বৃহস্পতিবার, ২২শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ইং, ১০ই ফাল্গুন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, রাত ৩:২২
শিরোনাম
  • ঘৃণাকে বিজয়ী হতে দেয়া যাবে না, ট্রাম্পকে ইঙ্গিত করে জর্জ ক্লুনি
  • আমার একটাই চিন্তা দেশের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করা: প্রধানমন্ত্রী
  • ‘কেন্দ্রীয় সরকারের আগ্রাসী নীতির কারণে কাশ্মীরকে হারাতে হবে’
  • সাড়ে চারমাস পর মুখোমুখি, খাদিজাকে উদ্দেশ্য করে যা বলল বদরুল
  • খালেদার ‘সাজা’ বিরোধী নেতাকর্মীদের মনোবল ভাঙ্গার কৌশল!
  • বিএনপির কর্মসূচি ‘যথাসময়ে’ জানানো হবে: রিজভী
  • দলের জন্য বোলিং করতেও রাজি মুশফিক
  • শিশু জিহাদের মৃত্যু: চার জনের ১০ বছর করে কারাদণ্ড
  • অবশেষে বাড়ি অবরুদ্ধ করে রাখা সেই দেয়াল ভেঙ্গে ফেলা হচ্ছে
  • সাক্ষ্য দিলেন খাদিজা, চাইলেন বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তি
  • বদরুলের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিতে আদালতে খাদিজা
  • আজ বগুড়ায় যেসব প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
  • রোহিঙ্গা স্থানান্তরের সরকারি পরিকল্পনার সঙ্গে দ্বিমত মানবাধিকার কমিশনের
  • মহেশখালীতে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে পুলিশের ‘বন্দুকযুদ্ধ’
  • হোয়াইট হাউসে কাজ করার দীর্ঘ অভিজ্ঞতার কথা জানালেন এই বাংলাদেশি সাংবাদিক
Tuesday, January 10, 2017 1:13 am
A- A A+ Print

গ্যাস পাইপলাইন বসাতে ১৩,৩৫৬টি গাছ কাটা হবে

48378_t2

গাজীপুরের শ্রীপুর থেকে জয়দেবপুর পর্যন্ত তিন কিলোমিটার তিতাস গ্যাসের সঞ্চালন পাইপলাইন নির্মাণের জন্য ১৩ হাজার ৩৫৬টি গাছ কাটা হবে। এ জন্য গতকাল গাছ কাটা সংক্রান্ত একটি প্রস্তাব অনুমোদন দিয়েছে মন্ত্রিসভা। গতকাল সচিবালয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে মন্ত্রিসভার নিয়মিত বৈঠকে এ অনুমোদন দেয়া হয়। বৈঠক শেষে মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোহাম্মদ শফিউল আলম প্রেস ব্রিফিংয়ে এ অনুমোদনের কথা জানিয়ে বলেন, তিতাস গ্যাস ট্রান্সমিশন অ্যান্ড ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি লিমিটেডের শ্রীপুর থেকে জয়দেবপুর পর্যন্ত সঞ্চালন পাইপলাইন নির্মাণ প্রকল্প বাস্তবায়নের জন্য বন বিভাগের প্রাকৃতিক ও সৃজিত বনের বৃক্ষ কর্তন ও অপসারণের প্রস্তাব অনুমোদন দিয়েছে মন্ত্রিসভা। সঞ্চালন লাইনের দৈর্ঘ্য ৩ কিলোমিটার জানিয়ে তিনি বলেন, সঞ্চালন লাইনে থাকা মোট গাছের সংখ্যা ১৩ হাজার ৩৫৬টি। এরমধ্যে বিক্রয়যোগ্য গাছ হলো ৪ হাজার ১১টি এবং চারাগাছ হলো ৯ হাজার ৩৪৫টি। লাইন নেয়ার জন্য এ গাছগুলো অপসারণ বা কর্তন করা দরকার। শফিউল আলম বলেন, যেহেতু একটি সিদ্ধান্ত আছে এভাবে গাছ কাটতে হলে মন্ত্রিসভার অনুমোদন লাগবে এজন্য মন্ত্রিসভা অনুমোদন দিয়েছে। যেহেতু ২০২২ সাল পর্যন্ত গাছ কাটার (সংরক্ষিত ও প্রাকৃতিক বনাঞ্চলের) ক্ষেত্রে নিষেধাজ্ঞা রয়েছে। এ জন্য মন্ত্রিসভা জাতীয় স্বার্থে ১৩ হাজার ৩৫৬টি গাছ কর্তনের অনুমতি দিয়েছে। শফিউল আলম বলেন, এটার জন্য পরিপূরক সিদ্ধান্ত হলো, যেখানে যেখানে সুযোগ হয় এর দ্বিগুণ গাছ লাগিয়ে এটার সাপ্লিমেন্ট করতে হবে। তিতাস গ্যাস কোম্পানি এ গাছগুলো লাগাবে। পরিবেশ ও বন মন্ত্রণালয় মন্ত্রিসভা  বৈঠকে এ প্রস্তাবটি উপস্থাপন করে।

