সোমবার, ২৪শে এপ্রিল, ২০১৭ ইং, ১১ই বৈশাখ, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, সকাল ৯:৩৭
শিরোনাম
  • ঘৃণাকে বিজয়ী হতে দেয়া যাবে না, ট্রাম্পকে ইঙ্গিত করে জর্জ ক্লুনি
  • আমার একটাই চিন্তা দেশের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করা: প্রধানমন্ত্রী
  • ‘কেন্দ্রীয় সরকারের আগ্রাসী নীতির কারণে কাশ্মীরকে হারাতে হবে’
  • সাড়ে চারমাস পর মুখোমুখি, খাদিজাকে উদ্দেশ্য করে যা বলল বদরুল
  • খালেদার ‘সাজা’ বিরোধী নেতাকর্মীদের মনোবল ভাঙ্গার কৌশল!
  • বিএনপির কর্মসূচি ‘যথাসময়ে’ জানানো হবে: রিজভী
  • দলের জন্য বোলিং করতেও রাজি মুশফিক
  • শিশু জিহাদের মৃত্যু: চার জনের ১০ বছর করে কারাদণ্ড
  • অবশেষে বাড়ি অবরুদ্ধ করে রাখা সেই দেয়াল ভেঙ্গে ফেলা হচ্ছে
  • সাক্ষ্য দিলেন খাদিজা, চাইলেন বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তি
  • বদরুলের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিতে আদালতে খাদিজা
  • আজ বগুড়ায় যেসব প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
  • রোহিঙ্গা স্থানান্তরের সরকারি পরিকল্পনার সঙ্গে দ্বিমত মানবাধিকার কমিশনের
  • মহেশখালীতে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে পুলিশের ‘বন্দুকযুদ্ধ’
  • হোয়াইট হাউসে কাজ করার দীর্ঘ অভিজ্ঞতার কথা জানালেন এই বাংলাদেশি সাংবাদিক
Thursday, April 20, 2017 11:58 am
A- A A+ Print

গ্লিসারিন ছাড়াই কেঁদেছি : সুমি

Sumi_Top20170420080125

শাহনাজ সুমি, বাংলাদেশসহ বিশ্ববাসীর কাছে এখন পরিচিত মুখ। জুঁই নারকেল তেলের নারী নির্যাতনের একটি বিজ্ঞাপনে অভিনয় করে তিনি দর্শক হৃদয়ে যেমন স্থায়ী জায়গা করে নিয়েছেন তেমনি প্রশংসাও কুড়িয়েছেন ঢের। আশুতোষ সুজন নির্মিত এই বিজ্ঞাপনটির মূল চরিত্রে অভিনয় করেছেন সুমি।  বুধবার রাতে  কথা হয় সুমির সঙ্গে। এ সময় বিজ্ঞাপনচিত্রের নানা প্রসঙ্গে কথা বলেন তিনি। এ আলাপচারিতার চুম্বক অংশ নিয়ে সাজানো হয়েছে এই সাক্ষাৎকার।

