ২০১৩-১৪ শিক্ষাবর্ষে লালমনিরহাট সরকারি কলেজে ইতিহাস বিভাগের স্নাতক প্রথম বর্ষের ছাত্র ছিলেন। বাড়ি থেকে কলেজে যাতায়াত করতেন। ২০১৪ সালের ২৭ ডিসেম্বর তিনি বিয়ে করেন। আলম মিয়া বলেন, বাবা হিসেবে ছেলে সাদ্দামের লাশ ফেরত চান তিনি। জাপানি নাগরিক কুনিও হোশি হত্যার অভিযোগপত্র থেকে জানা গেছে, সাদ্দাম জঙ্গি সংগঠন জেএমবির শীর্ষ পর্যায়ের সক্রিয় সদস্য ছিলেন। তিনি বিভিন্ন এলাকায় অবস্থান করে জেএমবির কার্যক্রম পরিচালনা করতেন। জাপানি নাগরিক কুনিওকে হত্যা করার টার্গেট ও পরিকল্পনা করেন সাদ্দাম। এ হত্যাকাণ্ডে ব্যবহৃত আগ্নেয়াস্ত্র ও গুলি সরবরাহ করেন তিনি। সাদ্দাম সম্পর্কে কুনিও হত্যার অভিযোগপত্রে আরও উল্লেখ রয়েছে, বিদেশি নাগরিকদের হত্যার মাধ্যমে দেশকে অস্থিতিশীল করার জন্য হাইকমান্ডের নির্দেশমতো জাপানি নাগরিক কুনিওকে হত্যার পরিকল্পনা করেন সাদ্দাম। সাদ্দামসহ তাঁর সহযোগীরা কুনিওকে হত্যার ১০ দিন আগে থেকে তাঁর চলাচল ও গতিবিধির ওপর নজর রাখেন। কুনিও হত্যার পরিকল্পনা বাস্তবায়নের জন্য সাদ্দামসহ তাঁর সহযোগীরা রংপুর শহরের ছোট নুরপুর এলাকায় একটি বাড়ি ভাড়া করে থাকতেন। ব্যাটারিচালিত একটি অটোরিকশা কিনে শহর ও আশপাশের রাস্তা দিয়ে ঘুরে বেড়িয়ে তাঁরা রাস্তা চিনে নিয়েছিলেন। সাদ্দাম সাম্প্রতিক সময়ে জাপানি নাগরিক কুনিও হত্যাসহ রংপুরের কাউনিয়া উপজেলায় দরবারের খাদেম রহমত আলী হত্যা, রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পরিচালকের সহকারী বাহাই সম্প্রদায়ের রুহুল আমিন হত্যাচেষ্টা মামলারও আসামি। এর আগে জাপানি নাগরিক কুনিও হোশি হত্যা মামলার অভিযুক্ত আসামি পঞ্চগড়ের দেবীগঞ্জের গজপুরি এলাকার নজরুল ইসলাম ওরফে হাসান ওরফে বাইক হাসান (২৮) রাজশাহীতে বন্দুকযুদ্ধে নিহত হয়েছেন।

Comments

Comments!

 গত এপ্রিলে শ্বশুরবাড়ি থেকে ‘নিখোঁজ’ হন সাদ্দামAmarbangladeshonlineAmarbangladeshonline | Amarbangladeshonline

গত এপ্রিলে শ্বশুরবাড়ি থেকে ‘নিখোঁজ’ হন সাদ্দাম

Friday, January 6, 2017 7:33 pm
26

রাজধানীর মোহাম্মদপুরের বেড়িবাঁধ এলাকায় ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত সাদ্দাম হোসেন ওরফে রাহুল ওরফে চঞ্চল ওরফে সবুজ ওরফে রবি (২১) গত বছরের ১৪ এপ্রিল শ্বশুরবাড়ি থেকে নিখোঁজ হন বলে দাবি করেছেন তাঁর বাবা। সাদ্দামের বিরুদ্ধে রংপুরে জাপানি নাগরিক কুনিও হোশিকে হত্যার পরিকল্পনা করার অভিযোগ রয়েছে।

আজ শুক্রবার সকালে কাউন্টার টেররিজম ইউনিটের প্রধান মনিরুল ইসলাম প্রথম আলোকে বলেন, গতকাল বৃহস্পতিবার দিবাগত রাতে বেড়িবাঁধ এলাকায় ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নব্য জেএমবির নেতা ও ঢাকার গুলশান হামলার ‘অপারেশন কমান্ডার’ নুরুল ইসলাম ওরফে মারজান নিহত হন। এ সময় তাঁর সহযোগী সাদ্দামও নিহত হন।

