সোমবার, ২৪শে এপ্রিল, ২০১৭ ইং, ১১ই বৈশাখ, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, সকাল ৯:৩৫
শিরোনাম
  • ঘৃণাকে বিজয়ী হতে দেয়া যাবে না, ট্রাম্পকে ইঙ্গিত করে জর্জ ক্লুনি
  • আমার একটাই চিন্তা দেশের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করা: প্রধানমন্ত্রী
  • ‘কেন্দ্রীয় সরকারের আগ্রাসী নীতির কারণে কাশ্মীরকে হারাতে হবে’
  • সাড়ে চারমাস পর মুখোমুখি, খাদিজাকে উদ্দেশ্য করে যা বলল বদরুল
  • খালেদার ‘সাজা’ বিরোধী নেতাকর্মীদের মনোবল ভাঙ্গার কৌশল!
  • বিএনপির কর্মসূচি ‘যথাসময়ে’ জানানো হবে: রিজভী
  • দলের জন্য বোলিং করতেও রাজি মুশফিক
  • শিশু জিহাদের মৃত্যু: চার জনের ১০ বছর করে কারাদণ্ড
  • অবশেষে বাড়ি অবরুদ্ধ করে রাখা সেই দেয়াল ভেঙ্গে ফেলা হচ্ছে
  • সাক্ষ্য দিলেন খাদিজা, চাইলেন বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তি
  • বদরুলের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিতে আদালতে খাদিজা
  • আজ বগুড়ায় যেসব প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
  • রোহিঙ্গা স্থানান্তরের সরকারি পরিকল্পনার সঙ্গে দ্বিমত মানবাধিকার কমিশনের
  • মহেশখালীতে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে পুলিশের ‘বন্দুকযুদ্ধ’
  • হোয়াইট হাউসে কাজ করার দীর্ঘ অভিজ্ঞতার কথা জানালেন এই বাংলাদেশি সাংবাদিক
Saturday, April 15, 2017 5:38 pm
A- A A+ Print

জলকেলি দিয়ে সাংগ্রাই শুরু

photo-1492234305 (1)

মারমা সম্প্রদায়ের বর্ষবরণ ও বিদায় উৎসব সাংগ্রাইকে ঘিরে খাগড়াছড়িতে উৎসবের রং লেগেছে। এই উৎসবকে ঘিরে আজ শনিবার সকাল থেকে জলকেলি খেলায় মেতেছে মারমা তরুণ-তরুণীরা। তিন দিনব্যাপী সাংগ্রাই উৎসব উপলক্ষে গতকাল শুক্রবার বেলা ১১টার দিকে শহরের পানখাইয়াপাড়া থেকে মারমা উন্নয়ন সংসদের উদ্যোগে মঙ্গল প্রদীপ জ্বেলে বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা বের করা হয়। খাগড়াছড়ি-২৯৮ আসনের সংসদ সদস্য কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা শোভাযাত্রার উদ্বোধন করেন। এ সময় সেনাবাহিনীর খাগড়াছড়ি রিজিয়ন কমান্ডার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মীর মুশফিকুর রহমান, জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান কংজুরী চৌধুরী, জেলা প্রশাসক মো. রাশেদুল ইসলাম, পুলিশ সুপার আলী আহম্মদ খান উপস্থিত ছিলেন। শোভাযাত্রাটি শহরের গুরুত্বপূর্ণ সড়ক পদক্ষিণ শেষে মারমা উন্নয়ন সংসদ কার্যালয়ের সামনে গিয়ে শেষ হয়। এরপর সেখানে জলকেলি উৎসবের আয়োজন করা হয়। অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি সংসদ সদস্য কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরাসহ অতিথিবৃন্দ গোলাপ চন্দনের পানি ছিটিয়ে জলকেলি উৎসবের উদ্বোধন করেন। পানিকে বিশুদ্ধতার প্রতীক ধরে নিয়ে মারমা তরুণ-তরুণীরা একে অন্যকে পানি ছিটিয়ে নিজেদের পবিত্র করে নেয়। পুরোনো বছরের দুঃখ, কষ্ট, গ্লানিকে বিদায় জানিয়ে নতুন বছরকে স্বাগত জানায় তাঁরা। জলকেলি প্রতিযোগিতায় শুধু অবিবাহিত তরুণ-তরুণীরা অংশ নেয়। এক তরুণী বলেন, ‘এই উৎসবে আমরা তরুণ-তরুণীদের নিয়ে জলকেলি খেলা উপভোগ করে থাকি।’ আরেক মারমা তরুণ বলেন, ‘এটা আমাদের অন্যতম প্রধান একটি উৎসব। এই উৎসবে আমরা নানাভাবে আনন্দ করে থাকি। মূলত তিনদিন ধরে এই উৎসব চলে। আজ সাংগ্রাই উৎসবের প্রথম দিন। এদিনে আমরা জলকেলি খেলা খেলে থাকি। এ খেলায় ছেলে ও মেয়েরা নিজেদের পছন্দ মতো একে অন্যকে পানি দিয়ে ভিজিয়ে দিয়ে থাকে।’ আরেকজন বলেন, ‘আমাদের এই উৎসবের প্রধান খেলা হলো পানি খেলা। এর মাধ্যমে আমরা ছেলেমেয়েরা উভয়েই আনন্দ করে থাকি।’ সাংগ্রাই উৎসব উপলক্ষে আগামীকাল মারমা সম্প্রদায়ের ঘরে ঘরে অতিথি আপ্যায়নে তৈরি করা হবে। সাধারণত বিভিন্ন ধরনের সবজি দিয়ে এ পাজন রান্না করা হয়ে থাকে।

