বুধবার, ২১শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ইং, ৯ই ফাল্গুন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, সন্ধ্যা ৭:১২
শিরোনাম
  • ঘৃণাকে বিজয়ী হতে দেয়া যাবে না, ট্রাম্পকে ইঙ্গিত করে জর্জ ক্লুনি
  • আমার একটাই চিন্তা দেশের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করা: প্রধানমন্ত্রী
  • ‘কেন্দ্রীয় সরকারের আগ্রাসী নীতির কারণে কাশ্মীরকে হারাতে হবে’
  • সাড়ে চারমাস পর মুখোমুখি, খাদিজাকে উদ্দেশ্য করে যা বলল বদরুল
  • খালেদার ‘সাজা’ বিরোধী নেতাকর্মীদের মনোবল ভাঙ্গার কৌশল!
  • বিএনপির কর্মসূচি ‘যথাসময়ে’ জানানো হবে: রিজভী
  • দলের জন্য বোলিং করতেও রাজি মুশফিক
  • শিশু জিহাদের মৃত্যু: চার জনের ১০ বছর করে কারাদণ্ড
  • অবশেষে বাড়ি অবরুদ্ধ করে রাখা সেই দেয়াল ভেঙ্গে ফেলা হচ্ছে
  • সাক্ষ্য দিলেন খাদিজা, চাইলেন বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তি
  • বদরুলের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিতে আদালতে খাদিজা
  • আজ বগুড়ায় যেসব প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
  • রোহিঙ্গা স্থানান্তরের সরকারি পরিকল্পনার সঙ্গে দ্বিমত মানবাধিকার কমিশনের
  • মহেশখালীতে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে পুলিশের ‘বন্দুকযুদ্ধ’
  • হোয়াইট হাউসে কাজ করার দীর্ঘ অভিজ্ঞতার কথা জানালেন এই বাংলাদেশি সাংবাদিক
Sunday, July 24, 2016 2:50 am
A- A A+ Print

