রবিবার, ২৫শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ইং, ১৩ই ফাল্গুন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, বিকাল ৩:৪৫
শিরোনাম
  • ঘৃণাকে বিজয়ী হতে দেয়া যাবে না, ট্রাম্পকে ইঙ্গিত করে জর্জ ক্লুনি
  • আমার একটাই চিন্তা দেশের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করা: প্রধানমন্ত্রী
  • ‘কেন্দ্রীয় সরকারের আগ্রাসী নীতির কারণে কাশ্মীরকে হারাতে হবে’
  • সাড়ে চারমাস পর মুখোমুখি, খাদিজাকে উদ্দেশ্য করে যা বলল বদরুল
  • খালেদার ‘সাজা’ বিরোধী নেতাকর্মীদের মনোবল ভাঙ্গার কৌশল!
  • বিএনপির কর্মসূচি ‘যথাসময়ে’ জানানো হবে: রিজভী
  • দলের জন্য বোলিং করতেও রাজি মুশফিক
  • শিশু জিহাদের মৃত্যু: চার জনের ১০ বছর করে কারাদণ্ড
  • অবশেষে বাড়ি অবরুদ্ধ করে রাখা সেই দেয়াল ভেঙ্গে ফেলা হচ্ছে
  • সাক্ষ্য দিলেন খাদিজা, চাইলেন বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তি
  • বদরুলের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিতে আদালতে খাদিজা
  • আজ বগুড়ায় যেসব প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
  • রোহিঙ্গা স্থানান্তরের সরকারি পরিকল্পনার সঙ্গে দ্বিমত মানবাধিকার কমিশনের
  • মহেশখালীতে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে পুলিশের ‘বন্দুকযুদ্ধ’
  • হোয়াইট হাউসে কাজ করার দীর্ঘ অভিজ্ঞতার কথা জানালেন এই বাংলাদেশি সাংবাদিক
Monday, September 5, 2016 11:01 pm
A- A A+ Print

টুইটার আছে, খালেদা নেই!

