বৃহস্পতিবার, ২২শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ইং, ১০ই ফাল্গুন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, দুপুর ১২:৫১
শিরোনাম
  • ঘৃণাকে বিজয়ী হতে দেয়া যাবে না, ট্রাম্পকে ইঙ্গিত করে জর্জ ক্লুনি
  • আমার একটাই চিন্তা দেশের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করা: প্রধানমন্ত্রী
  • ‘কেন্দ্রীয় সরকারের আগ্রাসী নীতির কারণে কাশ্মীরকে হারাতে হবে’
  • সাড়ে চারমাস পর মুখোমুখি, খাদিজাকে উদ্দেশ্য করে যা বলল বদরুল
  • খালেদার ‘সাজা’ বিরোধী নেতাকর্মীদের মনোবল ভাঙ্গার কৌশল!
  • বিএনপির কর্মসূচি ‘যথাসময়ে’ জানানো হবে: রিজভী
  • দলের জন্য বোলিং করতেও রাজি মুশফিক
  • শিশু জিহাদের মৃত্যু: চার জনের ১০ বছর করে কারাদণ্ড
  • অবশেষে বাড়ি অবরুদ্ধ করে রাখা সেই দেয়াল ভেঙ্গে ফেলা হচ্ছে
  • সাক্ষ্য দিলেন খাদিজা, চাইলেন বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তি
  • বদরুলের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিতে আদালতে খাদিজা
  • আজ বগুড়ায় যেসব প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
  • রোহিঙ্গা স্থানান্তরের সরকারি পরিকল্পনার সঙ্গে দ্বিমত মানবাধিকার কমিশনের
  • মহেশখালীতে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে পুলিশের ‘বন্দুকযুদ্ধ’
  • হোয়াইট হাউসে কাজ করার দীর্ঘ অভিজ্ঞতার কথা জানালেন এই বাংলাদেশি সাংবাদিক
Sunday, January 29, 2017 9:29 am
A- A A+ Print

টেক্সাসের মসজিদে আগুন, খোলা আকাশের নীচে মুসল্লিদের নামাজ আদায়

16

টেক্সাস: মুসলিমদের যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশের বিষয়ে ডোনাল্ড ট্রাম্পের জারি করা নির্বাহী আদেশের কয়েক ঘণ্টার মাথায় দেশটির দক্ষিণাঞ্চলীয় রাজ্য টেক্সাসের একটি মসজিদে আগুন দেওয়ার ঘটনা ঘটেছে। আগুনে মসজিদটি সম্পূর্ণ পুড়ে মাটির সঙ্গে মিশে গেছে। এর কয়েক ঘন্টা আগে সাতটি মুসলিম দেশের নাগরিকদের যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা জারি করে ট্রাম্প। খবর ফক্স নিউজ ও নিউইয়র্ক ডেইলি নিউজের। খবরে বলা হয়, স্থানীয় সময় শনিবার ভোরের দিকে কে বা কারা কারা ওই মসজিদটিতে আগুন দেয়। এতে মসজিদের সবকিছু পুড়ে ধ্বংস হয়ে গেছে। ২০০০ সালে নির্মিত টেক্সাসের ভিক্টোরিয়া এলাকার এ ইসলামিক সেন্টার থেকে প্রায় ১০০ মুসলমানকে সহায়তা দেওয়া হতো। আগুন দেওয়ার সময় মসজিদের ইমাম ঘটনাস্থলে উপস্থিত ছিলেন। কিন্তু অসহায়ের মতো চোখের সামনে মসজিদ পুড়ে যাওয়ার দৃশ্য দেখা ছাড়া কিছুই করতে পারেননি তিনি। এতে যুক্তরাষ্ট্রের মুসলিম কমিউনিটিতে উদ্বেগ দেখা দিয়েছে। মসজিদটির প্রেসিডেন্ট শাহিদ হাশমি বলেন, এটি একটি উপাসনালয়। তদন্তের জন্য এখন সেখানে যাওয়া যাচ্ছে না। আমরা তাই বাধ্য হয়ে মসজিদের বাইরের অংশে প্রার্থনা করছি। এদিকে, স্থানীয় প্রশাসন এখনো আগুনের সূত্র সম্পর্কে কিছু জানাতে পারেনি। ঘটনার তদন্তে সহায়তা করার জন্য কমিউনিটির সাহায্য চেয়েছে প্রশাসন। টেক্সাসের এ মসজিদে আগুন বিশেষ তাৎপর্যপূর্ণ। মার্কিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প সাতটি মুসলিম দেশের নাগরিকদের আগামী ১২০ দিন যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা দিয়ে নির্বাহী আদেশ জারির কয়েক ঘণ্টার ভেতরেই এ ঘটনা ঘটলো। প্রাথমিকভাবে এটিকে মুসলমানদের বিরুদ্ধে ‘হেট ক্রাইম’ বলে ধারণা করা হচ্ছে।
 