জঙ্গিবাদে উদ্বুদ্ধকারী শিক্ষকদের খোঁজে বের করতে বললেন শিক্ষামন্ত্রী

nahid

ঢাকা:  ২৩জুলাই শনিবার রাজধানীর ঢাকায় বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যদের এক মতবিনিময় সভায় অনুষ্ঠিত হয়েছে। এতে সভাপতিত্ব করেন শিক্ষামন্ত্রী নূরুল ইসলাম নাহিদ। সম্প্রতি দেশে জঙ্গি হামলার প্রেক্ষাপটে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ইনস্টিউট মিলনায়তনে ইউজিসি এই মতবিনিময় সভা আয়োজন করে। এতে মন্ত্রী বলেন, আমাদের শিক্ষার্থীরা যাতে জঙ্গিবাদের দিকে ঝুঁকে না পড়ে সে বিষয়ে শিক্ষকরা সবচে বেশি ভূমিকা রাখতে পারেন। বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে শিক্ষকতার নামে যারা জঙ্গিবাদী কার্যক্রমে শিক্ষার্থীদের উদ্বুদ্ধ করছে তাদের বিষয়ে খোঁজ-খবর নিতে পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যদের প্রতি আহ্বান জানিয়ে বলেছেন শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ। তনি বলেন, ‘শিক্ষকদের দায়িত্বের কথাও মনে রাখতে হবে। কিছু শিক্ষক নামধারী লোক আমাদের ছেলে-মেয়েদের বিপথগামী করছে। এদের খুঁজে বের করবেন।’ সব শিক্ষার্থীকে ব্যক্তিগতভাবে চিনতে এবং তাদের সমস্যা সমাধানে উদ্যোগী হতে শিক্ষকদের প্রতি আহ্বান জানান নাহিদ। ‘এক্ষেত্রে ছাত্র-ছাত্রী বেশি হওয়ার প্রসঙ্গ আসে। তবুও তাদের চিনতে হবে, জানতে হবে এবং তাদের সমস্যাগুলো সমাধান করতে হবে। তাদের এমন স্নেহ ও মমতা দিয়ে গড়ে তুলতে হবে, যাতে কোনো সমস্যায় পড়লে তারা শিক্ষকের কাছে এসে জানায়,’ বলেন তিনি। সারাদেশে শিক্ষা পরিবারের ঐক্যবদ্ধ প্রয়াস সারাদেশের মানুষ ও আইন-শৃঙ্খলাবাহিনীর মধ্যে সাহস সঞ্চার করবে বলে মন্তব্য করেন শিক্ষামন্ত্রী। তিনি বলেন, আমাদের প্রত্যেকটা শিক্ষা প্রতিষ্ঠানকে আমরা এ ধরনের আক্রমণ থেকে রক্ষা করতে চাই। শুধু হত্যা করা হবে তাই না, আমাদের ছেলে-মেয়েদের ব্যবহার করে এ ধরনের জীবন সংহার করা হবে, সেটা আমরা চাই না। ‘সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানকে সজাগ করবো, সচেতন করবো এবং সার্বিকভাবে ‍উদ্যোগ গ্রহণ করবো। সকল পর্যায়ে এটা পৌঁছাবে। আমরা নিশ্চিত করে বলতে পারি, ৩০ তারিখের মধ্যে সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে আমরা এভাবে সরাসরি কথা বলব।’ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শিক্ষাজীবন স্বাভাবিক রাখার আহ্বান জানিয়ে মন্ত্রী বলেন, ‘শিক্ষা কার্যক্রমে যদি শিক্ষার্থীদের জড়িত রাখতে পারি, তাহলে অন্য যে কোনো কিছু আমরা মোকাবেলা করতে পারব। এদিক থেকে সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান উদ্যোগী হয়ে পদক্ষেপ নিবেন।’ কিছু শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে জঙ্গিবাদী মনোভাবের শিক্ষক এবং কার্যক্রমের বিষয়ে প্রায় দুই বছর আগ থেকে শিক্ষা মন্ত্রণালয় উদ্যোগ নিয়েছে বলে জানান মন্ত্রী। শিক্ষামন্ত্রী বলেন, বাবা-মার কাছ থেকেও যেন ছেলে-মেয়েরা স্নেহ-মমতা পায়। পরিবারও তাদের সন্তানদের বিষয়ে সবচেয়ে ভাল বলতে পারবে। ‘বক্তৃতা দিয়ে কাউকে ফিরিয়ে আনা যাবে না। ব্যক্তিগত যোগাযোগে তাদের ফিরিয়ে আনতে হবে। নিবিড়ভাবে পর্যবেক্ষণ করতে হবে।’ প্রকৃত ইসলামের কথা তুলে ধরতে আলেম সমাজের প্রতি আহ্বান জানান নাহিদ। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য দেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল। অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক এএসএম মাকসুদ কামাল, জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ফারজানা ইসলাম ও বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক কামরুল হাসান খান। অন্যদের মধ্যে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জ্যেষ্ঠ সচিব মোজাম্মেল হক খান, শিক্ষাসচিব সোহরাব হোসাইন, জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক হারুন-অর-রশিদ, বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক আলী আকবর, বিশ্ববিদ্যালয় পরিষদের সভাপতি অধ্যাপক আলা উদ্দিন, বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ইমামুল হক ও রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক মিজান উদ্দিন বক্তব্য দেন।

Comments

Comments!

 জঙ্গিবাদে উদ্বুদ্ধকারী শিক্ষকদের খোঁজে বের করতে বললেন শিক্ষামন্ত্রীAmarbangladeshonlineAmarbangladeshonline | Amarbangladeshonline

জঙ্গিবাদে উদ্বুদ্ধকারী শিক্ষকদের খোঁজে বের করতে বললেন শিক্ষামন্ত্রী

Sunday, July 24, 2016 2:50 am
nahid

ঢাকা:  ২৩জুলাই শনিবার রাজধানীর ঢাকায় বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যদের এক মতবিনিময় সভায় অনুষ্ঠিত হয়েছে। এতে সভাপতিত্ব করেন শিক্ষামন্ত্রী নূরুল ইসলাম নাহিদ।

সম্প্রতি দেশে জঙ্গি হামলার প্রেক্ষাপটে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ইনস্টিউট মিলনায়তনে ইউজিসি এই মতবিনিময় সভা আয়োজন করে।

এতে মন্ত্রী বলেন, আমাদের শিক্ষার্থীরা যাতে জঙ্গিবাদের দিকে ঝুঁকে না পড়ে সে বিষয়ে শিক্ষকরা সবচে বেশি ভূমিকা রাখতে পারেন।

বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে শিক্ষকতার নামে যারা জঙ্গিবাদী কার্যক্রমে শিক্ষার্থীদের উদ্বুদ্ধ করছে তাদের বিষয়ে খোঁজ-খবর নিতে পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যদের প্রতি আহ্বান জানিয়ে বলেছেন শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ।

