সোমবার, ২৬শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ইং, ১৪ই ফাল্গুন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, রাত ১:২১
শিরোনাম
  • ঘৃণাকে বিজয়ী হতে দেয়া যাবে না, ট্রাম্পকে ইঙ্গিত করে জর্জ ক্লুনি
  • আমার একটাই চিন্তা দেশের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করা: প্রধানমন্ত্রী
  • ‘কেন্দ্রীয় সরকারের আগ্রাসী নীতির কারণে কাশ্মীরকে হারাতে হবে’
  • সাড়ে চারমাস পর মুখোমুখি, খাদিজাকে উদ্দেশ্য করে যা বলল বদরুল
  • খালেদার ‘সাজা’ বিরোধী নেতাকর্মীদের মনোবল ভাঙ্গার কৌশল!
  • বিএনপির কর্মসূচি ‘যথাসময়ে’ জানানো হবে: রিজভী
  • দলের জন্য বোলিং করতেও রাজি মুশফিক
  • শিশু জিহাদের মৃত্যু: চার জনের ১০ বছর করে কারাদণ্ড
  • অবশেষে বাড়ি অবরুদ্ধ করে রাখা সেই দেয়াল ভেঙ্গে ফেলা হচ্ছে
  • সাক্ষ্য দিলেন খাদিজা, চাইলেন বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তি
  • বদরুলের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিতে আদালতে খাদিজা
  • আজ বগুড়ায় যেসব প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
  • রোহিঙ্গা স্থানান্তরের সরকারি পরিকল্পনার সঙ্গে দ্বিমত মানবাধিকার কমিশনের
  • মহেশখালীতে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে পুলিশের ‘বন্দুকযুদ্ধ’
  • হোয়াইট হাউসে কাজ করার দীর্ঘ অভিজ্ঞতার কথা জানালেন এই বাংলাদেশি সাংবাদিক
Saturday, December 17, 2016 11:05 am
A- A A+ Print

জাপানে পাঁচ লাখ কিশোর-যুবক ঘর থেকে বের হয় না!

photo-1481897956

জাপানে সমাজ থেকে দূরে রয়েছে পাঁচ লাখেরও বেশি কিশোর ও যুবক। তারা নিঃসঙ্গ জীবনযাপনকে বেছে নিয়েছে। সম্প্রতি সরকারের এক সমীক্ষায় এ তথ্য উঠে এসেছে। জাপানের স্বাস্থ্য, শ্রম ও কল্যাণ মন্ত্রণালয় এই প্রবণতাকে ‘হিকিকোমুরি’ বলে সংজ্ঞায়িত করেছে। এই প্রবণতায় ভুগছে যারা, তারা ছয় মাস বা তারও বেশি সময় ধরে স্কুল, কাজ বা সামাজিক কর্মকাণ্ডের জন্য বাইরে বের না হয়ে বাড়িতে বসে রয়েছে। জরিপে দেখা গেছে, ১৫ থেকে ৩৯ বছর বয়সী পাঁচ লাখ ৪১ হাজার কিশোর ও যুবক সমাজ থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে বাড়িতে নিজেদের অন্তরীণ করে রেখেছে। মন্ত্রিসভার অফিসের ২০১০ সালের  জরিপের পরিসংখ্যানের চেয়ে এই সংখ্যা কম। তখন হিকিকোমুরিতে ভুগছিল ছয় লাখ ৯৬ হাজার। জাপান টাইমস জানিয়েছে, এই সমীক্ষা অনুযায়ী, ৩৫ শতাংশ সাত বছর ধরে নিজেদের বাড়িতে বন্দি করে রেখেছে। ২৯ শতাংশ তিন থেকে পাঁচ বছর ধরে বাড়িতে অবস্থান করছে। এবারের সমীক্ষায় বেশি বয়সী নির্জনতাপ্রিয় ব্যক্তির সংখ্যা বেশি। ৩৫ থেকে ৩৯ বছর, যা ছয় বছরে দ্বিগুণ হয়েছে। এখনো হিকিকোমুরি প্রবণতায় ভুগছে যারা, তাদের সঠিক চিত্র পাওয়া এবং এই রোগের প্রকৃতি নির্ধারণ করা কঠিন। ১৯৯০ সালে প্রথমবারের মতো এটি একটি গণ-আচরণ হিসেবে দেখা দেয়। কিন্তু এটিকে এখনো সরকারি তালিকায় রোগ হিসেবে লিপিবদ্ধ করা হয়নি এবং এর কোনো প্রস্তাবিত চিকিৎসা নেই। চিকিৎসকরা বিশ্বাস করেন, মানসিক ও সাংস্কৃতিক প্রভাবের কারণে তরুণরা সমাজ থেকে নিজেদের সম্পূর্ণভাবে বিচ্ছিন্ন করার প্রয়োজনীয়তা অনুভব করে।

