বৃহস্পতিবার, ২২শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ইং, ১০ই ফাল্গুন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, রাত ৩:১৪
শিরোনাম
  • ঘৃণাকে বিজয়ী হতে দেয়া যাবে না, ট্রাম্পকে ইঙ্গিত করে জর্জ ক্লুনি
  • আমার একটাই চিন্তা দেশের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করা: প্রধানমন্ত্রী
  • ‘কেন্দ্রীয় সরকারের আগ্রাসী নীতির কারণে কাশ্মীরকে হারাতে হবে’
  • সাড়ে চারমাস পর মুখোমুখি, খাদিজাকে উদ্দেশ্য করে যা বলল বদরুল
  • খালেদার ‘সাজা’ বিরোধী নেতাকর্মীদের মনোবল ভাঙ্গার কৌশল!
  • বিএনপির কর্মসূচি ‘যথাসময়ে’ জানানো হবে: রিজভী
  • দলের জন্য বোলিং করতেও রাজি মুশফিক
  • শিশু জিহাদের মৃত্যু: চার জনের ১০ বছর করে কারাদণ্ড
  • অবশেষে বাড়ি অবরুদ্ধ করে রাখা সেই দেয়াল ভেঙ্গে ফেলা হচ্ছে
  • সাক্ষ্য দিলেন খাদিজা, চাইলেন বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তি
  • বদরুলের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিতে আদালতে খাদিজা
  • আজ বগুড়ায় যেসব প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
  • রোহিঙ্গা স্থানান্তরের সরকারি পরিকল্পনার সঙ্গে দ্বিমত মানবাধিকার কমিশনের
  • মহেশখালীতে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে পুলিশের ‘বন্দুকযুদ্ধ’
  • হোয়াইট হাউসে কাজ করার দীর্ঘ অভিজ্ঞতার কথা জানালেন এই বাংলাদেশি সাংবাদিক
Friday, October 21, 2016 9:13 am
A- A A+ Print

জরুরি স্বাস্থ্যসেবায় রুয়ান্ডায় ড্রোন

photo-1476699182

পূর্ব আফ্রিকার দেশ রুয়ান্ডায় জরুরি স্বাস্থ্যসেবায় ড্রোন ব্যবহার শুরু হয়েছে। জরুরি ভিত্তিতে রক্ত ও প্লাজমা পরিবহনের কাজ করা হবে ড্রোন দিয়ে। ড্রোন ব্যবহার করে এটাই পৃথিবীর প্রথম বাণিজ্যিক স্বাস্থ্য পরিবহন সেবা। এ খবর জানিয়েছে ভারতীয় দৈনিক টাইমস অব ইন্ডিয়া। রুয়ান্ডার সড়ক যোগাযোগ ব্যবস্থা বেশ দুর্বল। অনেক জায়গা এত দুর্গম যে সেখানে অ্যাম্বুলেন্স বা গাড়ি পৌঁছানো সম্ভব নয়। আর এসব এলাকায় জরুরি প্রয়োজনে ড্রোন ব্যবহার করা হবে। প্রযুক্তিবিষয়ক ওয়েবসাইট রিকোড জানিয়েছে, যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়াভিত্তিক ড্রোন নির্মাতা প্রতিষ্ঠান জিপলাইন, ইউপিএস ফাউন্ডেশন ও গাভি নামের স্বাস্থ্যসেবা প্রতিষ্ঠান মিলে এই কার্যক্রম শুরু করেছে। আর এই জরুরি ড্রোন পরিবহন সেবার ব্যয়ভার বহন করবে রুয়ান্ডার সরকার। মোটরসাইকেলের মাধ্যমে রক্ত ও প্লাজমা পরিবহনে যে খরচ হতো সেই পরিমাণ খরচ দিয়েই ড্রোনের মাধ্যমে রক্ত ও প্লাজমা জরুরি ভিত্তিতে পরিবহন করা যাবে। সিএনএন মানির এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, এর আগে কোনো জরুরি প্রয়োজনে স্বাস্থ্যসেবা পেতে কমপক্ষে চার ঘণ্টা সময় লাগত। ড্রোন ব্যবহারের মাধ্যমে ১৫ মিনিটের মধ্যেই যেকোনো স্থানে জরুরি স্বাস্থ্যসেবা উপকরণ পৌঁছে দেওয়া সম্ভব হবে। রুয়ান্ডার তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তিমন্ত্রী জ্যঁ ফিলবার্ট সেনগিমানা বলেন, ‘কিছু কিছু ক্ষেত্রে আমাদের জরুরি স্বাস্থ্যসেবার অবস্থা আসলেই বেশ হতাশাজনক ছিল। বর্ষাকালে অনেক রাস্তা একেবারেই ব্যবহার অনুপোযোগী হয়ে পড়ে। এর ফলে জরুরি প্রয়োজনে রক্ত পরিবহন করাও মুশকিল হয়ে পড়ত।’ রুয়ান্ডার হেলথ কমিউনিকেশন সেন্টারের প্রধান মালিক কায়ুম্বা বলেন, ‘আমরা সত্যিই গর্ববোধ করছি যে স্বাস্থ্যসেবায় এ ধরনের উন্নত যোগাযোগ প্রযুক্তি আমরাই প্রথম ব্যবহার করা শুরু করেছি।’

