বুধবার, ২০শে সেপ্টেম্বর, ২০১৭ ইং, ৫ই আশ্বিন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, দুপুর ১:৩১
শিরোনাম
  • ঘৃণাকে বিজয়ী হতে দেয়া যাবে না, ট্রাম্পকে ইঙ্গিত করে জর্জ ক্লুনি
  • আমার একটাই চিন্তা দেশের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করা: প্রধানমন্ত্রী
  • ‘কেন্দ্রীয় সরকারের আগ্রাসী নীতির কারণে কাশ্মীরকে হারাতে হবে’
  • সাড়ে চারমাস পর মুখোমুখি, খাদিজাকে উদ্দেশ্য করে যা বলল বদরুল
  • খালেদার ‘সাজা’ বিরোধী নেতাকর্মীদের মনোবল ভাঙ্গার কৌশল!
  • বিএনপির কর্মসূচি ‘যথাসময়ে’ জানানো হবে: রিজভী
  • দলের জন্য বোলিং করতেও রাজি মুশফিক
  • শিশু জিহাদের মৃত্যু: চার জনের ১০ বছর করে কারাদণ্ড
  • অবশেষে বাড়ি অবরুদ্ধ করে রাখা সেই দেয়াল ভেঙ্গে ফেলা হচ্ছে
  • সাক্ষ্য দিলেন খাদিজা, চাইলেন বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তি
  • বদরুলের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিতে আদালতে খাদিজা
  • আজ বগুড়ায় যেসব প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
  • রোহিঙ্গা স্থানান্তরের সরকারি পরিকল্পনার সঙ্গে দ্বিমত মানবাধিকার কমিশনের
  • মহেশখালীতে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে পুলিশের ‘বন্দুকযুদ্ধ’
  • হোয়াইট হাউসে কাজ করার দীর্ঘ অভিজ্ঞতার কথা জানালেন এই বাংলাদেশি সাংবাদিক
Monday, September 11, 2017 10:30 pm | আপডেটঃ September 11, 2017 10:48 PM
A- A A+ Print