Comments

Comments!

 টেক্সাসের মসজিদে আগুন, খোলা আকাশের নীচে মুসল্লিদের নামাজ আদায়AmarbangladeshonlineAmarbangladeshonline | Amarbangladeshonline

টেক্সাসের মসজিদে আগুন, খোলা আকাশের নীচে মুসল্লিদের নামাজ আদায়

Sunday, January 29, 2017 9:29 am
16

টেক্সাস: মুসলিমদের যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশের বিষয়ে ডোনাল্ড ট্রাম্পের জারি করা নির্বাহী আদেশের কয়েক ঘণ্টার মাথায় দেশটির দক্ষিণাঞ্চলীয় রাজ্য টেক্সাসের একটি মসজিদে আগুন দেওয়ার ঘটনা ঘটেছে। আগুনে মসজিদটি সম্পূর্ণ পুড়ে মাটির সঙ্গে মিশে গেছে। এর কয়েক ঘন্টা আগে সাতটি মুসলিম দেশের নাগরিকদের যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা জারি করে ট্রাম্প। খবর ফক্স নিউজ ও নিউইয়র্ক ডেইলি নিউজের।

খবরে বলা হয়, স্থানীয় সময় শনিবার ভোরের দিকে কে বা কারা কারা ওই মসজিদটিতে আগুন দেয়। এতে মসজিদের সবকিছু পুড়ে ধ্বংস হয়ে গেছে।

২০০০ সালে নির্মিত টেক্সাসের ভিক্টোরিয়া এলাকার এ ইসলামিক সেন্টার থেকে প্রায় ১০০ মুসলমানকে সহায়তা দেওয়া হতো। আগুন দেওয়ার সময় মসজিদের ইমাম ঘটনাস্থলে উপস্থিত ছিলেন। কিন্তু অসহায়ের মতো চোখের সামনে মসজিদ পুড়ে যাওয়ার দৃশ্য দেখা ছাড়া কিছুই করতে পারেননি তিনি। এতে যুক্তরাষ্ট্রের মুসলিম কমিউনিটিতে উদ্বেগ দেখা দিয়েছে।

মসজিদটির প্রেসিডেন্ট শাহিদ হাশমি বলেন, এটি একটি উপাসনালয়। তদন্তের জন্য এখন সেখানে যাওয়া যাচ্ছে না। আমরা তাই বাধ্য হয়ে মসজিদের বাইরের অংশে প্রার্থনা করছি।

এদিকে, স্থানীয় প্রশাসন এখনো আগুনের সূত্র সম্পর্কে কিছু জানাতে পারেনি। ঘটনার তদন্তে সহায়তা করার জন্য কমিউনিটির সাহায্য চেয়েছে প্রশাসন।

টেক্সাসের এ মসজিদে আগুন বিশেষ তাৎপর্যপূর্ণ। মার্কিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প সাতটি মুসলিম দেশের নাগরিকদের আগামী ১২০ দিন যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা দিয়ে নির্বাহী আদেশ জারির কয়েক ঘণ্টার ভেতরেই এ ঘটনা ঘটলো। প্রাথমিকভাবে এটিকে মুসলমানদের বিরুদ্ধে ‘হেট ক্রাইম’ বলে ধারণা করা হচ্ছে।

 

Comments

comments

সম্পাদক : মোহাম্মদ আবদুল বাছির
প্রকাশক: মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম
ফোন : ‎০১৭১৩৪০৯০৯০
৩৪৫/১, দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০
X
 
নিয়মিত খবর পড়তে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন
X