গ্লিসারিন ছাড়াই কেঁদেছি : সুমি

প্রশ্ন: জুঁই নারকেল তেলের নারী দিবসের বিশেষ বিজ্ঞাপনচিত্রের সঙ্গে কীভাবে যুক্ত হলেন? সুমি : আমি আসলে ২০১৫ সালে সেরা নাচিয়ে থেকে উঠে আসি। এরপর নির্মাতা সালাউদ্দিন লাভলুর সোনার পাখি রূপার পাখি ধারাবাহিক নাটকে কাজ শুরু করি।  এই টিভিসির কাস্টিং ডিরেক্টর মৃত্তিকা দি। উনি মূলত এই বিজ্ঞাপনে কাজের জন্য সান কমিউনিশনে রেফার করেন। তারপর মূলত কাজটি শুরু করি। প্রশ্ন: বিজ্ঞাপনচিত্রটি বিশ্ব দরবারে প্রশংসিত হচ্ছে। প্রাপ্তির এই বিষয়টি আপনি কীভাবে দেখছেন? সুমি : এই বিজ্ঞপনচিত্রের স্ক্রিপ্টটা চমৎকারভাবে লিখেছে সান কমিউনিশন। এজন্য প্রথমে তাদেরকে থ্যাঙ্কস জানাই। এরপর স্কয়ার টয়লেট্রিজকে বিশেষভাবে ধন্যবাদ জানাব কারণ অনেক যাচাই বাছাই করে কাজটি করার জন্য আমাকে ওনারা নির্বাচন করেছেন। এ ছাড়া নির্মাতাসহ সবাই কাজটি করতে অনেক সহযোগিতা করেছেন। যার কারণে কাজটি এত ভালো হয়েছে। আর ভালো কাজের প্রশংসা হবেই। পুরো বিষয়টি অনেক ভালো লাগার। প্রশ্ন: এই বিজ্ঞাপনচিত্রের শুটিংয়ের অভিজ্ঞতা জানতে চাই? সুমি : এই বিজ্ঞাপনের সবচেয়ে আলোচিত দৃশ্য হলো- আমার কান্নার দৃশ্যটি। এটি নিয়ে আলোচনা বেশি হচ্ছে। এই দৃশ্যটি কৃত্রিমভাবে করা হয়নি। অর্থাৎ কোনো গ্লিসারিন ছাড়া এই দৃশ্যটি করেছি। এই দৃশ্যটি করার সময় আমি ওই চরিত্রে পুরোপুরি ঢুকে যাই। ভেতর থেকে বিষয়টি অনুভব করি। এটাই ছিল শুটিংয়ের বিশেষ অভিজ্ঞতা। বিজ্ঞাপনচিত্রটিতে আমার মোট আটটি শট ছিল। প্রত্যেকটি শট খুব ন্যাচারালভাবে করেছি। কান্নার দৃশ্যটি করতে দুটি টেক নিতে হয়েছিল। প্রশ্ন: শুটিং সেটে কী কোনো মজার ঘটনা ঘটেছিল? সুমি : সচরাচর শুটিং সেটে নানারকম মজার ঘটনাই ঘটে থাকে। কিন্তু এই বিজ্ঞাপনের যে স্ক্রিপ্ট সেখানে মজার কোনো বিষয় ছিল না। আর বিজ্ঞপনটির জন্য যখন অডিশন দিই তখন আমাকে ছয়বার সত্যি সত্যি কাঁদতে হয়েছিল। যার জন্য শুটিং সেটে যাওয়ার পর সুজন দা আমাকে বলেছিলেন, তুমি সেটে কোনো কথা বলবে না। চুপচাপ বসে থাকবে, যেন তোমার ভিষণ মন খারাপ। শুটিংয়ের পুরোটা দিন আমি কোনো কথা বলিনি। প্রশ্ন:বিজ্ঞাপনচিত্রটি নারী নির্যাতনবিরোধী। আমাদের সমাজে নারীরা প্রতিনিয়ত এমন ঘটনার সম্মুখীন হচ্ছেন। আপনি কী ব্যক্তিগত জীবনে কখনো এমন নির্যাতনের শিকার হয়েছেন? সুমি :  আমি ব্যক্তিগত জীবনে এমন কোনো তিক্ত অভিজ্ঞতার সম্মুখীন হইনি। তবে পরোক্ষভাবে সম্মুখীন হয়েছি। মানসিকভাবে সম্মুখীন হয়েছি। আমার আশে পাশের মানুষদের দেখেছি এমন পরিস্থিতির সম্মুখীন হতে। পরোক্ষ এই অভিজ্ঞতাও অনেক তীক্ষ্ম।  যা আসলে বর্ণনা করা যাবে না। প্রশ্ন:আপনার বর্তমান ব্যস্ততা সম্পর্কে জানতে চাই? সুমি : এই বিজ্ঞাপনটি সাড়া ফেলার পর নাটক, বিজ্ঞাপনে কাজের অনেক অফার পাচ্ছি। আমি একজন ক্লাসিক্যাল ড্যান্সার। নাচটা তো চালিয়ে যাবই। তাই আপাতত নাচ আর টিভিসির কাজ করার পরিকল্পনা রয়েছে। প্রশ্ন: সময় দেওয়ার জন্য আপনাকে ধন্যবাদ। সুমি : আপনাকেও অনেক ধন্যবাদ।

Comments

Comments!

 গ্লিসারিন ছাড়াই কেঁদেছি : সুমিAmarbangladeshonlineAmarbangladeshonline | Amarbangladeshonline

গ্লিসারিন ছাড়াই কেঁদেছি : সুমি

Thursday, April 20, 2017 11:58 am
Sumi_Top20170420080125

শাহনাজ সুমি, বাংলাদেশসহ বিশ্ববাসীর কাছে এখন পরিচিত মুখ। জুঁই নারকেল তেলের নারী নির্যাতনের একটি বিজ্ঞাপনে অভিনয় করে তিনি দর্শক হৃদয়ে যেমন স্থায়ী জায়গা করে নিয়েছেন তেমনি প্রশংসাও কুড়িয়েছেন ঢের।

আশুতোষ সুজন নির্মিত এই বিজ্ঞাপনটির মূল চরিত্রে অভিনয় করেছেন সুমি।  বুধবার রাতে  কথা হয় সুমির সঙ্গে। এ সময় বিজ্ঞাপনচিত্রের নানা প্রসঙ্গে কথা বলেন তিনি। এ আলাপচারিতার চুম্বক অংশ নিয়ে সাজানো হয়েছে এই সাক্ষাৎকার।

গ্লিসারিন ছাড়াই কেঁদেছি : সুমি

প্রশ্ন: জুঁই নারকেল তেলের নারী দিবসের বিশেষ বিজ্ঞাপনচিত্রের সঙ্গে কীভাবে যুক্ত হলেন?