Comments

Comments!

 জরুরি স্বাস্থ্যসেবায় রুয়ান্ডায় ড্রোনAmarbangladeshonlineAmarbangladeshonline | Amarbangladeshonline

জরুরি স্বাস্থ্যসেবায় রুয়ান্ডায় ড্রোন

Friday, October 21, 2016 9:13 am
photo-1476699182

পূর্ব আফ্রিকার দেশ রুয়ান্ডায় জরুরি স্বাস্থ্যসেবায় ড্রোন ব্যবহার শুরু হয়েছে। জরুরি ভিত্তিতে রক্ত ও প্লাজমা পরিবহনের কাজ করা হবে ড্রোন দিয়ে। ড্রোন ব্যবহার করে এটাই পৃথিবীর প্রথম বাণিজ্যিক স্বাস্থ্য পরিবহন সেবা। এ খবর জানিয়েছে ভারতীয় দৈনিক টাইমস অব ইন্ডিয়া।

রুয়ান্ডার সড়ক যোগাযোগ ব্যবস্থা বেশ দুর্বল। অনেক জায়গা এত দুর্গম যে সেখানে অ্যাম্বুলেন্স বা গাড়ি পৌঁছানো সম্ভব নয়। আর এসব এলাকায় জরুরি প্রয়োজনে ড্রোন ব্যবহার করা হবে।

প্রযুক্তিবিষয়ক ওয়েবসাইট রিকোড জানিয়েছে, যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়াভিত্তিক ড্রোন নির্মাতা প্রতিষ্ঠান জিপলাইন, ইউপিএস ফাউন্ডেশন ও গাভি নামের স্বাস্থ্যসেবা প্রতিষ্ঠান মিলে এই কার্যক্রম শুরু করেছে।

আর এই জরুরি ড্রোন পরিবহন সেবার ব্যয়ভার বহন করবে রুয়ান্ডার সরকার। মোটরসাইকেলের মাধ্যমে রক্ত ও প্লাজমা পরিবহনে যে খরচ হতো সেই পরিমাণ খরচ দিয়েই ড্রোনের মাধ্যমে রক্ত ও প্লাজমা জরুরি ভিত্তিতে পরিবহন করা যাবে।

সিএনএন মানির এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, এর আগে কোনো জরুরি প্রয়োজনে স্বাস্থ্যসেবা পেতে কমপক্ষে চার ঘণ্টা সময় লাগত। ড্রোন ব্যবহারের মাধ্যমে ১৫ মিনিটের মধ্যেই যেকোনো স্থানে জরুরি স্বাস্থ্যসেবা উপকরণ পৌঁছে দেওয়া সম্ভব হবে।

রুয়ান্ডার তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তিমন্ত্রী জ্যঁ ফিলবার্ট সেনগিমানা বলেন, ‘কিছু কিছু ক্ষেত্রে আমাদের জরুরি স্বাস্থ্যসেবার অবস্থা আসলেই বেশ হতাশাজনক ছিল। বর্ষাকালে অনেক রাস্তা একেবারেই ব্যবহার অনুপোযোগী হয়ে পড়ে। এর ফলে জরুরি প্রয়োজনে রক্ত পরিবহন করাও মুশকিল হয়ে পড়ত।’

রুয়ান্ডার হেলথ কমিউনিকেশন সেন্টারের প্রধান মালিক কায়ুম্বা বলেন, ‘আমরা সত্যিই গর্ববোধ করছি যে স্বাস্থ্যসেবায় এ ধরনের উন্নত যোগাযোগ প্রযুক্তি আমরাই প্রথম ব্যবহার করা শুরু করেছি।’

Comments

comments

সম্পাদক : মোহাম্মদ আবদুল বাছির
প্রকাশক: মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম
ফোন : ‎০১৭১৩৪০৯০৯০
৩৪৫/১, দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০
X
 
নিয়মিত খবর পড়তে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন
X