শুক্রবার, ২৩শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ইং, ১১ই ফাল্গুন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, সকাল ৮:৫৩
শিরোনাম
  • ঘৃণাকে বিজয়ী হতে দেয়া যাবে না, ট্রাম্পকে ইঙ্গিত করে জর্জ ক্লুনি
  • আমার একটাই চিন্তা দেশের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করা: প্রধানমন্ত্রী
  • ‘কেন্দ্রীয় সরকারের আগ্রাসী নীতির কারণে কাশ্মীরকে হারাতে হবে’
  • সাড়ে চারমাস পর মুখোমুখি, খাদিজাকে উদ্দেশ্য করে যা বলল বদরুল
  • খালেদার ‘সাজা’ বিরোধী নেতাকর্মীদের মনোবল ভাঙ্গার কৌশল!
  • বিএনপির কর্মসূচি ‘যথাসময়ে’ জানানো হবে: রিজভী
  • দলের জন্য বোলিং করতেও রাজি মুশফিক
  • শিশু জিহাদের মৃত্যু: চার জনের ১০ বছর করে কারাদণ্ড
  • অবশেষে বাড়ি অবরুদ্ধ করে রাখা সেই দেয়াল ভেঙ্গে ফেলা হচ্ছে
  • সাক্ষ্য দিলেন খাদিজা, চাইলেন বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তি
  • বদরুলের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিতে আদালতে খাদিজা
  • আজ বগুড়ায় যেসব প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
  • রোহিঙ্গা স্থানান্তরের সরকারি পরিকল্পনার সঙ্গে দ্বিমত মানবাধিকার কমিশনের
  • মহেশখালীতে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে পুলিশের ‘বন্দুকযুদ্ধ’
  • হোয়াইট হাউসে কাজ করার দীর্ঘ অভিজ্ঞতার কথা জানালেন এই বাংলাদেশি সাংবাদিক
Sunday, November 27, 2016 4:37 pm
A- A A+ Print

চাঁপাইনবাবগঞ্জের এসপিকে হাইকোর্টে তলব

28

ডাকাত হাতেনাতে পেলে পিষে মেরে ফেলুন’ বলে দেওয়া বক্তব্যের বিষয়ে জানাতে চাঁপাইনবাবগঞ্জের পুলিশ সুপারকে তলব করেছেন হাইকোর্ট। আগামী ৪ ডিসেম্বর তাঁকে আদালতে হাজির হতে বলা হয়েছে। তিনি নিজে বা আইনজীবীর মাধ্যমে প্রতিবেদন দিতে পারবেন। সংবাদপত্রে প্রকাশিত প্রতিবেদন বিবেচনায় নিয়ে আজ রোববার বিচারপতি কাজী রেজাউল হক ও বিচারপতি মোহাম্মদ উল্লাহ সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ স্বতঃপ্রণোদিত হয়ে রুলসহ আদেশ দেন। ২৬ নভেম্বর ‘ডাকাত হাতেনাতে ফেলে পিষে মেরে ফেলুন’ শিরোনামে একটি দৈনিকে প্রতিবেদন ছাপা হয়। এটি নজরে এলে আদালত রুল দেন। রুলে চাঁপাইনবাবগঞ্জের পুলিশ সুপার টি এম মোজাহিদুল ইসলামের বিরুদ্ধে সংবিধানবহির্ভূতভাবে নিজের হাতে আইন তুলে নেওয়াসহ ওই এলাকার জনগণকে উসকানিমূলক বক্তব্য দেওয়া, তথা সেই অঞ্চলের জনগণকে আইন স্বহস্তে নিয়ে বিচারবহির্ভূতভাবে অপরাধীকে মৃত্যু প্রদানে উসকানি দেওয়ায় কেন আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে না, তা জানতে চাওয়া হয়েছে। মন্ত্রিপরিষদ সচিব, স্বরাষ্ট্রসচিব, আইনসচিব, পুলিশের মহাপরিদর্শক, পুলিশের রাজশাহী রেঞ্জের ডিআইজি, চাঁপাইনবাবগঞ্জের জেলা প্রশাসক ও পুলিশ সুপারকে এক সপ্তাহের মধ্যে রুলের জবাব দিতে বলা হয়েছে। এ ছাড়া আগামী ৪ ডিসেম্বরের মধ্যে পুলিশপ্রধান ও এসপিকে পৃথকভাবে জবাব দিতে বলা হয়েছে। চাঁপাইনবাবগঞ্জ চক্ষু হাসপাতাল চত্বরে ২৫ নভেম্বর চক্ষুশিবিরের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য দেন পুলিশ সুপার (এসপি) টি এম মোজাহিদুল ইসলাম। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সদর আসনের সাংসদ আবদুল ওদুদ। এসপি টি এম মোজাহিদুল ইসলাম তাঁর বক্তব্যে বলেন, ‘ডাকাত যদি হাতেনাতে পান, তো জলজ্যান্ত ওটাকে পিষে মেরে ফেলেন। একটা মার্ডার কেস নেব, এটা সত্য কথা এবং এক মাসের মধ্যে ফাইনাল রিপোর্ট দিয়ে চলে আসব। গ্যারান্টি আমার। আমি যদি গ্যারান্টার হই, তবে আপনাদের কোনো ভয় আছে? যদি ডাকাত হাতেনাতে ধরতে পারেন, এলাকার লোকজনকে মাইকে ডেকে এনে ওকে পিষে মেরে ফেলেন। মাদকের গাড়ি হলে সেটি আগুনে পুড়িয়ে দেবেন। আমি গ্যারান্টি দিচ্ছি, আপনাদের নামে কোনো মামলা হবে না। এই গ্যারান্টি আমার।’

Comments

Comments!

