রবিবার, ২৫শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ইং, ১৩ই ফাল্গুন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, দুপুর ১:৪৪
শিরোনাম
  • ঘৃণাকে বিজয়ী হতে দেয়া যাবে না, ট্রাম্পকে ইঙ্গিত করে জর্জ ক্লুনি
  • আমার একটাই চিন্তা দেশের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করা: প্রধানমন্ত্রী
  • ‘কেন্দ্রীয় সরকারের আগ্রাসী নীতির কারণে কাশ্মীরকে হারাতে হবে’
  • সাড়ে চারমাস পর মুখোমুখি, খাদিজাকে উদ্দেশ্য করে যা বলল বদরুল
  • খালেদার ‘সাজা’ বিরোধী নেতাকর্মীদের মনোবল ভাঙ্গার কৌশল!
  • বিএনপির কর্মসূচি ‘যথাসময়ে’ জানানো হবে: রিজভী
  • দলের জন্য বোলিং করতেও রাজি মুশফিক
  • শিশু জিহাদের মৃত্যু: চার জনের ১০ বছর করে কারাদণ্ড
  • অবশেষে বাড়ি অবরুদ্ধ করে রাখা সেই দেয়াল ভেঙ্গে ফেলা হচ্ছে
  • সাক্ষ্য দিলেন খাদিজা, চাইলেন বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তি
  • বদরুলের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিতে আদালতে খাদিজা
  • আজ বগুড়ায় যেসব প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
  • রোহিঙ্গা স্থানান্তরের সরকারি পরিকল্পনার সঙ্গে দ্বিমত মানবাধিকার কমিশনের
  • মহেশখালীতে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে পুলিশের ‘বন্দুকযুদ্ধ’
  • হোয়াইট হাউসে কাজ করার দীর্ঘ অভিজ্ঞতার কথা জানালেন এই বাংলাদেশি সাংবাদিক
Monday, September 5, 2016 6:41 pm
A- A A+ Print

জোর করে চুমু খাওয়া হয়েছিল রেখাকে

19

রিল লাইফ কিংবা রিয়েল লাইফ বলিউড অভিনেত্রী রেখাকে ঘিরে বিতর্কের শেষ নেই। এমনকি তার সম্পর্কে কিছু রহস্যের এখনো কোনো কুল কিনারা হয়নি। আর রেখার রহস্য ঘেরা এই জীবন বইয়ের মলাটে বন্দি করেছেন লেখক ইয়াসির ওসমান। ‘রেখা : দ্য আনটোল্ড স্টোরি’ নামের এই বইয়ে তুলে ধরা হয়েছে আলো-অন্ধকারে ঢাকা রেখার জীবনের বিভিন্ন ঘটনা। এই বইয়ের তথ্য অনুযায়ী আনজানা সফর সিনেমার শুটিংয়ের সময় পরিচালক এবং এই সিনেমার নায়ক মিলে ১৫ বছর বয়সি রেখাকে একটি চুম্বন দৃশ্য করাতে বাধ্য করেছিলেন। সিনেমার নায়ক বিশ্বজিৎ এ অভিনেত্রীকে জাপটে ধরে দীর্ঘক্ষণ চুমু খান। পুরো শুটিং ইউনিটের কলা-কুশলীরা তখন চুপ করে তা দেখছিলেন। কিন্তু কেউ এর প্রতিবাদ করেননি। বিষয়টিতে অনেক দুঃখ পেয়েছিলেন রেখা। কারণ এই দৃশ্যের বিষয়টি শুটিংয়ের আগে তাকে জানানো হয়নি। এ সময় তিনি চোখ বন্ধ করে ছিলেন তখন তার চোখ দিয়ে পানি ঝরছিল। পরে বিশ্বজিৎ এ সম্পর্কে বলেন, ‘এটি ছিল পরিচালক রাজা নাওয়াথীর মস্তিষ্কপ্রসূত।’ রেখা এবং বিনোদ মেহরার বিয়ের ঘটনাটিও উঠে এসেছে এই বইয়ে। এতে বলা হয়েছে, বিনোদ এবং রেখা কলকাতায় বিয়ে করেছিলেন এবং মুম্বাইয়ে তাদের বাড়িতে ফিরে এসেছিলেন। বিনোদের মা কমলা মেহরা নববধূকে বাড়িতে ঢুকতে অস্বীকার করেন এবং প্রতিবেশীদের সামনে তাকে অপমান করেন। এমনকি তার দিকে স্যান্ডেল নিক্ষেপ করেন। তারপর রেখা কাঁদতে কাঁদতে লিফটের দিকে ছুটে আসেন। বিনোদ সেই সময় তাকে সান্ত্বনা দেন এবং তার মায়ের রাগ না কমা পর্যন্ত তাকে অপেক্ষা করতে বলেন। ঋষি কাপুর ও নীতু সিংয়ের বিয়েতে রেখা সিঁদুর ও মঙ্গলসূত্র পরে উপস্থিত হয়েছিলেন।  সেখানে স্ত্রী জয়া বচ্চনকে নিয়ে উপস্থিত ছিলেন অমিতাভ বচ্চনও।  কিছুক্ষণ অপেক্ষা করে রেখা বরবধূর সঙ্গে কথা বলেন এবং তারপর অমিতাভের দিকে হেঁটে যান। এরপর দুজন এমনভাবে কথা বলছিলেন, যেন কিছুই হয়নি। ফলে রেখার সিঁদুর নিয়ে যে বিতর্ক তৈরি হয়েছিল, তা মোড় নেয় অন্যদিকে। কিশোর বয়সে বলিউডে আসতে বাধ্য হওয়া এবং পরে বলিউডের ‘আইকন ডিভা’ হওয়া পর্যন্ত রেখার জীবনের সব ঘটনা বইটিতে তুলে ধরেছেন ইয়াসের ওসমান। পাশাপাশি এ অভিনেত্রীর জীবনের নানা রহস্য সমাধানের চেষ্টা করেছেন লেখক।

Comments

Comments!