সুমি : আমি আসলে ২০১৫ সালে সেরা নাচিয়ে থেকে উঠে আসি। এরপর নির্মাতা সালাউদ্দিন লাভলুর সোনার পাখি রূপার পাখি ধারাবাহিক নাটকে কাজ শুরু করি।  এই টিভিসির কাস্টিং ডিরেক্টর মৃত্তিকা দি। উনি মূলত এই বিজ্ঞাপনে কাজের জন্য সান কমিউনিশনে রেফার করেন। তারপর মূলত কাজটি শুরু করি।

প্রশ্ন: বিজ্ঞাপনচিত্রটি বিশ্ব দরবারে প্রশংসিত হচ্ছে। প্রাপ্তির এই বিষয়টি আপনি কীভাবে দেখছেন?

সুমি : এই বিজ্ঞপনচিত্রের স্ক্রিপ্টটা চমৎকারভাবে লিখেছে সান কমিউনিশন। এজন্য প্রথমে তাদেরকে থ্যাঙ্কস জানাই। এরপর স্কয়ার টয়লেট্রিজকে বিশেষভাবে ধন্যবাদ জানাব কারণ অনেক যাচাই বাছাই করে কাজটি করার জন্য আমাকে ওনারা নির্বাচন করেছেন। এ ছাড়া নির্মাতাসহ সবাই কাজটি করতে অনেক সহযোগিতা করেছেন। যার কারণে কাজটি এত ভালো হয়েছে। আর ভালো কাজের প্রশংসা হবেই। পুরো বিষয়টি অনেক ভালো লাগার।

প্রশ্ন: এই বিজ্ঞাপনচিত্রের শুটিংয়ের অভিজ্ঞতা জানতে চাই?

সুমি : এই বিজ্ঞাপনের সবচেয়ে আলোচিত দৃশ্য হলো- আমার কান্নার দৃশ্যটি। এটি নিয়ে আলোচনা বেশি হচ্ছে। এই দৃশ্যটি কৃত্রিমভাবে করা হয়নি। অর্থাৎ কোনো গ্লিসারিন ছাড়া এই দৃশ্যটি করেছি। এই দৃশ্যটি করার সময় আমি ওই চরিত্রে পুরোপুরি ঢুকে যাই। ভেতর থেকে বিষয়টি অনুভব করি। এটাই ছিল শুটিংয়ের বিশেষ অভিজ্ঞতা। বিজ্ঞাপনচিত্রটিতে আমার মোট আটটি শট ছিল। প্রত্যেকটি শট খুব ন্যাচারালভাবে করেছি। কান্নার দৃশ্যটি করতে দুটি টেক নিতে হয়েছিল।

প্রশ্ন: শুটিং সেটে কী কোনো মজার ঘটনা ঘটেছিল?

সুমি : সচরাচর শুটিং সেটে নানারকম মজার ঘটনাই ঘটে থাকে। কিন্তু এই বিজ্ঞাপনের যে স্ক্রিপ্ট সেখানে মজার কোনো বিষয় ছিল না। আর বিজ্ঞপনটির জন্য যখন অডিশন দিই তখন আমাকে ছয়বার সত্যি সত্যি কাঁদতে হয়েছিল। যার জন্য শুটিং সেটে যাওয়ার পর সুজন দা আমাকে বলেছিলেন, তুমি সেটে কোনো কথা বলবে না। চুপচাপ বসে থাকবে, যেন তোমার ভিষণ মন খারাপ। শুটিংয়ের পুরোটা দিন আমি কোনো কথা বলিনি।

প্রশ্ন:বিজ্ঞাপনচিত্রটি নারী নির্যাতনবিরোধী। আমাদের সমাজে নারীরা প্রতিনিয়ত এমন ঘটনার সম্মুখীন হচ্ছেন। আপনি কী ব্যক্তিগত জীবনে কখনো এমন নির্যাতনের শিকার হয়েছেন?

সুমি :  আমি ব্যক্তিগত জীবনে এমন কোনো তিক্ত অভিজ্ঞতার সম্মুখীন হইনি। তবে পরোক্ষভাবে সম্মুখীন হয়েছি। মানসিকভাবে সম্মুখীন হয়েছি। আমার আশে পাশের মানুষদের দেখেছি এমন পরিস্থিতির সম্মুখীন হতে। পরোক্ষ এই অভিজ্ঞতাও অনেক তীক্ষ্ম।  যা আসলে বর্ণনা করা যাবে না।

প্রশ্ন:আপনার বর্তমান ব্যস্ততা সম্পর্কে জানতে চাই?

সুমি : এই বিজ্ঞাপনটি সাড়া ফেলার পর নাটক, বিজ্ঞাপনে কাজের অনেক অফার পাচ্ছি। আমি একজন ক্লাসিক্যাল ড্যান্সার। নাচটা তো চালিয়ে যাবই। তাই আপাতত নাচ আর টিভিসির কাজ করার পরিকল্পনা রয়েছে।

প্রশ্ন: সময় দেওয়ার জন্য আপনাকে ধন্যবাদ।

সুমি : আপনাকেও অনেক ধন্যবাদ।

Comments

comments

সম্পাদক : মোহাম্মদ আবদুল বাছির
প্রকাশক: মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম
ফোন : ‎০১৭১৩৪০৯০৯০
৩৪৫/১, দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০
X
 
নিয়মিত খবর পড়তে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন
X