Comments

Comments!

 জলকেলি দিয়ে সাংগ্রাই শুরুAmarbangladeshonlineAmarbangladeshonline | Amarbangladeshonline

জলকেলি দিয়ে সাংগ্রাই শুরু

Saturday, April 15, 2017 5:38 pm
photo-1492234305 (1)

মারমা সম্প্রদায়ের বর্ষবরণ ও বিদায় উৎসব সাংগ্রাইকে ঘিরে খাগড়াছড়িতে উৎসবের রং লেগেছে। এই উৎসবকে ঘিরে আজ শনিবার সকাল থেকে জলকেলি খেলায় মেতেছে মারমা তরুণ-তরুণীরা।

তিন দিনব্যাপী সাংগ্রাই উৎসব উপলক্ষে গতকাল শুক্রবার বেলা ১১টার দিকে শহরের পানখাইয়াপাড়া থেকে মারমা উন্নয়ন সংসদের উদ্যোগে মঙ্গল প্রদীপ জ্বেলে বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা বের করা হয়। খাগড়াছড়ি-২৯৮ আসনের সংসদ সদস্য কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা শোভাযাত্রার উদ্বোধন করেন।

এ সময় সেনাবাহিনীর খাগড়াছড়ি রিজিয়ন কমান্ডার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মীর মুশফিকুর রহমান, জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান কংজুরী চৌধুরী, জেলা প্রশাসক মো. রাশেদুল ইসলাম, পুলিশ সুপার আলী আহম্মদ খান উপস্থিত ছিলেন।

শোভাযাত্রাটি শহরের গুরুত্বপূর্ণ সড়ক পদক্ষিণ শেষে মারমা উন্নয়ন সংসদ কার্যালয়ের সামনে গিয়ে শেষ হয়। এরপর সেখানে জলকেলি উৎসবের আয়োজন করা হয়।

অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি সংসদ সদস্য কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরাসহ অতিথিবৃন্দ গোলাপ চন্দনের পানি ছিটিয়ে জলকেলি উৎসবের উদ্বোধন করেন।

পানিকে বিশুদ্ধতার প্রতীক ধরে নিয়ে মারমা তরুণ-তরুণীরা একে অন্যকে পানি ছিটিয়ে নিজেদের পবিত্র করে নেয়। পুরোনো বছরের দুঃখ, কষ্ট, গ্লানিকে বিদায় জানিয়ে নতুন বছরকে স্বাগত জানায় তাঁরা। জলকেলি প্রতিযোগিতায় শুধু অবিবাহিত তরুণ-তরুণীরা অংশ নেয়।

এক তরুণী বলেন, ‘এই উৎসবে আমরা তরুণ-তরুণীদের নিয়ে জলকেলি খেলা উপভোগ করে থাকি।’

আরেক মারমা তরুণ বলেন, ‘এটা আমাদের অন্যতম প্রধান একটি উৎসব। এই উৎসবে আমরা নানাভাবে আনন্দ করে থাকি। মূলত তিনদিন ধরে এই উৎসব চলে। আজ সাংগ্রাই উৎসবের প্রথম দিন। এদিনে আমরা জলকেলি খেলা খেলে থাকি। এ খেলায় ছেলে ও মেয়েরা নিজেদের পছন্দ মতো একে অন্যকে পানি দিয়ে ভিজিয়ে দিয়ে থাকে।’

আরেকজন বলেন, ‘আমাদের এই উৎসবের প্রধান খেলা হলো পানি খেলা। এর মাধ্যমে আমরা ছেলেমেয়েরা উভয়েই আনন্দ করে থাকি।’

সাংগ্রাই উৎসব উপলক্ষে আগামীকাল মারমা সম্প্রদায়ের ঘরে ঘরে অতিথি আপ্যায়নে তৈরি করা হবে। সাধারণত বিভিন্ন ধরনের সবজি দিয়ে এ পাজন রান্না করা হয়ে থাকে।

Comments

comments

সম্পাদক : মোহাম্মদ আবদুল বাছির
প্রকাশক: মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম
ফোন : ‎০১৭১৩৪০৯০৯০
৩৪৫/১, দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০
X
 
নিয়মিত খবর পড়তে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন
X