বৃহস্পতিবার, ২২শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ইং, ১০ই ফাল্গুন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, বিকাল ৪:৩৮
শিরোনাম
  • ঘৃণাকে বিজয়ী হতে দেয়া যাবে না, ট্রাম্পকে ইঙ্গিত করে জর্জ ক্লুনি
  • আমার একটাই চিন্তা দেশের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করা: প্রধানমন্ত্রী
  • ‘কেন্দ্রীয় সরকারের আগ্রাসী নীতির কারণে কাশ্মীরকে হারাতে হবে’
  • সাড়ে চারমাস পর মুখোমুখি, খাদিজাকে উদ্দেশ্য করে যা বলল বদরুল
  • খালেদার ‘সাজা’ বিরোধী নেতাকর্মীদের মনোবল ভাঙ্গার কৌশল!
  • বিএনপির কর্মসূচি ‘যথাসময়ে’ জানানো হবে: রিজভী
  • দলের জন্য বোলিং করতেও রাজি মুশফিক
  • শিশু জিহাদের মৃত্যু: চার জনের ১০ বছর করে কারাদণ্ড
  • অবশেষে বাড়ি অবরুদ্ধ করে রাখা সেই দেয়াল ভেঙ্গে ফেলা হচ্ছে
  • সাক্ষ্য দিলেন খাদিজা, চাইলেন বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তি
  • বদরুলের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিতে আদালতে খাদিজা
  • আজ বগুড়ায় যেসব প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
  • রোহিঙ্গা স্থানান্তরের সরকারি পরিকল্পনার সঙ্গে দ্বিমত মানবাধিকার কমিশনের
  • মহেশখালীতে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে পুলিশের ‘বন্দুকযুদ্ধ’
  • হোয়াইট হাউসে কাজ করার দীর্ঘ অভিজ্ঞতার কথা জানালেন এই বাংলাদেশি সাংবাদিক
Wednesday, July 27, 2016 10:13 pm
A- A A+ Print

ডাচ্-বাংলা চেম্বারের প্রেসিডেন্ট খুনের ঘটনায় কেউ গ্রেফতার হয়নি

10_24000_136454

ডাচ্-বাংলা চেম্বারের প্রেসিডেন্ট হাসান খালেদের খুনের ঘটনায় কাউকে গ্রেফতার বা আটক করতে পারেনি পুলিশ। তিনি নিখোঁজের পর গতকাল মঙ্গলবার সকালে কেরানীগঞ্জ মডেল থানা পুলিশ বুড়িগঙ্গা নদীর কামরাঙ্গীরচর ঘাট থেকে তার লাশ উদ্ধার করে। এরপর ময়না তদন্তের জন্য তার লাশ মিটফোর্ড মর্গে প্রেরণ করা হয়। খবর পেয়ে নিহতের পরিবার মিটফোর্ড মর্গে গিয়ে তার লাশ সনাক্ত করেন। নিহত ব্যবসায়ী নেতার লাশের শরীরের কোথাও কোন আঘাতের চিহ্ন ছিল না বলে মিটফোর্ড মর্গ সূত্রে জানা গেছে। ধানমন্ডি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) তদন্ত শীর্ষ নিউজকে বলেন, ব্যবসায়ী নেতা হাসান খালেদের ঘটনায় কাউকে আটক বা গ্রেফতার করা সম্ভব হয়নি। তবে ঘটনাটি তদন্ত পূর্বক রহস্য উদঘাটন ও জড়িতদের গ্রেফতারের চেষ্টা চালানো হচ্ছে বলে জানান তিনি। গত শনিবার সকালে ধানমন্ডির ৪/এ নম্বর রোডের ৪৫ বাসা থেকে ওষুধ কেনার কথা বলে হাসান খালেদ তার ধানমন্ডির বাসা থেকে বের হন। এরপর আর বাসায় ফেরেননি তিনি। এতে তার পরিবারের সদস্যরাও উদ্বেগ ও উৎকন্ঠার মধ্যে পড়েন। ব্যবসায়ী হাসান খালেদ নিখোঁজের পর তার পরিবারের সদস্যরা কাউ সন্দেহ বা অপহরণের ঘটনাও তারা উড়িয়ে দেন। কারণ হিসেবে তারা বলেছিলেন, অপহরণের ঘটনা হলে, মুক্তিপণ চেয়ে কেউ তাদের কাছে কোনো বার্তা পাঠাতো। কিন্তু কেউ তাদেরকে ফোন বা বার্তা পাঠায়নি। অপর দিকে এই ব্যবসায়ী নেতা নিখোঁজের পর ঢাকা মহানগর পুলিশের পাশাপাশি দেশের সকল থানায় তার সন্ধানে ওয়্যারলেসবার্তা পাঠানো হয়েছে। ঢাকা মহানগর পুলিশ কমিশনার আছাদুজ্জামান মিয়া সাংবাদিকদের বলেছিলেন, হাসান খালেদকে খুঁজে বের করার জন্য নানামুখী পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে। এ ব্যাপারে  আমাদের গোয়েন্দা ইউনিটগুলোও কাজ করছে। ঘটনার দিনি রাতেই তার শ্যালক শরিফুল আলম ধানমন্ডি থানায় একটি ডায়েরি করেন। ধানমন্ডি থানার উপপরিদর্শক (এসআই) খায়রুল বাশার জিডির তদন্ত করছেন। নিউ ইস্কাটনের হাসান হোল্ডিং ভবনের অষ্টম তলায় তার অফিস রয়েছে। বসুন্ধরায় তার একটি দোকানও রয়েছে। তিনি প্রায় ২৫ বছর ধরে বাংলাদেশে আমদানি রপ্তানির ব্যবসায় নিয়োজিত ছিলেন তিনি।

Comments

Comments!