গাড়ি পোড়ানোর মামলা থেকে মাহমুদুর রহমানকে অব্যাহতি

20170911_111317

প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের সামনে গাড়ি পোড়ানোর একটি মামলা থেকে আমার দেশ সম্পাদক মাহমুদুর রহমানকে অব্যাহতি দিয়েছেন ঢাকার সিএমএম আদালত । ।২০১৩ সালের ১৩ মার্চ গাড়ি পোড়ানোর এই মামলাটি দায়ের হয়েছিল। তেজগাও থানায় দায়ের হওয়া এই মামলার নম্বর হচ্ছে ৩৩।মামলার এফআইআরে মাহমুদুর রহমানের নাম না থাকলেও পুলিশ চার্জশিট দেয়ার সময় মাহমুদুর রহমানের নাম ঢুকিয়ে দেয়। কিন্তু ঢাকার  প্রথম অতিরিক্ত মুখ্য মহানগর হাকিম সামিদুর রহমান সোমবার( ১১ সেপ্টেম্বর) চার্জ গঠন সংক্রান্ত আদেশ প্রদানের সময় মাহমুদুর রহমানকে এই মামলা থেকে অব্যাহতি দেন।  তবে মামলাটি চলবে এবং অন্য আসামির বিচারের মুখোমুখি হতে হবে। এই মামলায় চার্জ গঠনের শুনানি আগেই করেছিলেন মাহমুদুর রহমান।  গতকাল সোমবার চার্জ গঠন সংক্রান্ত আদেশ প্রদানের দিন ধার্য ছিল।  আরও দু’টি মামলায় মাহমুদুর রহমান গতকাল আদালতে হাজিরা দেন। এর একটি মামলায় চার্জ গঠনের শুনানি গতকাল শেষ হয়েছে।  মাহমুদুর রহমান নিজেই শুনানি করেছেন।মামলাটি দায়ের হয়েছিল ২০১০ সালের জুন মাসে। মাহমুদুর রহমানকে ১ জুন দিবাগত রাতে আমার দেশ পত্রিকার কাওরান বাজার অফিস থেকে গ্রেফতারে পর আদালতে হাজির করলে পুলিশ ভ্যানের ভেতরে থেকেই পুলিশের কাজে বাধা দেন বলে অভিযোগ আনা হয়।  মাহমুদুর রহমানের নির্দেশে আইনজীবীরা তাকে প্রিজনভ্যান থেকে ছিনিয়ে নেয়ার চেষ্টা চালান বলে মামলণায় অভিযোগ করা হয়। এই মামলায় চার্জ গঠন সংক্রান্ত শুনানিকালে মাহমুদুর রহমান গতকাল আদালতে বলেন,এটি একটি বানোয়াট মামলা। এই মামলার বাদী এএসআই শাহজাহান মিয়ার দায়ের করা এফআইআর-এ মাহমুদুর রহমানের নাম নেই।দু’জন প্রত্যক্ষদর্শী বলেছেন তারাপরে জেনেছেন মাহমুদতুর রহমান প্রিজন ভ্যানে ছিলেন। তারাও দেখেননি। তিনি বলেন,পুলিশের হেফাজতে থেকে পুলিশের সহযোগিতা ছাড়া কাউকে হুকুম দেয়ার সুযোগ নেই। কোন পুলিশের সহযোগিতা নিয়ে আমি হুকুম দিয়েছি সেটা বলা নেই। তিনি বলেন, প্রাথমিকভাবে তার বিরুদ্ধে আনা অভিযোগের ব্যাপারে কোন সাক্ষী প্রমাণ পুলিশ হাজির করতে পারেনি। সুপ্রিম কোর্র এ সংক্রান্ত ১৭ ডিএলআর ৫৪ এডি, ৩০ ডিএলআর ৫৮ এসসি এবং আপিল বিভাগের ফুল বেঞ্চের অবজারভেশন তুলে ধরেন। সিআরপিসির ১১৭ ও ২৪১/এ অনুযাযী তাকে এ মামলার অভিযোগ থেকে অব্যাহতি দিয়ে চার্জশিট থেকে নাম বাদ দেয়ার আবেদন জানান।আদালত আগামী ২৭ সেপ্টেম্বর এ ব্যাপারে আদেশের দিন ধার্য করেছেন।এই মামলায় আরও তিনজন আসামীর মধ্যে হাফিজুর রহমানের পক্ষে অ্যাডভোকেট জয়নাল আবেদীন মেজবাহ এবং অন্য দুজন আসামী আইনজীবী জুলফিকার হায়দার ও মো: শহীদুল ইসলাম শুনানিতে অংশ নিয়ে নিজেদের নিরদোষ দাবি করেন। গতকাল মাহমুদুর রহমানের তৃতীয় মামলাটি ছিল তাকে ২০১০ সালের ১ জুন রাতে আমার দেশ অফিস থেকে গ্রেফতারে সময় তার নিদেশে ৬ জন সিনিয়র সহকর্মীসহ সাংবাদিক কর্মচারীদের পুলিশের কাজে বাধা প্রদান সংক্রান্ত মামলা। এই মামলায় অন্যতম একজন আসামি আমার দেশ এর তঃকালীন প্রধান সহকারি সম্পাদক সঞ্জীব চৌধুরী সম্প্রতি মারা গেছেন। তার নাম চার্জশিট রথেকে বাদ দেয়ার আবেদন সোমবার আদালতে করা হয়।অন্য আসামি সাংবাদিকরা গতকাল আদালতে হাজির ছিলেন। আগামী ২৪ অক্টোবর এই মামলার চার্জ গঠনের ওপর শুনানি অনুষ্ঠিত হবে। মাহমুদুর রহমান জানিয়েছেন তার শুনানি তিনি নিজেই করবেন।

Comments

Comments!

 গাড়ি পোড়ানোর মামলা থেকে মাহমুদুর রহমানকে অব্যাহতিAmarbangladeshonlineAmarbangladeshonline | Amarbangladeshonline

গাড়ি পোড়ানোর মামলা থেকে মাহমুদুর রহমানকে অব্যাহতি

Monday, September 11, 2017 10:30 pm | আপডেটঃ September 11, 2017 10:48 PM
20170911_111317