 চাঁপাইনবাবগঞ্জের এসপিকে হাইকোর্টে তলবAmarbangladeshonlineAmarbangladeshonline | Amarbangladeshonline

চাঁপাইনবাবগঞ্জের এসপিকে হাইকোর্টে তলব

Sunday, November 27, 2016 4:37 pm
28

ডাকাত হাতেনাতে পেলে পিষে মেরে ফেলুন’ বলে দেওয়া বক্তব্যের বিষয়ে জানাতে চাঁপাইনবাবগঞ্জের পুলিশ সুপারকে তলব করেছেন হাইকোর্ট। আগামী ৪ ডিসেম্বর তাঁকে আদালতে হাজির হতে বলা হয়েছে। তিনি নিজে বা আইনজীবীর মাধ্যমে প্রতিবেদন দিতে পারবেন।
সংবাদপত্রে প্রকাশিত প্রতিবেদন বিবেচনায় নিয়ে আজ রোববার বিচারপতি কাজী রেজাউল হক ও বিচারপতি মোহাম্মদ উল্লাহ সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ স্বতঃপ্রণোদিত হয়ে রুলসহ আদেশ দেন।
২৬ নভেম্বর ‘ডাকাত হাতেনাতে ফেলে পিষে মেরে ফেলুন’ শিরোনামে একটি দৈনিকে প্রতিবেদন ছাপা হয়। এটি নজরে এলে আদালত রুল দেন। রুলে চাঁপাইনবাবগঞ্জের পুলিশ সুপার টি এম মোজাহিদুল ইসলামের বিরুদ্ধে সংবিধানবহির্ভূতভাবে নিজের হাতে আইন তুলে নেওয়াসহ ওই এলাকার জনগণকে উসকানিমূলক বক্তব্য দেওয়া, তথা সেই অঞ্চলের জনগণকে আইন স্বহস্তে নিয়ে বিচারবহির্ভূতভাবে অপরাধীকে মৃত্যু প্রদানে উসকানি দেওয়ায় কেন আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে না, তা জানতে চাওয়া হয়েছে। মন্ত্রিপরিষদ সচিব, স্বরাষ্ট্রসচিব, আইনসচিব, পুলিশের মহাপরিদর্শক, পুলিশের রাজশাহী রেঞ্জের ডিআইজি, চাঁপাইনবাবগঞ্জের জেলা প্রশাসক ও পুলিশ সুপারকে এক সপ্তাহের মধ্যে রুলের জবাব দিতে বলা হয়েছে। এ ছাড়া আগামী ৪ ডিসেম্বরের মধ্যে পুলিশপ্রধান ও এসপিকে পৃথকভাবে জবাব দিতে বলা হয়েছে।

চাঁপাইনবাবগঞ্জ চক্ষু হাসপাতাল চত্বরে ২৫ নভেম্বর চক্ষুশিবিরের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য দেন পুলিশ সুপার (এসপি) টি এম মোজাহিদুল ইসলাম। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সদর আসনের সাংসদ আবদুল ওদুদ।

এসপি টি এম মোজাহিদুল ইসলাম তাঁর বক্তব্যে বলেন, ‘ডাকাত যদি হাতেনাতে পান, তো জলজ্যান্ত ওটাকে পিষে মেরে ফেলেন। একটা মার্ডার কেস নেব, এটা সত্য কথা এবং এক মাসের মধ্যে ফাইনাল রিপোর্ট দিয়ে চলে আসব। গ্যারান্টি আমার। আমি যদি গ্যারান্টার হই, তবে আপনাদের কোনো ভয় আছে? যদি ডাকাত হাতেনাতে ধরতে পারেন, এলাকার লোকজনকে মাইকে ডেকে এনে ওকে পিষে মেরে ফেলেন। মাদকের গাড়ি হলে সেটি আগুনে পুড়িয়ে দেবেন। আমি গ্যারান্টি দিচ্ছি, আপনাদের নামে কোনো মামলা হবে না। এই গ্যারান্টি আমার।’

Comments

comments

সম্পাদক : মোহাম্মদ আবদুল বাছির
প্রকাশক: মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম
ফোন : ‎০১৭১৩৪০৯০৯০
৩৪৫/১, দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০
X
 
নিয়মিত খবর পড়তে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন
X