তনি বলেন, ‘শিক্ষকদের দায়িত্বের কথাও মনে রাখতে হবে। কিছু শিক্ষক নামধারী লোক আমাদের ছেলে-মেয়েদের বিপথগামী করছে। এদের খুঁজে বের করবেন।’

সব শিক্ষার্থীকে ব্যক্তিগতভাবে চিনতে এবং তাদের সমস্যা সমাধানে উদ্যোগী হতে শিক্ষকদের প্রতি আহ্বান জানান নাহিদ।

‘এক্ষেত্রে ছাত্র-ছাত্রী বেশি হওয়ার প্রসঙ্গ আসে। তবুও তাদের চিনতে হবে, জানতে হবে এবং তাদের সমস্যাগুলো সমাধান করতে হবে। তাদের এমন স্নেহ ও মমতা দিয়ে গড়ে তুলতে হবে, যাতে কোনো সমস্যায় পড়লে তারা শিক্ষকের কাছে এসে জানায়,’ বলেন তিনি।

সারাদেশে শিক্ষা পরিবারের ঐক্যবদ্ধ প্রয়াস সারাদেশের মানুষ ও আইন-শৃঙ্খলাবাহিনীর মধ্যে সাহস সঞ্চার করবে বলে মন্তব্য করেন শিক্ষামন্ত্রী।

তিনি বলেন, আমাদের প্রত্যেকটা শিক্ষা প্রতিষ্ঠানকে আমরা এ ধরনের আক্রমণ থেকে রক্ষা করতে চাই। শুধু হত্যা করা হবে তাই না, আমাদের ছেলে-মেয়েদের ব্যবহার করে এ ধরনের জীবন সংহার করা হবে, সেটা আমরা চাই না।

‘সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানকে সজাগ করবো, সচেতন করবো এবং সার্বিকভাবে ‍উদ্যোগ গ্রহণ করবো। সকল পর্যায়ে এটা পৌঁছাবে। আমরা নিশ্চিত করে বলতে পারি, ৩০ তারিখের মধ্যে সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে আমরা এভাবে সরাসরি কথা বলব।’

শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শিক্ষাজীবন স্বাভাবিক রাখার আহ্বান জানিয়ে মন্ত্রী বলেন, ‘শিক্ষা কার্যক্রমে যদি শিক্ষার্থীদের জড়িত রাখতে পারি, তাহলে অন্য যে কোনো কিছু আমরা মোকাবেলা করতে পারব। এদিক থেকে সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান উদ্যোগী হয়ে পদক্ষেপ নিবেন।’

কিছু শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে জঙ্গিবাদী মনোভাবের শিক্ষক এবং কার্যক্রমের বিষয়ে প্রায় দুই বছর আগ থেকে শিক্ষা মন্ত্রণালয় উদ্যোগ নিয়েছে বলে জানান মন্ত্রী।

শিক্ষামন্ত্রী বলেন, বাবা-মার কাছ থেকেও যেন ছেলে-মেয়েরা স্নেহ-মমতা পায়। পরিবারও তাদের সন্তানদের বিষয়ে সবচেয়ে ভাল বলতে পারবে।

‘বক্তৃতা দিয়ে কাউকে ফিরিয়ে আনা যাবে না। ব্যক্তিগত যোগাযোগে তাদের ফিরিয়ে আনতে হবে। নিবিড়ভাবে পর্যবেক্ষণ করতে হবে।’ প্রকৃত ইসলামের কথা তুলে ধরতে আলেম সমাজের প্রতি আহ্বান জানান নাহিদ।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য দেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল।

অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক এএসএম মাকসুদ কামাল, জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ফারজানা ইসলাম ও বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক কামরুল হাসান খান।

অন্যদের মধ্যে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জ্যেষ্ঠ সচিব মোজাম্মেল হক খান, শিক্ষাসচিব সোহরাব হোসাইন, জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক হারুন-অর-রশিদ, বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক আলী আকবর, বিশ্ববিদ্যালয় পরিষদের সভাপতি অধ্যাপক আলা উদ্দিন, বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ইমামুল হক ও রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক মিজান উদ্দিন বক্তব্য দেন।

Comments

comments

সম্পাদক : মোহাম্মদ আবদুল বাছির
প্রকাশক: মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম
ফোন : ‎০১৭১৩৪০৯০৯০
৩৪৫/১, দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০
X
 
নিয়মিত খবর পড়তে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন
X