 ডাচ্-বাংলা চেম্বারের প্রেসিডেন্ট খুনের ঘটনায় কেউ গ্রেফতার হয়নিAmarbangladeshonlineAmarbangladeshonline | Amarbangladeshonline

ডাচ্-বাংলা চেম্বারের প্রেসিডেন্ট খুনের ঘটনায় কেউ গ্রেফতার হয়নি

Wednesday, July 27, 2016 10:13 pm
10_24000_136454
ডাচ্-বাংলা চেম্বারের প্রেসিডেন্ট হাসান খালেদের খুনের ঘটনায় কাউকে গ্রেফতার বা আটক করতে পারেনি পুলিশ। তিনি নিখোঁজের পর গতকাল মঙ্গলবার সকালে কেরানীগঞ্জ মডেল থানা পুলিশ বুড়িগঙ্গা নদীর কামরাঙ্গীরচর ঘাট থেকে তার লাশ উদ্ধার করে। এরপর ময়না তদন্তের জন্য তার লাশ মিটফোর্ড মর্গে প্রেরণ করা হয়। খবর পেয়ে নিহতের পরিবার মিটফোর্ড মর্গে গিয়ে তার লাশ সনাক্ত করেন। নিহত ব্যবসায়ী নেতার লাশের শরীরের কোথাও কোন আঘাতের চিহ্ন ছিল না বলে মিটফোর্ড মর্গ সূত্রে জানা গেছে।

ধানমন্ডি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) তদন্ত শীর্ষ নিউজকে বলেন, ব্যবসায়ী নেতা হাসান খালেদের ঘটনায় কাউকে আটক বা গ্রেফতার করা সম্ভব হয়নি। তবে ঘটনাটি তদন্ত পূর্বক রহস্য উদঘাটন ও জড়িতদের গ্রেফতারের চেষ্টা চালানো হচ্ছে বলে জানান তিনি।

গত শনিবার সকালে ধানমন্ডির ৪/এ নম্বর রোডের ৪৫ বাসা থেকে ওষুধ কেনার কথা বলে হাসান খালেদ তার ধানমন্ডির বাসা থেকে বের হন। এরপর আর বাসায় ফেরেননি তিনি। এতে তার পরিবারের সদস্যরাও উদ্বেগ ও উৎকন্ঠার মধ্যে পড়েন। ব্যবসায়ী হাসান খালেদ নিখোঁজের পর তার পরিবারের সদস্যরা কাউ সন্দেহ বা অপহরণের ঘটনাও তারা উড়িয়ে দেন। কারণ হিসেবে তারা বলেছিলেন, অপহরণের ঘটনা হলে, মুক্তিপণ চেয়ে কেউ তাদের কাছে কোনো বার্তা পাঠাতো। কিন্তু কেউ তাদেরকে ফোন বা বার্তা পাঠায়নি।

অপর দিকে এই ব্যবসায়ী নেতা নিখোঁজের পর ঢাকা মহানগর পুলিশের পাশাপাশি দেশের সকল থানায় তার সন্ধানে ওয়্যারলেসবার্তা পাঠানো হয়েছে।

ঢাকা মহানগর পুলিশ কমিশনার আছাদুজ্জামান মিয়া সাংবাদিকদের বলেছিলেন, হাসান খালেদকে খুঁজে বের করার জন্য নানামুখী পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে। এ ব্যাপারে  আমাদের গোয়েন্দা ইউনিটগুলোও কাজ করছে।

ঘটনার দিনি রাতেই তার শ্যালক শরিফুল আলম ধানমন্ডি থানায় একটি ডায়েরি করেন। ধানমন্ডি থানার উপপরিদর্শক (এসআই) খায়রুল বাশার জিডির তদন্ত করছেন।

নিউ ইস্কাটনের হাসান হোল্ডিং ভবনের অষ্টম তলায় তার অফিস রয়েছে। বসুন্ধরায় তার একটি দোকানও রয়েছে। তিনি প্রায় ২৫ বছর ধরে বাংলাদেশে আমদানি রপ্তানির ব্যবসায় নিয়োজিত ছিলেন তিনি।

Comments

comments

সম্পাদক : মোহাম্মদ আবদুল বাছির
প্রকাশক: মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম
ফোন : ‎০১৭১৩৪০৯০৯০
৩৪৫/১, দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০
X
 
নিয়মিত খবর পড়তে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন
X