Comments

Comments!

 জাপানে পাঁচ লাখ কিশোর-যুবক ঘর থেকে বের হয় না!AmarbangladeshonlineAmarbangladeshonline | Amarbangladeshonline

জাপানে পাঁচ লাখ কিশোর-যুবক ঘর থেকে বের হয় না!

Saturday, December 17, 2016 11:05 am
photo-1481897956

জাপানে সমাজ থেকে দূরে রয়েছে পাঁচ লাখেরও বেশি কিশোর ও যুবক। তারা নিঃসঙ্গ জীবনযাপনকে বেছে নিয়েছে। সম্প্রতি সরকারের এক সমীক্ষায় এ তথ্য উঠে এসেছে।

জাপানের স্বাস্থ্য, শ্রম ও কল্যাণ মন্ত্রণালয় এই প্রবণতাকে ‘হিকিকোমুরি’ বলে সংজ্ঞায়িত করেছে। এই প্রবণতায় ভুগছে যারা, তারা ছয় মাস বা তারও বেশি সময় ধরে স্কুল, কাজ বা সামাজিক কর্মকাণ্ডের জন্য বাইরে বের না হয়ে বাড়িতে বসে রয়েছে।

জরিপে দেখা গেছে, ১৫ থেকে ৩৯ বছর বয়সী পাঁচ লাখ ৪১ হাজার কিশোর ও যুবক সমাজ থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে বাড়িতে নিজেদের অন্তরীণ করে রেখেছে। মন্ত্রিসভার অফিসের ২০১০ সালের  জরিপের পরিসংখ্যানের চেয়ে এই সংখ্যা কম। তখন হিকিকোমুরিতে ভুগছিল ছয় লাখ ৯৬ হাজার।

জাপান টাইমস জানিয়েছে, এই সমীক্ষা অনুযায়ী, ৩৫ শতাংশ সাত বছর ধরে নিজেদের বাড়িতে বন্দি করে রেখেছে। ২৯ শতাংশ তিন থেকে পাঁচ বছর ধরে বাড়িতে অবস্থান করছে। এবারের সমীক্ষায় বেশি বয়সী নির্জনতাপ্রিয় ব্যক্তির সংখ্যা বেশি। ৩৫ থেকে ৩৯ বছর, যা ছয় বছরে দ্বিগুণ হয়েছে।

এখনো হিকিকোমুরি প্রবণতায় ভুগছে যারা, তাদের সঠিক চিত্র পাওয়া এবং এই রোগের প্রকৃতি নির্ধারণ করা কঠিন।

১৯৯০ সালে প্রথমবারের মতো এটি একটি গণ-আচরণ হিসেবে দেখা দেয়। কিন্তু এটিকে এখনো সরকারি তালিকায় রোগ হিসেবে লিপিবদ্ধ করা হয়নি এবং এর কোনো প্রস্তাবিত চিকিৎসা নেই।

চিকিৎসকরা বিশ্বাস করেন, মানসিক ও সাংস্কৃতিক প্রভাবের কারণে তরুণরা সমাজ থেকে নিজেদের সম্পূর্ণভাবে বিচ্ছিন্ন করার প্রয়োজনীয়তা অনুভব করে।

Comments

comments

সম্পাদক : মোহাম্মদ আবদুল বাছির
প্রকাশক: মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম
ফোন : ‎০১৭১৩৪০৯০৯০
৩৪৫/১, দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০
X
 
নিয়মিত খবর পড়তে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন
X