সোমবার, ১৯শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ইং, ৭ই ফাল্গুন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, রাত ১২:১৯
শিরোনাম
  • ঘৃণাকে বিজয়ী হতে দেয়া যাবে না, ট্রাম্পকে ইঙ্গিত করে জর্জ ক্লুনি
  • আমার একটাই চিন্তা দেশের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করা: প্রধানমন্ত্রী
  • ‘কেন্দ্রীয় সরকারের আগ্রাসী নীতির কারণে কাশ্মীরকে হারাতে হবে’
  • সাড়ে চারমাস পর মুখোমুখি, খাদিজাকে উদ্দেশ্য করে যা বলল বদরুল
  • খালেদার ‘সাজা’ বিরোধী নেতাকর্মীদের মনোবল ভাঙ্গার কৌশল!
  • বিএনপির কর্মসূচি ‘যথাসময়ে’ জানানো হবে: রিজভী
  • দলের জন্য বোলিং করতেও রাজি মুশফিক
  • শিশু জিহাদের মৃত্যু: চার জনের ১০ বছর করে কারাদণ্ড
  • অবশেষে বাড়ি অবরুদ্ধ করে রাখা সেই দেয়াল ভেঙ্গে ফেলা হচ্ছে
  • সাক্ষ্য দিলেন খাদিজা, চাইলেন বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তি
  • বদরুলের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিতে আদালতে খাদিজা
  • আজ বগুড়ায় যেসব প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
  • রোহিঙ্গা স্থানান্তরের সরকারি পরিকল্পনার সঙ্গে দ্বিমত মানবাধিকার কমিশনের
  • মহেশখালীতে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে পুলিশের ‘বন্দুকযুদ্ধ’
  • হোয়াইট হাউসে কাজ করার দীর্ঘ অভিজ্ঞতার কথা জানালেন এই বাংলাদেশি সাংবাদিক
Thursday, November 17, 2016 3:21 pm
A- A A+ Print

জিততে তামিমদের চাই ১৪৯

898

ভালো শুরুর পরও বড় সংগ্রহ গড়তে পারল না ঢাকা ডায়নামাইটস। একটাপর্যায়ে ১ উইকেটে ৭২ রান তুলে ফেলা দলটি শেষ পর্যন্ত ৯ উইকেটে করেছে ১৪৮। জয়ের জন্য তামিমের চিটাগং ভাইকিংসের চাই ১৪৯ রান। ঢাকায় প্রথম পর্ব শেষে বিপিএলের ধুন্ধুমার লড়াই এখন চট্টগ্রামের সাগরিকায়। বৃহস্পতিবার চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে দিনের প্রথম এই ম্যাচে টস জিতে ঢাকাকে ব্যাটিংয়ে পাঠিয়েছিলেন চিটাগং অধিনায়ক তামিম ইকবাল। তবে শুরুতে অধিনায়কের সিদ্ধান্তের সঠিক জবাব দিতে পারেননি চিটাগংয়ের বোলাররা। আগের ম্যাচে ৩৯ বলে ৬০ করা মেহেদী মারুফ টাইমল মিলসের করা ইনিংসের দ্বিতীয় ও তৃতীয় বলে মারেন টানা দুই চার। ডানহাতি এই ব্যাটসম্যান মিলসের পরের ওভারেও মারেন দুই চার। শুভাশিস রায়ের করা পরের ওভারে দুই চার ও এক ছক্কায় তোলেন ১৬ রান। তাতে ৪ ওভার শেষে ঢাকার সংগ্রহ বিনা উইকেটে ৩৮। পরের ওভারে বিধ্বংসী হয়ে ওঠা মারুফকে এলবিডব্লিউ করে জুটি ভাঙেন মোহাম্মদ নবী। ২০ বলে ৪ চার ও এক ছক্কায় মারুফ করেন ৩৩ রান। তিনে নামা নাসির হোসেন প্রথম বলেই নবীকে এক্সট্রা কভার দিতে চার মেরে রানের খাতা খোলেন। পরের ওভারে মাহমুদুল হাসানকে ‘কাউ কর্নার’ ও স্লগ সুইপে মারেন আরো দুই চার। তবে কুমার সাঙ্গাকারার সঙ্গে নাসিরের ৩১ রানের জুটি ভাঙার পরই পথ হারায় ঢাকা। একই ওভারে দুজনকে এলবিডব্লিউয়ের ফাঁদে ফেলেন মিলস। নাসির করেন ১৪ বলে ২০, সাঙ্গাকারা ২২ বলে ১৭। অধিনায়ক সাকিব আক্রমণাত্মক শুরু করলেও ৭ বলে ১৩ রান করে নবীর বলে বোল্ড হয়ে ফেরেন। পরের ওভারে রানআউটে কাটা পড়েন ডোয়াইন ব্রাভো। ১ উইকেটে ৭২ থেকে ঢাকার স্কোর তখন ৫ উইকেটে ১০০। এরপর মোসাদ্দেক হোসেন ছাড়া (২৬ বলে ৩৫) আর কেউ দুই অঙ্ক ছুঁতে না পারায় শেষ পর্যন্ত দেড়শও করতে পারেনি ঢাকা। চিটাগংয়ে হয়ে মিলস ও নবী নেন ৩টি করে উইকেট। চিটাগং এবারের বিপিএল জয় দিয়ে শুরু করলেও পরের তিন ম্যাচেই হেরে গেছে। পয়েন্ট তালিকায় এই মুহূর্তে সাত দলের মধ্যে তাদের অবস্থান ষষ্ঠ। এবার ঘরের মাঠে তামিমদের ভাগ্য বদলে কি না, সেটাই দেখার। অন্যদিকে ঢাকা চার ম্যাচের তিনটিতেই জিতে পয়েন্ট তালিকার শীর্ষে রয়েছে। এবার চট্টগ্রামকে হারিয়ে শীর্ষস্থান আরো মজবুত করতে চাইবে সাকিবের দল।

Comments

Comments!