241014_1

দেশের সমসাময়িক বিষয়ে নিজস্ব মতামত, দলীয় নেতাকর্মীদের সঙ্গে সার্বক্ষণিক যোগাযোগসহ নানান ইস্যুতে নিজের অবস্থান জানানোর জন্য সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম টুইটার-এ সম্পৃক্ত হয়েছেন বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া। কিন্তু টুইটার অ্যাকাউন্ট খোলার দীর্ঘ ৬দিন অতিবাহিত হলেও খালেদা জিয়া টুইটার ফলোয়ারদের সাড়া দিচ্ছেন না। রাজধানীর রমনার ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন মিলনায়তনে গত বৃহস্পতিবার দলটির ৩৮তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর আলোচনা সভায় খালেদা জিয়া আনুষ্ঠানিকভাবে টুইটার অ্যাকাউন্ট উদ্বোধন করেন। যদিও টুইটার অ্যাকাউন্ট-এ সর্বশেষ টুইট করেন গত ৩১ আগস্ট বুধবার। জানা গেছে, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোতে বিভিন্ন দেশের শীর্ষ ও জনপ্রিয় নেতাদের নিজস্ব অ্যাকাউন্ট থাক‌লেও চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার ছি‌ল না। তাই যুগের সঙ্গে তাল মেলাতে টুইটার অ্যাকাউন্টে সক্রিয় হয়েছেন তিনি। যেখানে সমসাময়িক বিষয়াদি সম্পর্কে খালেদা জিয়ার মতামত থাকবে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম টুইটারে সোমবার বিকেলে দেখা যায়, খালেদা জিয়ার টুইটার অ্যাকাউন্টে সর্বশেষ ফলোয়ারের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১১ হাজার। টুইটার অ্যাকাউন্টের নাম twitter.com/BegumZiaBD। টুইটারে যুক্ত হওয়ার পর আগের দিন (গত বুধবার) খালেদা জিয়া সর্বশেষ বাংলা ও ইংরেজিতে সর্বশেষ দুটি টুইট করেন। বাংলায় তিনি লেখেন ‘প্রতিষ্ঠা দিবসের আহ্বান–আসুন আমরা স্বৈরশাসনকে পরাজিত করি, ঐক্যবদ্ধ হই এবং মুক্ত গণতান্ত্রিক সমাজ গড়ি।’ অন্যদিকে ইংরেজিতে লিখেন, Founding Day Call – Let us unite to defeat authoritarianism, win democracy and freedom. মূলত ওই দিনের পর আর কোনো টুইট করেননি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া। জানা গেছে, বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার টুইটার অ্যাকাউন্ট খোলার পর দলীয় অনেক নেতাকর্মী উৎসাহিত হয়ে নিজস্ব টুইটার অ্যাকাউন্ট খুলেছেন। উদ্দেশ্য, নেত্রীর সঙ্গে সরাসরি যোগাযোগ। কিন্তু টুইটার অ্যাকাউন্ট খোলার পর নেত্রীর কোনো বার্তা না পেয়ে হতাশ তারা। সাবেক এক ছাত্রদল নেতা পরিবর্তন ডটকমকে বলেন, ‘নেত্রী খালেদা জিয়া সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম টুইটারে অ্যাকাউন্ট খোলার পর উৎসাহিত হয়ে আমিও টুইটার অ্যাকাউন্ট খুলেছিলাম। কিন্তু তিনি উদ্বোধনের পর আর কোনো বার্তা বা মেসেজ টুইটারে দেয়নি। আশা ছিল তিনি এখানে (টুইটারে) দল সম্পর্কে নিয়মিত আপডেট ও আমাদের মতামত নিবেন। আমাদের প্রশ্নের উত্তর দিবেন।’ ‘এখন দেখা যাচ্ছে টুইটার অ্যাকাউন্ট আছে কিন্তু আমাদের নেত্রী (খালেদা জিয়া) নেই’ বলেন সাবেক ওই ছাত্রনেতা। এ ব্যাপারে দলটির একাধিক শীর্ষ নেতার সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তারা জানান, এ ব্যাপারে তারা কিছুই বলতে পারবেন না। যারা এসবের দায়িত্বে আছেন তাদের সঙ্গে কথা বলার পরামর্শ দেন। তাহলে বিস্তারিত জানা যাবে। সাবেক বিরোধীদলীয় চিফ হুইপ ও চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা কাউন্সিলের সদস্য জয়নুল আবদিন ফারুকের কাছে এ ব্যাপারে জানতে চাইলে তিনি প্রশ্ন রেখে বলেন, ‘টুইটার অ্যাকাউন্ট? আমি টুইটার বলেন, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম বলেন বা অন্যমাধ্যম বলেন এতো সব বুঝি না! এটা দিয়ে আসলে কী হয়? চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া কবে এসবের (টুইটার অ্যাকাউন্ট) উদ্বোধন করেছেন।’ দলটির স্থায়ী কমিটির সদস্য ও সাবেক সেনাপ্রধান লেফটেন্যান্ট জেনারেল (অব.) মাহবুবুর রহমান পরিবর্তন ডটকমকে বলেন, ‘এ ব্যাপারে আমি কিছু বলতে পারব না। যারা এসবের দায়িত্বে আছেন তাদের সঙ্গে কথা বলুন। তবে বিষয়টাকে অবহেলা না করে গুরুত্বসহকারে দেখা উচিত বলে আমি মনে করি।’

Comments

Comments!

 টুইটার আছে, খালেদা নেই!AmarbangladeshonlineAmarbangladeshonline | Amarbangladeshonline

টুইটার আছে, খালেদা নেই!

Monday, September 5, 2016 11:01 pm
241014_1

দেশের সমসাময়িক বিষয়ে নিজস্ব মতামত, দলীয় নেতাকর্মীদের সঙ্গে সার্বক্ষণিক যোগাযোগসহ নানান ইস্যুতে নিজের অবস্থান জানানোর জন্য সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম টুইটার-এ সম্পৃক্ত হয়েছেন বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া। কিন্তু টুইটার অ্যাকাউন্ট খোলার দীর্ঘ ৬দিন অতিবাহিত হলেও খালেদা জিয়া টুইটার ফলোয়ারদের সাড়া দিচ্ছেন না।

রাজধানীর রমনার ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন মিলনায়তনে গত বৃহস্পতিবার দলটির ৩৮তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর আলোচনা সভায় খালেদা জিয়া আনুষ্ঠানিকভাবে টুইটার অ্যাকাউন্ট উদ্বোধন করেন। যদিও টুইটার অ্যাকাউন্ট-এ সর্বশেষ টুইট করেন গত ৩১ আগস্ট বুধবার।