 জোর করে চুমু খাওয়া হয়েছিল রেখাকেAmarbangladeshonlineAmarbangladeshonline | Amarbangladeshonline

জোর করে চুমু খাওয়া হয়েছিল রেখাকে

Monday, September 5, 2016 6:41 pm
19

রিল লাইফ কিংবা রিয়েল লাইফ বলিউড অভিনেত্রী রেখাকে ঘিরে বিতর্কের শেষ নেই। এমনকি তার সম্পর্কে কিছু রহস্যের এখনো কোনো কুল কিনারা হয়নি। আর রেখার রহস্য ঘেরা এই জীবন বইয়ের মলাটে বন্দি করেছেন লেখক ইয়াসির ওসমান।

‘রেখা : দ্য আনটোল্ড স্টোরি’ নামের এই বইয়ে তুলে ধরা হয়েছে আলো-অন্ধকারে ঢাকা রেখার জীবনের বিভিন্ন ঘটনা।

এই বইয়ের তথ্য অনুযায়ী আনজানা সফর সিনেমার শুটিংয়ের সময় পরিচালক এবং এই সিনেমার নায়ক মিলে ১৫ বছর বয়সি রেখাকে একটি চুম্বন দৃশ্য করাতে বাধ্য করেছিলেন। সিনেমার নায়ক বিশ্বজিৎ এ অভিনেত্রীকে জাপটে ধরে দীর্ঘক্ষণ চুমু খান। পুরো শুটিং ইউনিটের কলা-কুশলীরা তখন চুপ করে তা দেখছিলেন। কিন্তু কেউ এর প্রতিবাদ করেননি। বিষয়টিতে অনেক দুঃখ পেয়েছিলেন রেখা। কারণ এই দৃশ্যের বিষয়টি শুটিংয়ের আগে তাকে জানানো হয়নি। এ সময় তিনি চোখ বন্ধ করে ছিলেন তখন তার চোখ দিয়ে পানি ঝরছিল।

পরে বিশ্বজিৎ এ সম্পর্কে বলেন, ‘এটি ছিল পরিচালক রাজা নাওয়াথীর মস্তিষ্কপ্রসূত।’

রেখা এবং বিনোদ মেহরার বিয়ের ঘটনাটিও উঠে এসেছে এই বইয়ে। এতে বলা হয়েছে, বিনোদ এবং রেখা কলকাতায় বিয়ে করেছিলেন এবং মুম্বাইয়ে তাদের বাড়িতে ফিরে এসেছিলেন। বিনোদের মা কমলা মেহরা নববধূকে বাড়িতে ঢুকতে অস্বীকার করেন এবং প্রতিবেশীদের সামনে তাকে অপমান করেন। এমনকি তার দিকে স্যান্ডেল নিক্ষেপ করেন। তারপর রেখা কাঁদতে কাঁদতে লিফটের দিকে ছুটে আসেন। বিনোদ সেই সময় তাকে সান্ত্বনা দেন এবং তার মায়ের রাগ না কমা পর্যন্ত তাকে অপেক্ষা করতে বলেন।

ঋষি কাপুর ও নীতু সিংয়ের বিয়েতে রেখা সিঁদুর ও মঙ্গলসূত্র পরে উপস্থিত হয়েছিলেন।  সেখানে স্ত্রী জয়া বচ্চনকে নিয়ে উপস্থিত ছিলেন অমিতাভ বচ্চনও।  কিছুক্ষণ অপেক্ষা করে রেখা বরবধূর সঙ্গে কথা বলেন এবং তারপর অমিতাভের দিকে হেঁটে যান। এরপর দুজন এমনভাবে কথা বলছিলেন, যেন কিছুই হয়নি। ফলে রেখার সিঁদুর নিয়ে যে বিতর্ক তৈরি হয়েছিল, তা মোড় নেয় অন্যদিকে।

কিশোর বয়সে বলিউডে আসতে বাধ্য হওয়া এবং পরে বলিউডের ‘আইকন ডিভা’ হওয়া পর্যন্ত রেখার জীবনের সব ঘটনা বইটিতে তুলে ধরেছেন ইয়াসের ওসমান। পাশাপাশি এ অভিনেত্রীর জীবনের নানা রহস্য সমাধানের চেষ্টা করেছেন লেখক।

Comments

comments

সম্পাদক : মোহাম্মদ আবদুল বাছির
প্রকাশক: মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম
ফোন : ‎০১৭১৩৪০৯০৯০
৩৪৫/১, দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০
X
 
নিয়মিত খবর পড়তে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন
X