প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের সামনে গাড়ি পোড়ানোর একটি মামলা থেকে আমার দেশ সম্পাদক মাহমুদুর রহমানকে অব্যাহতি দিয়েছেন ঢাকার সিএমএম আদালত । ।২০১৩ সালের ১৩ মার্চ গাড়ি পোড়ানোর এই মামলাটি দায়ের হয়েছিল। তেজগাও থানায় দায়ের হওয়া এই মামলার নম্বর হচ্ছে ৩৩।মামলার এফআইআরে মাহমুদুর রহমানের নাম না থাকলেও পুলিশ চার্জশিট দেয়ার সময় মাহমুদুর রহমানের নাম ঢুকিয়ে দেয়। কিন্তু ঢাকার  প্রথম অতিরিক্ত মুখ্য মহানগর হাকিম সামিদুর রহমান সোমবার( ১১ সেপ্টেম্বর) চার্জ গঠন সংক্রান্ত আদেশ প্রদানের সময় মাহমুদুর রহমানকে এই মামলা থেকে অব্যাহতি দেন।  তবে মামলাটি চলবে এবং অন্য আসামির বিচারের মুখোমুখি হতে হবে। এই মামলায় চার্জ গঠনের শুনানি আগেই করেছিলেন মাহমুদুর রহমান।  গতকাল সোমবার চার্জ গঠন সংক্রান্ত আদেশ প্রদানের দিন ধার্য ছিল।  আরও দু’টি মামলায় মাহমুদুর রহমান গতকাল আদালতে হাজিরা দেন। এর একটি মামলায় চার্জ গঠনের শুনানি গতকাল শেষ হয়েছে।  মাহমুদুর রহমান নিজেই শুনানি করেছেন।মামলাটি দায়ের হয়েছিল ২০১০ সালের জুন মাসে। মাহমুদুর রহমানকে ১ জুন দিবাগত রাতে আমার দেশ পত্রিকার কাওরান বাজার অফিস থেকে গ্রেফতারে পর আদালতে হাজির করলে পুলিশ ভ্যানের ভেতরে থেকেই পুলিশের কাজে বাধা দেন বলে অভিযোগ আনা হয়।  মাহমুদুর রহমানের নির্দেশে আইনজীবীরা তাকে প্রিজনভ্যান থেকে ছিনিয়ে নেয়ার চেষ্টা চালান বলে মামলণায় অভিযোগ করা হয়।

এই মামলায় চার্জ গঠন সংক্রান্ত শুনানিকালে মাহমুদুর রহমান গতকাল আদালতে বলেন,এটি একটি বানোয়াট মামলা। এই মামলার বাদী এএসআই শাহজাহান মিয়ার দায়ের করা এফআইআর-এ মাহমুদুর রহমানের নাম নেই।দু’জন প্রত্যক্ষদর্শী বলেছেন তারাপরে জেনেছেন মাহমুদতুর রহমান প্রিজন ভ্যানে ছিলেন। তারাও দেখেননি। তিনি বলেন,পুলিশের হেফাজতে থেকে পুলিশের সহযোগিতা ছাড়া কাউকে হুকুম দেয়ার সুযোগ নেই। কোন পুলিশের সহযোগিতা নিয়ে আমি হুকুম দিয়েছি সেটা বলা নেই। তিনি বলেন, প্রাথমিকভাবে তার বিরুদ্ধে আনা অভিযোগের ব্যাপারে কোন সাক্ষী প্রমাণ পুলিশ হাজির করতে পারেনি। সুপ্রিম কোর্র এ সংক্রান্ত ১৭ ডিএলআর ৫৪ এডি, ৩০ ডিএলআর ৫৮ এসসি এবং আপিল বিভাগের ফুল বেঞ্চের অবজারভেশন তুলে ধরেন। সিআরপিসির ১১৭ ও ২৪১/এ অনুযাযী তাকে এ মামলার অভিযোগ থেকে অব্যাহতি দিয়ে চার্জশিট থেকে নাম বাদ দেয়ার আবেদন জানান।আদালত আগামী ২৭ সেপ্টেম্বর এ ব্যাপারে আদেশের দিন ধার্য করেছেন।এই মামলায় আরও তিনজন আসামীর মধ্যে হাফিজুর রহমানের পক্ষে অ্যাডভোকেট জয়নাল আবেদীন মেজবাহ এবং অন্য দুজন আসামী আইনজীবী জুলফিকার হায়দার ও মো: শহীদুল ইসলাম শুনানিতে অংশ নিয়ে নিজেদের নিরদোষ দাবি করেন।

গতকাল মাহমুদুর রহমানের তৃতীয় মামলাটি ছিল তাকে ২০১০ সালের ১ জুন রাতে আমার দেশ অফিস থেকে গ্রেফতারে সময় তার নিদেশে ৬ জন সিনিয়র সহকর্মীসহ সাংবাদিক কর্মচারীদের পুলিশের কাজে বাধা প্রদান সংক্রান্ত মামলা। এই মামলায় অন্যতম একজন আসামি আমার দেশ এর তঃকালীন প্রধান সহকারি সম্পাদক সঞ্জীব চৌধুরী সম্প্রতি মারা গেছেন। তার নাম চার্জশিট রথেকে বাদ দেয়ার আবেদন সোমবার আদালতে করা হয়।অন্য আসামি সাংবাদিকরা গতকাল আদালতে হাজির ছিলেন। আগামী ২৪ অক্টোবর এই মামলার চার্জ গঠনের ওপর শুনানি অনুষ্ঠিত হবে। মাহমুদুর রহমান জানিয়েছেন তার শুনানি তিনি নিজেই করবেন।

Comments

comments

সম্পাদক : মোহাম্মদ আবদুল বাছির
প্রকাশক: মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম
ফোন : ‎০১৭১৩৪০৯০৯০
৩৪৫/১, দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০
X
 
নিয়মিত খবর পড়তে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন
X