 জিততে তামিমদের চাই ১৪৯AmarbangladeshonlineAmarbangladeshonline | Amarbangladeshonline

জিততে তামিমদের চাই ১৪৯

Thursday, November 17, 2016 3:21 pm
898

ভালো শুরুর পরও বড় সংগ্রহ গড়তে পারল না ঢাকা ডায়নামাইটস। একটাপর্যায়ে ১ উইকেটে ৭২ রান তুলে ফেলা দলটি শেষ পর্যন্ত ৯ উইকেটে করেছে ১৪৮। জয়ের জন্য তামিমের চিটাগং ভাইকিংসের চাই ১৪৯ রান।

ঢাকায় প্রথম পর্ব শেষে বিপিএলের ধুন্ধুমার লড়াই এখন চট্টগ্রামের সাগরিকায়। বৃহস্পতিবার চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে দিনের প্রথম এই ম্যাচে টস জিতে ঢাকাকে ব্যাটিংয়ে পাঠিয়েছিলেন চিটাগং অধিনায়ক তামিম ইকবাল। তবে শুরুতে অধিনায়কের সিদ্ধান্তের সঠিক জবাব দিতে পারেননি চিটাগংয়ের বোলাররা।

আগের ম্যাচে ৩৯ বলে ৬০ করা মেহেদী মারুফ টাইমল মিলসের করা ইনিংসের দ্বিতীয় ও তৃতীয় বলে মারেন টানা দুই চার। ডানহাতি এই ব্যাটসম্যান মিলসের পরের ওভারেও মারেন দুই চার। শুভাশিস রায়ের করা পরের ওভারে দুই চার ও এক ছক্কায় তোলেন ১৬ রান। তাতে ৪ ওভার শেষে ঢাকার সংগ্রহ বিনা উইকেটে ৩৮। পরের ওভারে বিধ্বংসী হয়ে ওঠা মারুফকে এলবিডব্লিউ করে জুটি ভাঙেন মোহাম্মদ নবী। ২০ বলে ৪ চার ও এক ছক্কায় মারুফ করেন ৩৩ রান।

তিনে নামা নাসির হোসেন প্রথম বলেই নবীকে এক্সট্রা কভার দিতে চার মেরে রানের খাতা খোলেন। পরের ওভারে মাহমুদুল হাসানকে ‘কাউ কর্নার’ ও স্লগ সুইপে মারেন আরো দুই চার। তবে কুমার সাঙ্গাকারার সঙ্গে নাসিরের ৩১ রানের জুটি ভাঙার পরই পথ হারায় ঢাকা। একই ওভারে দুজনকে এলবিডব্লিউয়ের ফাঁদে ফেলেন মিলস। নাসির করেন ১৪ বলে ২০, সাঙ্গাকারা ২২ বলে ১৭।

অধিনায়ক সাকিব আক্রমণাত্মক শুরু করলেও ৭ বলে ১৩ রান করে নবীর বলে বোল্ড হয়ে ফেরেন। পরের ওভারে রানআউটে কাটা পড়েন ডোয়াইন ব্রাভো। ১ উইকেটে ৭২ থেকে ঢাকার স্কোর তখন ৫ উইকেটে ১০০। এরপর মোসাদ্দেক হোসেন ছাড়া (২৬ বলে ৩৫) আর কেউ দুই অঙ্ক ছুঁতে না পারায় শেষ পর্যন্ত দেড়শও করতে পারেনি ঢাকা। চিটাগংয়ে হয়ে মিলস ও নবী নেন ৩টি করে উইকেট।

চিটাগং এবারের বিপিএল জয় দিয়ে শুরু করলেও পরের তিন ম্যাচেই হেরে গেছে। পয়েন্ট তালিকায় এই মুহূর্তে সাত দলের মধ্যে তাদের অবস্থান ষষ্ঠ। এবার ঘরের মাঠে তামিমদের ভাগ্য বদলে কি না, সেটাই দেখার। অন্যদিকে ঢাকা চার ম্যাচের তিনটিতেই জিতে পয়েন্ট তালিকার শীর্ষে রয়েছে। এবার চট্টগ্রামকে হারিয়ে শীর্ষস্থান আরো মজবুত করতে চাইবে সাকিবের দল।

Comments

comments

সম্পাদক : মোহাম্মদ আবদুল বাছির
প্রকাশক: মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম
ফোন : ‎০১৭১৩৪০৯০৯০
৩৪৫/১, দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০
X
 
নিয়মিত খবর পড়তে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন
X