মঙ্গলবার, ২০শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ইং, ৮ই ফাল্গুন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, দুপুর ১:১১
শিরোনাম
  • ঘৃণাকে বিজয়ী হতে দেয়া যাবে না, ট্রাম্পকে ইঙ্গিত করে জর্জ ক্লুনি
  • আমার একটাই চিন্তা দেশের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করা: প্রধানমন্ত্রী
  • ‘কেন্দ্রীয় সরকারের আগ্রাসী নীতির কারণে কাশ্মীরকে হারাতে হবে’
  • সাড়ে চারমাস পর মুখোমুখি, খাদিজাকে উদ্দেশ্য করে যা বলল বদরুল
  • খালেদার ‘সাজা’ বিরোধী নেতাকর্মীদের মনোবল ভাঙ্গার কৌশল!
  • বিএনপির কর্মসূচি ‘যথাসময়ে’ জানানো হবে: রিজভী
  • দলের জন্য বোলিং করতেও রাজি মুশফিক
  • শিশু জিহাদের মৃত্যু: চার জনের ১০ বছর করে কারাদণ্ড
  • অবশেষে বাড়ি অবরুদ্ধ করে রাখা সেই দেয়াল ভেঙ্গে ফেলা হচ্ছে
  • সাক্ষ্য দিলেন খাদিজা, চাইলেন বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তি
  • বদরুলের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিতে আদালতে খাদিজা
  • আজ বগুড়ায় যেসব প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
  • রোহিঙ্গা স্থানান্তরের সরকারি পরিকল্পনার সঙ্গে দ্বিমত মানবাধিকার কমিশনের
  • মহেশখালীতে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে পুলিশের ‘বন্দুকযুদ্ধ’
  • হোয়াইট হাউসে কাজ করার দীর্ঘ অভিজ্ঞতার কথা জানালেন এই বাংলাদেশি সাংবাদিক
Sunday, October 23, 2016 11:31 am
A- A A+ Print

টাইটানিক নিয়ে আগেই শঙ্কা ছিল ক্যাপ্টেনের

titanic1477199829

টাইটানিক জাহাজ নিয়ে এর নির্মাতা প্রতিষ্ঠান বলেছিল, এটি ‘আনসিংকেবল’ অর্থাৎ ‘কখনো ডুববে না’। তবে যাত্রা শুরুর মাত্র ৫ দিনের মাথায় ১৯১২ সালের ১৪ এপ্রিল সন্ধ্যায় ডুবে গিয়েছিল জাহাজটি।
  রয়্যাল মেল স্টিমার টাইটানিক সংক্ষেপে টাইটানিক জাহাজটি নিয়ে এর নির্মাণকারী প্রতিষ্ঠান হল্যান্ডের ‘হোয়াইট স্টার লাইন’ নিঃসংশয় থাকলেও এর সেকেন্ড ক্যাপ্টেন হেনরি ওয়াইল্ড কিন্তু ঠিকই আশঙ্কায় ছিলেন।   হেনরি ওয়াইল্ড তার ২০ বছরের নাবিক জীবনে এডওয়ার্ড স্মিথ নামের এক ক্যাপ্টেনকে বহু চিঠি লেখেন। সেগুলোর শেষ চিঠিতে জানা যায়, হেনরি টাইটানিকে যোগ দিতে চাননি। টাইটানিকে যোগ দেওয়ার আগে হেনরিকে ‘সিমরিক’ নামের একটি জাহাজের প্রধান ক্যাপ্টেনের দায়িত্ব দেওয়ার কথা ছিল। তবে শেষ মুহূর্তে তাকে টাইটানিকে সেকেন্ড ক্যাপ্টেনের দায়িত্ব দেওয়া হয়। টাইটানিককে ‘অশুভ’ মনে করতেন হেনরি। মনের বিরুদ্ধে তিনি টাইটানিকে যোগ দেন।   সম্প্রতি হেনরি ওয়াইল্ডের লেখা একটি চিঠি যুক্তরাজ্যের উইল্টশায়ারে নিলামে ওঠে। চিঠিটি বিক্রি হয় ২২ হাজার পাউন্ডে।   Titanic   চিঠিটি হেনরি লেখেন টাইটানিকে দায়িত্বরত অবস্থায়। বোনের কাছে লেখা চিঠিতে টাইটানিক নিয়ে যে তার আশংকা ছিল, সেটি প্রকাশ করেন হেনরি। তিনি লেখেন, ‘আমি এখনো পর্যন্ত জাহাজটি পছন্দ করতে পারছি না...জাহাজটি নিয়ে আমার অদ্ভূত অনুভূতি কাজ করছে।’   উল্লেখ্য, হিমশৈলের সঙ্গে সংঘর্ষে টাইটানিক ডুবে যায়। এতে যাত্রী-নাবিক মিলে প্রায় ১৫০০ জন মারা যান।   হিমশৈলের সঙ্গে সংঘর্ষের পর হেনরি জাহাজের সারেং আলবার্ট হেইনস ও স্যামুয়েল হেমিংসের সঙ্গে কথা বলেন। তারা ওয়াইল্ডকে জানান, তারা জাহাজের ট্যাংক থেকে বাতাস বের হওয়ার শব্দ শুনেছেন এবং জাহাজে পানি প্রবেশের শব্দ পেয়েছেন।   নিলামকারী অ্যান্ড্রু অলড্রিজ বলেন, ‘এটি নিঃসন্দেহে টাইটানিক সম্পর্কিত চিঠিগুলোর মধ্যে অন্যতম। টাইটানিকে উপস্থিত ছিলেন এমন একজন বড় নাবিক এই চিঠিটি লিখেছেন।’   তিনি আরো বলেন, ‘এটি টাইটানিক সম্পর্কে অনেক অজানা তথ্য বহন করে। চিঠিতে টাইটানিক সম্পর্কে হেনরির স্পষ্ট হতাশা ফুটে উঠেছে। জাহাজের দুর্ঘটনায় যারা বেঁচে যান তাদের কাছ থেকে আমরা জানতে পারি যে, দুর্ঘটনায় হেনরিও মারা যান। তবে মৃত্যুর আগে তিনি অন্যদের বাঁচাতে সর্বোচ্চ চেষ্টা করে গেছেন।’  

Comments

Comments!