কুড়িগ্রামের রাজারহাট উপজেলার চর বিদ্যানন্দ (দোতলা মসজিদের পাশে) এলাকার আলম মিয়া ও সুফিয়া বেগমের ছেলে সাদ্দাম হোসেন। ছয় ভাইবোনের মধ্যে পঞ্চম সাদ্দাম। তিন বিবাহিত, তাঁর একটি শিশুসন্তানও রয়েছে।

সাদ্দামের বাবা আলম মিয়া সাংবাদিকদের কাছে দাবি করেন, গত বছর ১৪ এপ্রিল সাদ্দাম গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জ উপজেলায় তাঁর শ্বশুরবাড়ি থেকে নিখোঁজ হন। এরপর থেকে সাদ্দামের স্ত্রীসহ শ্বশুরবাড়ির লোকজন কোথায় আছেন, তা সাদ্দামের বাবা জানেন না। আলম মিয়া বলেন, সাদ্দাম ২০১৩-১৪ শিক্ষাবর্ষে লালমনিরহাট সরকারি কলেজে ইতিহাস বিভাগের স্নাতক প্রথম বর্ষের ছাত্র ছিলেন। বাড়ি থেকে কলেজে যাতায়াত করতেন। ২০১৪ সালের ২৭ ডিসেম্বর তিনি বিয়ে করেন। আলম মিয়া বলেন, বাবা হিসেবে ছেলে সাদ্দামের লাশ ফেরত চান তিনি।

জাপানি নাগরিক কুনিও হোশি হত্যার অভিযোগপত্র থেকে জানা গেছে, সাদ্দাম জঙ্গি সংগঠন জেএমবির শীর্ষ পর্যায়ের সক্রিয় সদস্য ছিলেন। তিনি বিভিন্ন এলাকায় অবস্থান করে জেএমবির কার্যক্রম পরিচালনা করতেন। জাপানি নাগরিক কুনিওকে হত্যা করার টার্গেট ও পরিকল্পনা করেন সাদ্দাম। এ হত্যাকাণ্ডে ব্যবহৃত আগ্নেয়াস্ত্র ও গুলি সরবরাহ করেন তিনি।

সাদ্দাম সম্পর্কে কুনিও হত্যার অভিযোগপত্রে আরও উল্লেখ রয়েছে, বিদেশি নাগরিকদের হত্যার মাধ্যমে দেশকে অস্থিতিশীল করার জন্য হাইকমান্ডের নির্দেশমতো জাপানি নাগরিক কুনিওকে হত্যার পরিকল্পনা করেন সাদ্দাম। সাদ্দামসহ তাঁর সহযোগীরা কুনিওকে হত্যার ১০ দিন আগে থেকে তাঁর চলাচল ও গতিবিধির ওপর নজর রাখেন। কুনিও হত্যার পরিকল্পনা বাস্তবায়নের জন্য সাদ্দামসহ তাঁর সহযোগীরা রংপুর শহরের ছোট নুরপুর এলাকায় একটি বাড়ি ভাড়া করে থাকতেন। ব্যাটারিচালিত একটি অটোরিকশা কিনে শহর ও আশপাশের রাস্তা দিয়ে ঘুরে বেড়িয়ে তাঁরা রাস্তা চিনে নিয়েছিলেন।

সাদ্দাম সাম্প্রতিক সময়ে জাপানি নাগরিক কুনিও হত্যাসহ রংপুরের কাউনিয়া উপজেলায় দরবারের খাদেম রহমত আলী হত্যা, রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পরিচালকের সহকারী বাহাই সম্প্রদায়ের রুহুল আমিন হত্যাচেষ্টা মামলারও আসামি।

এর আগে জাপানি নাগরিক কুনিও হোশি হত্যা মামলার অভিযুক্ত আসামি পঞ্চগড়ের দেবীগঞ্জের গজপুরি এলাকার নজরুল ইসলাম ওরফে হাসান ওরফে বাইক হাসান (২৮) রাজশাহীতে বন্দুকযুদ্ধে নিহত হয়েছেন।

Comments

comments

সম্পাদক : মোহাম্মদ আবদুল বাছির
প্রকাশক: মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম
ফোন : ‎০১৭১৩৪০৯০৯০
৩৪৫/১, দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০
X
 
নিয়মিত খবর পড়তে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন
X