জানা গেছে, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোতে বিভিন্ন দেশের শীর্ষ ও জনপ্রিয় নেতাদের নিজস্ব অ্যাকাউন্ট থাক‌লেও চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার ছি‌ল না। তাই যুগের সঙ্গে তাল মেলাতে টুইটার অ্যাকাউন্টে সক্রিয় হয়েছেন তিনি। যেখানে সমসাময়িক বিষয়াদি সম্পর্কে খালেদা জিয়ার মতামত থাকবে।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম টুইটারে সোমবার বিকেলে দেখা যায়, খালেদা জিয়ার টুইটার অ্যাকাউন্টে সর্বশেষ ফলোয়ারের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১১ হাজার। টুইটার অ্যাকাউন্টের নাম twitter.com/BegumZiaBD। টুইটারে যুক্ত হওয়ার পর আগের দিন (গত বুধবার) খালেদা জিয়া সর্বশেষ বাংলা ও ইংরেজিতে সর্বশেষ দুটি টুইট করেন।

বাংলায় তিনি লেখেন ‘প্রতিষ্ঠা দিবসের আহ্বান–আসুন আমরা স্বৈরশাসনকে পরাজিত করি, ঐক্যবদ্ধ হই এবং মুক্ত গণতান্ত্রিক সমাজ গড়ি।’ অন্যদিকে ইংরেজিতে লিখেন, Founding Day Call – Let us unite to defeat authoritarianism, win democracy and freedom. মূলত ওই দিনের পর আর কোনো টুইট করেননি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া।

জানা গেছে, বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার টুইটার অ্যাকাউন্ট খোলার পর দলীয় অনেক নেতাকর্মী উৎসাহিত হয়ে নিজস্ব টুইটার অ্যাকাউন্ট খুলেছেন। উদ্দেশ্য, নেত্রীর সঙ্গে সরাসরি যোগাযোগ। কিন্তু টুইটার অ্যাকাউন্ট খোলার পর নেত্রীর কোনো বার্তা না পেয়ে হতাশ তারা।

সাবেক এক ছাত্রদল নেতা পরিবর্তন ডটকমকে বলেন, ‘নেত্রী খালেদা জিয়া সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম টুইটারে অ্যাকাউন্ট খোলার পর উৎসাহিত হয়ে আমিও টুইটার অ্যাকাউন্ট খুলেছিলাম। কিন্তু তিনি উদ্বোধনের পর আর কোনো বার্তা বা মেসেজ টুইটারে দেয়নি। আশা ছিল তিনি এখানে (টুইটারে) দল সম্পর্কে নিয়মিত আপডেট ও আমাদের মতামত নিবেন। আমাদের প্রশ্নের উত্তর দিবেন।’

‘এখন দেখা যাচ্ছে টুইটার অ্যাকাউন্ট আছে কিন্তু আমাদের নেত্রী (খালেদা জিয়া) নেই’ বলেন সাবেক ওই ছাত্রনেতা।

এ ব্যাপারে দলটির একাধিক শীর্ষ নেতার সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তারা জানান, এ ব্যাপারে তারা কিছুই বলতে পারবেন না। যারা এসবের দায়িত্বে আছেন তাদের সঙ্গে কথা বলার পরামর্শ দেন। তাহলে বিস্তারিত জানা যাবে।

সাবেক বিরোধীদলীয় চিফ হুইপ ও চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা কাউন্সিলের সদস্য জয়নুল আবদিন ফারুকের কাছে এ ব্যাপারে জানতে চাইলে তিনি প্রশ্ন রেখে বলেন, ‘টুইটার অ্যাকাউন্ট? আমি টুইটার বলেন, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম বলেন বা অন্যমাধ্যম বলেন এতো সব বুঝি না! এটা দিয়ে আসলে কী হয়? চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া কবে এসবের (টুইটার অ্যাকাউন্ট) উদ্বোধন করেছেন।’

দলটির স্থায়ী কমিটির সদস্য ও সাবেক সেনাপ্রধান লেফটেন্যান্ট জেনারেল (অব.) মাহবুবুর রহমান পরিবর্তন ডটকমকে বলেন, ‘এ ব্যাপারে আমি কিছু বলতে পারব না। যারা এসবের দায়িত্বে আছেন তাদের সঙ্গে কথা বলুন। তবে বিষয়টাকে অবহেলা না করে গুরুত্বসহকারে দেখা উচিত বলে আমি মনে করি।’

Comments

comments

সম্পাদক : মোহাম্মদ আবদুল বাছির
প্রকাশক: মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম
ফোন : ‎০১৭১৩৪০৯০৯০
৩৪৫/১, দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০
X
 
নিয়মিত খবর পড়তে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন
X