 টাইটানিক নিয়ে আগেই শঙ্কা ছিল ক্যাপ্টেনেরAmarbangladeshonlineAmarbangladeshonline | Amarbangladeshonline

টাইটানিক নিয়ে আগেই শঙ্কা ছিল ক্যাপ্টেনের

Sunday, October 23, 2016 11:31 am
titanic1477199829

টাইটানিক জাহাজ নিয়ে এর নির্মাতা প্রতিষ্ঠান বলেছিল, এটি ‘আনসিংকেবল’ অর্থাৎ ‘কখনো ডুববে না’। তবে যাত্রা শুরুর মাত্র ৫ দিনের মাথায় ১৯১২ সালের ১৪ এপ্রিল সন্ধ্যায় ডুবে গিয়েছিল জাহাজটি।

 

রয়্যাল মেল স্টিমার টাইটানিক সংক্ষেপে টাইটানিক জাহাজটি নিয়ে এর নির্মাণকারী প্রতিষ্ঠান হল্যান্ডের ‘হোয়াইট স্টার লাইন’ নিঃসংশয় থাকলেও এর সেকেন্ড ক্যাপ্টেন হেনরি ওয়াইল্ড কিন্তু ঠিকই আশঙ্কায় ছিলেন।

 

হেনরি ওয়াইল্ড তার ২০ বছরের নাবিক জীবনে এডওয়ার্ড স্মিথ নামের এক ক্যাপ্টেনকে বহু চিঠি লেখেন। সেগুলোর শেষ চিঠিতে জানা যায়, হেনরি টাইটানিকে যোগ দিতে চাননি। টাইটানিকে যোগ দেওয়ার আগে হেনরিকে ‘সিমরিক’ নামের একটি জাহাজের প্রধান ক্যাপ্টেনের দায়িত্ব দেওয়ার কথা ছিল। তবে শেষ মুহূর্তে তাকে টাইটানিকে সেকেন্ড ক্যাপ্টেনের দায়িত্ব দেওয়া হয়। টাইটানিককে ‘অশুভ’ মনে করতেন হেনরি। মনের বিরুদ্ধে তিনি টাইটানিকে যোগ দেন।

 

সম্প্রতি হেনরি ওয়াইল্ডের লেখা একটি চিঠি যুক্তরাজ্যের উইল্টশায়ারে নিলামে ওঠে। চিঠিটি বিক্রি হয় ২২ হাজার পাউন্ডে।

 

Titanic

 

চিঠিটি হেনরি লেখেন টাইটানিকে দায়িত্বরত অবস্থায়। বোনের কাছে লেখা চিঠিতে টাইটানিক নিয়ে যে তার আশংকা ছিল, সেটি প্রকাশ করেন হেনরি। তিনি লেখেন, ‘আমি এখনো পর্যন্ত জাহাজটি পছন্দ করতে পারছি না…জাহাজটি নিয়ে আমার অদ্ভূত অনুভূতি কাজ করছে।’

 

উল্লেখ্য, হিমশৈলের সঙ্গে সংঘর্ষে টাইটানিক ডুবে যায়। এতে যাত্রী-নাবিক মিলে প্রায় ১৫০০ জন মারা যান।

 

হিমশৈলের সঙ্গে সংঘর্ষের পর হেনরি জাহাজের সারেং আলবার্ট হেইনস ও স্যামুয়েল হেমিংসের সঙ্গে কথা বলেন। তারা ওয়াইল্ডকে জানান, তারা জাহাজের ট্যাংক থেকে বাতাস বের হওয়ার শব্দ শুনেছেন এবং জাহাজে পানি প্রবেশের শব্দ পেয়েছেন।

 

নিলামকারী অ্যান্ড্রু অলড্রিজ বলেন, ‘এটি নিঃসন্দেহে টাইটানিক সম্পর্কিত চিঠিগুলোর মধ্যে অন্যতম। টাইটানিকে উপস্থিত ছিলেন এমন একজন বড় নাবিক এই চিঠিটি লিখেছেন।’

 

তিনি আরো বলেন, ‘এটি টাইটানিক সম্পর্কে অনেক অজানা তথ্য বহন করে। চিঠিতে টাইটানিক সম্পর্কে হেনরির স্পষ্ট হতাশা ফুটে উঠেছে। জাহাজের দুর্ঘটনায় যারা বেঁচে যান তাদের কাছ থেকে আমরা জানতে পারি যে, দুর্ঘটনায় হেনরিও মারা যান। তবে মৃত্যুর আগে তিনি অন্যদের বাঁচাতে সর্বোচ্চ চেষ্টা করে গেছেন।’

 

Comments

comments

সম্পাদক : মোহাম্মদ আবদুল বাছির
প্রকাশক: মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম
ফোন : ‎০১৭১৩৪০৯০৯০
৩৪৫/১, দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০
X
 
নিয়মিত খবর পড়তে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন
X