Comments

Comments!

 গ্যাস পাইপলাইন বসাতে ১৩,৩৫৬টি গাছ কাটা হবেAmarbangladeshonlineAmarbangladeshonline | Amarbangladeshonline

গ্যাস পাইপলাইন বসাতে ১৩,৩৫৬টি গাছ কাটা হবে

Tuesday, January 10, 2017 1:13 am
48378_t2

গাজীপুরের শ্রীপুর থেকে জয়দেবপুর পর্যন্ত তিন কিলোমিটার তিতাস গ্যাসের সঞ্চালন পাইপলাইন নির্মাণের জন্য ১৩ হাজার ৩৫৬টি গাছ কাটা হবে। এ জন্য গতকাল গাছ কাটা সংক্রান্ত একটি প্রস্তাব অনুমোদন দিয়েছে মন্ত্রিসভা। গতকাল সচিবালয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে মন্ত্রিসভার নিয়মিত বৈঠকে এ অনুমোদন দেয়া হয়। বৈঠক শেষে মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোহাম্মদ শফিউল আলম প্রেস ব্রিফিংয়ে এ অনুমোদনের কথা জানিয়ে বলেন, তিতাস গ্যাস ট্রান্সমিশন অ্যান্ড ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি লিমিটেডের শ্রীপুর থেকে জয়দেবপুর পর্যন্ত সঞ্চালন পাইপলাইন নির্মাণ প্রকল্প বাস্তবায়নের জন্য বন বিভাগের প্রাকৃতিক ও সৃজিত বনের বৃক্ষ কর্তন ও অপসারণের প্রস্তাব অনুমোদন দিয়েছে মন্ত্রিসভা। সঞ্চালন লাইনের দৈর্ঘ্য ৩ কিলোমিটার জানিয়ে তিনি বলেন, সঞ্চালন লাইনে থাকা মোট গাছের সংখ্যা ১৩ হাজার ৩৫৬টি। এরমধ্যে বিক্রয়যোগ্য গাছ হলো ৪ হাজার ১১টি এবং চারাগাছ হলো ৯ হাজার ৩৪৫টি। লাইন নেয়ার জন্য এ গাছগুলো অপসারণ বা কর্তন করা দরকার। শফিউল আলম বলেন, যেহেতু একটি সিদ্ধান্ত আছে এভাবে গাছ কাটতে হলে মন্ত্রিসভার অনুমোদন লাগবে এজন্য মন্ত্রিসভা অনুমোদন দিয়েছে। যেহেতু ২০২২ সাল পর্যন্ত গাছ কাটার (সংরক্ষিত ও প্রাকৃতিক বনাঞ্চলের) ক্ষেত্রে নিষেধাজ্ঞা রয়েছে। এ জন্য মন্ত্রিসভা জাতীয় স্বার্থে ১৩ হাজার ৩৫৬টি গাছ কর্তনের অনুমতি দিয়েছে। শফিউল আলম বলেন, এটার জন্য পরিপূরক সিদ্ধান্ত হলো, যেখানে যেখানে সুযোগ হয় এর দ্বিগুণ গাছ লাগিয়ে এটার সাপ্লিমেন্ট করতে হবে। তিতাস গ্যাস কোম্পানি এ গাছগুলো লাগাবে। পরিবেশ ও বন মন্ত্রণালয় মন্ত্রিসভা  বৈঠকে এ প্রস্তাবটি উপস্থাপন করে।

Comments

comments

সম্পাদক : মোহাম্মদ আবদুল বাছির
প্রকাশক: মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম
ফোন : ‎০১৭১৩৪০৯০৯০
৩৪৫/১, দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০
X
 
নিয়মিত খবর পড়তে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন
X